Citation
প্রভাস খন্ড

Material Information

Title:
প্রভাস খন্ড দ্বিতীয় ভাগ
Added title page title:
Prabhāsa khaṇḍa : dvitīẏa bhāga
Added title page title:
Prabhasa khanda dvitiya bhaga
Added title page title:
Prabhasakhanda dvitiya bhaga
Creator:
Dāsa, Śiśurāma ( Author, Primary )
Dasa, Shishurama
Dasa, Sisurama
Place of Publication:
Kalikātā
Publisher:
Bidyāratna Press
Publication Date:
Language:
Bengali
Sanskrit
Physical Description:
318 p. ; 21cm

Subjects

Subjects / Keywords:
এশিয়া -- ভারত -- পশ্চিমবঙ্গ -- কলকাতা জেলা -- কলকাতা -- কলিকাতা (গ্রাম)
एशिया -- भारत -- पश्चिम बंगाल -- कोलकाता जिला -- कोलकाता -- कलकत्ता
Krishna (Hindu deity) ( LCSH )
কৃষ্ণ (হিন্দু দেবদেবী)
कृष्ण (हिन्दू देवी-देवता)
Hinduism -- Verses -- Religious narrative -- 19th c -- Bengal
Krishna (Hindu deity) -- Mythology -- 19th c -- Bengal
Bengal -- Religious text -- 19th
Spatial Coverage:
Asia -- India -- Kalikata -- West Bengal -- Kolkata District -- Kolkata
Coordinates:
22.566667 x 88.366667

Notes

Abstract:
Episodes in the life of Krishna. With some extracts from the Nārada-pāñcarātra. Rendered into Bengali verse, with some of the Sanskrit verses by ÅšiÅ›urāma Dāsa ( en )
Funding:
Arts and Humanities Research Council through the Newton Fund. Department of Business Energy and Industrial Strategy
Exhibitions:
Two Centuries of Indian Print (TCIP)
Creation/Production Credits:
Catalogued as part of the Two Centuries of Indian Print (TCIP) project led by the British Library (2016-2018).
Creation/Production Credits:
Digitised for SOAS by the British Library

Record Information

Source Institution:
SOAS University of London
Holding Location:
Archives and Special Collections
Rights Management:
This item is licensed with the Creative Commons Attribution, Non-Commercial License. This license lets others remix, tweak, and build upon this work non-commercially, as long as they credit the author and license their new creations under the identical terms.
Resource Identifier:
EM2109 /45123 ( SOAS Classmark )
10221762 ( ALEPH )

Full Text
1০ ০১৫২৬১41534

রি 4৯4৮2
৮৯৯৯ পি ই$১২-১২/ ঃ ৯

১২১১৬২২২৮৮৯

১৯৫

লিমততেই

৭৮১৮১২%

০৮১৯1

৮০৪

৯85৭

122৮ 8%3 4৮
২৯280
১০১১০৬১৪১৯5

কহ
০১০২

78085115%

₹5৭1+48% 3

১২১:
রন ২285
৪০৮ হু কবগিড:২44১ ৯

র রি ?

বক51৬ ্ ১114

১৭774154188

৯২৯২৭

£ ই
5:57 !
1৮০৯5 ১০১৯

১১15

315; 5 ২০78
৮8881, হন ১5 ৪5) €
47488
১5৮৮4

ইক ২4৮৩

৮5%:5858
1৩

২৯:১৯
৯৯৮৮ ১1০৮৯৯১$78

ঃ ৯২২1২ 38%
22
বনি £ ঃ
৮৮
ধু ায

টাচ
কা৮২১118
৯7:48:34

নি 22
1.

2538

711 টিক

13 রঃ
১২৬৮৮5/২১১)

ফি











লি
5]



! খু
] টি 1 ৮
রং 1৯১৯ চো
17173171047 10915 টু ৯ 1) তি ইট 42//৯
বক ব€ 7 সু
রঃ পি |]
271 2173111098৭ |
]
য় ঢু
৮ |
ঢু
[১ ]
টা ৬) ১ ১৯১৯ & চ ]
ই |
স্পিন পিস্সাি সিল টা টে রে

চ্তলভীর8৪,[5059048-002জ25,]

[67905597809 2005, 8015995 $0 675 135
০ 21 91009 1৮0 8906 6৮38.065 00
৮5 অ52502.-05209097579,- 8520.62.890. 3৮০0
89106931 9795১ ম্ব৮০ 50015 ০৫ 005 55105-
রা 20৮ 593:595 5 ০7 9359-75109, 0558.- ]

ৃ সি ০৭২ রে £ ঙ


















পীভাম খও্ড।



দ্বিতীয় ভাগ ।



শ্রীুত নন্দকুমার বিরত মহামহে1পাধ্যায়
ঘবারা সংশোধিত |




শ্রীযুত বেণীমাঁধব দে কৌল্পানীর আদেশান্থসারে

চিৎপুর রোড বট্তল। ২৪৬ নম্বর ভবনে
বিদ্যার যন্ত্রে

টার ঘোষ দ্বারা দ্বিতীয়বার মুদ্রিত ও একাশিত |

শাঁকান্18 ১9৮৮ | ২৮ আধষাঁঢ়।

্রীমন্সহর্ষি বেদব্যাস প্রণীত পুরাণান্তরগত।

শীযুত শিশুরা'ম দাঁস কর্ত্‌ক গয়ারাদি

পৃক়]ব18 ১৭৮৮ 1 ২৮ আষাঁঢ।










উই ১ প্রকরণ ৪০৫ 6৫ ক ৪৫8৫ টু
. প্ুর্ণর্দ পশ্রীকফের বন্দনা

৮ ২ %£$8 € ৪

ই দেব দেব মহাদেবের বন্দনা ১5৭
_ প্রীশ্রীনুর্্যদেবের ব্ন্দন। ৬৪৪৫৫

ু গ্রন্থকীরের বিবরণ *****
প্রীকৃষণের পর্চনীগ মাহা
-প্রন্থরিস্ত ০

বু শরীর মণুরা লীলা প্রকরণ

শ্রী ষ্র্‌ সুধা নগর, 22
শ্রীকৃষ্ণ রজককে বধ করেন? ২০০
ন্তবায়ের বৈকুষ্ঠ প্রা্তি
_ আলাঁকার স্থানে মাল্য ধারণ ও বরদান
ই কুরুাঁর সৌন্দর্য্য প্রাপ্তাঁদি

লন্দ ভীকুঞ্তকে কহ ক কহে
কনের ছুন্বপ্ দর্মনি 22)
রাজন য় শ্রীর্ঞ্চের গমনো যাগ
কুব্লয় বধ ও. রাঁজনভায় প্রবেশ ূ

চান্থুর মুডিক বধ তি রর

টু গস বধ রি 5 ২৪৯৪ জ
| দেবী বন্থুদেবের বন্ধন, মোন

নন্দ বিদায়ের ই দত *
















% 8 ৮ ৬ ৬ 7.

