Citation
দুতী সংবাদ

Material Information

Title:
দুতী সংবাদ
Added title page title:
Dūtī-saṃbāda
Added title page title:
Duti-sambada
Place of Publication:
Calcutta
Publisher:
Anglo Indian Union Press
Publication Date:
Language:
Bengali
Physical Description:
44 p. ; 20 cm

Subjects

Subjects / Keywords:
এশিয়া -- ভারত -- পশ্চিমবঙ্গ -- কলকাতা জেলা -- কলকাতা
एशिया -- भारत -- पश्चिम बंगाल -- कोलकाता जिला -- कोलकाता
Puranas ( LCSH )
Puranas. Brahmavaivartapurāna. Krsnajanma
Puranas. Brahmavaivartapurāṇa ( LCSH )
Bengali poetry -- Verse narrative -- Love episodes of Krishna -- 19th c -- Bengal
Bengal -- Bengali poetry -- Krishna (hindu deity) in literature -- 19th c
Genre:
Puranas
Spatial Coverage:
Asia -- India -- West Bengal -- Kolkata District -- Kolkata
Coordinates:
22.566667 x 88.366667

Notes

Abstract:
Anonymous Bengali poem on Krishna's sports, purporting to be based on the Brahmavaivarta Purana ( en )
Funding:
Arts and Humanities Research Council through the Newton Fund. Department of Business Energy and Industrial Strategy
Exhibitions:
Two Centuries of Indian Print (TCIP)
Creation/Production Credits:
Catalogued as part of the Two Centuries of Indian Print (TCIP) project led by the British Library (2016-2018).
Creation/Production Credits:
Digitised for SOAS by the British Library
General Note:
VIAF (name authority) : Puranas : URI httpS://viaf.org/viaf/182657268

Record Information

Source Institution:
SOAS University of London
Holding Location:
Archives and Special Collections
Rights Management:
This item is licensed with the Creative Commons Attribution, Non-Commercial License. This license lets others remix, tweak, and build upon this work non-commercially, as long as they credit the author and license their new creations under the identical terms.
Resource Identifier:
EM2123 /45297 ( SOAS Classmark )
460626 ( ALEPH )

Full Text




7010১

ও বছা 10...
নান চ:115 71311108
ছি 8%





[টটই- 9810ঘ50.5 , 4১001017993 7508513
0099]. ০ 1 19009,15 90935, 0০:০০:৮৪
৮০0০ 099,990. 00010 61075 2075105. ,





9০7001, 0৮ /45 ফা) 10

দিঠি 01 1,00001

01910০90113 0.6 10৮ হছে 100৮ 12650 0900 006 125 025 36200050 10610৬/,
[6 2 63050910120 0006 19210. 3 0631750১ 91011108007 5170010 106 0290153 10067
1 [061300. 01 17 /1101085 010. ০ 3150০1 10600:6 076 0006 0255 00100198006

০9০10 02£-00906 100170001

18 880 1992





ৃ














গৌড়ীয় সাধুভাষাঁয পর়ারাঁদি নানাধিব চ্ছন্দে

বিরচিত।

রা রি ০

গরাঁণহাঁটা উ্রীটে ৯২ নং ভবনে এজে! ইপ্ডিক়ান ইউনিয়ন )







যন্ধে মুদ্রিত।

লন ১২৭২ দাঁল।









॥ সুচীপত্র।
প্রকরণ রি
.. ভ্ীমতীর কৃ বিচ্ছেদ
-. শ্রীমতীর গতি দুতীর পরবোধ
_ শ্রীমতীর মুচ্ছা
ললিতাঁর সহিত শ্লীমতীর কথোপকথন .
বলন্ত আগমন
শবনন্ত ভহনন।
.. অউদ্ধবের আগমন,
$ উদ্ধবের দহ্ছিত বৃন্দার কথোপকথন
এরন্দার প্রতি উদ্ধবের উক্তি

রক্ষার মথুরাঁয় গমন

্‌ টক্জাবলীর সহিত রৃন্দার কথোপকথন
5 ঞবন্দার মথুরায় প্রবেশ

-স্ত্রীকৃষ্ণের নিকটে রন্দাঁর ব্রজের সংবাদ কথন
শ্রীকৃষ্ণের খেদ

শ্রীকৃষ্ণের প্রতি বৃন্দার ভৎ্নন!
বনর প্রতি শ্রীরুষ্ণের উক্তি
শ্রীকৃষের প্রতি বৃন্দাঁর পুনঃ উক্তি
কুক্জীর সহিত পুরবাঁজিনীর কথা
অত্র টিরের প্রতি দুতীর ভৎনন।
উদ্ধবের হিত বৃন্দার কথোপকথন
বন্দীর প্রতি উদ্ধবের উক্তি
জ্ীকৃষ্েের প্রতি রৃন্দার উক্তি
বন্দীর গতি শ্রীরুষ্ণের উত্ভ্ি
শির প্রতি রন্দাঁর উক্তি

চব



পৃষ্ঠ!

2» শে ০০6 /৬ &৬*

১১
১৪
১৫
৯৭
৯৮৮
৯০১

হু
২৪
৫
২৭
২৮
২৯

৩২
৩৩



৪০ . স্থুচীগত্র |

প্রকরণ রর

স্্ীকৃষ্ণের প্রতি রৃন্দাঁর ব্রেজে যাইবার কথ!
শ্রীকৃষ্ণের সহিত কুক্জার কথোপকথন
আ্ীকৃষ্চের প্রতি বৃন্দার পুনঃ কথন

বৃন্দার ব্রজে প্রত্যাগমন

দখীদিগের খেদোক্ত .

্রীরুঞ্ণ বিচ্ছেদের প্রৃতি শ্রীমতীর উক্তি

সূচীপত্র মাপ |

ৃ ৮২ ৃ



/7

দূতী স্ববাদ।

ভা ভর, বিচ্ছেদ |

_রাঁগিনী ইমন | তাঁল আড়া |
ওছে দয়াময় শ্তাম। নিয় হুইয়ে কোথা রকঈলে |

গুণধাম। পদাশ্রর় দিয়ে হরি,কি দোষেতে পরেহরিত 7.

ছুঃখিনীরে হলে বাঁম।
পয়ার। নিকুঞ্জেতে এক দিন বলিয়া শ্রীমতী | মনে মনে
ভাবিছেন ভ্রিভঙ্গ মুরতি। ইতিমধ্যে শ্্ীরাধার দেখ আঁচ-
স্বিতে। স্বর্ণলতা মুঙ্ছাপন্না পড়ে ধরণীতে ॥ নিকটেতে প্রিয়-
সবী রৃন্দেদুতী ছিল। অঙ্গ পরশিয়ে তারে চৈতন্য করিল ||
ধর! হৈতে ধরাধরি করিয়া তুলিল। নবিনয়ে জীমতীর প্রতি
জিজ্ঞানমিল॥ আঁচন্বিতে মুঙ্ছ। কেন হৈলে কমলিনী। কে
করেছে অপমাঁন বল সে কাহিনী ॥ এভ বলি অঞ্চলেতে বদন
মুছায়। প্রবোধ বাক্যেতে দুতী রাঁধারে বুঝায় || এমসি করে
রাই কি গ্ো ভোবি পাগ্ধলিনী | ধৈর্যযঘর একে লোকে বলে
কলক্কিনী॥ দুতীর নির্ধীত বাক্য শুনিয়া শ্রীমতী । হছুত্বরে
কহিছেন বুন্দাদুতী প্রতি | ওগো দুতী কেন আর রর জ্বালা-
তন। বুঝিলামস্ঠাম বিনা রাঁধারি মরণ সে ত্রিতঙ্গ বিনা

অন্দ কে জুড়াবে-আর | রাধানাধ বিনা'দখী কে আঁছে রাধার।

তপন বিহুনে যথ| নলিনীর গরত্তি। টাঁদ রিন1চকরীর ষেরপ
হুর্গতি1 জল বিনা কতক্ষণ বাঁচে গো দফরী। নেই রূপ

ছুর্দশাতে পড়েছে কিশোরী ॥ পৃথিবী না দিলে ঠাই হুঃখিনী

(দেখিয়ে । পাপ দেহে প্রাণ থাকে কিসের লাগিয়ে ॥ কে আর

রাখিবে মান ছুঃখিনী-রাঁধার | কে সবে এ নব জ্বাল] কেশ-
বের ভার | কার কাছে মান কোরে বাঁড়াইব মাঁন। কে আর
গে। পায়ে ধরে রাঁখিবে মন্মীন। রাঁধাকান্ত বিনা লাঁন্ত বলকে
করিবে | হরি২-ছ্ুঃখ-আশর লে দিন কি-দিবে।| তি তাতে

2



২ দুতী সংবাঁদ|

খেদ নাহি সহচরী। এ লময়যদি দেখ! দেন সেই হরি ॥নিদয়
বিধাতা বাদ সাধিলে আমারে । সাধনের ধন দিলে সে পরের
করে | পরের প্রেমেতে মজে পর হৈল হর । পাপ প্রাণ বুঝে
নাগো তাই কেঁদে মরি। যে জন কীঁদালে নদা তার তরে কাদি।
সে জন না মনে করে বিধির কি বিধি । পাপ মন অনুক্ষণ লে
রূপ ধেষ্পায়। কৃষ্ণ গেল ভরু কুচ বাঁদ নাহি যায়? ্ীরুষ
বিচ্ছেদাঁনলে দগ্ধ হতে নীরি|1ক উপায় করি এবে বল সহ-
চরী ॥ বিপক্ষের বাক্য-বাঁণ গায়ে নাহি সয় | কাঁলা গেল কল-
ক্িণী নাম কেন কয় ঘুর পরে অপমান সহিতে না পারি।
মনে ইচ্ছা! করি আত্মঘাতি হয়ে মরি ॥ মনে করি পুনঃ আত্ম-
ঘাতি মহা পাঁপ। কেহ যেন বলে প্যারী ত্যজ অনস্তাঁপ |
রাঁধানাঁথ দয়া করে চাহিয়ে দীনারে | আম হে অজ্ঞান অতি
মা চিনি তোমারে | ূ ্‌
শ্রীমতীর প্রতি দুতীর প্রবোধ।
-বাগিণী খাস্বাজ। তাল মধ্যমান।

শ্রীরাধে পলো এখন কি হবে ভাবিলে। ভাবনা উচিত

ছিল মিলে ছিলে ঘে কালে । সে দি তোমার হত;

এ মন্ত্রণা নাহি দিত, বিচ্ছেদ না করে যেত, ফেলে

তোমায় অকুলে।

ভ্রিপদী | জ্রীমতীর বাঁক্য শুনি, কহিছে রূন্দা রজ্জিণী, ওগো
প্যারী স্বরূপ কহিলে। ধৈর্য্য ভোরে বান্ধ প্রাণ, ত্যজ্য কর
অভিমান, কি হইবে উত্তলা হইলে ॥ হরি জন্য রাই তোঁরেঃ
বুঝাঁয়েছি বারে২, কালো পর হেরনা নয়নে । কালার অন্তর
কালো, বিখিমতে জান ভাল, তরু কাল! ভাঁব মনে মনে |

বাকার যে বন্কিমত', কুটিলার কুটিলতা, যায় কভু সহদজে

থাকিলে । অঙ্গারের মলিনত্। কুন! পার অন্যথাত্বর শতবার
ধোঁত করিলে । কুল মান সমুদয়, দপিলে গো যাঁর পাপ, ষাঁর
জন্যে হোলে বাঁঙ্গালিনী। মেকভু না ভাবে তোরে, ভূয় ভাৰ
তাঁর তরে, অপরূপ একি কথা শুন ॥ নে কালা নিদয় অতিঃ

রর্ম প্রতি নাহি মতিঃ স্ত্রী হত্যায় দেজাঁনে আপন1। দয়া ধর্ম

রা



দুতী নবাঁদ। ৩
তাঁর যত, দকলেই অবগত, বাল্যকাঁলে, বধিল পুতন!| শরীক:
1 ফের র্যবহীর* দেখে লাগে চমত্কার? বিধি বুঝি পীষাঁণে গং
ঠিক । নন্দ হৈল কেঁদে অন্ধ, তবু রাধে মে গোবিন্দ? বারেক
গৌকুলে নাহি এল ॥ হা! কৃষ্ণ হ। কৃষ্ণ বলে, ভাঁনে রাঁণী আখি
জলে, শোকাঁর্ণবে আঁছয়ে মগন। শ্যামলী ধবলী গাই, উঠিবর
শান্তি নাই + উচ্গৈম্বররে -করিছে রোদন | শ্রীদীমাদি সখা
জব, তাঁরা মবে যেন শব, দখা হীনে দৰে অচেভন। পড়িক্া
প্রেমের ফীদে, তাঁর জন্যে সবে কাদে? মেতো মনে না করে
কখন ॥ ভাই বলি কমলিনীঃ কেন হও উন্মীদিনী, চঞ্চলা হইলে
: কিবা হবে। বিধাত। তোমারে বাঁম, নৈলে কেন বাঁবে হ্যাঁ,
৮ কলক্িনী নাম কেনরবে॥ গোবিন্দের যত নীত+ নকলিভ
সুবিদিত, তোর ঘরে যেত বনমাঁলী। তোৌয়ে মিছে আশা!
দিয়ে, বুথ! নিশি জাঁগাইয়েবিহরিল লগে চক্দরাবলী॥ কৃষ্ণ
৮. নিন্দা লাঁছি করি? হেন শক্তি কিবা ধরি, যথার্থ বলিতে দোষ
নাই) স্তীকৃঞ্খের পদ্দে মন। থাকে যেন অনুক্ষণঃ কৃষ্ঃ পদে এই
ভিক্ষা চাই। টি
| স্ীমতীর মুচ্ছ! |
- ব্লাগিণী খান্বাজ। তাল মধ্যমাঁন |
কোথা রহিলে দয়াময় দুঃখের সময়ে । বিপত্যে
মধুনুদন দেখ? দেও হে আলিয়ে ॥ প্রাণ সপে হে
তোমায় অনুতাপে প্রাণ ষাঁয়ঃ ভেবে ভেবে দেখ মন
কাঁলি হলো কালিয়ে ॥ টি
পয়ার। _রাধ। বলে ওলো বৃন্দে কি কথ। কহিলে । আর
কি দে প্রীণ হরি আলিবে- গোকুলে | বন্দে নই কেন রই গৃহ
পিগ্তরেতে | কুঞ্ঝ বলে কাঁপ দিব যমুনা! জলেতে ॥ ₹ষ্ণ শৃনঃ
কুঞ্জে আর থাঁকি কি সুখেতে | কার মুখ চেয়ে রব বরের
মাঝেতে ॥ এ যাতনা হতে লথী তাঁত মরণ | কষ বিনা
ধর! প্রাণ জীয়ন্তে মরণ ॥ এত বলি রাই মনে আকাশ
ভাবিয়া । নখী কোলে ন্বর্ণলতা পড়ে মুচ্ছা। হৈয়া ॥ ক্পন্
| হীন নয়নেতে বহে প্রেম বারি। চিত্র পুভলিকা, পর, রহ্ছি-



৪ ছুতীনংবাঁদ।

লেন প্যারী॥ বিন্দু ঘর্ম শশী বদনেতে বয় । সঘনে নিশ্বীন
বহে অচেতনে রয় ॥ প্রমাদ দেখিয়ে রূন্দা হইল ভাঁবিতা।
হেনকালে নিকুর্জেতে আইল ললিতা ॥কি হলো ক হলো বলি
রন্দারে সুধায়। ইতি মধ্যে শ্রীমতীর কি তাৰ উদয় ॥ রৃন্দা
বলে প্রিয়সখী জিজ্ঞানো কি আর। রুঝালে না বুঝে রাই
কি করি ইহার ॥ কৃষ্ণ কথা প্রনঙ্জেতে ছিলাম ছ্জনে । নয়ন
মুদ্দিল প্যারী কৃষ্ণ কথা শুনে | চকিন্ছে চৈতন্য হত হয়ে কম-
লিনী | কোথা কৃষ্ণ রুষ্ণ বলে পড়িলা মেদ্িনী ॥ ভাল ৬
হালো অখিকি করি উপায়। বংশীধারী বিনা কিনে বাচাই
গাঁধাঁয়। পলকেই রাধা গ্রমাদ ঘটায় । দেখে ভয় প্রাণে হত
কিজানিকি হয়। এমন অধৈর্ধয লখি হয় যে কাননী। দে
কেন পিরীতে মজে হয় পরাধিনী । আগ্ড পাউু ভাবিয়ে কর্তব্য
কর্মী করা । ভা! না হলে পাণনখি ঘটে এই ধারা | জ্বালীর উ-
পর জ্বালা নহিতে না পারি। এ নময়ে রঙ্গ করে রক্সিণী কি-
শোরাী॥ ত্রিত্গ বিইনৈ অঙ্গ একে তো স্বলিছে। তাতে মেই
কমলিনী আহুতি দিতেছে । বুঝাইন্থ কত মত বুঝে না বুঝিয়ে।
সদত বিরসে রয় নয়ন মুদিয়ে। শুনিয়া বৃন্দের কথা ললিতা
লুন্দরী। গদ২ ভাবে কহে চক্ষে বছেবারি। মোদের কি ধন
আছে কৃষ্ণ ধন বিনে । কি রূপে বাঁচি গো হয়ে বিহীন নে
ধখনে। যেরূপ দশাতে শ্যাম ফেলেছেন সখি । কুলবাঁল।
কেমনেতে বাঁচে বল দেখি ॥ওহে কুঞ্জ তব নাম শুনি দয়াময়।
তবে কেন এ জনের এছর্দশা হয় ||
ললীতাঁর দিত জ্ীমতীর কখোগকথন |

ৃ রাঁগিণী জয়জয়ন্তী | তাল খয়রা |
কে সবে ৫কশব বিনে রাধার অতিমাঁন। সুশ্বহই

বিরহ-জ্বালাক-কে করিবৈ ত্রান । ওঠো বসইচরি, তাই :

ভবে মরি, কি দোষে তাজিলেন শ্যাম। এই নি

প্রণি নঈপে পদে না পাইলাম স্থান1 রৃঁ

ঈয়ার | ক্ষণেক বিলঙ্বে রাঁধা চৈতনা পাইয়ে । রে
লিসা প্রদ্ধি নিজানিয়ে | কহ কহ্‌ কৃষ্ণ কথা ওগে। নহ-