56৪ 5৩.

হও 6৪%

৪৪৪৪৭

£৪ 8 5৬.

৪১৩৪৪৪

৪89৬.

$$৫$৫$

85 $৪$

৪ ৭ ₹

88 ত-৪

১881

টি ২
5০০৭ ত৯
ই ৩২
ই ৪১.

সি | নিত

ভিজ 5হ হজ ৪&
বং + ৪৩ 5৬.
€ ৪৪৪8 ৫৯
বত ৫88. ৫৩
5৪৪8৪ ৫৫

৪98৪ ্ ৫ রর







১০৯২ সন

2 টু ্‌
৮ ই নির্ঘট লি
7 প্রকরণ ৪5৪০৪, 2২5৭ ৫৪৯০
__ ্ীরুফণ নন্দকে জ্ঞানযোগ কন ও বিশ্বূপ দেখান
নন্দ বিদ্য় ৪৪5) ৮5৪৭৪ ০৯০৩

উগ্রসেনের রাজ্য প্রাণ্তি ২২:০২:০৯
_রোহিণী আঁদিকে আনয়ন রামকৃষ্ণের উন
বঁমকুষের অধ্যয়নার্থে অবন্তী নগরে গমন.***

1

গুরুদক্ষিণ] বিবর্ণ ৬৩৪৪৪ 8৪৪৩৪

৮15 বধাধ কৃষ্ণের সমুদ্রে ভ্রেবেশ
শুরুপুত্রার্থ কুষের সত্যণনীপুরে গমন. ****৭

গুরুদক্ষিণা দিয়া রাঁমকৃষ্তের মথুর| গমন

সিকি

দেবকীর মৃত পুত্রের আনয়ন ও নির্যান

_ শ্রীকৃফের ব্রজ বিরহ রা



উদ্ধবের বৃন্দাৰ বন গমন 5১৪৯ দু ১ ০5,
ই ভ্রীমতীর সহিত বের াক্ষাৎ ও কথা *+,৭৭ হত
_.__. উদ্ধবের প্রতি প্রীমতীর কথোপকথন. **০* ০১৯
জ্রীমতীর বচনে উদ্ধবের উত্তর 2

উদ্ধবের কথায় শ্রীমভীর তত্র 4৮১৫ শত
_ উদ্ধবের-ননকালয়-গনল--₹০৮- 2৮৮৭

উদ্ধর কুষ্ণ সংবাদ দিয়! নন্বকে সান্ত্বনা! করেন

উদ্ধব কৃষ্ণ নিকটে ব্রজের সংবাদ কহেন *০,*০ 5৫৯০৭


. কুরুজ। কর্তৃক আীকৃফের প্রতি অলক্ষে স্তব ***** ০০০
.. কুরুজা গুঁহে শ্রীকৃষ্ণের গমন ৭৪৪০৮ ২5৪
ক্ুজ্জার পুর্র্ব জন্ম বিবরণে রামায়ণ ৃসতান্ত ... দি
_ সুর্গনখার খেদ ও রামপ্রাপ্তার্থে রা কামনা করিয়।
প্রাণ পরিত্যাগ ১১ টা

- কুব্ডা রাণী হইলে মথুর1 বাঁসিনীর কথ
.. জ্রীরাধার শ্রীকৃষ্ণের বিরহ বিলাপ



১২৩.




তু টু দির্ঘটপ পত্র রি
নু জন রি তি ২৬৪০৬ নু সত

শ্রীমতী গু মরিয়া বিলাপ করেন টি রে রঃ দি রি

শ্রীকুক্গুণ- কথনে কৃ্ণকাঁলী বৃত্তান্ত
. কলহ ভগ্ন বৃত্তান্ত -- *
ও নৌকাপাঁর, বৃত্তান্ত লু
মান কালের-বৃভান্ত -:--

্ | কৃষ্ণের নাপিতিনীর বেশ বৃত্তান্ত

. কুষ্ণের বিদ্েশিনীর বেশ বৃত্তান্ত

কষ্টের বিদেশিনী বেশে কপট পরিচয় 25৮

কৃষ্ণের যোঁগীবেশ বৃত্তান্ত রে
. জটল! কুটলার সহিত দি কথার রান
ভ্রীমতীকে ডি দ্রিতে জটিলীর আদেশ **;

টু জদ্ী টি কথাতে মান তঙ্ঈ

টি ই ীনাপ্ডে গুন প্মলনেয়। কথ! ক্সর্ণ

নী মরণে প্রীমতীর রোদন
করানের কথ| আবণে রোদন

টু অহারাঁমের কথ। স্মরণে রৌদন
বধিকা আপন রাঁজবেশ ্মরণে রৌদিন

জ্ীমতীর কুক অন... **
উমবতঃ জীটিতী ক রহ ভারে পতিতা হন,

গভীর নিবানে স্বপ্ন রে উল রা

০ প্রবল উজ 3 উল

১২১৩2

85552





ুন্দা কৃষ্তকে আনিবার বিবরণ কহেন. *****

অধুরা গমনার্থ বৃন্দাদি সখীর সম্মিলন. ২,

সুন্দা ভ্রীমতীকে পুনঃ প্রবোঁধ করেন. ০০০,

জ্রীমতীকে কুপ্তে রাখিয়া রব দখীর দুপুরে যাঁত্া
দির মধুপুরে মন. - *** হত তত,

মতান্তরে অখী কর্তৃক, অলক্ষে শীষের স্তর
রর ক্ঞ্চের নগর ভ্রমণে উদ 5৪৪ ৪৭. ৮555৪



্ উল সখীগণের কৃষ্ণ দর্শন 2২8৪৬

জখীগণের সহিত কষে মিল কহ
২. প্রতাসেরযতে দখীগণের কৃষ্ঞান্বেষণ . ** ০৮৭ ০৯৮
মস 1 নাগিরীর সহিত রূন্দাদির কথা :**৮** ৯২৫০৯
২ আন্তর্যামি কৃ সখীদের আগমন জানিক়া! সা বারদেন ই
২ তু [দির রূপ দর্শানে সভাসদীঁণ চমৎকুত ও কুব্জী! বাঁকা রহিত