ওটি,



| ... দুতী নংবাদ |
হরি । কৃঞ্ক বিনা দেহে প্রাণ কিসে প্রাণ ধরি ॥ কারে কব
এ' যাতনা কে ঘুচাবে আর। যেপারে দেপারে দে তো
'ঈরল পারাঁবীর ॥ কুলমাঁন মন প্রাণ দপিলাম যাঁয়। দেজন
বঞ্চনা €কোঁরে রহে মথুরার ॥ হয়ই চন্দনের এত গুণ আছে।
কেমনে এমন জনে ভুলাঙে রেখেছে ॥ ললিতা বলেন শুন ও
রীজকুমারী। নাধে কি কুন্জার বশ হয়েছেন হারি। আপনি
: ঘেমন কীঁকা ত্রিভঙ্গ মুত্রততি। রাণী তেম্সি অউবক্র কুবুজা
যুবতী £ থারেই বোঁনে গেছে বীকারই। কভু কি গে! মিল
হয় বাঁকা দৌজী় ॥ কুরুজা কনের দাঁনী জীনে অকলেতে।
: রাণী হলো কমলিনী শ্াম কল্যাণেতে 1 কার ভাগ্যে বিথি
' কারে দেন কমলিনী। ভুমি হলে কাঁদালিনী নেই ছৈলরাণী।
নকলি কষে ইচ্ছ। কি হবে ভাঁবিলে। লাঁধ্য কি গো কম-
লিনী করে গে! কপালে । ভূমি বল শ্যাম তব ভুলিয়ে রয়েছে।
স্মসাঁধে কি ভূলেছে গ্তাম নে দিন কি আঁছে॥ কন ধংস ক্রি
' ছত্র শোভে তার শিরে। ভূপত্তি হয়েছে নাম পৃথিবী ভি-
ভরে? সুখ পরেবরবেতে অখি মোহিত ভ্রীহরি ॥ তারে কি
্রীখীলি ভাব মীজে গো কিশোরী । মধুর ভাবেতে ত্র ভাব
ম্মিশৃয়েছে। ভব পক্ষে কৃষ্ণ কৃষ্ণপক্ষ করিয়াছে ॥ পিরীতের
এই সুখ ও রাঁজ নন্দিনী। পর তরে পণ কোরে দিন
রজনী ॥ পরদন্ত সুখের কপালে দেও ছাই। পরেতে স্বপন
হয় এ বড় বালাই । এত বলি ললিত! চলিল নিজ স্থানে।
: পুর্ঝধ মত কমলিনী রহিলেন মৌনে। ্রীরষ্ণের পাসে
মকরন্দ আশে | মন রয় যেন নদ! চরণ পিয়াসে ॥
০০ বদন্ত অনিমন। 8
ূ রাঁগিণী বাহার | তাল তিওট |
ই কি হবে এলো খু বরন্ত। বিনা শ্যাম রাঁধারে
কে করে লান্ত। ধৈর্য্য হীনা হোলে প্রাণে? অজ দর
অনর্গ বাঁণে, প্রবৌধে প্রবোধ না মীনে। প্রাণ কে
জুর্ডাৰে বিনৈ রাথাকীন্ত ॥ টি

এ বত্রপদী। হেলকাণে নিকুঞ্েতে, পিকবর আনক্দেতে১-



৬ দূতী লংবাঁদ।

পঞ্চন্বরে গায় নিজ গাঁন। কোকিলের কুহু গান, যেন বিষ-
মাখা বাণ, শুনে জ্বলে বিরহিণীর প্রাণ ॥ শিহরিয়ে হরিপ্রিয়াঃ,
ইরিষে বিষাদ হৈয়া, ধীরে ধীরে রুন্দারে জুধায়। ওগো
দুতী শুন২, কোকিল কি বলে শুন, আজি কেন কুষঃগ্ণ
গাঁয়। কৃ গেছে যে অবধি পিকবর জে অবধি? নিরব হইয়!
ছিল লথী | প্মানন্দে আজি কেন, পকীশে গো নিজ
শ্ঠামচাঁদ ব্রজ্সে এলো নাকি | নৃত্য করে বাম আখি, এই খেদ
পাণলখি, নানামতে দেখি গো মঙ্গল। হেনদিন কি আর
হবেঃ জে হরি আমার হবে, অমঙ্গলে হবেকিমর্জল যে দিকে
ফিরাই আখি, দেখি যেন.বীকা আখি, বামে মোহন চুড়া
গে! হেলেছে। অন্তরে বাহিরে কালা, এ কি আর টহল জ্বালা
কাঁল! ভাল ঘাঁতন। দিতেছে! কে করে মদন লান্তঃ ব্রজে নাই
রাঁধাকান্ত, মদনেরে কি বলে ফিরাঁব | অঙ্গ হীনে অঙ্গ দয় এ
কি লখী প্রাণে অয়, দুঃনহ যাতনা কত সব কৃষেখর বিচ্ছেদ
নলঃ মলয়! করে পৃৰলঃ মনন বহে লমীরগ। গুঞ্জ রবে নির-
স্তর, মোহ করে মধুকর, কৃষ্ণ বিনা এতেক লাঞ্ুঃন | হাহা কৃষঃ
কোথা] গেলে, এমন বিপদ কাঁলে কে আঁর তারে তোমা-
বিনে। ছুরন্ত রাজার দায়, প্মদাঁয় পাণষায়। তঞ্চ করে মিলে
পঞ্চজনে | রাজ্য দেখে রাঁজ1 হীন? খভু নিশি দিনই? নিতে
চেষ্টা আছে নর্বক্ষণ | চৌরের উপরে চুরিঃ করে ওহে বংশী-
ধারী, রাধা রাঁজ্য তোমারে অর্পণ ॥ ত্যজ্য করে অধিনীরে,
ভুলে রৈলে ধৈর্য্য ধরে, ফেলে দিয়ে অধৈর্যয কুণ্ডেতে | হূর্মমে
পড়েছি হরি কে ভারিবে হরিইঃ ভূবে মরি বিরহ নীরেতে ॥.
আমি বদি পাণে মরি লোকেতে বাঁলবে হরি, প্যারী মৈল
কৃষ্ণ বিরহেতে | দয়াময় লজ্জ। পাবে? লোৌকেতে অযশ গাবে,
দেই লজ্জা হতেছে মনেতে |॥ কালোর কি এই ধারা, কালো!
রূপ ধরে যারা, কামিনীর ক্কৃতান্ত সমান | তাই বুঝি পিকবর,
অঙ্গ দে নিরন্তর) মুহুমুহু করে কৃগ্ঘ গান || অধিনীরে এই
জ্বালা, দিলে হে চিকন কালা, জীয়ন্তে ত্বালায়ে হুঃখাঁনলে।
এ জন্মের মত রাঁধে? বিদায় হৈল তব পদে+ অঙগকুল, হও



ঢুতী অংবার্দ। ৭
অন্তকীলে | এত বলি কমলিনী, হয়ে যেন উন্মাদিনী, বিধুমুখী
রৃন্দীরে সুধায়। ওগো দুভী বল বল কোথায় মথুরা বল,

: কৃ দেখি পরিয়ে নথ্রায়॥ কেন মিছে কেঁদে মরি, আমরা
অথম নারী, মথুরা তো বহু দুর নয়। সকলে একত্র হয়ে, ছেরি
গিয়ে শ্যামরাকে। জুড়াইৰ তাঁপিত হৃদয় 1 ী্েতে কি হবে
তায়, কুল লজ্জা ধার পায়,যতনে করেছি সমপণি। তীর দর-
শনে যাব, দগ্ধ প্রাণ জুড়ীইবঃ হাসে গো হানিবে শাক্রগণ ॥
রন্দা বলে টি বলিলে, বিরহিণী হলে বলেঃ মান অপমান
আর নাই। কেমনে যাইবে প্যারী, দ্বারেতে আছয়ে দ্বারী,
পাছে তাঁর! মন্দ বলে রাই ॥ বিচ্ছেদেতে দগ্ধ-গ্রাঁণ, ইথে সই
অপমান, হলে প্াঁণ নাঁহছিক বাঁচিবে । তুমি তে! নীঙগান্যা নও,
রাজার নন্দিনী ₹ হও, আপনার নাম হীরাইবে ॥ যা থাকে
রুষ্ণের মনে তাঁই হবের্হাঁক মেনে, এদিন কি চিরদিন রবে |
॥ কপ রূপ ভাব মনেঃ মন রাখ পে চরণে, মনোৌবাগ্গা অবশ্থা
পুরিবে | এ
বসন্ত ভৎ্ননা ।
৮ রখগিনী বাঁহীর। তাঁল তিওট |
পুড়ে মরে গো মদন মলোনা। তা ছলে বিরহী ভাগ্যে
হোতো। কি যন্ত্রণা ॥ রাজা যেমন আুপাঁত্র, ভেম্ি শিষ্ট
শীন্ত পাত্র, বিচার দেখে জ্বলে ধায় গাত্র, এ নেত্র
হৈলে পুরাই কামনা ।
পয়ার। সৈন্যে জরীরন্দীরণো মদনে দেখিয়ে । রাঁধারে
নুধায় চিত্রা চিত্তে ভয় পেয়ে ॥ ওগো ওগো রাঁজবাঁলা কিসের
কারণে । উদ্দিত এ ঝততুরাজ শুন্য কু্তীবনে ॥ প্রাণ যে কেমন
করে মাধব নিদয়ে। মাধব নীঁহক ব্রেজে এ নখ সময়ে ॥ নিদয়
কামের হাতে কিনে ত্রাণ পাব। যৌবন রতন লী কারে
সমর্পিব 1 কোন সুখে খতুরাঁজ এ ব্রজ ভূবনে | দছিতে গো-
পীর অঙ্জ পঞ্চবাণ হানে ॥ রাজাতে পুজার ছুঃখ ভাঁবে না
মনেতে। খিক ধিক বান কর1 এমন রাঁজ্তে॥। কভু নাহি
দেখি হেন নিদয় ভূপতি। অবিচারে দণ্ড করে কামিনীর



রঃ ৃ _ দ্ুতী সংবাদ । হি
প্রতি || রাজ ধর্ম জ্ঞান যার. তিলত্তরে নাই। মে পাঁয় ভূপন্ি
তার এ বড় বালাই । হর কোপানলে পুড়ে মরেও মলোনা |;
তা হইলে বিরহির হতো কি যন্ত্রণা সদর হইলে বিধি শির-.
ত্বই পাই। তেমনি করিয়া পুনঃ: মদনে ৫পাড়ীই॥ যেমন,
'বিরহী,জনে দগ্ধ করে কীম। ভেমন্ন করিতে পারি তবে
থাকে নীম॥ দুর হরে কোকিজে কালের বাড়ী যাও | অবি-
লঙ্বে কিরাতের জাঁলে বদ্ধ হও || জ্বালার উপরে কেন কর,
জ্বালাতন | মথুরার পথ কি রে চিনন! হুর্্জন || অবলারে
আকুল কর নানিন্তর | ক্ষম। কর চরণেতে ধরি [গকবর |
রি আর-সহিতে তোদের অত্যাঁচীর | প্মৌনলে অঙ্গ সবলে.
জ্বালাস্নেরে আর || যে শুনিলে নুখী হবে জুড়াঁবে অন্তর ||
শুনা গে মধুর গাঁল ভারে পিকবর। কৃষ্ণের এখন কুজ| মহিষী
হয়েছে । বাঁধা রাঁজ্য বনমালী জলাঞ্জল দেছে || বাঁকা রাণী,
'পৃমোবধা আছে বাঁকা হার | বিকীয়েছে বাঁকা পায় বাকা,
হশীধারশ মন সুখে সুখী নেতো নদ। লট্বর | লুখী জনে;
কুখী করে সুখের উপর ॥ আর কেন কাঁটা ঘাঁর হ্যুন দেও,
মিছে। আমাদের সুখ নিধি দে বিধি হরেছে | হয়ে বরে,
গেছে ব্রজা্গনার নে-দিন। লমভাব লেকের কি যায় চির- বা
দিন:॥ অনাথী করিয়া ব্রজনাঁথ ছেড়ে গেছে । অঞ্সিলে জু়ায়।
পা ন্ত্যু নাহি আঁছে।। কি ন্ুখেতে বেছে আছি না পারি;
বুঝিতে । এ হেন আ্বালাভে পণ না চা ধাইতে || ছির জীবি:
আমাদের বিধি কি করেছে। তা নাহলে রুষ্ত বিনা পরাণ!
বেঁচে আছে | এতেকবলিয়া চিত্র! বির বদনে | ভীমতীরে ।
বুঝ্যাইছে প্রবোধ বচনে | স্থির হণ্ড কমলিনী ভাঁবিলে কি:
হবে । আমাদের. এই দশা বিধি কি রাখিবে॥ ঘাহবীর হইয়াছে:
উপায় :তে। নাই ।ভাবিলে কি হবে আর যা করে গৌলাই ||:
শুনিয়া চিত্রার কথা চিন্তিত কিশোরী |-অধোমুখী বিরুস্ুখী;
আমর হরি 1 কি কথা কছিলে চিত্রে শুনে পায় হাঁসি | কেমনে:
খরিব ধৈর্য্য বিনা কীল শশ্দী। মনে করি ভুলে থাকি মন থে.
ভুলে না । মনে মনে মন.করে সে রূপ ভাবনা | আপনার মন:



দুতী নহবাদ। ৯

নখি আপনার নয়। . প্রত্ত্তি প্ররৃতি দিয়! ভূলার আমার |
কিক্ষণেতে কালো রূপ হেরেছি জনি | অন্তরেতে নিরন্তর
থা নীলমণি ॥. শয়নে স্বপনে হেরি দে বাকা মুরারি। মীন
কি গো প্রাণে বাঁচে ছাড়া হলে বারি ॥ কৃষ্ণ মম দেহ দখী

কীলের ভয় কৃতাঁন্তে তরিবে॥
ৃ উদ্ধবের আগমন |

রাঁগিণী বেহাগ । তাঁল তেওট | ঃ
আর কেঁদোন। রাই কৌথা। রৈলে শ্যাম। চেয়ে দেখ

মধুর বসন্তে রাঁধে পুরাও মনস্ফাম ॥ বৃ
পয়ীর | এই রূপে ব্রজাঙ্গনা বঞ্চয়ে ব্রজেতে | ছেন কালে
_ অপরূপ-দেখে আঁচম্থিতে ॥ জীরুষ্টের অবয়ব নুবক্ষিম ঠাম।
তেমনি মোহন চুড়া নবঘন স্যাম ॥ পরিধান পীতান্বর বনমাল।
গলে। চুড়া পরে স্ুুবেষ্িত বকুল মুকুলে ! ধীরেই আঁলি-
তেছে দেখিতে কৌতুক । পীতাম্বর বলনে ঢাঁকিয়া শশীমুখ |
চরণেতে রূণু ঝুনু নুপুর বাঁজিছে। চরণ অক পড়ি অলি
গুর্জরিছে। গোৌকুলের নীথ ঘেন গোঁকুলে আইল.। ছেরিয়।
ত্র্সের লোক চমকিত টহল কাঁনাঁকীনি করিতে লাগিল
গোপীচয়। বৃন্দ বলে বিধাঁত। কি হুইল সদয় ॥ দেখ সখী
কুপ্চচন্দ্র গোঁকুলে উদয় | ঘুচিল রাঁধার ছুঃখ এলো রনময়।
ঘুচিল২ কৃষ্ণ বিরহ যন্ত্রণা । পুরালেন কীত্যায়ণী মনের বাঁদনা॥
আর কি মনেতে ছিল পাঁব রুষ্ণ নিধি । কেবা জামে অনুকুল
হইবেন বিধি | ত্বরা করি ললিতা গো গাঁথ বৃনম্মল |. বনু-

দিন পরে সাঁজাইব চিকন কালা ॥ ঘশোদ। রাণীর কাছে দেহ



55 দুতী লংবাদ। ্‌

লমাঁচার। আনিয়াছে রাণী নীলমণি গে! তোমার ॥ এত বলি
রন্দাদুতী হরিষ অন্তরে । আস্তে ব্যস্তে গেল ধনী রাধার:
মন্দিরে | ধরণী শহ্যায় রাধা নিদ্রিত আছিল। উঠ বলি
রাধিকীয় চেতন করিল ॥ নিদ্রা ভঙ্ঈ হয়ে রাধে জিজ্ঞানে
দুতীরে। আজি বড় প্রফুলিত দেখি যে তোমারে। কই ক
প্রাণপখি কারণ কি শুনি। এত কেন আহ্লাদিত হয়েছ ।
সজনী ॥ দুতী বলেশ্রীমতী গো উঠ ত্বরা করি | এসেছে গো-
কুলে তোর মনচোরা হরি ॥ দক্ষিণান্ত কর কৃষ্ বিরহ অর্চনা ।
পুরালেন কাঁত্যারণী মনের বানা ॥ আর না কান্দিতে হবে
ওগে। সহচরী | চল২ দরশ্গন করণে] শ্রীহরি ॥ রাধা বলে কি
কথ কহিলে নহুচরী। এতদিনে মনে কি গো করেছেন হরি ॥
প্রত্যয় না হব মনে অপরপশুনি। আবার শহ্যামের বামে
ন্দীড়াব লজনী॥ শ্রধণে বিরহানল হইল শীতল । টি কথা
শুনালে রৃন্দে ফিরে বল২॥ একদিন কথা তো নাহি শুনি ;
কাণে। বন্দাবনচক্দর আনিবেন রৃন্দাবনে ॥. যে কথা শুনালি
মোরে তুষিব কি দিয়ে। জনমের মত রৈনু তোর কেনা হয়ে।
চল নখি শ্ামচাদে হেরি গো নয়নে | ধরে নেগে! নাছি পারি ।
চলিতে চরণে! আনন্দে অবশ তনু দাঁড়াতে না পাঁরি।
প্রেমরনে রন্সি পুনঃ ছৈল অঙ্গ ভারি ॥ উদ্দেশে উন্মত্তা আমি :
ছোলেম সজনী। শীন্ত্রগতি লয়ে চল যথা গুণমণি|॥ এত
বুলি রাজকন্যা উঠে দ্রাড়ীইল। হত শরীরেতে যেন জীব
অঞ্চারিল | আর যত লখী রাধা সন্নিধানে ছিল। শ্্রীকুষ্খ
আইল শুনি পুলক পুরিল॥ একত্র হইয়া যত গোপের :
ভুহিতা | হরিতে নীরদ্দ রূপ হলো ত্বরাস্বিতা। আগু চলে
বুন্দাদুতী পথ দেখাইধ]| উদ্ধব নিকটে উপনীত হৈল গিয়া |
নিকটেতে গিয়! নবে করে নিরীক্ষণ | হ্ামের মতন নব দে-
খেন লক্ষণ | কিন্তু হ্বদয়েতে ভূষ্উপদ চিহ্ন নাঁই। দেখিয়া
বিস্ময় হয়ে মনে ভাবে রাই॥ ধজ বজ্রাস্কশ চিহ্ন নাভিক
চরণে । শ্বাম নয় কমজিনী বুঝিলেন মনে ॥ উদ্ধবে দেখিয়া :
রাই ভাবেন মনেতে | একি বিধি ছলন। করিল আঁচস্তিতে। :



দূতী সংবাঁদ। ০

স্ঠামের স্বরূপ দেখি কিন্তু শ্াম নর | সাত পাঁচ ভাবি রাঁধ!
মৌনাভাবে রয় ॥ বিরলে রৃন্দীরে ডাকি নকলি কহিল। এ
চ্চো সখী শ্ত।(ম নয় ভাবে বুঝ! গেল | জিজ্ঞাদ উহীরে নখী
উন কোঁন জন | কোন কাধে গোকুলে দিলেন দরশন ॥ কিব।
নাম কোথা ধাম কাহার তনয় । শুনিলে বৃত্তীন্ত নখী নন্দেহ
ঘুচয় || শ্ত্রীমতীর শ্রীসুখেতে এই কথা শুনে। উদ্ধৰেরে কহে
রুন্দে অন্ত বচনে ॥ ওছে মহাঁশয় ভূমি কে বট আপনি। তৰ
নিকেতন কৌঁথ। কিবা নাম শুনি (শুনিয়া বন্দীর কথা কহিছে
উদ্ধব মথ্রায় বান করি নাঁম যে উদ্ধব ॥ স্যাম নয় শ্যামসথ।
এই পরিচয় | দেখিতে এ ব্ুন্দাবন পাঠান আমায় । আছেন
কেমন রাধা বসন্ত দমন । দেখিতে এসেছি দখী কৃষ্ণের আ-
ভ্ঞায় | ্রীরুষের শ্রীচরণে এই ভিক্ষা চাই। অন্তঃকীলে রাঁদ!
পায় স্থান ষেন পাঁই ॥ ্‌
উদ্ধবের সহিত রুন্দীর কথোপকথন |
রাগিণী শুরট | তাল জব ।-১.
দেখ ছে উদ্বধব, বিহনে মাধব, সবে ভেবে হয়েছে
শব। যে হতে মে ব্রঙ্রায়ঃ গোপীকায় নিরাশ্য়।
করে গেছে মথ্রায় ॥ রুন্দারণ্য শুণ্যমন়? জামান্য
অরণ্য পায়, পশু পক্ষীদি নিরব |
ভ্রিপদী | রৃন্দা বলে শ্যাম সথা, আমাদের শ্যাম-সথা?
আমাদের করেছেন মনে | ভাল ভাল তবু ভালঃ-ভাঁল-বাবা
জানা গেল, এভ দিনে পড়েছে কি মনে । তীর নঙ্গে কি
অম্পর্ক তিনি গৌপীর বিপক্ষ, আমরা জেনেছি বিধিমহত |
সুখে রই নেই ভালঃ শুনিলে থাকিব ভাঁলঃ যেমন থাঁকি তার
কিবা তাঁতে ॥ তিনি এবে যাঁর স্বামী, যার প্রেমে নব, প্রেমী,
বিভ্রিত আছেন বংশীধারী। ভাল করে তাঁর মনঃ যোগান,
যেন অনুক্ষণ, সুখে যেন থাকে সে সুন্দরী ॥তীর কি প্রবৃস্ভি
মরি, শুনে হানি পায় হরি, ওহেশ্টামনখা। দেখ দেখি । ফৌগ।
ফেলে দিয়ে নীরে, পীতলে যতন করেঃ কি হইবে নিজে রাঁ-
খাল না কি ॥গৌড়া কাটি শিরে জল? দিলে কি ছেফলে ফুল

১7০০2 8িউিডিলিস



১২ দুতী সংবাদ ।
এ শীলতায় কিবা গ্রয়োজন । কেমন আছে রাই কিশোরী,
ত?। জান্তে পাঠান হরি, দেখ ত্রজে যে আছে যেমন দেখ
সেই কৃষ্ণ বিনে, হেন রস রন্দাবনে, রৃক্ষৌপরে পক্ষ নাহি
বসে। নাহি করে কলরব, হোয়ে রয়েছে নিরব, দিবা নিশি
অশ্রদজলে ভালে ॥ তরুতে নাহি পল্লব, নাহি কুহ্ুমে সৌরভ,
লতাগণ শুকাইয়ে গেছে | মধুপত্তি মধু বিনে অলিগণ দিনে :
দিনে, সুধা বিনে কূশীঞ্জ হতেছে ॥ গাভীগণ হঞ্ধ হন, যমুনা
বেগ বিহীন, ব্রজবানী কেহ নাহি হুখে । দেখ হে উদ্ধব এ,
কোঁথা কৃঞ্ কচ কই, এই কথা কলের মুখে ॥ এই ষে বসন্ত
কাল, মোদের হয়েছে কাল? নিরন্তর করিছে তাড়না । কেন
জ্বালা আছি পঞ়ে, তাঁর প্রেমে প্রেমী হয়ে, কি করিব উপায়
বলনা ||, আহা মরি কমলিনী, দেখ যেন পাঁগলিনা", স্বর্ণ অঙ্গ
বিবর্ণ হয়েছে । দিব] নিশি ভাবি তাই, প্রাণে যদি মরে রাই,
তবে দাড়াইব কার কাছে | রাঁধারুঞ্চ দিনে আর? কিবা গতি
গোঁপীকাঁরঃ মেভরনা সকলি ভান্গিল। আদি কাল মরে
প্যারী+ কুক্জীর হলেন হরি, আমরা দাঁড়াৰ কোথা বল ॥ কালি
আমি বলে ভরি, গেলেন সে মধুপুরী, অন্যাবধি সে কাল
হলোন। | একি ভাগ্য গোপীকার, জান্তে ব্রজে সমাচার, তো- :
মারে পাঠালে কাঁলোবোণা || কালরূপ দেখিলে পরে, ব্রজ- :
বালী ভয়ে মরে, কালাচাদের কি গুণন। জাঁনি। তুমিতো
হে কাঁল ঠাম, পাঠালেন কাঁলো শ্যাম, কাঁল ভয় আর নাহি
মানি || নীরদ যমুনা বাঁরিঃ তাহে নাহি কান করি, নাহি শুনি
কোকিলের গান। নাহি পরি নীলান্বর, কাল ভয়ে নিরন্তরঃ
কালি হলো গোঁপীকাঁর প্রাণ ॥ কালার মনে যাহা ছিল; নকল
গুর্ণিত হলোঃ কলি হে কালেতে নীকরে | তরু হে বুঝেন!
সন কেন করি সেচিশ্কুনঃ মিছে কেন্দে সরি পরের তরে ||
নাহি দিই তার দোষ, কলি কর্মের দোষ+ আপনার দোষে
নামজেছি। কাশলাকে আত্ম ভাবিয়ে, যাচিয়ে যৌবন দিয়ে
নালা কেটে জল না এনেছি | কে জাঁনে যে মর্রিখ, এমন

ল্পট হরিঃ বিবেচনা কারিলে আগ্নেতে | তবে কি হারাই কুল



ৃ দুতী লংবাদ। হস্ত
শ্াম করে আখি শুল, মজিভাম তাহার প্রেমেতে ॥ নিজে
অবল! সরলা, নাহি জানি কোন ছলা, রমণীর সদ] দাঁদ।
প্রাণ । বাশীর গালে মগ্ন হয়ে» তাঁর প্রেমে বিকাইয়ে॥ শেষেতে
হুইল অপমান ॥ গুরু ভয় না করিরে, লীজের মুখে ছাই দিয়ে?
ধর্ম পথ নাহি চাঁহিলাম | কুলে জলাগুলি দিয়ে, কলক্কিণী
নাম নিয়ে তাঁর পায়ে দেহ সপিলাম॥ হেন প্রেমে কালি
দিয়ে, পলাইল প্ধে কালিয়েঃ অবলারে অকুলে ভাঁষায়ে।
লোকে বলে দয়াঁময়। কি জানি কি গুণে কয়? হালি পায় এ
কথা শুনিয়ে । আমি যদি দেখা পাই, জিজ্ঞানিব তার ঠাই,
একি তাঁর বিচারেতে হয়। অত্য তেজে যেইজন, দে পদে
লয় শরণ, তার কি এমন দশ। হয়| যাঁর মানে পায়ে ধরে”
ভাজিলেন আদর করে, বিধিমতে মাস বাড়ীইয়ে। শেষে
অদর্শন হয়ে, তীরে অনাথি করিয়ে, রহিলেন কেমনে ভুলিয়ে॥
স্বপনেতে নাহি জানি, হাঁরাঁইৰ নীলমণি+ তিলেত্বরে হইবে
বিচ্ছেদ। যত দিন বেচে রব, শ্টাম সঙ্গে মিলীইব? রাধা
হবে না প্রভেদ । শ্রীমুখেতে রাঁধানাঁথ। রাধার মাথাতে হাত,
দিয়ে বলে ছিলেন আপনি । যে পর্যন্ত বেঁচে রব, তৰ প্রেছে
বাঁধা রবঃ হবে না বিচ্ছেদ কমলিনী ॥ তুমি মণি আমি ফণিঃ
আমি মীন তুমি পানী, ভূমি দিবা আমি দ্িনমণি। আম্মি
অস্ত্র তুমি ধনু, তুমি প্রাণ আমি তনু+নিশ্চয় জানিহ কমলিনী।
মিথযাবাদী বল হুরি, তায় রাঁজ্য অধিকারী, ভূলিলেন আপ্প-
নার কথ! । আমার যে অক্জীকাঁরঃ নাহি রাখি বংশীধর, খাই
. লেন অৰলা'র মাঁথাঁ। কছিব কি বিধাভাঁরে, হেন জনে রাজা
করে, অকলি না কক্ষেতে করায় । যেজন চরাতো গরু দে
হৈল জগৎগুরু, অমজত লহা কর! দায়, আহা তিনি হুন্‌
রাজা» লোকেতে করুক পুজা? আমাদের ননী চোরা হুব্রি 1
আঁন্য অন্ত তার যত, নকলেই অবগতঃ কৃষ্ণ নিন্দী করিতে হে,
নারি ॥ কৃষ মম হৃদয়েতে, বিরাজ হে আনন্দেতে, আীরাধিকা
লইয়া বামেতে। অকিঞ্চন দেখি শ্যাম? অস্তে না হও রা
| পরবিজান কর কাল হাঢেতক্কত ভু): ৯৩৩



১৪. ঢুতীনংবাঁদ |
ৃ দ্বন্দের প্রতি উদ্ধবের-উত্তি।

. বলাগিনী বাহার । তাঁল জহ। চটি
পাবে কুষ্থন বন্দে গো ভেবনা অকারণ। ঘোলে
জ্রীদামের শাপান্তঃ পাবেনা রাধা 2
হুশ্বান্ত হইলে তখন |...

. শয়ার | উদ্ধৰ বলেন জী কি কথ! কছিলে |. কৃ রি
গো তোমাদের ছাঁড়া কোন কালে | রাধা মন্ত্রে দীক্ষা হরি:
ওগো সহচরি | রাঁধা নামে বনমালী বাজান বাঁশরী। চুল্ডান্,
ময়ূর পাখা রাঁধা নাঁম তাঁতে। শ্রীকষের নাম রাধা নামের
পশ্চাতে ॥ তিলেন্তরে ব্রিভ্ রাঁধায় ছাড়া নয় | যেই রাধা.
সহচরি দেই শ্যামরায়॥ যেখাঁনেতে রৃক্ষ সখ] পক্ষী সেই
খীনে | ষেখানেতে দয়া ধর্ম থাকেন সে স্থানে । যেখানে
নলিনী দেই খাঁনে মধুকর | যথা ইন্দ্র দেবরাজ তথাজলধর |
ভাঁরত প্রদ যথা] তথা ব্যাঁনসুনি। যেখানে স্মশান_ দেই.
খানে শুলপাঁপি॥ যেখাঁনেতে লঙ্জা আছে সেইখানে মাঁন।,
যেখাঁনেতে তত্তবজ্ঞান সেখানে নির্বাণ 1 যেখাঁনেতে বিবেচনা,
সেইখানে যশ। যেখানেতে বাহু বল সেখ|নে পৌষ ॥.
যেখাঁনেতে অনাচার পাপ লেই খানে | যেখাঁনেতে ক্সেই:
শিশু থাকে দেই খাঁনে। অতএব নহচরি মত্য জান মনে।
যেখানৈতে রাঁধা সথি কৃষ্ণ সেই খাঁনে ॥ তবে ষদি বল কেন
ভুায়ে হজন। তাঁহার বৃভান্ত বলি শুন দিয়া মন॥ গোঁল-
কেতে যখন আছিল বংশীধারী| রাধা রূপে দেখানেতে
ছিলেন কিশোরী ॥ তুমি আদি সকলেতে ছিলে গো ন্িনী |.
তথায় ছিলেন, রাঁধা ব্রন্ধ সনাতনী । তকত বহসল হরি তক-
তের প্রাণ। ভকতের মনোঁবাঞ্। পুরাণ ভগবান ॥ ভ্ত্রীরামের :
শপ ছিল রাধার উপর । কৃষ্ণ ছাড়া হইবেক শতেক বৎসর ॥.
দেই হেতু জন্সিলেন ভূমগ্জলে প্যারী | তকতের বাঞ্চ। সিদ্ধি
করিতে মুর।রি ॥ বিশেষে ক্ষিতির তাঁর নাঁশিবাঁর তরে। কৃষ্ণ
লীলা প্রকীশেন পৃথিবী তিতরে॥ দুরন্ত অনুর সব হয়েছে
প্রবল | ভরেতে মেদিনী বড় হয়েছে চঞ্চল। দৈত্য নাশ,

3, ২১১১



দুতী সংবাদ । 5৫

করি ঘুচাবেন মন্বী তাঁর 1. তিনি বিনা দৈত্য বধে হেন শি
কার। লামীন্য মানব সখি রাধাকৃষ্জ নয় । ্রঙ্মমযী রাধা পুর্ণ
ব্রহ্ম শ্যামরায় ॥ নারদের মুখে দব শুনেছি বৃত্তান্ত। শত
বহুদরান্তে রাধা পাবেন জ্ীকান্ত॥ অতএব স্থির হয়ে থাক
লহ্চরি | আলিবেন ব্রজে পুনঃ সেই বাকা হরি ॥ এতবলি
উদ্ধব চলিল নিজালয়। শুনি হাহাকার করে যত গোঁপীচয় |
. ক্কষ্চ পদে মুড মন মজরে: নিতান্ত। পার হবে ভবনদী না
ছোট্র কিতা ৃ ৪,
ৃ 5 বুন্দের মথুরা় গমন [
রাঁগিণীরাহাঁর 1:তাল তিওট।

আমি আন্তে বার তোমার মাধবে। চিন্তা নাই

জ্রীকান্তে পাঁবে ॥ কৃষ্ণ নাঁম করি, বাঁত্রা করি প্যাঁরী,

অবস্ঠ এ যাত্রা সিদ্ধি হবে| কর দানীরে আশী-

বরবাদ, পুরাইব মনলাধ। এ বিচ্ছেদে বিষাদ নাহি,
বে । পুনঃ কালাচাদ ব্রেজেতে উদয় হবে। মধুর,
বনন্তে হ্যামের বামে বলিবে॥ নু
- ভ্রিপন্দী | উদ্ধবের কথ। শুনি, লে বৃুকভানু নন্দিনী, মু
. গরভা পড়ে ধরাতলে ।- দেখি হাহাকার করে, চিত্রা, রাইকে
তুলে ধরে, উচ্চৈঃম্ব,র কান্দে কৃষ্ণ বলে। চিত্রা কহেও লজনি,
কেন হও পাগলিনী, স্বকর্ণেতে দকলি শুনিলে। আর কৃষ্ণ
আগনিবেনাঠ : ভাবেতে গিয়াছে জীনা9. মিছে আর কি হবে
কান্দিলে ॥ শুনিঞা চিত্রার কথ, রাঁধ! মনে পেয়ে বথা, চিত্ত
পুভ্ভলিকা মত রয় । সজল যুগল আখি, মনে মনে হয় ছুঃখী,
মৌনে রছে কথা নাহি কর ॥ নিঃশব্দে রহিল ধনী, মুখে নাহি
লরে বাণী, অধোমুখে ক্ষিতি দুফি করে। বদনে বলন দিয়ে
রাধা ভাব মনে হয়ে, ভাবে চিত্রা কি করি অন্তরে ॥ ষে বুক
রাধার মন, ইথে সাঁধা অকাঁরণ, সাঁধিলে বিবাদ আরো
বাড়ে। দাত পাঁচ ভাঁবি মনে, চষে চিত্রা নিজ স্থানে, দেখি
রাধা চা হয়ে পড়ে ॥ অচেতন কমজিনী, যেন মনিহীরা