ভিতর
২৪৪
হর

ই৫৩



জ্জ্চিতাঁর উক্তি নি

এ দ্বিজর উপাখ্যান... *****৭।

25925235

ইনদুবীর উতি ০০,

টি ২ দেবীর উক্তি
২. উক্দ্রাঁলার উক্তি নি

ু সুনীতি প্রিয়ার উত্ভি_ :. * ***
_ বিশাখাঁর উক্তি ০৭০5

_ জলিভার উক্তি ই রি

বে বুন্দার উক্তি...
ই আক্ষেপোভি 2. ,১+৯।
আরুষ্ের উক্তি...

রা সদা বু দা বনের অবস্থা রন

৪৪৩৫৩

9২৪5
$6 ০৪9.
২৪৪৪
৪8৪৪৪
১

চি ৩:৫৬

৩৫:৪6.

২88 88%৪

% 59659.

22
তি কও ্‌ নু |
২৬৮
ডি
২৭৩ রর টু
টি টু
২৮২.



৩ নিরকি মা...
২ প্রকরণ ও 52855: ৭৬০০ 888৫6 তি তি
২ ভীমভীকে বৃদ্দার আশ্বীস. 2272 উন লই

ক্ষুষ্চের নগর ভ্রমণে যা



নির্ঘন্ট প্র |.

প্রকরণ. **১৭১ ২৪৪৫৪

6.8 9৪

যশোদার দুঃখ বনি 2525
ঞ্রীনন্দের রোদন বর্ণন, টি

প্রীদামাদি নখাঁগণের দুর্দশা বর্ণন

৫৬০৩৩

গোবৎসাদির ছুঙখ বর্ণন

শ্রীমতী রাঁধাঁর ছুহখ বর্ণন ***** ৮৪.
শ্রীমতীর দশাশ্রবণে র্লুষণের রোদন ও রা পরবোধ
রীকূঞ্ষের ব্রজগমনার্থ নিবেদন ও আশ্বাস

বড়াঁইর সহিত কৃষ্ণের সাক্ষাৎ ***** ৭৩
কুষ্ণ সখী দিগকে ব্রজবেশ দেখান ও বাঁশী অর্পণ

বৃন্বাদি সখীর কু্ণ বাঁশী লইয়া ত্রজে আগমন
বাঁশী প্রাপ্ডে সে সময়ে তাঁৰতের তাপ শান্তি

রাঁজা জরাসদ্ধের ক্রোধ ***** হি
জরাসন্ধের যুদ্ধে যাত্রা ****** তে
কৃষ্ণ বলরাঁমের সহিত যুদ্ধ *** লন
জরসন্ধের পুনঃ যুদ্ধে আগমন তি
কৃষ্ণের দ্বারিকায়। পরিবার স্থাপন... ****..

ভগ জজ

5৪:৪8 ৫.৩
% ৬:৪৬:
উকি

৪৪৫৩

৯৪৪৩৪

৪৩:৬:৫-.

্ ৪৪৪৯

কাল যব্ন্‌ খু 96 | ক

রাজ মুচুকুন্দের মুক্ত ৪৪৬০৯ ৮55৪৪ 5৪
জরাসন্ধের মখুরায় পুনরাগমন ও রাঁম কৃষ্ণের দ্বারিক! গমন

নির্ঘণ্ট পত্র সম্পুর্ণ।





































[]
যা | সা
1
]



রা



11119





রা ॥














পুণবন্ধ শরীর বন্দনা ।

ত্রিপদী। নসোনিতা নিরঞ্তন্‌, পুর্ণব্রহ্ম পরাত্মন্, সতা সনাঁ-
তন সর্ধদাীধার। ন্বপ্রাকাঁশ সভায়, নিখিল কারণালয়, নিরীহ:
নির্ভণ নির্বিকার | গুণের নাঁহিক শেষ, নির্তণের গুণাবেশ। মে শেষ
করিতে কেবা পাঁরে। ভক্তের কার্ষোর হেতু বান্ধিয়। গুণের. সেতু
নিরাঁকাঁর রিদিত- সাঁকারে 1 গেলোক বিহারি শ্যাঁম। বামে রাখী
্রা্থানাম, যুগ্ম রূপ অপুর্ব দর্মন | রূন্দাবনে অবভরি, নিতা নক
লীলাকরি, রসে পুর্ণ কৈলে ভ্রিভূবন | তোমার চরিত্র চয্ সুখাজিনি,
জুধাদয়, পানে হুয় তব ুধানাশ। সর্ধশান্ত্রে এই গায়, যেই তব
গুণ গায়, যাঁয় তাঁর শমনের ত্রাঁশ ॥ কিবা মুর্তি মনোহর, তরিভক্রিস
নটবর, অধরেতে মুরলী ফৌজন ৷ চূড়া পরে শিখি প্রচ্ছ, কিবা উজ
জুন্দর গুচ্ছ, হেরে তুচ্ছ হয় জিভুবন ॥ কর্ণেতে কুণডল দোলে বেন
নবঘন কোলে; চলার গমন চঞ্চল ।-: বচনে মধুর হাঁদ, করে-করে ;
তো, নাশ, ক্টেত কৌন্তত সমুজবল 11 অধিকন্ত উপহার, সণ, মুক্তা
বহার, বনফুল হার তার পরে । ভূগুপদ লক্ষ বন্গ” কিছিণী বেক্টিত-
কক্ষ, কেমুর বলয় শৌে করে | কটাক্ষে কঙ্জল খরা, লীতপউ
বন্ত্র পরা, চরণে লুপুর মনোহর । অরুণ চরণ তল, পদ পুষ্ট মেঘ
দল, নখরে নিকর শঙ্মধর 1 অকলে-সরল কাঁয়, স্বতেজেতে: শোভা,
পায়, প্র কেবল, চরনের ভাঁব | চরণ-অবশ্রয় করি, মেঘবিধু সবিতরিঃ
বিহীন ইইল-ছেষ ভাব ॥ : নিজনিভা কাঁদি, অঙ্গ আধা, বিপি
খনি” গেঁজজিনী: বামে সুশৌভিত। যুগল কূপের ছটা, কিবা
মলেোহর ঘটা, হনন্বট। ভিত জড়িত শিশুকরে ভিবৈদন, আশু.
প্রভু নিরঞ্টন, এউ ক পন হদে আঁসি। দিদি ।নদান। শুনহ্‌
আগপনদীলঃম্াজ মতে হখশক্ভি ভীম 13. 2




নমো দেব দেব শিব বুষভ-বাহন) ভরিনেতর জিশুল ধারি ত্িগুর
_ক্বাতন।। ত্রিপুরের অধীম্বর ্রিপৃরাঁর পতি। ব্রিতাঁপ বাঁরক বিভু
ভ্রিলোৌঁকের গতি ৷ জটাজুট মন্তকে মুকুট মনোহর । কণিফণ!

১... জ্ুশৌভিত তাঁহার উপর ॥ উপবীত ফণিহার কটি বেড়া ফণি।,
1. কনিমন্ধ আতরণ তণি ণিরোষনি | কণিমনি বিভূষণে সমুক্ছুল কায়।
সা ঘনীবীর মনোপধান্ত দুরে যাক 0--নির্দিযারজত-গ্বিরি নিতাঁ কলে
২. বরে। অধিক উজ্জ্বল করে বিভূতির করে ব্যান্র চর্মা পরিধান.
আসন ভাহাই। ছুই ক্োোড়ে ছুই শিশু কীর্তক্ষ গ্রণাই॥। বাদে
১ বানা গিরিবাজা শোভাকরে কত। চতুর্ভিতে স্তুতি করে অমরে
|... নিয়ত।॥ শ্ীর্কাণ গণেশ গিরি গিরিজার পতি। আদি অন্ত বির"
নু হিত অগতির গতি |. ভুতেশ ভূতেশ ঈশ দেবেশ মহেশ। বিশ্বনাথ
ক বিশ্বভাত টি বিশেষ || : বিশ্বময় -বিদ্বকায় বিশ নিকেতন
ভ বিশ্রী তি ব্রিশ্র-ভিজে তন আর্রীজজ হৃষীদে, রিট
দু দিতেন হা গতি বিভব নিওস্বের 1. নিশুস্ত নাঁশিনীনাঁথ: |
নিস্তার কাঁরক। -পতিতপাবর প্রভু গ্রণত গাঁলক || পরমেশ পরি-
2 গেষকে কহিবে তব । তোঁসাঁর আশ্রয় নিলে তরে ভব ভব )। ভুমি. ূ
জার মুলাখার অসার সংসাঁরে।-তোঁমাঁর ভজনে যুক্তি উক্তি তন্্রসারে |.
২ দেবতীর কল্পীতরু তুনি দয়াময়। কাঁমনামাত্রেতে জীব ফল প্রাপ্ত
হয়| কামন! একান্ত মনে করি নিবেদন। শীন্রমতে কৃষগ্তণ করিতে
2 কীর্ভন ॥ নিজে নুর্খ ভুল্মভাঁব ন1 পাই সন্ধান। দীনের দেহেতে
দহ জ্ঞানরৃত্তি দান || আশুতোষ কণ্টে দ্ধ করাও র্ণন | কপার

দু শিশুর কর কাঁমন। পুরণ |











দেব দেব মহাদেব বন্দন।।

হয় | কাঁমন! একান্ত মনে করি নিবেদন । শীত্্রমভে ক্কগুণ করিতে

কীর্তন ॥ নিজে সুখ কুল্মভাঁব ন। পণই সন্ধান | দীনের দেহেতে
দেহ জ্ঞীনরৃত্তি দান।. আশুতোষ কণ্ঠে বান করাও বন | কগয
শিশুর ক্র কাম্মন। পুরণ || সর





চূ ই)
কুর্য্যদের বন্দনা ।

লু ভ্রিপদী। নমো দিবাকর» প্রন্ভীর আকরঃ তমোহর তেজৌ"
ময় । ব্রদ্ধ পরাৎপর, পরম ইশ্বর, প্রধান শাস্ত্রেভে কয় ॥ তোমা

মহিমা, জগতে অনীমা, সে সীম! কেমনে হবে । বিধি পঞ্চানন,
ইতে ক্ষম নন, অন্যের 1ক সাঁধ্য কৰে 1 সংসীরের সারি, সর্ঝ্ মুলা
খাঁর, তেজোঁধাঁর চক্ষুরূপ 1 মগ্ডলে তোমার, যত দেবতার” অধিবাঁসি
বিশ্বরূপ | বিশ্বের কীরণ, বিশ্বের জীবন, বিশ্ব বিমোহিন তৃষি । সর্ব
গা কু সি সর্বময় টে দেবাশ্রয় ভূমি | বা জি নয

পঞ্চত্ব নও | জীব ছাঁড়ে দেহ, তুমি বাঁও গেহ, মিশাও পঞ্চেতে
পঞ্চ পঞ্চে গিয়া রও যেন কেহ নও, কে বুঝে তব প্রপঞ্চ ৷
ভোঁমাঁর মহত্ব, কে জীঁনিবে তত্ব, অনন্তশকতি ধর। এচারি প্রহরে,
জমি উরীচরেন স্বকরে প্রদীপ্ত কর | প্রকাশিয়! কর, তরু শুক্ক কর,
শুকাঁও সাগর জল হেন খর কৈ) লাঁনন্দে বিহরে প্রফুল নলিনী
পল || এভাবে বুঝায়, ষে তজে তোশায়, তাবে কর দয়া দান অর.
প্রতীপে, নাঁশে। তার তাপে, দয়াময় ভগবান ।। তোমার চরণে,
লকেছি শরণে, শুন প্রভূ নিবেদন। মনের বাসনা, করিতে রচনা,
শরীকুষ্ণ গুণ কীর্তন ॥ দেহ বরদাঁন, করহ কল্যাণ, নিরাপদে যেন
হয়। কৃষে শুত্তি হয়, তব স্থুত ভয়, অন্তে যেন নাহি রয় | কফ.