. ফণী, ন্বর্ণলতা লৌটায় ভূতলে। পরমা দেখিয়া ব্দা। গেবি-



১৬ দুতী নংবাঁদ |
দ্দেরে করে নিন্দা, ভ্ীমতীরে ধরা হৈতে তোলে । শ্রবৌধ
বাক্যেতে দুভী? কহিছে রাধার প্রতি, স্থির হও ও রাজ
কুমার: তব হুঃখ ঘ্ুচাইবঃ আমি মধুপুরে যাৰ, এনে দিব
তব প্রাণ হরি ॥ চুরি করি তব মন? পলাঁয়ে মধু ভূবনঃ চোর।
হয়ে কত দিন রবে । যাইয়ে আপন জোরে? বেধে আনি তৰ
চোরে১কার দাধ্যকে তারে রাখিবে | কান্দ কেন রাধা প্যারি।
আমি তব হিতকারি+ এই তুমি জান গো মনে। করিলাম
অঙ্গীকার, যাইব যমুনা পার, তবকাঁধ্য দাধিব যতনে |
শুনিয়া রূন্দের বাঁণী, তু হয়ে কমলিনী, দু'তী প্রাতি বলে
বিনয়েতে | কি বলিলে নহচন্্রীঃএনে দিবে প্রাণ হরি? প্রত্যয়
না হয় গো মনেতে ॥ তেমন কপাল নয়, পুনঃ গোকুলে উদয়,
হইবেন বাঁকা বহশীধারী। নে রূপ হেরে নয়নে কালো
শশী সুধাপাণে, জুড়াইবে এমন চকোরী ॥আ[ম জানি বৃন্দ
নখি, তুমিতে। ছুঃখের ছুঃখিগতোমা বিনে কে আছে রাধার |
কবে মধুপুর যাবে, হারা নিধি মিলা ইবেঃ কৰে হবো যাঁতনার
পার ॥ রাধা বলে বংশীধারীঃ কবে বাঁজাঁবে বাঁশরী, কৰে
স্যামের বামেতে বদিব। বনফুলে মালা গেঁথে, নাজাইব দে
গলাতেঃ কবে বাঁকা নয়ন ছেরিব ॥ শ্যাম আন বাঁনা আন,
যে কথ! শুনালে যেন, কৃষ্ণ মোরে করিলে অর্পণ। শুনে প্রাণ
জুড়াইল, বিচ্ছেদের জ্বালা গেল? শ্রবণেতে জুড়ালো শ্রবণ ।
বিলম্বেতে কিবা কাষ,নাহি নখা। কাল ব্যাজ, শীঘ্র াহ মথুব]
ভবন | আমার রৃতীন্ত যত, কুষ্জেরে করাবে জ্ঞাতঃবলে তার
নিকট মরণ এতেক বলিয়া প্যারী, দুতীর করেতে ধরিঃ
তোৌঁষে তারে অমিয় বচনে। জউীমতীর যত্ব দেখি, রুন্দা মনে
হয়ে সুখী, যাত্রা কৈল মথুরা ভুবনে । প্রেমানন্দে গোপীগণ,
ক্কুঞ্ত নাম উচ্চারণ, চতুদ্দিগে করিতে লাগিল |কেছ বলে হরি
হরি) কেহ বলে দহচরি, বৃন্দ! কুঝ বিধাতা হইল হরষিত!
গোপশশণ, করে অঙ্গলাচরণ, আয়োজন বিবিধ প্রকার ।কেহ
পর্ণ ঘট আনে, আঁ শাখ। তার লনে, কেহ বলে জয় শ্রীরা-
ধার॥ এইরূপে গোপীচয়। নবে আনন্দিত হয়। শ্রীকৃষ্ণের



দুতী নংবাদ। রি

আগমন শুনে | তবে বৃন্দা ব্যস্ত হয়ে, রাধাঁরুঞ্চ নাঁম লয়েঃ
বিদায় হৈল্] রাধার চরণে । বুন্দীরে বিদায় করি, কহে রাধা
সহচরি, ওগো তোরে কি বলিব আর। চাতকশীর মত হয়ে?
টু পথ চেয়ে, এ পিপাঁসে হই যেন পার । বৃন্দ বলে
পণ খিঃ আশীর্বাদ কর দেখি, অবশ্য পুরা মনোনাধ |
ত্বরে মথুরা যাব, নিজ সত্য পুরাইব, এনে দিব তোর কালা
চাঁদ | শুন মন বলি নার যদি হবে ভবে পার) ত্যজহ বিষয়
আকিঞ্চন | জপ মধু কৃষ্ণ নাম, পুর্ণ হবে মনক্কীমঃ কাল হস্তে
ইইবে মৌচন | ্
চন্দ্রাৰবলী লহিত বৃন্দার কথোপকথন ।
রাগিণী আলেয়া । তাল আড়া।
রূন্দে গোবিন্দ যদি পার আনিতে। জন্মের মত
বিকাইব তব চরণেতে । নেই কৃষ্ণচন্ট্র বিনে, হি
গগণ জ্যোতি হীনে, প্রানাথ অভাবে আরীহীনে, হয়ে
আছি লকলেতে। ৃ
ত্রিপদী। এতবলি সহচরী, রাঁধারে সান্তনা করি, চলি-
“লেন মথুরার প্রথে। পথ মধ্যে চন্দ্রাবলী, হয়ে অতি কুতু হলি,
ধারিলেক রন্দীর করেতে ॥ চন্দ্রা কহে ওগো দুতীঃ কোথায়
চলেছ অতি, জত গতি দ্রেখি অকারণ । বুঝেছি গো। অভি-
প্রায়। যাবে না কি মথ্রাঁয়? বলো জুড়াঁব শ্রবণ । ব্রজাজন।
মধ্যে অতিঃ তৃমি লথী বুদ্ধিমতি,তোমার তুলনা দিতে নাই।
এ কর্ম যদ্যপি পার, এ দুর্গমে দি তার, কেনা হয়ে রব তব
ঠাই ॥ বন্দে কে চন্দ্রীবলী। আন্তে শঠ বনমালী, যাৰ আমি
মথুরা ভূবন। যাঁর ধন তারে 1দব, রাধারে লান্তা করিব?
অন্য নাহি পাবে কৃষ্ণধন॥ একবার চুরি করেঃ নিয়ে ছিলে
নটবরে, পথে পেকে স্যামের দর্শন । হরিয়ে পরের ধন, যে
জন জুড়ীয় মন, ছিছি মেনে মে মেয়ে কেমন॥ তোমার
প্রেমের দায় রাধার মানে শ্য মরায়। যোগী সেজে মান ভিক্ষ।
করে| তরু নাহি যায় মান, শেষে করি গুবিধান। আনত
করে পায় ধরে || নাগর নে শ্যামরায়। ধরি নাগরীর পায়?



৯৮ দুী দংবাদ।
মনেই মান উপজিল। কংস যজ্ঞ ছলে গিয়া, কাঁলি আসিক
বলিয়া, তেই বধু মধুপুরে গেল ॥ তাই বলি চন্দ্রাবলী, তোমা
হইতে বনমালী, পরিত্যাগ করিল রাধারে। যদি আমি ক
ধনে আন্তে পারি বৃন্দাৰনে, এবার গো দিব না তোমারে, |.
শুনি বন্দার কথা, লাজ চন্দ্রা হেট মাথা, দু'তী পরতি.বিন-
গেতে বলে। কেন দুতী বাঁক্যবান, অঙ্গে করিছ সন্ধান, আর;
কেন নিন্দা কর ছলে । যা হবার হয়ে গেছে, শ্যাম €তা বাদ,
পেধেছে, অনাধিনী করেছে নবারে। তুমি যদ্দি পুনঃ ব্রজেঃ
আন্তে পার ব্রেজরাজে, হোক মেনে দিও গে! রাধারে ॥ রাধা,
রাজার নন্দিনী, তাঁই বলে ও সজনী, তার পক্ষ এক পক্ষ,
হলে | আমাদের নাই পক্ষ, কেবল গো কৃঞ্তপক্ষ, নয় রুষ্ণ নে:
পক্ষ হইলে । আমি অতি অভাগিনী। নাহি আমার নক্ষিনী,,
আহা বলে হেন জন নাই। তুমি যাবে মধুপুরী, ঝা জান গো.
সইচরি, মম পক্ষে বোলো তার ঠাই || এতবলি চক্দ্রাবলী,।
নিজ স্থানে গেলা চলি, রন্দাদুতী যায় মথুরাতে। আরুষ্টের,
বার্জাপায়। মন নংযোগিয়া তায় কষ্তগুণ রচিল ভাষাতে ॥
বন্দীর মথুরায় প্রবেশ । ১2
রাগিণী সুহিনী। তাল আড়া। |
- স্টীম কোথা রহিলে দেখা দেও হে দর্লা করে। কে:
ারিবে তোমা খিনেঃ দীন হীন অনাথীরে | কৃষ্ণ২
বলে, হঃখে অঙ্গ ত্বলেঃ পুড়ে মরি যে অনলে, কুলে
তুলে দেও আমারে সি |
পয়ার। এই রূপে রৃন্দাদুতী গোকুল হইতে । উত্তরিলা
মধুরায় কৃষ্ণের দ্বারেতে ॥ আমর। পুরীর প্রায় পুরীর গঠন
মণি সবলে যেন জ্বলে দীপ্ত হুতাশন। সুর্য কান্ত নীলকান্ত অয়
্কান্ত মশি। চতুর্দিগে রচিত খচিত রাজরাণী। নানাবিধ
কত রূপ পতাকা উড়িছে। নহবৎ বাঁলাখানা, উপরে
বাজিছে॥ অপরূপ রাজপথ দেখিতে সুন্দর কত শত
লোক চলে তাছে মনোহর | রাজরাশী দেখি রন্দা মোহিত,

মে২ পুর রল। পুর মধ্যে যাইতে
হইল। ক্রমেই পুর মধ্যে প্রধেশ করিল । পুর মধ্যে যাই নু



পুতী সংবাদ) টু ১৯
জিজ্ঞাঁসে দ্বীরীগণ। কোথা হতৈ এলে যাবে কাহার সদন |
. নবীনা যুবতী দেখি বয়েস তরজ। রতিপতি যুবতী জিনিয়!
তব অঙ্গ ॥ একাকি কামিনী কার কি কারণে ধনী । রাঁজদ্বারে
: দেখা দিলে বল তাহা শুনি! কিনাম কোথায় ধাম কাহার

সুন্দরী | কে তোমারে পাঠাইল এ মথুরাপুরী॥ বৃন্দা বলে
. দ্বারীগণ বৃন্দ। নাম ধরি | রৃন্দ।বনে রাঙ্গীরাই উর সহচরী |
তিনি পাঠাইলেন দ্বারী এ মধু ভূবলে | প্রয়োজন আছে কিছ
রাজার নদনে ॥ অতএব যাব আম্মি রাজার নভায় | নিবেদন

সি

: আছে কিছু কহিব রাজায়॥ দ্বারি বলে শুন বন্দারাঁজ আজ্ঞা
1 বিনে । না পাবে যাইতে তুমি রাজ দরশনে ॥ বৈসহ জুন্দরী
আগে জানাই রাজারে। যে আঁজ্ঞ। কহেন রাঁক্জা কহিব তো-
মীরে ॥ এত বলি গেল দ্বারী সভার ভিতরে। বৃন্দাঁর বৃত্তান্ত
শব কছিব রাজারে। শুনিয়। বন্দার কথা গোবিন্দ তখন |
আস্তে ব্যন্তে উঠি দাড়াইল নারায়ণ । আগুনাঁর হয়ে কৃষ্ণ
আনিয়া দ্বারেতে। রৃন্দারে দোখিয়া কন অমিয়] বাক্যেতে ॥
এলো এসে প্রাণনখি একি ভাগেনাদয় । বড় আনন্দিত ছো-
:লেম দেখিয়া তোমায় ॥ এতেক বলিয়া কষ দুতী করে ধরে।
বন্দারে লইয়া গেলেন সতার ভিতরে | বিচিত্র আসন দেন
বমিতে বৃন্দারে। বন্দিলেন বন্দা দুতী কৃষ্ণের আদরে।
তবে নে জিজ্ঞাসে কৃষ্ণ কহ গো দজনী। ভাল তো আছে
গো ভাল আছে কমলিনী ॥ কেমন আছয়ে আর ষতেক
গোপিনী। কেমন আছয়ে পিতা মাতা নন্টরাণী॥ কেমন
আছে শ্রীদামাদি যত দখাগণ। শ্যামপী ধবলী গাই আছে
গো কেমন॥ ওরে মন ক নামাশ্থত কর পান। যদি হবে
দারুণ কালের হাতে ত্রাণ । ্‌ ৃ
শীষের নিকট বৃন্দার ব্রেজের নংরাঁদ কথন ণ
্‌ রাগিণী সুহিনী। তাল আড়া।
তাই ভাবি হে কৃষ্ণ প্রেমের এই কি। যে তোমাকে

প্রাণ অপে শেষে প্রাণে মরে সেকি। ওহে দীননাথ



২০ দুতী সংবাদ. |
এ কি বিপরীত, যে তব. চরণাঁতিত, নিঞ্চিত বধ.
তারে কি।- র ছাড়ি
ব্রিপদ্দী | বৃন্দ বলে ওহে হরি, শুন নিবেদন করি তা
বিনা যে যেমন আছি। কি কহিব পরিচয়ঃ লে বর্ণন নীছি হয়, .
তাঁই বধু জানিতে এঢেছি । কালি আনিব বলে হরি, বিয়ে ২
ব্রজের নারী, ছল পেতে এলে সখা ছলে । কংসের পাইয়া!
রাজা, ব্রঞ্জপুরী করি ত্যজ্য, অগহ বিচ্ছেদীনল দিলে ॥ শুন,
ওহে কুক্জাকান্তঃ ব্রজপুরের বৃত্তান্ত, যে স্থুখেতে আছি হে
গোকুলে | প্রীণে মাত্র নীছি মরি, বেঁচে আছি বংশীধারী,
' পড়ে তব আশা-র্ক্ষ তলে || ক্রমেই আশাতরু, শুকাইয়।
হলো নর, হেরি হরি নিরাশ ভাবিয়ে । কমলিনী প্রাণে মরে॥
তোমার বিচ্ছেদ শরে। জেনে কি হে জাননা কালিয়ে। ছিন্ন
ভিন্ন রুন্দাবন, : গোঁপ গোপশী অচেভন+ ভাঁনিতেছে নয়ন
নলিলে। পশু পক্ষী নাহি রব, রূক্ষে নাহিক পলব” অলিগণ,
বনে না কমলে । আর শুন নৃপমণি১ তব মাতা নন্দরাণী,
অস্থি চর্ম সার হয়ে আছে | তব গুণ করি গান, পথেতে সদা,
বেড়াঁনঃ উন্মাদিনী প্রায় অ্রমিতেছে 1: নন্দ আর উপানন্ৰঠ
কান্দিয়। হয়েছে অন্ধ, সন্ধ তাঁরা আছে কিবা নাই। শ্রীদীমাদি,
যত দখা, তোমার বিহনে খাঁ? কান্দি বলে কৌখাঁয় ৫
কানাই ॥ আর শুন বনমালী, চমণ্কাঁর কথা বলি, শ্রী শরীমতীর ও
নয়নের জলে | কহিব কি নটবর, নদী এক ঘোৌঁরতর+আচ- এ
শ্
পি

এটি

১০০০ উট |

11:01: 859] রেহ্ছ স্পট স্পকিখ ১3

স্বিতে হয়েছে গৌকুলে ॥ সে নদীর নাহি কুল তর্জে উন
কুল, ভেঙ্গেছে হে ছুঃখিনী রাধার নাঁবিলে হে সেই জলে।
জলে অঞ্জ দ্বিগুণ জ্বলে, জলে জ্বলে এ কি অবিচার | যদি দু
সছে সে ষাঁতনা, জলে আছে কেলেনোণা” অভিমান কুত্তীর য়
তাহায়। অকীতরে পায়ে ধরে, অভিমান দে কুত্তীরে, প্রাণে
বধ করে গৌপীকায় | শুন শুন হ্বীকেশ, কি আর লবি-
শেষ, মে নদ্দীর পকল কাহিনী । ক্ষণে স্বণ! হয়ঃ গঞ্জনা মারুত,
বয়, ঝড়ে ডুবে অথলা তরণী ॥ নিবেদন করি শ্যামত কেন
তাঁরে হলে বাম, কেন বাদ নাধিলে ব্রজেতে। রি মন নম:

3



্‌ দুতী সংবাঁদ। ই
পি, বিকাইয়ে রাঙা পায়ে, নারিলেক তোমারে রাখিতে!
স্বর্ণলতা কমলিনী তব প্রেমে কাঙ্জালিনী, তোমা বিন।:
জানেনা তো আর। তোমার প্রেমেতে মজে, যেই জন কুল
ত্যজোঃ শেষে কি হে প্রাণে বাঁচা ভার ॥ কারে কর আদরিণী
কারে কর অনাখিনী, কখন কাঁরে হও ছে সদয় । যেমন নিদয়
প্রাণ হরিয়া পরের প্রাণ, পরে দেশ ছাড় দয়াময় ॥ করহ
আপন করে? প্রয়োজন ত্যাগ করেঃ যে তোমারে অপ্রিয় না
ভাবে । যে তোমার হয় প্রিয় তাঁকে কেন ছে অপ্রিয়, ভাব
কিছু নাহি পাই ভেবে ॥ এত দ্দিন গোপীগণ, নেবিয়ে ও

শ্রীচরণ, না পাইল স্থান ভ্রীচরণে | কেমনে হেশ্টামরায়। কুকজা

কি গুণে তোমায়ঃ বান্ধিলেক প্রেমের বন্ধনে ॥ ছিছি কৈতে
লজ্জা হ্য়, রাই হতে কি কুজায়, ওহে বধু এত মধু আছে
কেমন প্রেমের ধারা, এ কেমন প্রেম করাঃ ব্যাঁভীরে২ জানা
গেছে । এবে জেনেছি জ্রীপতি, পুরুষ নিদয় অতি, দয়া ধর্ম

নাই শরীরেতে | নারীর শরল প্রাণ, নাহি হিতাহিত জ্ঞান, টু

প্রাণ দেয় পুরুষের হাতে ॥ দেখহ চিকণ কালা, পতি মৈলে
কুলবালা, অনায়াদে মরে যে আগুণে। না ভাবে আপন প্রাণ,
পর লাগি দেয় প্রাণ, সখা হয় সরলতা গুণে। পুরুষের কে
কোথার, নারী অঙ্গে সঙ্জী হয়, কভু কথা শুনেছ শ্রাবণে।
অবোধ যেমন নারী, এমন নাঁছিক হেরি, ধিকৃ২ রমণীর প্রাণে

এখন মনেতে করি, এবার মরিলে হরি, নিদয় পুরুষ জন্ম হয়

এ লাঞ্ুন] এ গঞ্জনা, আর প্রাণে নহে না, নমস্কার করি তে।র
পায়॥ নব নীরদ বরণ, ভাব মন অনুষ্ষণ, কালের ভাবনা!
দুরে যাবে । ইহকাল নুখে যাবে, পরকালে মোক্ষ হবে, অনা-
যানে নর বৈক্টে তরবে।