ভক্তি খন, অসুল্য রতন, দেহ হে পদ্মিনীকান্ত। শিশুরাম দাঁসে,
ননের উল্লানে, যাচয়ে ঘুচায়ে ভ্রান্ত ॥






ঠ€





( ৪ )

গ্রন্থকীরের বিবরণ ।


পয়ার। পৃথিবীতে নবদ্বীপ ত্রিদিব সমান। যথায় গোরা
রতি শি তগবাঁন।। ফুলে বেলগড়ে নাঁমে অন্তপাঁতি তাঁর। ন্ুবি-
খ্যাত সর্বলোৌকে আম মধ্যে ' 'সার। ্রাঙ্গণে কহিল শ্রেষ্ঠ বসতি
যথায়। ব্রাঙ্মণের ধর্ম কথা-কাঁর-সাঁধা গীয়|| এক দ্বিজরাঁজ করে
গগনে বিরাজ | বেলগড়ে গ্রাম-দ্বিজরাঁজের সমাজ || তথ! বাঁস
টা রস আবীর, ভব চল রি গুণ ধীর



তি ॥ চি না অর্ক ধর। ডি প্রাণরুষ্
তে তৎপর ॥॥ কনা! সি অয়ামণি অভি রঃ সতী। স্বরূপ
ইত রানির তি দড় | মধ্যমেতে: দি গুণ
নয়। দেব দ্বিজ বৈষবেতে তভ্তি অতিশয় || শ্রীরাধাচরণ নাষে
ভূতীয় তনয়,। সুলেখক যাঁর সম দুষ্টি নাহি হয় দয়াবন্ত



রক শিশুরা দন হি সন্তানেতে হই নিরাশ 1
ব্জ গোপী নারী সহ ভাবিয়। উপায়। সন্ত্রগা করিয়া মনে কৃষ্ণগুণ
খায় ॥ শাস্্রমতে কৃষ্, কথা। ব্যাস বিরচিত। শিশুরাম তাষাজ্ছন্দে

ভাষে সে চরিত

₹০০7৮৫০৫৮






পভাম খওড।


দ্বিতীয় ভাগ

]



কবণায়, বাস্থদেবার দেবকীনন্দনাঁয় চ 1.7
নন্দগোপ কুমারাস় গৌঁবিন্দায় নমোনগঃ |

পয়ার। মহাঁপুরাণীর শ্লোক মহারত্রসাঁর | সঞ্চয় করিয়া অঞ্ে
অর্থের বিস্তার ॥ মুল শান্ত্রমতে যাহা বিশেষ বর্ণন।-স্কুল-সক্ ছুই
অর্থে করহ শ্রবণ | ই এ

স্থুলার্থ |

পয়ার ৷ কৃষ্ণ বান্ছুদেব দেব-এেরকীনন্দন। নন্দগেরপ কুমার
গোবিন্দ সনাতন ॥ জ্ঞান ভক্তি হীন আঁনি বল কিসে তরি 1 প্রণাম

তোঁসাঁর পদে বাঁর বাঁর করি। তা ৪

জুল্গনার্থ।

পর়্ার। কুষ্াদি নামার্থে জান সর্ভূত আত্মা পরব্রক্ম গ্রবা-
চক নিশ্চিত পরাত্মা | প্রমাণ বিশিষ্ট তার কর দরশন। বিস্তার
করিয়া লিখি মুলের বচন।|

১33 ৩ - যথা । ্‌ ্‌

' ব্রহ্মণো বাচকঃকোয় মৃুকারোনন্ত বাচকঃ।

শিবন্য বাঁচকঃ ষশ্চ ণকারো ধর্মাবাচিকঃ 1





১৬ প্রভানখপণ্ড ।

কির 1

পয়ীর । ক কাঁরেতে, করে ব্রহ্ম ছি প্রভা খ কাঁর বাঁচকাঁ-
নন্ত বিষ বিশ্বৃমন্» | শ কাঁর বাঁচক শিব গুরু দ্েবতার। ৭ কার
বাঁচক ধর্লা দেবতার সাঁর ॥ কৃষ্ণনাঁম এই চতুষ্টয়াক্ষর যুক্ত । ুর্ণরক্ষ

কুষ্চনতর সর্ববশান্্র উক্ত ॥ অতএব কুষ্ণপদে- করি নমস্কার । বান্ছু-
দেব নামের শুনহ অর্থ সার রি

বাসুদেবঃ| ্‌
যথা । সত্বং বিশুদ্ধং বাতুদেব শব্দিত মিতি |

পয়র। বিশুদ্ধিত, সত্বরূপ, বাস্িদেব তিনি € গ্রলয়েতে সবাকার
বাসস্থান যিনি ॥ দেব দেব বাসুদেব দেব গ্রীনিবাঁস। ব্রহ্মা সহ
বাঁরত জীবের যাঁতে বাঁস ॥ যাহার দীস্তিতে দীপ্ত জগত সং দার
বাজুদেৰ পরব্রঙ্ষে করি নমস্কার || ূ

দেবকীননদনঃ |

প্য়ার, রী এ পদে শুন অর্থসার। শীয়াতে, আনন

্ 52৮ ১৮৮৫

্‌ রবিশেষণে, শীন্ত্েতে বিদিত। মায়ার
আনাম দেরি নিশ্চিত ॥ ষাহাঁর দীপ্ডিতে দীপামান ব্িভূুবন।

বলি দেবরূপিণী তাহার বিশেষণ | সে মীয়াতে দেন যিনি আনন্দ
বিধান | দেবকীনন্দন বলি তাহার আখ্যান ॥ দেবকীন্ন্দন গদে
করি লমস্কার | নন্দগোপকুমারের শুন অর্থনার |



নন্দগোপকুমার।

পয়ার। নদ্দগোঁপকুমারাখ্য পরমাতসা হন । নন্দ শব্দে আনন্দ
শন্ত্রেতে নিরূপণ গৌপ্‌ শব্ধ অর্থ সেই অনর্থ সে নয়। বিশেষিয়া
সার অর্থ শুন সমুদয়).