হও জ্ীরুফ্েের খেদ। ৃ

_ব্লাশিণী খাঙ্বাজ | তাল মধ্যমান ঠেকা।
কি জেনে জাঁনন। দজনী। আমি: কতু ছাড়া এ
6 ২



চে রর ছল লংবাদ।
রাধা রম বিলানিনী ॥ মম শরীরে শক্তি সে দিন
পা সুখদা মোক্ষদ] প্যারী ভক্তি মুক্তি প্রদায়িনী।
পয়ার। বন্দর বচনে কষ লঙ্জিত হুইয়1। কহেন মথুরা- 7
পতি বিনয় করিয়া! ওগো রন্দে আর নিন্দেকরোনা আমীয় ১
শুনিয়া ব্রেজের কথা প্রাণ দগ্ধ হয় ॥ আহা মরি কি দশ]
হৈয়াছে আমা বিনে । খিক মোর রাঁজাধন ধিক মোর পাণে
মা যশোদ1 পিতা নন্দ আম বিহনেতে | কেমনেতে লজনি,
গো বাচে পরাঁণেতে ॥ যে রূপ দারিদ্র ধন শুন পণ সই|
তেমনিগো নন্দ যশোদার আমি হই'] আমি বিনা সে হার.
কিবা গতি আঁর। ভুলিয়া রয়েছি পেয়ে তুচ্ছ রাজ্য তাঁর.
প্রাণ কমলিনী লখী রয়েছে ব্রজেতে। শূন্য দেহে আমিসখী,
আছি মথ্রাঁতে ॥ শয়নে স্বপনে আমিরাধারূপ হেরি ॥ প্রাণে,
কাঁচি রাধা নামান্থত পান করি । শ্রীমতী শরদ শশী আমি
গা চকোর। রাই রাজা পুজা আমি খ্যাত চরাঁচার। ধেই?
রাধা দেই আমি দেহে ভিন্ন যেন। বৃন্দাবন ছাড়া আম নই.
গো কখন॥ ছায়া প্রাক ভ্রীরাধার পিছে২ থাঁকি। অলি কি:
_পদ্মিনী ছণড়া ধাকে পণ সখি ॥ শ্রীমতীর রাজা পায় বি-/
জ্রীত হয়েছি। রাধা, হৈতে রাঁধানাথ নাম. পাইছি ॥- রাই,
হৈতে প্রাণ নখী কুজা! বড় নগ্ন । চন্দ্রের তুলনা কি গো নক্ষ-:
ত্রেতে হয় ॥ লক্ষ২ নক্ষত্র গো উঠিলে গগণে । শোভা নাহি
হয় কভু শশধর বিনে ॥ জল বিনা শোভা কি গো পায় সরো-,
শ্বর। ফল ফুল বিনে কি গে]! শোঁভে তরুবর ॥ উচ্চ কুচ বিনা
শোভা! নারীর কি হয়। গুণ বিনা পুরুষ শোভা নাহি|পায়॥ ৃ
_€তমনি আমার জনি বিনা দে কিশোরী | কুক্জার কি শোভা.
পায় এ অথুরা পুরী॥। হৃদয় নিকুগ্তবনে আছেন কিশোরী |
আনন্দে রাধারে লোয়ে সুখে বিরাজ করি ॥ মিনি জুতে নানা.
ফুলে অভরণ গেঁথে । মনে২ পরাইগো রাধার গলেতে। ॥ রাধা.
সে বি এক তনু জাঁনিহ নিশ্চয় । চনক দলের ন্যায় ভিন্ন কিছুনয়। ]
রন! আমার ওরে বল কৃষ্ণ নাঁম। নিরন্তর ভাবা মনে বিনা
ক্গীম ৯০ ০ 2:

০...



দুতী লংবাঁদ। তি
শরীরুষ্ণের প্রতি রৃন্দের ভন! | |
. প্লাগিনী খাস্বাজ | ভাল মধ্যমান ঠেকা।
জানি শ্বাম রাঁধায় ভালবাস হে যত। রাঁধায় মনে
থাকিলে কি বনে২ নে কান্দিত॥ রাঁধাকান্ত রাঁধা-
কান্ত হইলে নিতান্ত তবে কি হে কুন্জ! দানী বত
প্রিয়নী হৈত ॥
অন্তঃযমক।
্‌ পয়ার | রন্দ! বলে বংশীধাঁরী -কথা অপরূপ। অবলা
পাইয়া বুঝি ভূলাও এ রূপ ॥ রাঁধা ছাড়া নও তুমি কেমনেতে
হরি । তবে কেন রৈলে হেথা তারে পরিহরি ॥ তাঁরে ছাড়া
নও তুমি যদ্যপি শ্রীকান্ত । তবে কেন তব খেদে কাদে সে
একান্ত ॥ আত্ত্রিকের টান কৃষ্ণ রাঁধায় থাকিলে । তবে কি নে
প্যারী ত্যজে এখানে থাকিলে ॥ মুখেতে যেমন বল কর্থে
বদি হর়। তবেকিগ্নোপীর দশা এ প্রকাঁর হয়॥ বাঁশীর
শ্ীনেতে বারে করিলে উদ্বানী। তারে করি নিরাশ মহিষী
_কৈলে দীলী ॥ যাঁর মানে শ্যামরার যোগী সেজে ছিলে।
' বিচ্ছেদের যত নথ তা তো যেনে ছিলে ॥ আহা হে বিচ্ছেদ
তব দগ্ধ কমলিনী॥ ললিল বিহনে যেন থাঁকে কমলিনী॥
তাঁহার ওউষধ কষ্ফ আছে ভব স্থানে | শীঘ্র করি চল সখ
শ্রীমতীর স্থানে । যদি মনে কর কৃষ্ণ আমি বছুপতি। কেন
_ষাৰ তার কাছে হইয়া ভূপতি ॥ সেওত সামান্য নহে ত্রিলো-
কেতে জানে । পায়ে ধরে ছিলে বধু যার অভিমানে ॥ পেয়ে ৃ
ছিলে যার কাছে কোটালির ভার। তার কাঁছে যাওয়া বধু
এত কি হে ভার॥ আগে মান রেখেযার বাঁড়াইলে মাঁন।
এবে ছুঃখে ভূবাইয়া কর অপমান ॥ তোমার রাঁজোতে শুনি
নাহি, অবিচার | বিচার্ষ্য হয়েছ কর রাধার বিচার সাধি
“যার করে ধরে করিল] পীরিতি | তাহাকে ডুবানকি তোমার
রাঁজরীতি || তব খেদে তাঁর চক্ষে পড়ে জলারা। তারে
ষেনিদয় এত রাখালের ধারা ॥ ওহে কৃষ্ণচন্দ্র তুমি গেবকুলের
. চন্দ্র। অন্ধকার গোকুল বিহনে কৃষ্ণচন্দ্র ॥ বৃন্দাবনে যেয়ে

০...



2 দুতী লং বাঁদ।

্রঙ্গবানী কর মুক্ত। কুজারাহু হতে হও একবারে মুক্ত ॥
আর কথা৷ বলি ওহে ভ্রিভঙ্গ নাগর । নাগরীরে হেন করে কে
কোথা নাগর ॥ বিশেষ ষে তোমা বই নাহিজানে মনে | তার
কি হে মনোপাধ থাকে মনেই ॥ সে নারী কি গুণে তব জ্বলে
নিরান্তর | তার আখি কখন না হয় নিরন্তর ॥ আমি অতি
মুউুমতি ভজন না জাঁনি। ইথে যদ্দি ত্রাণ ৯ তবে নামজানি।

বন্দার প্রতি শ্রীকৃষ্ের উত্তি।
_ রাশিণী তৈরবী। তাল ট ্
সখী লে রাঁজে/র নাহি সুখোদয়। যে রাজ্যেরনাগর;
হইয়া কোটাল হয় ॥ তখতেই অধৈর্ধ্য হয়ে, দে রাজ্য
ভেয়াগিয়ে, অপাধ্্য এই মধুর রাঁজ্যে হয়েছি উদয় ।

এত্রিপদ্ধী। কৃষ্ণ কন ওগে! বন্দে কেন কর মিছে নিন্দে। তুমি
কি গো জেনেও জাঁনন! | কৈতে হলে সে কাহিল না বলিলে
ও জনি, লাঞ্নায় পরাণ বাঁচেনা। শুন২ প্রাণ সই। কই
তবে নমুদ্ই, তৌমাঁদের সেবজনতা যত। চন্দ্রীবলগীর ছল ধরে, :
রাঁধারে মানিনী করেঃ আমার অবস্থ| কৈলে কত॥ সেনিকুগ্তী .
হৈতে মোরে, দিয়ে ছিলে বাঁরি করে, লকলেতে এঁক্যতা!
করিয়ে | তোমাদের গুণ যতঃ সকলি হে আছি জ্ঞাত, নত্য
্‌ কিছ না যাই ভুলিয়ে | দেখি২ প্রাণনখিঃ নাগরেতে বল
দেখিঃ কে কোথা নারীর পায় ধরে । কে কোথা মানের তরেঃ
যৌপি লেজে দ্বারে, তিক্ষা ছলে মান ভিক্ষা করে ॥ সুখে
আছি লহুচরী, এসে এই মধুপুরী, ঘুচেছে গো পায়ে ধরাধরি
কথায়ৎ মান। ভাঙ্গিতে সে অভিমান, ও দজনী আর নাহি
পারি । নিত্য হৈলে বাঁকার্বাকি কেমনেতে প্রাণ সথী, পুরু-
যের বাচে বল প্রাণ। তাহাতে বিবাঁগী হয়ে, কম যজ্ঞ ছল
€পয়েঃ এসেছি হে লয়ে নিজ মান ॥ তোমাদের যূতক দোষঃ
ঢাঁকা দিয়ে সব দোষ মিছে দোৌধি করহ আমারে । বুঝেষদি
দেখ লই, আমি কোন দোষী নই, দোষীবিনে দোষ কথা ধরে॥
_ পুরুষ পরশ জাতি, স্বভাবে সরল অতি দেখ সখী তাহার :
গমাণ। দক্ষ যজ্ঞ সেই কালেঃসতী শিব নিন্দাছলেঃ অনায়ানে



/ চি দূতী, নং বাদ ভি. ইষ্ট
' ত্যজিলেক প্রাণ শুনিয়া সতীর নাঁশ, পরে নথি রুভিবাঁল?
ৃ নারী শোকে শোকাঁকুল ভয়ে। দক্ষ যজ্ঞ নাশ করে, সতী
দেহ শীরে ধরে, ভ্রমে হর কান্দিয়েই। শিৰ সতী দেহ লয়ে?
ক্ষেপা হুর ক্ষেপা হয়ে, গুণ গাঁয়ে করেন রোদন। নাহি
ছাড়েন স্মেছেতে, শেষে চক্রী চক্রেতে? সতী দেহ কাঁটেন
তখন ॥ একান্ন কুণ্ড হুইল, যেখানে অঙ্গ পড়িল, মহাঁপীঠ
'হৈল দেই খানে । তরু শিব না ছাড়িয়ে, সেই সব স্থানে
গিয়ে, ভৈরব হইল ততক্ষণে । আর দেখি প্রাণ সখী, জ্ীরামের
: দে জানকী, হরে লয়ে গেল লঙ্কেশ্বর। লীতা শোকে রঘ্ুপতিঃ
। শেখকেতে কার অতি, কেঁদে ভ্রমে অরণ্য ভিতর ॥ লখা করে
. জুত্রীবেরে, লীতাঁর উদ্দেশ করে, সেতুবন্ধ ৈলা সাঁগরেতে।
বানর লহ্বাঁয় করি রাঁবণে নিধন করি তবে রাঁম উদ্ধারিল .
1 শীতে । দেখ দেখি ওতে রৃন্দে, পুরুষে না কর নিন্দে? [পুরু
ষেতে যেমন সজন। পিরীতের কেনা হয়ঃ নারীর তরে প্রাণ
: দেয়। আপনারে না ভবে আপন ॥.এ বলে কি নহচরী, ত্যজ
আমার লে কিশোরী, কমলিনী আমার জীবন যেখানে সে
' খানে থাঁকি। রাধা ছাড়া নাহি থাকি, ভূলিনাকোনা হৈলে
নির্ধন ॥ মন তোরে শুন বলি, কেন হয়ে কুতুহলি, সলাঁরেতে
; ফলাশক্ত হও 1 লে মধু পাঁন করিলে, কোন ফল নাহি মিলেঃ
ক গাদা, জে রত হি ূ ৰ
নি জরে নহিত বৃন্দার পুনঃ উক্তি
্ -.. বাগিনীভৈরবী। তাঁলজহু। টু
: ২. ছলে বলে শ্ীরাঁধাঁর হরিয়ে মান। পুনরায় শ্টামরায়
মলে ভাবে অপমান ॥ আহা মরিইঃ কিৰে সরল সি
হরি, বধে রমণী প্রীণ আবার কর অভিমাঁন |. ক
পরার ।রূন্দে কছে ওহে বধু বলিলে বিস্তর | এ. কথাতে.
্‌ ইল কিদিব উত্তর ॥ তুমি লখা রলময় রন্িক প্রাঁন। থে
কথা কহিলে সথা শুনে জ্বলে প্রাণ । বল যে রাঁধার মানে,
1 হমজেছিলে যোগী।: তেই মধুপুরে এলে হইয়া বিবাপী।

মি ০ ৩৮





হত রি কী সংবাঁদ। রি /
পায়ে ধরে ভ্রীমতীরে সেখেছিলে বটে । ঘাঁর জ্বালা ভারে

বিনে অন্য নাহি ঘটে ॥ তেবেছিলে দেখি কৃষ্ তব বিহনেতে।

কে আর রাধার আছে এতিন লোকেতে। কৃষ্ণ তুমি শ্রীরাধার
মান বাঁড়াইলে । আদরিণী নাম তার আপনি রাখিলে | ভাল-
বাসি বলিয়া হে তাই কমলিনী। তোমার উপরে হয়েছিল হে.
আনিনী ॥ তোমার রাধারে আর কোন প্রয়োজন । কুক্জারে
লইঞ়্া হরি কর কাঁলবাঁপন ॥ তারে যত ভালবাঁন বুঝা গ্েল',
ভাবে রাম বলে কৃষ্ণ তোমার কি ক্ষতি হইবে । আর কৃষঃ ূ
রাঁধা নামে কিবা সুধা আছে? প্যারী এখন বালী ফুল মধু
ফুরায়েছে ॥ বৃন্দীবনে ছিলে যবে নিকু্ী বেহারী। রাধাবলে
রাধানাথ বাজাতে কাঁশরী। কও হরি সে বাশরী- কি বলে,
বাজাও । কাঁর গুণ শ্যামরায় মুর লীতে গাঁও ॥ মরি২ ওহে,
ক্ষণ কি গুণ তোমার | দো শুন্য বিন! দেখি কলেবর কার |.
সকল দোষের দোঁষী মোরা তব স্থান । সেথে নাকী দিয়াছি,
হে কুল শীল মান । এই দোষে দোষী বুঝি হয়েছে কিশো-,
রী। ভাল দোষ গোঁপীকার ধরেছ শ্রীহরি । তোমার যে শিষ্ট
ধারা অখল অন্তর । খলের বার্তা কিছুই জাননী নটবর |
বিবেচনা কর দেখি ওহে দয়ীময়। তোমারে যে প্রাণ সপে;
লে প্রাণ হারায় | মরে মরুক মে রাধা ভাতে নাহি ক্ষতি
তাই বলি চন্দ্রীবলী কি হবে ছূর্ণতি ॥ যার তরে জীমতীরে :
বিনর্্জন দিলে | তারে বাঁ কৌন বংশীধারী সুখেতে রাঁখিলে।,
কুষ্চ হে তোমার মত মন পেলে পরে । এর নম়ুচিত_ ফল,
দিতাম তোমারে || কি কছিৰ কুরুজাঁরে ওহে দয়াময় এক.
জনের আশাঁধন কেমনেতে লয়। তারে মিছা দিইবার্ত তুমি ।
হে তাহার | ঘেমন দ্েবভূষণা তেন্রি হয তার ॥ হায় হাঁয়
_ কি ছুর্দিশ! হয় মথুরার | চোরে করে রাজ কর্ম একি চমহুকার।,
গোষ্ঠেহ রেখে মীথা শুক্ষ হৈত যাঁর । তার শিরে রাঁজছত্র
একি অবিচার | ওহে কুঞ্জ তোমার আদ্যোন্ত সব জানি। কে
আর যমুনা! জলে বাহিরে তরণী॥ রাজ হলে হোলে বলে,
্ কিবা দিবি দোষ | চরাচর খ্যাত আছে তোমার পৌর!

রি এপার
৩৯২ 2





দূতী সংবাঁদ। ৭
গেল গেল দিন গেল ওরে মুঢ মন। দিনান্তরে কৃষ্ নাম কর
উচ্চীরণ॥ ্‌ তি

| কুক্জার মহিত পুরবীনীর কথা।
রাশিনী বারোউা। তাল খেমটা।
_দেখসে কুক্জা এসো গো ত্বরাঁয়। তোমার হরিকে
আজি হরে লয়। অকল্মাৎ এনে, পীতবাঁসে অনা
য়াসেঃ রমণী এক লয়ে যাঁয়। ৃ
ভ্রিপদী। কৃষ্ণ বৃন্দা ছুজনায়, এই মত দ্বন্দ হর, দেখি পুর-

বানী এক নাঁরী। অন্তঃপুরে প্রবেশিয়া, কুবুজারে সম্তবাখিয়া,
কাঁতরেতে কহে ধিরিই 1 ওগো২ রাঁজরাণী, আজি বড় নৃপ-
মণি, ঠেকেছেন দারুণ দায়েতে | ব্রজ হতে এক নারী? বৃন্দ
নামে অনুচরী, এসেছে গো রাজার সভাতে ॥ কেনার অধিক
চেয়ে, কত বলিছে রুষিয়ে? দেখে শ্ঠাঁম কাঁতর ভয়েতে। যেন
গোঁ ধারের ধার। সে নারীর গ্রেম ধার, বুঝা ষাঁয় কথার
কথাতে ॥ যে বুঝি রৃন্দাঁর মন+ তাহে বুঝি কৃষ্ণ ধন? আজি
রানী থাকে কিনা থাকে। কিকর গোঠাঁকুরাণিঃ চক্ষে
নাহি দেখি শুনিঃ রমনীতে এমন ব্যাঁপীকে ॥ বাকা শরে নৃপ-
তরে, আদা অ্বর২ করেঃ থর২ কীপয়ে রাগেতে | ঝরহ ঘর্ব
ঝরে, শ্রীকৃষ্ণ মার্ন করেঃ আপনার পীত বসনেতে ॥ তৌমা
ইহৈতে প্রিয়জন, শত গুণে সেই জন, বোধ হয় ব্যাভার
দেখিয়ে । আজি বা হুকুল যায়ঃ পুনঃ মুষিক.হতে হয়ঃ দেখে
এমো কি কর বসিয়ে ।গবাক্ষের দ্বার দিষে, শীঘ্র দেখে এসো!
গিয়ে, কীলাচাদে গ্রহণ হয়েছে। বৃন্দা রাহু আচম্বিতেঃ আলি-
ঝাছে সে গ্রাসেতে, কালো শশী বিপাঁকে পড়েছে ॥ ক্ষণেক
যদি গো রাণী, স্থিত করে সে কামিনী, সর্বগ্রীন করিবেক
চাদে | এবে কর দরশন, হইরাছে ষে গ্রহণ” শেষে কেন
ডুবিবে বিষাদে ॥ এতেক বচন শুনি+শিহরে নুতন রাঁপী, বলে
আগে! কি কথ! শুনালে । কৌথা হৈতে এলো বৃন্দেঃ হরে
লইতে গৌৰিন্দে, শুন্যাকায় হেরি যে শুনিলে ॥ আমাদের

রানা সেই বাকা কা দেখে কে রি হইল | ]



২৮, বি দুতী মংবাঁদ। ৃ
. চোরের উপরে চুরিঃ করে কি গো নহুচরিঃ আমি তাঁর কি |
করিব বল ॥ যা করেন দয়াময়, তাই হইবে নিশ্চধ, কার. কবে
হন কেবা জানে । কে তারে পারে লইতে, যদ)টি না চান
যেতে, যাইলে রাঁখিবে কোন জনে ॥ হরিনাম জপ মন+ এ
লংসাঁর অকারণ লেই মাত্র সকল জাঁনিবে। রবি সুতের :
মন্দিরে, যাইতে না হবে ফিরে, জঠর যন্ত্রণা দুর হবে ॥ ]
অত্রুরের প্রতি দুতভীর ভঙদনা। -
টি রাঁশিনী বেহাগ। তাল জহ ॥
টড র ৰল২ হে তোমীর মন্ত্রণা কেমন। কৃষ্ কপ
ব্রজের জীবন, রাঁজখর পাঁধের ধন, এনে অনীয়ানে র
কুব্ডার-করে করিলে অর্পণ- ০5
_ পয়ার 1 এইরূপে -বৃন্দাদুতী রুষ্জের সভাতে টি অক্র, রে. |
(হেবিক়ে কিছু কছে বিনয়েতে। ওহে মভাশয় বুঝি তুমি হে.
অক্রুর | কে বলে অক্রুর ওহে তুমি পর্ণ ত্রুর ॥ তুমিনা হে

গিয়া; ছিলে ীরন্দাবনৈতে | তোম। হৈতৈে গোঁপীকাঁর এ

দশা ব্রজেতে ॥ কি গুণেতে তোমায় ধার্মিক লোকে কয!
বুঝেছি তোমার যত্ত আছে ধর্ম তয়। ধর্ম ধর্ম ভয় যাঁর থাকে:
হেশরীরে। দে না কি এমনকরে নারী বধ করে। আমা
দের প্রাণ ধন নন্দের নন্দন | পর ধনে লোভিত হুইলে কি:
কারণ ॥ মন্ত্রণা করিয়ে ছলে এনে কৃষ্ণ ধন। কেমন করে কুৰু-
জারে করিলে অর্পণ ॥ মনেতে তোমার কিছু দয়া না হইল।
বিধি কি তোমার মন পাষাঁণে গঠিল। অক্রুর নরল ওহে:
যেই জন হর। দে কতৃ হে এ আগুণে হাত নাহ দেয় ধরা
ভয় যে জনারথাকয়ে মনেতে | দেকি পারে হেনরূপ অবলা:
জঙ্গাতে ॥. অক্রুর ধরিয়া নাম হলে তুমি খল । আঁছে যত
.. ধর্মাভয় জেনেছি: সকল | তোমার মালায় ধিক ধিক তিল
কত ধিক্‌ তোমার ধর্ম কর্মী ধিক কম্ম পথে ॥ তোমার
আমায় ধিক্‌ ধিক্‌ ভ্রীরুষ্জেরে,। ধিকীধিক ততোধিক ধিক্‌
্রীরাধারে ॥. যদ্দি, বল ভ্্রীমতীরে ধিক্‌দিলে ফেন। তাহার
রৃস্তান্ত, করছি তবে কহিশুন॥ রাধারে দিলাম ধিক্এই, সে.

২4



দুতী সংবাদ । হি ২৯

কারণে । কেন প্রেমে মজেছিল লম্পটের সনে ॥ ঘে ভাঁরে না
মনে করে কেন তার তরে । প্রেমদায় প্রাণ যার আত্ম ভেবে
পরে ॥ কৃষ্ণেরে দিলীম থিক্‌ এই মন্্ব তার । রাঁখে না শরগা-
গত কহিলীম দার ॥ ধিক্‌ দিলাম আপনাকে বিবাগী হইষে।
পরে আর আর কথ। শুন মন দিয়ে। এত যদি বৃন্দ দুতী
৷ কিল অক্রুত্র | শুনিয়া অক্রুর তবে প্রত্যুত্তর করে ॥ কেন
বুন্দে কুবচন বলহ আমীরে । আমি হে অক্রুর ক্রুর নাহিক
' শরীরে ॥ তোমাদের ভাগ্য হৈতে এসেছেন হরি । মৌরে কেন
মিছা দোঁষে নিন্দহ সুন্দরী | কংনেরে বিয়া কৃষ্ণ শীত্র বিনা
শিলা । আপনার পিতা মাঁতা উদ্ধার করিলা ॥কুক্জীরে আঁ-
পনি রানী করেছেন হরি ভকৎ-বসল- ভক্ত বাগ) সিদ্ধি-
কারী । ভক্ত প্রেম ভোরে বাঁধা কালীয় দমন। তক্ভিতাঁবে
যেই ভাবে তাঁর উনি হন ॥ কার বা কখন হন কেবা তাহা
জানে সুখীরে করেন হঃখি সুখী ছুঃখি জনে ॥ অপার সহ-
সার মন যদি হবে পার । দিনান্তরে কৃঝ বলে ভাক একবার ॥

.. উদ্ধবের সহিত বৃন্দাঁর কথোপকথন।

. রাঁগিনী মুলতান। তাল খয়রা।
কি কারনে উদ্ধব রহিলে মৌন মনে। আপনি
তো ব্রজের দশ। দেখে এসেছো নয়নে ॥ তাঁই ভাবি
. শ্রখনঃ যাঁদের কাঁলো বরণ, তারা কি হে সবাই
]. -. সম] নঃ দয়া মায় হীনে | |
: লঘু ভ্িপদী। তবে বৃন্দ দূতী, উদ্ধবের প্রতি, করুণা
চনে কয়। কও কি লাগিয়ে, নিরব হুইয়ে, রহিলে হে মহাঁ-
শর ॥ তুমি ভো যাইয়ে, এছেছে দেখিয়ে, গ্রোকুলের সমা-
চীর। মোরা গোকুলেতে” থাকি যে সুখেতে, দলেই দশ
রাধার । জেনে কিজান ন।, সে কথা বল না, তোমাদের
ভুপতিরে । মৌন ছয়ে কেনঃ 'রও অকাঁরণঃ কেন বাক্য নাহি,
সরে | কিছু উপকার, কর অবলার, উপকারে ধণ্ম হয়। মোরা
ছে রমণী, অত্যন্ত ছঃখিনী, নাহিক কোন আশ্রয়। কাঁলার্টীদ
লাগি, হয়ে র্বত্যাগী, গোকুলে কালি দিয়াছি। কোথায়

লা াপোটপপাটপািলীত ০০০



.. গড়ে মনে | আহি্রীর নারী, কেমনেতে হেরি, ব্যাভীর করে;

৩৩ ্‌ ৃ ছু নং বাঁদ। | )

দড়াব, কার কাছে যাব, কেমনেতে বল বাঁচি ॥ অনুনব
করিঃ নিদয় শ্রীহরি, আর নাহি ব্রজে যাবে। লদয় হইয়ে,,

তিন জনে লয়ে, বুঝায়ে বলমাধবে॥ পুগ্যবান তুমি, শুনেছি
হে আমি, তব বশীভূত হরি। অবলার তরে, অনুগ্রহ করে,

হও ক্রিছু নহকারী ॥ তুমি বুঝাইলে, যদি ছে গোকুলে, যান:

গোকুলের পতি । রহে মম মীন, বাঁচে ধারার প্রাণ, হইবে:
তব সুখ্যাতি ॥. যাবৎ বাঁচিব, তব গুণ গাব, এ যন্দি পার.
করিতে । মেদিনী পুর্ণিত, হইবে নিশ্চিত, তব গুণ লৌর-.
ভেতে ॥ যার তরে মোরা, হতেছি হে সারা, তারতে। শুনিলে
কথা । হরে কুলমান? পুনঃ হৈল মান, কি আর কহির মাথ1॥।
কালার বাভীর, দেখিয়ে আমারঃ হেন ইচ্ছা হয় মনে | কথা
না কহিয়ে, যাই হে চলিয়ে, মরে মরুক রাধা প্রানে ॥ ছিছি:

গর মনে, বাক্য আলাপনে, নাহি কোন প্রয়োজন | যা আছে:
ভাগোতে? কে পারে খণ্ডাতে, বিধাতার যে লিখন। যদি প্রাণ;

যায়) বিরহ জ্বালায়, তাও বরৎ প্রাণে নবে। ওরে না সাধিব?
ছুঃখ না জানাব, ইহাতে ঘা হবার হবে। দপ্না মায়া যত, ওতে:
উপস্থিত, যেমন আছে জেনেছি। কথার কৌশলে, বুঝেছি হে
ছলে, ও প্রয়ান ছাড়িয়াছি ॥ আমর] কাঁমিনী, মিছ! চা ৃ
_লিনী, হই কেন কার তরে। নে কেহ বুঝেনা, মনেও করে নণ:
পরের যে ভাব পরে ॥ পরেরে আপন, তাবয়ে যে জন, নে ৃ
জন নির্বোধ অতি। তরু নে প্রত্যাশ, না ছাড়ে আশ্বাস, কিং ্‌
জানি হে কি ক্রীতি॥ ইচ্ছা হয় যেতে, পুনশ্চ ব্রজেতে, না.
যায় তাঁতে কি ক্ষতি | বিভাব বেড়েছে? লম্মান হয়েছে, নাম:
হয়েছে নৃূপতি। আরতো এখন, গোষ্ঠে গোচারপ,্াম নাহি,

দাস রাগ

এক্ষপে। মোর! লাজ হীন, যেই জন দীন, তার আশ! কেন,

করি। লহজেতে নারী, যুঝিতে হে নারি, অতি অণ্প বুদ্ধি
ধরি ॥ গুণের সাগর, ভ্রিতঙ্গ নাগর, যেমন প্রকাশ হৈল।।
আমি কি কহিব, শুন হে উদ্ধব+ তিন লোকেতে জানিল॥.
কৈতে হানি পায় একি খাটো দায়) এ কথা কছিব কায়।

১.





1 | দুতী হবার ২ ৯
ও পদে যে জন, লয় হে শরণ, তাঁর কি এ দশা হুর ॥ এমন
বাজার, না দেখি বিচার, কতু প্রজার উপরে | এই মুখে তো,
করেন রাজত্ব, কংদের এ অধিকারে ॥ কুজারে লইয়ে, নিরু-

: দ্বেগ হৈয়ে+ থাকুন মণুরপতি। গৃহে টলে যাই, এথা কাষ
নাই) হউক মোর যে হুর্খতি | গিয়া বৃন্দাবনে, আপন
নয়নে, ছুঃখ দেখেছে রাধার । তবে যদি বল, মোরে কেন,
: বল, এই নে কারণ তার ॥ তাই হে তোমারে, জানাইনু ফিরে,
: ইথে যে! মনে লয় | মথুরা মুধ্যেতে, সব শরীরেতে, আছে
কিছুধর্ম ভয় ॥ তবে বুঝ] ভার, কাল রূপ যাঁর, তার মন ঞকবা

জানে । কাঁল যেবরণ, তারে হে কখন, ভাল নাহি লয় মনে॥

আরে মুঢ মন, বিষয়ীকিঞ্ন। ত্যাগ করিয়ে যতনে . কৃষ্ণ পদে
রত, হও রে লদত, জয়ী হইবে শমনে! রি
ই ব্বন্দার প্রতি উদ্ধবের উক্তি ।

ওগো বন্দে লই আমায় দোষী করা অকারণে । কৃষ্ঝ

যেমন নহে সাধ্য অন্াধ্য সাধি কেমনে । শুন সার

বলি €ভামায়ঃ বংশীধারী বন্র তায় কে করিবে
রক্ষা তাক কি হবে কীদিলে বনে । [নিক
ই লঘ্ুত্রিপ্দী। বৃন্দার বচন, শুনিয়া! তখন? উদ্ধব বিনয়ে
কয়। শুন বৃন্দেদুতী, রাধার ভুূর্গতিঃ দেখিয়াছি মিছা নয়।
ই মোরবাঁক্যে দুতী, বদ্যপি শ্রীপতি, যাইতেন ব্রঙ্গপুরী | তবে
এত দ্দিনেঃ এ নীল রতনে, পাইতে গো নহচরী॥ আমিদেখে
এলে, ক্কঞ্চকে কহিলে, তবেতো এসেছো তুমি । যাইবার
হলে, তবে কোন কালে, লয়ে যাইতাম আমি। পরিশ্রম
: করি। ওগো সহচরি+ কেন এলে মধুপুরে | আমিতো যাইয়ে,
এসেছি কহিয়েঃ আর পাৰে না স্টামেরে ॥ কেন কুবচন, বল
অকারণ, তোমাদের দিনগেছে। কান্দিলে কি হবে, এক্ষণে
ই শাপাবে? যে পর্যন্ত ভোগ আছে ॥ কেন অকারণ, করছ
: পৌদন, গ্রমন কর স্বস্থানে। ব্রজলীগল1 শেষ, করে হৃষীকেশ;
*€ব এলেন এখানে । অতএব সখি, কেন বল দেখি, আত্ম-

চ

নদ কর আর। আমা ছৈতে বল, হইবে কি ফল কিবা সাধ্য

.৩০:২-১৩০২০১১১০১



ভি. ্‌ নি সং বাদ, |
হে আমার | যাহার নামেতে, তরে বিপদেতে, নে যারে ূ
বক্রতা ইয়। তারে কোন জন, করিবে রক্ষণ, হেন জন কে:
আছয়।॥ ও গাঁণ সজনি, তিন লেকে জিনি, রুদ্ধি বল-দ্বান :
করে | আমি গো সে জনেঃবুঝাব কি গুণেঃ মিথ্যা কেন বল
মোরে ॥ যা জানি মনেতে, বলহ লাক্ষাঁতেঃ আমারে কেন:
জড়াঁও | লাধ্য তব থাকে, বল লখী ওকে, নে যেতে পার নে:
যাও ॥ আমি হে যেমন, হেন কত জন, আছে এ অুরাগুরের%
কি করিব নখি+ উপায় না দেখি, কি হবে জানলে মোরে ॥
তোমাদের মন,করিয়া হরণ,যে জন করেছে ছ্ুঃখী | যেই ইচ্ছা,
্‌ হর করহ্‌ তাহার, ছুঃখি নই ইথে সুখী ॥ ৃ
শ্রীরুষ্ের প্রতি ব্রন্দার উত্ভ্ি।
রাগিণী ঝিঝিট | তাল খেমটা | রী
রুঞ্চ এই কি মনে করিয়াছিলে। বথে কুলবালা, ওহে,
কালাঃ শেষ কালে দেশ ছাড়ালে | ছিছি স্াঁমরায়।
ইথে কি ধর্মী য়ঃ তুমি ছে কেমন দয়াময়। ব্রজের
লীল! আনি বলেরাধা়। ভাষায়ে এলে অকুলে |
পয়ার। উদ্ধবের কথা শুনি রুন্দে বিনয়তে | নিবেদন,
করে জ্বীরুষ্ণের চরণেতে ॥ বৃন্দ! কহে শ্টযামরাঁয়সকলি শুনিলে:
উদ্ধবের কথা শুনে তৃট তো হইলে ॥ আমি সেটা মনে জানি:
তোমার যে মন। তরু এনেছি সন্দেহ করিতে ভঞ্জন॥ ভাঁল২ ৃ
তাঁতে খেদ মনে নাই করি। কিন্তু এক কথা আছে শুন ওহে; ছু
হার ॥ গোকুলেতে রাঁধ। কৃ ছিল রাধা হৈতে | তব নাম: 1.
ছিল রাধার নামের পরেতে | রাধার আদরে নিন হয়েছিলে |
হরি পুনঃ দে আদর বঁধু লৈয়াছেতো হরি ॥ একেতো! করুঙ্গা
রাণী ওহে নিরদয়। বল দেখি শুনি দ্গে নামের পরিচর 1 | কি.
নামে বিকাঁও এবে মদনমোহন। কোন নামপরে নাম করেছ: ্‌
ধারণ | বুঝ্। ক্ষ কহে কি ছে রাধা নাম গেছে। কিবা হরি:
পুর্ব মত রাধা কষ আছে।। যতনেতে যাঁর নামে নিজ নাম।;
দিয়ে। আপনি হইলে খাটে! ঘে নাম লাগিয়ে || শেষে হরি
অনায়াষে ভূবাও নে নাম। দিন রবেনা হে আআরণার্থে রবে!

১.



দুতী'সহ্বাঁদ। ৩৩.