শন

ভা

বথ | গাং পাঁলয়তি ইতি ।

পয়ার। গো শবেতে নংনাঅর্থ সর্বশান্তে ধ্বনি । তদথে জগত
বলি গো শব্দের শণি।॥ জগতের রক্ষা ষিনি করেন নিশ্চয় 1 গোপ্‌

বলি তার নাম ভ্টতিগণে কয়॥ কুমাঁর বলিয়া শাস্ত্রে বন তাহা র।
অবস্থার পরিক্ষয় কভু নাহি যাঁর। সর্বদা সমান তাৰ কিশোর
আকাঁর। নন্দগোঁপ কুমাঁরেরে করি নমস্কার |

গাবিন্দঃ পদে ।

পয়ার। গোবিন্দ শঁকেতে, জা স্তন জুবিস্চয় | শান্ত্রমতে মুনি
শণে যে রূপে বর্ণ |

গাঁং বিন্দতি ইতি গোবিন্দ |

পয়ার। গো শৰেতে সুর্য তেজ জাঁনিবে বিশেষ | কুর্্য সপ্তু-
লেতে যিনি খাঁকিয়া প্রবেশ | করেন তেজের বৃদ্ধি নিজ তেজ
দানে । গোবিন্দ বলিয়া তাঁরে শান্ত্রেতে বাঁখাঁনে ॥ অন্য অর্থ শুন
কিছ গোবিন্দ নামের |, গোঁ এক পণ্ড খ্যাত ব্যাপ্ত জগতের
জগতে নিবাস করে বত জীবন 1 আজ, আ বূপে বৃদ্ধি সদা; করন
ধেউন এমন গোবিন্দদেব পরব্রহ্ম হবি । তোমার চরণে ভয়
নমস্কীর করি ॥ শিশুরাম দাসে ভাঁষে মনের উল্লাসে । কফভক্তি

র্‌সে যেন সদ] মন ভাসে |


















প্রস্থ রস্ত০।


পয়ার। নিরু্ত তত্বক-শুকদেব মহাঁযুনি |: কর্ণতরি কৃষ্ত কথা
ব্যাস. মুখে শুনি ॥. পুনঃ পুনঃ শুনিরাঁরে তৃষা বাঁড়ে তার |. পুনশ্চ
শুধান শুক নিকটে পিতার ॥ কহ কহ মহাশয় কথা: স্ুখাঁধার-7
শ্রবণে শ্রবণ ক্পৃহা নহে অবহাঁর ।॥- শ্রীকৃষ্ণের লীলা যাহা করিলে
বর্ণন। রাধার গোৌলকগ্রতি.. অপুর্ব্ব কথন |. গুর্ণ ব্রহ্মা কুষঃচকর
ছুইতন্থ হয়ে। গোলোকে বঞ্চেন-আঁর-বৈকুঠ নিলয়ে || কার্যক্রমে
পৃথিবীতে হয়ে অবতার । ভুইতন্থ পুনর্কাঁর হুন একাকার॥ ব্রজধামে
কিছু দিন করিয়া রঞ্চন। হইঙলন পুনরায় দ্বিতাগ্র যখন।॥ অক্ষ
রহেন ব্রজে না জাঁনিল ক্ে। মধুর গেজেন হরি প্রকাশিত দেহ
্ীকুষ্ বিরহাঁনলে বিদগ্ধ হইয়া। বঞ্চিলেন বাঁধা সতী-কি-ব্ূপ
করিয়া ॥ আঁর যত ব্রজবানী গ্রীকুষ্ণ অভাবে ব্রজধামে- বহিখলেন
কেরা কৌন ভাঁবে ॥ মধুরাঁনগরে ক্ষণ করিয়া গমন কি ূগেতে
কোন কার্ষ্য করেন সাধন! বিজ্তারির] কহ কুষ্ণলীলার তদন্ত ।
মধুর অবধি আর প্রভাঁন পর্য্যন্ত ॥ ভাগকতে সার তা: করেছ
বর্ণন |. লীলা কথ| বহু তথা আছয়ে বর্জন | লীলা সহ.সমুদায়.কই
বিশেষিয়া। অধীন দীনের প্রতি, সদয় হইয়া।| এত যদি কহিলেন
শুক মহাশয় । শুনি মুনি ব্যাসদেব সানন্দ হৃদয় ॥ শুকেরে প্রশংসা
করি কহেন তখন। মধুর অবধি কুষ্ণলীলার কথন. সংস্কতে
গ্রকাশেন মহামুনি বাস । শিশুআঁশু ভাষা চ্ছন্দে ভাঁষে সেই ভাস.






২৩.

প্রভাসখণ্ড।

ৃ মাঁধুর [তি
অর্থাৎ শ্রীকৃঞ্ণের মথুর! লীল! |

- দীর্ঘ-ত্রিপদী। বাস কন শুক শুন, হয়ে অতি জ্ুনিপুণ, কৃষ্ণ
কথা অন্থৃতের ধার। কর্ণাঞ্জলি ভরিপাঁন, করিলে জড়ায় প্রাণ,
ভবে জন্ম নাহি হয় আর ॥ অবিশ্ীন্ত অবিরত, কব কুষ্জ কথ।
যত, প্রথমত শুনহ মাথুর। কংস নামে মহীক্ুর, নিবসে মথুরাঁপুর,
বাঁছুবলে জয়ী তিন পুর ॥ ইন্দ্র ঘম ভুতাঁশন, যাঁর ভয়ে শ্হির নূন;
প্রতাপে তপনতাপ ক্ষীণ। বলে বলি দর্পহর, কলি জিনি কলেবর,
পাঁপকর্দে অতি স্ুপ্রবীণ | বিষম বিষয়ে মত্ত হুরে লয় পর স্বত্ব,
পরবিভ্ত দেখে আপনার । দারুণ ভুর্জয় দাঁপে, পদীঘাঁতে খরা

কাঁপে, কার সাধ্য কাঁছে যায় তার ॥ সর্বদা অধর্না কর্পা, খার্টি-

কের খসে ধর্ম” মর্লে ব্যথা দেয় সাধুজনে। বড়ই প্রথরতর,
ভয়ে কাঁপে চরাঁচর, কংস নাষ শুনিলে শ্রবণে।। ম্হাপাপী ছুরা-
চার হিংসা করে অনিবাঁরঃ দেব ছ্বিজ বৈষ্বে নামানে। করি