: লামা বিরহ জ্বরেতে পরাণ গেল গোঁপিকাঁর | ইথে কিছু
পুরুষার্থ হবে না তোমার ॥ লোৌকেতে কহিবে তোমায় রমণী
শ্বাতক। ভূগিতে হইবে শ্যাম ইহার পীতক 1 শরণাগতেরে
ত্যাগ করে যেই 'জনে। তাঁর জম মুট নাই এ তিন ভুবনে
কীর্তি যন্য সজীবতি শুনহ-শ্রীহরি 1 কীর্তির গুণেতে নাম
থাকে বরাবরি ॥ ভাল মন্দ ছুয়েরি ঘোষণা থাঁকে যায়।
অবশ্য এ কথা লোকে গাবে শ্যামরায় ॥ প্রেম খেদে মোরা
ষদ্ধি মরি হে পরাঁণে । তব যশ ব্যাখ্যা করিবেক সর্ব জনে |
.পরোপ-কারার্থে প্রাণ গেলে দেখ নাই | গুণাগুণ বেঁচে তব
রবে হে কানাই ॥ তাই বলি বধু তুমি কি গুণ নাগর | ফাঁকি
দিয়ে তাঁল নীম রাঁখিলে নাগর | তব লঙ্গে কথা কহা নে
বনমালী।: প্রাণ কেন্দেই উঠে পুনঃ তাই-বলি 1 বোঁবার
মতন কেন রহিলে বসিয়া । প্রত্যুত্তর কর কিছু যাই হে শুনিয়া
যেন: কত শিষ শান্ত সরলনুজেন। দোষ হীন জন যেমন
তেমনি লক্ষণ | কি গুণে তোমার গুনে তরু ঝুঁরে মরি |
ইহার মরম কিছু বুঝিতে না; পারি? এমন কুচ্ছিভ প্রেমকে
কোথাকস্থজিল | আমাদের বলে নয় কত দেখা গেল ॥ দেখ
রবি কিরণে পদ্মিনী প্রকাঁশয়। পিরীতের গুণে লারা.দিন
দগ্ধ হয়॥ চাঁতকিনী অন্য বারি নাকরে তক্ষণ। উদ্দেশে
ধেয়ায় মন শীরদ কাঁরণ। চকোরীক্ষুধিত থাঁকে চন্দ্র সুধা
বিনে। তরু আশা নাছি ছাড়ে প্রেমের কারণে॥ পতঙ্গ
অনলে দেখ পুড়ে হয় খুণ| তথাচ ভর়ার্ভ নহে দেখিলে
আগুণ॥ তাই বুঝি লত্য ত্যাগ করিতেন] পারি । কর্ম গুণে
তব মনে দ্বন্দ করি হরি ওরে ভ্রান্ত মন জপ রাঁধাকু্ ক 1
অন্দে ্ সদ লবে ৪, ৪১৫ ধাম।

বণ টি ্‌ , স্বন্দের প্রতি কুফর উক্তি

২২: ২. ব্বাগিনী ভৈরবী । তাল
হর গো 4৪১4 এ |] ॥আঙি দেহ প্রাণ িইজজিনী ।

উস







7৩৪ .. দুতী লংবাদ। ৃ ৃ
জাগ্রত স্বপ্নেতে, ধ্যানেতে জ্ঞানেতেঃ রাধা ভিন্ন.
অন্য নাহিজানি॥ টি অর
_লব্ু-ত্রিপদী। বৃন্দার বচন, করিয়া শ্রবণ, উত্তর করেন
হরি | ওগো দুতী কেন, বিন! দোষে হেন, কটু কহ সহচরী।
বৈন স্মির হয়ে, রোষ তেয়াগিয়ে, হজে অবল! জাতি।
কিছুই বুঝ নাঃ বুঝিতে পার না, দ্বন্দ কর গো কিরীতি।
তৈও না৷ উতলা, হইলে চঞ্চলা, কর্ণ লমাধা নাহয় । তুমি তো!
গা দুতী, বড় বুদ্ধিমতী, তব যোগ্য এত নয় ॥ ধরে মম দোষ,
কর তুমি রোঁষঃ কি করিতে আমি পারি । তোমাদের কাছে,
অলেইরূপ আছে» যদি বুঝ গো. বিচারি। মথুরা় দূত, হয়েছি
ভূপতি, দব কি গেল তা বলে। তবু রাঁজ স্থান, আছে মোর,
প্রাণ, বান্ধা দে পদ কমলে | রাজ ছত্র ধন, লৰ কি কারণ;
নেই রাঁধার ইচ্ছাত্ডে। কহিব গো কত, মম লাধ্য যত, সব
তা জ্ঞাত তোমাতে ॥ রাই আজ্ঞা লয়ে, কোটাল হইয়ে,
কুঞ্জে করিছি ভ্রমণ । ত্যন্ি নিজমান, রাখি লে লম্মান, লাধিন
রে চরণ | রাই বিনে আর, কি গতি আমার+তা-কি. জাননা,
গো নখী ।ত্যজিয়া লেনাম। লয়ে কোঁন কাম, মমনামাগ্রেতে
রাখি ॥ সেই সে আমার,আমি গো তাহার,সময়ে হবে ঘটনা,
তবে যে এক্ষণে, ছ ঠীয়ে ভুজনে, কি জানি বিখ্ি মান্ত্রণা ॥ লেই:
. কমিনী, জিনি কমলিনী, আমি যেন সরোবর | ওগে! সর
চারী, কি ভয় রাঁধারি, হোক হই সদান্তর ॥ না বুঝিয়ে কর্ম মা.
রুঝিদ্বে মন্দা, কলি কি ভুলে গ্লেলে | নেই সব হবে, দকলি:
হে সবে, মিছামিছি গালি দিলে | শুন সহচরী) এক ভাবে:
নারি, সদা কাল কাটাইতে। নে কর্ম্েতে দুতী, নাহছিক নু

_. খ্যাতি, কুখ্যাতি করে জগতে | শুন সহচরী, এই হেতু ভরি,

আর ইচ্ছা নাহি হয়। শিশুকালে যত, হয়েছে কুরীত, পশ্চাৎ,
তত নারয়। গোকুলে কলে, মম নামে জ্বলে, কেহুন। বিশ্বাম ূ
করে | আমি ছুরাচীত্রং রমণী সবার, হইয়াছি ব্রেজপুরে || ছিছি:

. পর ধন,করেছিহরণ, নব যৌবনের জোরে। বিধাতার পাঁশে,

স্ষশবে অনায়াসে, ভুগিতে হইবে মোরে ॥ এবে গো লজনী),



্‌ জর 2 শুষ্ট.
জ্ঞান প্রদাযিনী, কাঁভ্যায়ণীর ইচ্ছাতে। লে কম্মে এখন+ রত
হৈতে মন, নাহি চাছে কোন মতে | পরহিহমা আর, করিতে .
[ আমার, সাধ্য. নাহি উপজয়। পরের সন্তাপ, আর দিলে
শাপ, অবশ্ঠ ভুগিতে হয় ॥ অতএব সখি, অন্য স্থানে থাঁকিঃ
| দুর্নাম না লহে প্রাণে ॥ একত্র স্থিতিতে, লোভ জন্মে চিতের
ধর্ম নাহি কভু মানে কিছু দিন লখী, এইবপে থাকি, ঢেকে
যাকু গে কুখ্যাতি ।পরেতে € ষেম্নন, হইবে তখন, করা! ঘাইৰে ৰ
তেমতি। | ৃ 2
২: শ্রীকৃষ্ণের প্রতি বন্দর এ
কত উভক্ধাগ্থিণীকাচগশ্বরী তাল আড় 1০ |
. কে. বুঝে তোঁমার-লীল! মুরারী। মর্খ ভেদ করে
রাধার হলে এখন ধর্মাচারী ॥ দয়াবন্ত শিষ শান্ত,
ষেমন তুমি রাঁধাকান্ত। জানা! নাছ নিভান্, ু
রাধার দশ! হেরি হরি ॥ এ
লঘু-ত্রিপদী। শুনি ভৃদ্দা কয়, ওহে রদমগ্ন, এ একি হে
কথা শুনালে | প্রেমে জ্বলে-মরি, ওহে বাঁকা হরি, ছঃখ উপর
হানালে ॥ এত ধর তয়, কর রদময়ঃ কত দিন এ মিছা
জ্বালাওন1, ছলনা কর না, কলি হে জানা আছে॥ পর ডুঃখে
ছুঃখি, হওয়। বীকা আখি. আছে কি হে তব ম্ত॥ আহা
| ; মরি মরি। লব্প্রতি তো হরি কংনেরে করেছ হত ॥কোন
ই জ্ঞানে হরি, নিজ করে ধরি রজকেরে নং হারিলে। একর্খে
পি বড়ই ন্বখ্যাঁতি, তব হয়েছে ভূতলে ॥ ছিছি রসরাজ
তুমি হে নির্লাজ, তাই এত কথ। কও । হুই বটে নারী, বুঝিতে.
হে পারি+ও কথাতে কি ভূলীও | পুর্ণ কুৎনা যায়? ওছে রদ-
রায়) এ কথা তার কি দায়। এ কি-হে কৌতুক, শুনে বাড়ে
হুঃখ» যে ন।জাঁনে বল তায় ॥ আত্ম বিবরণ) আপনি, বর্গ.
করিলে বড় ন! হয়| তুমি ছে যেমন, জানে সর্বজন, কেন
: দেও পরিচয় ॥ ভাঙলে ভে ঘন,হয় তি এমন, ধন্য দিই কুরু
জারে | ওহে গুণনিধি, এমন উষখি, দিয়াছে হে একেবারে ॥
: আমাদের! পরে যেন রিষ করেঃ পেয়েছিল (ক্গাথারারে |

|]
1
বৰ

.
চি
বণ
ই

25

১1

শি সি

লা লা লালা নকলা

্. ০
৬, হা
আর...



৩৩... দু সহবাদ

্রজের ব্ু্তান্ত,সকলি স্্রীকান্ত'যেন বজ্র পড়ে শিরে | কেমনে:

বলিলে, তব নামে জবলেঃদর্বজন গৌকুলেতে 1 কি কহিব হরি
গেলে ব্রঞ্জপুরী, কলি পাও দেখিতে ॥ এই দেখ হরি, হয়ে
কুলনারী, রাজ সভাতে এষেছি। বুঝে দেখ মনে+ তোমার

কারণে, যে সুখেতে লবে আছি ॥ তৃশি দয়া হীন মোৌনবারে :

তিন, ভাব আপনার গুণে । কালে সব হয়ঃ তব দৌষ নয় কি

নাহয় বল ধনে ॥ ভূপতি হইয়ে কুজারে লইয়ে, তুমি সুখে

থাঁক স্তাম। অধীন যে জনা, তাহারে বঞ্চনা, করে হৈলে হও
বাঁম। কিন্তু দয়াময়, এই খে হয়। মনো সাধ রৈল মনে।
জুবর্ণ তিঞ্চরে, লঙ্ে বায়লেরে বলাইলে হে যতনে ॥ এই

নিংহাননে, জীরীধীর মনে, ঘ্দ বলিতে হে হরি | তবে ত.

সফল? হইত নকল, এরাজ্য ধন তোমারি ॥ ওরে মুড মন

বিষয়াকিঞ্কন, ত্যাগ করহ যতনে | কুষ্ণপদে রত হও অবিরত,
হই সারে... ৮১8
-. : স্ীকৃষ্ণের প্রতি বৃন্দীর ব্রজে যাইবার কথা।
আর রগিনী। লিজিত 1: তালি আ18/৪১৪
সম্প্রতি শ্রীপন্তি বল ব্রজ্জে যাবে কিনা যাবে ॥ যে.
-বুন্মি তোমার পণ, পাইয়ে কুবুজা ধন, ত্যজিলে
রর জীরন্দাবন, হেন. লয় মন। জ্রীমুখেতে প্রকাশিয়ে,

টি
রর

ঘা হয় বল-কাঁলিয়ে, আমি গৃহ যাই চলিয়ে, প্যারী রি

নয়-মরে অরিবে॥ | উড
পয়ার। পুনঃ বৃন্দ ভ্রীকৃষ্ণেরে কহে ক্রোধ মনে। ওছে

ন্দাবনেতে | সত্য করে বল সখা শুনি জমুখেতে ॥ বুঝেছি

হে অভিত্রার আর নাহি যাবে | না করিবে অতাব-কুক্জা নব,
ভাবে ॥ বঝেছি ৫হ আমাদের কপাল ভের্সেছে। কুক্জার..

বু কাষের কথা বলহ এক্ষণে ॥ যাবে কি না ষাবে শ্যাম ীর-

কুগ্খেতে কালো মাণিক ডুবেছে॥ আরনাহিপাঁবধন সেকুণ্ড

হইতে | নাহিক মে ধন ভোগে রাধার ভাগ্যেতে॥ সে হেন:
রমনী কৃঞ্চ-তব ভাগ্যে নাই । হোক্হ মুখে খাক তাই মোরা
চাই ॥ (তীর সসতে লুখী র্ণখ তব ছুঃখে। তুমি সুখে

৯৯,

পিসী



দুতীঅংবাঁদ। - তহ
থাকিলে হে সুখী সেই সুখে | কিন্তু কৃ মনে মনে এই
_খেদোদয়। এবে বুঝি প্রেম ব্রত উজ্জ্পপন হয় ॥ আর নাছি
রমনীতে মজিবে পিরীতে। খোঁটা দিলে শ্তাম নখা পিরীতের
_ ব্রজে | কৃষ্ণ কনসহচরী কেন বার২ | এ কথা পুনও২ নিন্দাঁকর
. আর। মিছা দ্বন্দ কেনকর আমার মহিতে। তোমায় যে অপারক
হৈলাম বুঝাতে কোন অভিপ্রায়ে তুমি বুঝালে গো মনে।
আর আমি যাৰ নাহি সুখ রন্দাঁবনে ॥. তিলেত্তরে বৃন্দাবন
ছাঁড়া আমি নই। স্বরূপ জানিহ মনে ওগো প্রাণনই ॥ অত্ত-
এব ধৈর্য্য ধরে যাও নহচরী। বৃঝাইয়া রাখ গিপনা রাই কে
। যক্করি। দেখিতে আম।রে লিখি যদি ইচ্ছা হয়। নয়ন.
: মুদিয়া দেখ দেখিবে আমায়। হদিকুপ্জীরণ্যে আমি হইব
. উদ্নয়। মন খে মালা গেঁধে সাজাও আমায় | শ্রীকৃষ্ণের

মনেং সব আশা নিরাশ হইল | আঁশা-রক্ষ কৃষ্ণ বাক্য কুঠারে,

বিচ্ছেদ হুভাশন | তবে বৃন্দ নিরাশ্রয় মনেতে ভাবিয়ে ।
শ্রীকৃষ্েের চরণেতে প্রণাম করিয়ে ॥ বিদায় হইয়া বৃন্দ! নি
। চলিল। কৃষ্ণ কথা কৃষ্ণা ভাসাঁতে রচিল॥
ু কৃষ্ণের সহিত কুকার কথোপকথন ।
] ্‌ ২.১, বাগিণী সুরট। তাল আড়11 +... ্‌
কুষ্জ বলোছে আমায় । কোথাকার এক নারী নাকি টু
লৈতে এসেছিল তোমায় | তব অহ করে দ্বন্দ কত
লে গেল মন্দ? শুনে মনে হয় অন্দ, পাঁছে লয়ে যায়|
ভ্রিপদী | বন্দারে বিদায় করি, অন্তঃপুরে যান হরি, দেখি
্‌ ক্জ। কাঁতরেতে বলে | কহ দেখে নৃপমণিঃ সভার বৃত্তান্ত শুনি
কেট এসেছিল বৃন্দা বলে॥ মহারাজ কিপের তরেঃতোমারে
তত ননা করে, নারীর করেছ কিব|ধার। কেবা সেই হয় নারী,
৷ ক্ষার বা দে অন্ুচরি, তোমর সঙ্গে কি সম্পর্ক তাঁর ॥ রাজা
1 ইয়ে অনুযোগ, কে কোথায় করে ভোগ, নারীর এন্ড যে রাঞ্খ

1 মান । ভাবে নি করিঃ নহে দে মামান্য নানী? বুঝ এ

ছি

- বাষ্প এপারে 1



মুখে শুনি নিষ্ঠু র উত্তর । নিরবে রহিল রৃন্দা নাদিল উত্তর ॥

কাঁটিল। চতুর্দদিগে অন্ধকার করে নিরক্ষণ। প্রজ্বলিতু হইল |



৩৮ দুতী লংবাঁদ। ্‌
হে হবে মান্যমান || তাবে বুঝি আছে সথা, প্রেম পক্ষে দে ্
স্বপক্ষ+ কারু পক্ষ হয় নে সুন্দরী । নিগুট ভাব না থাঁকিলেঃ
এত কেবা কারে বলে, কেবা এত লয় ওছে হরি ॥ অবশ্য ;
ছে বংশীধাঁরি। তব প্রেমের ভিখারী মে নারী কি হবে অন্য :
জন] ভাঁল বাদা না খাকিলে, প্রেমের কথা! কেবা বলেঃ ;
. ছলেতে হে তব ছলে মন || যেন হেন প্রেমের প্রেমী, ওহে.
মহারাজ তূমি,ভাল যেন ভাঁলবাঁপা আছে । নব প্রেমে দাঁগা :
দিয়ে, কাঁর এসেছ কাঁলিয়ে মে রমণী আছে কি মরেছে || হলে :
পিরীতি বিচ্ছেদ, উভয়ের বাড়ে খেদ, তিলেতরে কেই নহে :
সুখী। ফলে ফুলে মজয়েছ, কার প্রেম তাদিয়াছ? আপনিত
আছ দেখি সুখী ॥ যথার্থ পিরীতি হৈলে' দে প্রেমে বিচ্ছেদ :
পেলে, উভগ্বেই মান ভোগ ভোগে । এত মে বিচ্ছেদ নয়ঃ :
অন্ুভাবে বৌধ হয়, যেন হে বিবাগী কোন রাগে ॥| কিনব:
ওহে দরাময়ঃ ধ্যান দেখে জ্ঞান হয়, তোমার সে তুমিনহ

_ ভাঁর। উভয়ে থাকিলে টান, নে পরমে না হয় মান,বিচ্ছেদ্ধের :.
নাছি ধারে ধার ॥ দেখ হে মথুরাপতি, দেখে শুনে হুই ভীতিঃ :
আমি অতি দুঃখিনী রমনী । যেন হে স্বভাবে রই, এ কর্টের :
কন্মী নই, বিচ্ছেদেতে বড় ভয় গণি || এত যদি কুক্জা। রাণী? :
হল বলিয়া মালিনী, উত্তর করেন তবে হরি। শুন কু্জী ৷
দিয়ে মন, নে নারীর উপাখ্যান মীন্যমাঁন বটে দেজুন্দরী॥ ।

_ আমার প্রেমের রাজা, বৃম্দীবনে রাঁই রাজা, বৃন্দা তাঁর পৃধান |.
অর্জিনী। নেই রাঁজ জ্রীরাধাঁর, ধারি আমি পৌমধারঠ পে)
_. মহাজন কমলিনী ॥ আমি এসেছি পলায়ে, নে রাক্সাপ্ে না!
বলিয়ে, তাই বৃন্দ! এসেছিল লৈতে | ভাই লয়ে বাঁকাবীণ?