বভ্‌ মহাপাপ, টদবাধীন পাঁয় তাপ, দৈববাণী শুনে নিজক্কাঁণে



দেবকীর গর্ভাষ্উম্ঠেং ম্সিবেকংযের.বম* তার হস্তে হইবে নিধন ।
গুনিয়া আকাশ ই ন্ফায সি শত্ত্রপানি, ভগিনীরে করিতে
চ্ছেদন॥ বস্ুদেব ছিল তথা, বুঝাঁয়ে অনেক কথা, সত্যকরি
কহিলেক বাণী। দেবকীর গর্ভযুত, কিবা জুতা কিব! স্থৃত, জন্ম
মাত্রে কংসে দিবে আনি || শুনি কহস ক্ষান্ত হয়ে, প্রবেশিল নিজ
লয়ে, ন্েছে রাখি ভগ্মীর জীবন । কিন্তু অতি ভীত হয়ে, নিজ মন্ত্ী-
গণে লয়ে, মন্ত্রণা করিয়া সর্বক্ষণ ॥ দেবকীর গর্ভঁজাত, কিবা

আট কিব! সাত, প্রথম দ্বিতীয় নাহি মানে । জন্ম মাত্রে শিশু

আনি, পাঁষাণ উপরে হানি, নাঁশে দুষ্ট সকল সন্তাঁনে | দৈব হল

বলবাঁন, কংসের নাঁসিতে প্রাণ, কৃষ্ণ জন্ম অস্টমে হইল বস্থুদেব
রুষে সিয়া» নন্দের নিলয় দিয়া; কন্যা আনি পুজে তাঁগাইল ||






দ্বিতীয় ভাগ। হ3

নন্রন্তুত: সমাচার” পুর্বেভে বলেছি: সার” যমজ জনম যে বিধান ।
পুত্রে গুজে মিশাইল, কন্যাঁটিকে বন্তু নিল; আঁনি দিল দেবকীর
স্থান || কন্যা হৈল দেবকীর» জাঁনি কংস মহাবীর, ধরি কন্য]
বিনাঁশিতে যাঁয়। সে কন্যা সাঁমান্যা নয়ঃ কেমনে করিতে, ক্ষয়”
হাঁতে হৈতে উদ্দে উঠি ধায়||. কন, হাতে উত্তরিয়া» গ্রগণে
উঠিয়া গিয়া, অইভূজা হইলেন কালী। ক্রৌধেতে পুরিল যন?
তর্জন করিয়া কন, উচ্চৈঃস্বরে কংসে দিয় গাঁলি।। ওরেরে
পাঁপিষ্ট কংস, আমারে করিৰি ধ্বংস, অহঙ্কারে না দেখ নয়নে।
তোঁগাঁরে বখিবে যেই, খৌকুলে বাঁড়িছে সেই, তারে নষ্ট করিকে
কেমনে ॥ ক্রোঁধভরে ইহাঁবলি, বিদ্ধাঁচলে যাঁন চলি, মহাকাঁলী
অলক্ষে অমনি || ব্রচ্মা দেবরৃন্দ নিয়া, দেবীরে গ্ুজেন গিয়া?
স্ততি বাক্যে দিয়া জয়ধ্বনি । এখানে পাঁপিষ্ঠ কংস, জানিল আপন.
ধংস. দেবীমুখে শুনি সমীচাঁর। তয় পেয়ে নিজ মনেও ভাঁকি নিজ
মক্জ্রীগণে, মন্ত্রণা করয়ে পুনর্বার || অনেক মক্্রণা করিঃ বিনাঁশিতে
নিজ অরি, নিশাচরী পুতনাকে বলে। কংসের আদেশ পরায়”
পুতনা সম্রমে ধায়, অবিলম্বে, গৌঁকুলেতে চলে ।! ছল করি সে
তনা, করিয়া গুতনাপপা, বিষস্তন কৃষ্মুখে দিল।- যেই হরি
বিশ্বীধার, বিষে কি করিবে তার, নিজ পাঁপে গ্ুতন। মরিল || পতন
নে ধংস, শুনিয়া ভুব্বার কংস, ভাকাইয়া যত বীরগণে। যুদ্ধে
রা মহামত্ত, অঘ বক তৃণাবর্ত, ক্রমেতে পাঠায় বনু জনে ॥ ষে
জন গোকুলে যায় না আইসে পুনরায়, কৃষ্ণ তাঁরে করেন সংহার |
দেখিয়া এসৰ কর্ম” তথাপি না বুঝে মর্ধ্ষ,। মোঁহের কি ধর্ম চমৎ-
কাঁর। অক্ষয় অব্যয় জনে, চেষ্টা করে বিনাশনে, নিজ মনে নাহি
করে ভয়। ডাঁকি নিজ মন্ত্রীচয়, পুনঃ রাজা জিজ্ঞাসয়। ক্রি
রূপেতে শক্র হবে ক্ষয় ॥ মন্ত্রণ! করিলে ষাহ1, বিফল হুইল তাহা, ূ
গতমাত্রে মরে কীরগণে | শিয়রে শমন সম, নন্যস্ুত টহল মম,
বল কিবা করি এইক্ষণে | এমন কে আছে শুর, একা গিয়া ব্রজপুর,
নন্দন্থুতে ৰিনীশিতে পারে। শুনি মন্ত্রীগণে কয়, তথায় পাঠান






ইহ প্রভ'সখণ্ড

নয়, অন্য বীরণণে বারে বাঁরে 11: সে শক্ত সামান্য নয় তথা গিয়!
পরাজয়, করিতে নারিবে কোঁন জন. করি কোন সভ্ূপাঁঃ এখানে
আনিয়া তীয়) মারো শক্ত আক্ষাঁতে আপন | শুন শুন মহাঁতাগ,
উপলক্ষ খুর্ধাগ; করিয়া করহ নিমন্ত্রণ শান্ত দাস্ত ভক্তিযুত,
প্রেরণ করহদুত, বৈষ্ব দেখিয়া এক জন || পত্রলেখ নন্বযোবে,
পুঁক্রসহ সসন্তোষে, আসিবেক যজ্ঞ দরশনে |: তা হইলে অনায়াসে,

আনিফা অপন বাঁসে, বধো মিলে বহু কীরগণে।॥ মান্ত্রীগণে ইহা"
কয়, শুনি কন হর্ষ হয়, বিপ্রে ডাকি যজ্ছে আদেশিয়া। অক্রুর