সে নারীর রেখে মান, তুখিয়ে যে বজিলীস যেতে | যাঁর ধার
করিতে হয়, সে-যন্তপি কটু কঃ তাতে ক্রোধ করে কি:
পণ্তিতে | হে প্রিলী নে সমক্ল, যেন শব ইতে হর, মনে বচন?
72 শুনি কানেতে ॥& শুনি ক্ক্জ। তুষ্ট হৈলঃ মনীগুণ নিবে গেল? |
ুলকে পুরিল নর্বকাঁয়। কষ বূপ রেখে হদেঃ কৃষ্ণ বে ।

আখি মুদেঃ কৃষ্ণদাদ থেন কৃষ্ণ পায় ১ তত জি



এাাপাপাপশাশ





দুতী লংবাঁদ| ১২১ ক
শ্ীকৃঞ্চের প্রতি ব্রন্দার পুনঃকথন |.
রাগিণীসুরট | তাঁল আড়া।
স্ঠাম জান্তেএলেম তাই । পাপের ভাগী কেবা হবে
প্রাণে মলে রাই। মরে মরুক মে কিশোরী তাহ
খের নাহি করি, বুনি বেচে থাক হরি, তোমার,
মঙ্গল চাই॥ -
পয়ার। এই রূপে কৃষ্ণ কুব্জারে বুঝাইয়া ুনর্কার -
নিং হহাঁলনে বন্িলেন গিয়া ॥ অনুচর কত; করে চখমর ব্যজন।|

পাত্র মিত্র লইয়া করেন আলাপন ॥ ইতি মধ্যে পুন বৃন্দে দু

আনি উপস্থিত। দেখি কৃষ্ণ সভীশুদ্ধ ছৈল উককিত। কৃষ্ণ
কন কহ রৃন্দে কিনের কারণে । কি হেতু আইলে পুনঃ কি

ভাঁবিয়ে মনে ॥ বৃন্দ বলে শ্যাম খা তেবনা মনেতে | আনি-

নাই কৃষ্ণ কিছু ধন কড়ি নিতে | ভোমার ধন তুমি ভোগ কর
ওহে হরি। তব ধনে আমি কিছু নই বংশীধারী। রাজা হও

রাণী পাও নদ! থাক লুখে ॥ নুতন-ধন: খাইও কিন্তু কিছু
রেখ ঢেকে। অধতনে যেন কুবুজার প্রেমধন। এমন.করে
বিচ্ছেদেরে : কর না অর্পণ || ধনে জনে রুষ্ধ হে তোমার যে

যতন। রাধা হৈতে জানিয়াছি তাঁহ' বিলক্ষণ ॥ সে কথায় রে

কৃষ্জ আর নাহি প্রয়োজন | যে হেতু এসেছি শুন করি নিবে-:
দন | তৃমিত হে ব্রজনাথ ব্রজে নাহি যাবে । শ্রীরাঁধার পক্ষে
আর লাপক্ষ না হবে ॥ ঠারে ঠোরে জ্ীগুখেতে করেছ প্রকীশ্ব
নেআশীয় বৎশীধারী হৈরাছি নৈরাশ॥ আর হে যাইতে .
. ভ্রজে কব ন!মুরারি | ষা থাকে রাধার ভাগ্যে তাই হবে হরি -
কি হবে তোমারে কষ বিপদ জানালে । কোন ফলাফল নাই :
- ভক্মে বৃত্ত দ্রিলে। কিফল অরণো বল রোদন করিলে । বিফল :

ব্বক্ষের কাছে কি হবে-কীন্ডিলে॥ অন্বেরে দেখালে আল
কোন ফল নাই। তৌম্খারে জানালে ছুঃখ তেদতি কীনাই ||
আমি ভ্রজে গেলে ফিরে নিক্গুবেহারি। জিজ্জীনিবেন আ-
মারে ছেনেরাজ কৃমারি॥ শুনলে; আমার মুখে নিরাশ!

তো মার | তখনি মরিবে রাধা কথা নাহি তার কিযলিল



8৩৫ . দুতী নংবাঁদ |
মৈলে তব বিরহাঁনলেতে | কে হবে পাপের ভাগী রমনী
বধেতে। তাই বধু নুধাইতে এনেছি তোমারে । ইহার
নিদ্ধান্ত হরি বলহ আমারে॥ রমণী কি জানি কচ আমি হে
অজ্ঞান। তাই তোমারে জিজ্ঞানি ইহার বিধান ॥ তুমি ত
হে প্রবান পণ্ডিত শ্টামরাঁয়। বল দেখি স্ত্রী হত্যাতে কত
পাপ হয়। ধর্ম ভন থাকেষার নিকুপ্ভ বিহারী । প্রাণ গেলে
প্রাণে দে তো বধে না ছে নারী । তোমার কি ভয় হতরিক- :
রিতে জ্ত্রীবধ। বাঘেরকি পাপবল করিতে গোবধ॥জ্্রী :
হত্যা করিতে তব আঁছয়ে ক্ষমতা । পুতনাতে জানা আদ :
তোমার মমতা ।| এত ঘি বৃন্দে দূতী হরিরে- কহিল | বুন্দের
বচনে কৃষ্ণ নিরব হইল । প্রণাম করিয়া দূতী নিজ « ধাঁমে যায় ।
ক কথ] কৃষ্ণজদীন ভাষাঁমতেগায় ||. ০
্‌ বুন্দের ব্রজে প্রত্যাগমন
্‌ বাঁশিণী ললিত। তাল আড়া।
কি বলে রাঁধার কুপ্তে কেমনে ষাইব এখন| যেধন
হ.প্ররাদে আলা নিরাঁশ। সে ধন।॥ এ কথা শুনালে.. +
- ভারে, হাঁরাঁইব একবারে; ভুবিবে যমুনা নীরেঃ হেমা
ক্িনী রাই । আমরা মরিবার তরে, সে তো নাই মলে.
করেঃ তবু পাঁপ আখি ঝরে, পবোধ না মানে মন]...
এ. চৌপদী। বৃন্দ রসবতী, হয়ে ছুঃখি অতি কিকরি
সম্প্রতি, ভারয়ে মনে | করিতে গমনঃ না চলে চরণ, বিষাদিত
মন, ধার] নয়নে || মন্দ মন্দ গতিঃ চলে বৃন্দাঁদুতী, বিচলিত
অতি হয়ে অন্তরে | বলে ছার বিধি, তোমার কি বিধি, দিয়ে
কুঞ্জ নিধি, নিলে হে হরে ॥ কি কথা বলিয়েঃ রাঁধারে বুঝিয়ে
সান্তনা কি দিয়ে, করি রাধাঁতর1? এলেম কি বলেঃ যেই কিবা
বলে, এ কথা শুনালে,হারাইব তারে ॥ হায় রে গোপাপিরঃমোর
সত্য নাই? এ জ্বালা এড়াই, প্রাণান্ত হলে । বাঁচি কি ন্ুখেতে :
ন/ পারি বুঝিতে, যম কি আিতে, ত্রানে গোকুলে ॥ হাই:
ছুর্াশেতে, চলিল ব্রজেতে, মলিন মুখেতে, বৃন্দ! সুন্দরী]

যত গোঁলীগণ, করি নিরীক্ষণ আনন্দিতা মন? বৃদ্দাঁরে হেরি ৬

এ কাপ ন্ছিনাপ





দুতীনংবদি। ৪

আগুনারি : হয়ে, নিকটে আলিয়েঃ রৃন্দীরে হেরিয়েঃ কছে
বচন। ও প্রাণ জনিঃ এলে একাকিনী, কই গুগমণি+ সে কৃষও

; ধন]॥ তাবে জ্ঞান হয়ঃ বুঝিশ্ঠ মরার? ছলিতে লবায়, লুকী-

ফ্েছে শো। নাহি হেরে স্টামেরে+ পরাণ বিদরেঃ বুঝি ্ করে).
লময়েতে গো ।। বল বল দখী, কোঁঝা বাঁকা আি, না হেরে

: গো সখী, পরাণে মরি | তোমার. আশয়ে, আছি পর্থ চেয়ে

দেখিৰ কালির, ও-গো! সহচরী ||. তোমার কারণে, নীরদ

বরণে» হেরি এত দিনে, যত গোপিনী। হারানো রতনেঃ।
. পাব পুনঃ মনে ছিল না.গো মনে? ও গো মজনী | কোথ।
বহশীধারী, বন্দে হচরীত পশ্চাতে কি হরি, আলিচতছেন |

হবাদ জানিতে, তোমার আগেতে» হরি নিকৃর্জেতে, পাঁঠাঁ-

ইঞেন। বল গো-তদন্, শুনিয়া ততান্ঠ, হোক ছুঃখ-অন্ত, বলি,

বাধারে। কেন হয়ে মৌন, ন। কহ বচন, কহ বিবরণ, আগ

নখীরে | বৃন্দা কান্দি ককঃ কৈতে প্রাণ ধায়, সে কথা আঁ

: মার আর বলোন1 | কপালে যা থাকে,খওতে পারে কে,

কব: সখী কাকে, বিধি মন্ত্রণা|| ছুঃখ, রৈল ভালে, নে পোড়া

কপালেঃ উড, সুখ মেলে, হেন কি হয়। আমাদের -ধাঁতাঃনি-

তান্ত বক্রতা? :কে.করে অন্যথা অবশ্য হুয়॥ পরিশুম সার

ঢ

; আশার মুলার, না হোলো রাধার, আমা হইতে | এলো!
; শ্রীহরিঃ- ওগো! নহচরীঃ রৈল মধুপুর, রাজ্য লোভেতে । শুন.
সেই কথা, যত গোপী সুতা, হয়ে উনমতা, করে রোদন

কপালে কষ্কণঃ করয়ে €ফপণ, হয়ে অচেতন, গ্রোপিনীগণ ॥
শ্রীকৃষ্ণের পায়ে, দেহ পমর্পিয়ে, বিক্রীত হইজে, হরি নামেতে
1 উপাখনঃন। হয় বর্ণন, কিঞ্িঃ বচন জুভাষ। সত
ডু . অখীদিগের -খেদোক্তি |
রাঁগিশী ললিত | তাল আড়া |.
ফিরে এলে গো বন্দে নাধের গোবিনর কোথায় ও
আশাতে রয়েছে প্রাণী প্রাণনাথে দেখাও ত্বরায়।
উট সাধের ত্রিভঙ্গ। ধৈর্য হীনে আলে অঙ্গ, না দে
কীয়। প্রাণ 2 ধরে গো নিশচ | তোমার আশার,



৩ দুতীনংবাদ। ০
. বিশ্বামেতে, বেচে আছি এ দশশাতে, মিলাও এসে.
রাঁধানাথে, ভুঃখিনীর ছুঃখের সময় |. 1 কর
ত্রিপনী। বন্দে বলে নবীগণ, কান্দ কেন অকারণ কান্দিলে_: ৃ
কিহ্বেবলআর।দুরকর লে তাবনাঃ আর শক্র হানাঁ-..
ওনা) পর নাহি হয় আপনার | এবে করহ উপায়, রাধা যা )
পান্তা হয় বিহিত করহ সবে তার | নে কাঁচিলে ব্রেজে রব,
লোকে মুখ দেখাইব; তা৷ না হলে নকলি অনার ॥ বন্দর:
বচন শুনিঃ যত গোঁপের রমণী, নিরস্ত হইল দকলেতে |:
ব্বন্দাঁর লইয়া লগ অনুতাপে দিল তক্ব, উত্তরিল রাধার
কুঞ্জীতে | বন্দার বদন হেরি, হৃষ্ট চিত হয়ে প্যারী, বলে কে ৮
প্রাণের বৃন্দে এলে । কহ কহ সমাচার, কি হইল মথুরার,
কার্য লিদ্ধি কেমনে করিলে ॥ কৈ আমার শাম নথাঃ তুমি :
_ নখী-এলে একা, কোথা বাকা মদনমোহন কি বলিল প্রাণ- |
হরি, কহ ওগো নহচরী, কেন তোমার সজল নয়ন | হানি 1
নাই মুখে হেঁগো, অভিমানী দেখি ওগো, কেন গে! এতেক |.
অিয়্মান। চঞ্চলা হরিণী প্রায়, চঞ্চলা দেখি তোমায়) কি রণ
বলিল বস্থিম নয়ান॥ মৌনতাবে কেন রও) কেন কথা নাহি ক
কওঃ নাহি পারি বুঝিতে কারণ | বুঝি সে লম্পট হরি, তোঁ- :.
মারে বঞ্চনা করি পাঠাইল এ বেজ ভুবন | যাত্রাকালে কি
বলিলেঃ সে কথায় কি করিলে, ভাবে বুঝি কপাল ভেঙ্গেছে । রং
স্পট বল সহুচরী, কেন এত লুক্ষাচুরিঃ কৃষ্ণ বুঝি বঞ্চনা :.
করেছে। শুনি রাধার বচন? শ্যহুস্বরে বৃন্দা কন? শুন শুন ওহে 1.
সহ্চরী। ওগো পযারী-কি কর, লেখা কেমনেতে রব এলো.
ন| গো তব প্রাণ হর ॥ একথা শুনি অমনি, মুচ্ছ হয়ে কম- 1.
লিনী, গড়াগড়ি দেয় ভূমিতলে । ঘন ঘন বহে শ্বান, বাড়ে 1.
বিচ্ছেদ হতাশ, বিরহ অনল উঠে জলে ॥ ভ্বালায় চঞ্চলা চি
হয়ে, খগ্জন পর্ন চেয়ে, রহিলেন পুত্তলিক! মত] ছিন্ন তরু-
বর প্রায় ভুমে গড়াগড়ি যায় প্রেম জল বহেঅবিরত || |.
বেণী এলারে পড়িল, চন্্রানন শুকাইল, অধরের খলিল
তাল । নীলাস্বর নে গেল, হৃদয়েতে পৰে শিল, কুফর !







চ্‌
1
]

2 দুর ১

| নৈরাস রূপ শুল॥ এম .নি প্রেমের বাঁণ, যারে করয়ে সন্ধান,

: বিধিমতে ভ্বালায় যে তারে। নাহি রহে লঙ্জা ভয়, ধপ্ম কর্ম
: দুর লাবানী লাবাসী পিরীতেরে ॥ এলো খেলো হয়ে
ধনী, দগ্ধ! যেমন হরি ণী, অচেতনে হইল মগন | তবে-লে রৃন্দা
জন্দেরী, রাধার করেতে ধরি, বলে রাধে করিন নে রোদন ॥
আর প্রাণ বাচে নাগো, কীন্দিয়ে কীদাস নেগো» কেঁদে কি,

গ্নো। হারাবে জীবন। কমলিনী ক্ষান্ত হও, মনেরে প্রবোধ

দেও আর নাহি পাবে কৃষ্ণ ধন॥ পর কি আপন হয়, কেন
২ ই ভাবন্তীর, নিবাহ গে। বিচ্ছেদ অনল । কেদে আরকি
1 করিবে, আর কি হামেরে পাবে ছি মেনে! গো হইও না

: চঞ্চল |. তুমিতো-অবোধ নও, এবে মনেরে বুঝা, পর থে.
1 তাপরেতে জানায়। ষে পর্যন্ত আপনার, কর্ম না হয় উদ্ধার,
1 দে পর্য্যন্ত ছায়া পায় রয় ॥ কার্ধ্য লিদ্ধি হলে পরে, স্বভাব
| পাশ করে, পুর্বব ভাব নাহি করে মনে । দেখ রাই বংশী-
॥ ধারী, -বাইয়ে গে। মধুপুর? তোমার-গো না রাঁখে স্মরণে |
[ -বেদীয়ার বাজী প্রায়, পরের পিরীতি হয়, শেষ নাহি রক গো:
. জনি । খেলা ধুলা হয়ে গেলো, পিরীতের শেষ হলে, দক্ষি
গান্ত কর কমলিনী ॥ এই রূপে বৃন্দাদুতী, বুঝায় রাধার প্রতি
1 কত মতেনান্থনা করিল। বন্দর বচন শুনিঃ মে বৃকভানু
; নন্দিনী, ত্রিভঙ্গ আশাতে ভঙ্গ দিল) শুন ওহে রাধানাথ,

|
ৃ
এ















1 আমার নাহিক নাথ, তুমি জগন্নাথ জনীর্দন। দিয়ে হেচরণ।
| তরি, পার কর তব বারি, এ দীনের এই আকিঞ্চন ॥
ই আককফের বিচ্ছেদের পৃতি শ্্রীমভীর উক্তি।
রাপিণী বারোউঙা। তাল ঠুঙ্জরি |
মের বিচ্ছেদে এনোরে, রাখি তোরে অন্তরেঃকষ ৃ
যদি নিদয় হৈল তোরে । আমায় অঁপে দিল সহজে
থাকিতে হৈল, তোমার বশে আমারে ॥ ক
| ত্রিপদী। রাধারে লান্তন! করি, গেল বন্দে সহচরী, ভ্ীমতী
| বলিয়া একাকিনী। কৃষ্ণ বিচ্ছেদের পৃতি, কাতরা হইয়া অতি,
কহিছেন কৃষ্ণ বিলাপিনী। ওহে শ্রীকৃষ্ণ বিচ্ছেদ। আমার আর

০০৯৮ ০০১৯২০







বিচ্ছেদের প্রতি, এত বলিয়া জীমতী, ক্ষ রূপ ধাণানেতো

৪ .. দুঁতী স্বাদ
কিদেখ। আঁর মনে আছেকি হে বল.। আর মেনে কেন রই,
কেন ব! বিমুখ হই, দকলত হয়ে বোঁয়ে গেল | যাঁর সম্পর্কে
তোমার, সঙ্গে সম্পর্ক আমার, নে সম্পর্ক সেতো! ঘুচায়েছে |;
তব মুখ নাহি চেয়ে,আমারে তোমার দিয়ে, তোমার অধীন]
করে গেছে ॥। এবে আর কি: উপায়ঃ আয়রে হৃদয়ে আয়ঃ]
আয় তোরে রাখি হৃদয়েতে। সে বঞ্চনা করিল বল আমি
কিছু সেই ছলে অনাদর করিব না তোমাতে ॥ এখন আমার
তুমি, তামার বিক্রীত আমি, হয়েছি হে তোমার অধীন ||
রাই রাঁজ্যে রাজা হও, কৃষ্ধ দত ছত্র লও” ভোগ কর থাকি যে
কদ্িন। অ।মি হে অবলা নারী, নাহিক জানি চাতুরিঃ অচ-|
তুরা পৃচুর রূপেতে। কেবল গেমের বশ, পেঁমেতে করয়ে।

]

বশ বাধা থাকি প্রেমের ডোরেতে ॥ দেখ তার ফলাঁফলঃ।
আনিতে যমুনা জল, দেখে এলেম জলদ বরণে । কুলে দিয়া,
জঙ্াঞজলি, তন্জিলাম বনমালী+ জল ছলে জলি মনাগুণে ॥ কৃষ্ণ]

বনি 15

লিল









লা ২3

ব্হিল। হরি হরি বল মন, রাঁধাকুষ্চ উপাখ্যান; এত, দুরে |
সমাগত হইল ॥ ্‌ ১]

দুতীনংবাঁদ লমাগ্তঃ ৷.



লুল

72575 2 ০০৯৬১
হরর
১ ্ 01৬,



২7.
সপ