বৈষ্ণব: বড়) বিপদে তক্ভিদভ+ - গোকুলেতে দিল পাঠাইয়া 1!
আক্তুর ব্রজেতে গিয়া, নিমন্ত্রণ পত্র দিয়), জাঁনাইল| যজ্ঞ সমাচার
নন্দ আনন্দিত হয়ে, রাঁম কৃষ্ণ সঙ্গে লগ্ষেঃ চলিলেন'ষজ্জে মধুরাঁর ||
শুনিয়া কৃষ্ণের গতি,কুষ্ণ মাতা যশোমতীগনিষেধিল| অনেক প্রকারে
কৃষ্ণ যোগ প্রকাঁশিয়া, জননীরে বুঝাইয়1, চলিলেন যজ্ঞ দেখিবারে ॥
শুনি যত ব্রজীঞ্গনা, হইয়া উদ্ধিগ্রমনা+ শ্রীমতীকে নিয়। সঙ্গে করি ।
ত্যজি ভয় লোঁক লাজ, আসিয়া পথের মাঁজ, দাঁড়ীইল1- রথ চক্র
ধরি || ভাঁসিলা নয়ন জলে; দেখি কুষ্ সেই স্থলে, দ্বিভাগ হয়েন
ততক্ষণ।. নন্দস্থুত ব্রজে রন, কিন্তু কারু দুশ্য ননগুশ্য-রন দ্রেবকী-
নন্দন ইহণর-প্রত্তেদ কথা? নাজীনয়ে কেহ তথা, বিচ্ছেদে ব্যথিত
সর্বজন ।-- তাহা দেখি নরহরি, বসি সেই রখোঁপরি, কহিলেন
আ।শ্বীস বচন] -আঁসিব আশ্ব।স দিস!” শীন্্র রথ চালা ইয়।, মধুপুরে
চলেন তখন | - এখাঁনেতে গোপপীগণ,শৌকে মোহে সর্বজন, দেখি
তথা্ুষ্জের গমন শ্রীরাঁধার বিবরণ/পরে কব বিশেষণ, প্রীহারির
শুন সমাচার। অক্রুরের সঙ্গে গিয়া, মথুরাঁয় প্রবেশিয়া, করিলেন ্‌
যেই ব্যবহার ॥ নন্দ নিজগণ দিয়া, অগ্রে_ মধুপুরে গিয়া করেছেন

যথা অবস্থান | রাম কৃষ-তথা গিয়া, রথে হইতে উত্তরিয়া, রহি-
লেন নন্দ বিদ্যমান |. অক্র,র অগ্রেতে গিয়া, কৎসেরে-সংবাদ দিয়া,
নিজ গৃহে করেন গমন) দিবা ছৈল অরসান,-দিবাঁকর অন্ত-যান,
নিশীর হইল আগমন ।। নন্দের নিকটে - হরি, স্থুখেতে শয়ন করি,









হ্‌শু

করিলেন-যাঁম্িনী যাঁপন। প্রভাতাহইলে নিশিগপ্রকাশ পাইল, দি'শঃ
উষ্টিলেন শ্্রীমধুক্দন || শ্রীনন্দের প্রতি হরি, কহেন বিনয় করি,
শুন পিতা আমার বচন। তৃমি নিজগ্রণ নিয়া,আগ্রে পুরে প্রবেশিয়াঃ
কর গিয়া যজ্ঞ দরশন || - অধুরানগ্রর শোভা, শুনিয়াছি মনোলোভা,
আগে আমি এ শোতা দেখির। নগর দেখিয়া রঙ্গে” বলাই দাদার
সঙ্গ, তবে পুরীমধ্ো- প্রবেশিব | এত যদি কুষ্ত কনঃ শুনিনন্দ
হর্ষ মন, বলরাঁমে কুক সমর্পিয়া । লইয়া আপন.গণে, সান পুজা
সমাঁপনে, পরে পুরে গ্রবেশেন গ্িয়া॥ এ দিকেতে নরহরিঃ বলরামে
সঙ্গে করি, চলিলেন নগর ভরষণে |: শিশুরাম দাসে কয়, বচন অমিয্কা-
ময়, একমনে শুন সাঁধুজনে | ্‌

শীরুষ্কের মথুরা ভ্রমণ

পয়ীর। : রীঘক্কুফ্ণ ছুইভাই হইয়া মিলন। শ্রীদাম স্থদাঁম আদি
সহ সখাগণ | পথ বিবরণ করি চলেন যখন |. আপনারে থন্যা
মানে মখুর। তখন ॥ বন শৈল; সরোবর সহিত নগর) সঙ্জ্রমেতে
সমুদিত শৌভাঁর আকর |: শুক্কতর মু্তুরিল গ্রন্ফুটিত ফুল ।
পুজ্পগন্ধ গ্রমোঁদিত ধাঁ অলিকুল ॥ কোকিল কুহরে খত বসন্ত
উদয় 1 আনন্দে পুরিল যত জনের হৃদয়-॥. জিনিয়া অমরাঁপুরী
অথুরানগরী। দেখিতে দেখিতে ক্রমে চলেন শ্রীহরি | সবতির
পরিপাঁটা শোভা চমতকাঁর।. শ্রেণী বদ্ধ অউ্রালিকা পথের ভুধার।
দ্বারেতে কপাঁটযুক্ত হেমেতে মণ্ডিত। দর্পণে গবাক্ষদ্বীর অতি
শৌভান্বিত.।॥ :স্ফটিকের স্তস্ত সব বাঁর গৃঁহেসাজে| মুকুতার জাল"
মালা তাহীতে বিরাঁজে |. কোন কোন বারগৃহে পিঞ্জরেতে পক্ষ ।

শারী শুক আদি করে আছে লক্ষ লক্ষ রাধা কু রাঁম হরি ভ্গা
শিব তাঁরা। নিজ নিজ স্বরে: স্থুখে উচ্টারিছে তারা || প্রুরীর
বাহিরে গুণ/কুষ্ত আজ্রণার।.. প্রতি পুরে দেবগুছে মঙ্গল আচার
কারবধু বারদিয়া বসিয়া ন্ববাঁরে। : ভূলায় যুবকজনে মু মন্দহাসে ॥





২৪. গ্রভাসখগ্ড

কি আশ্চর্য্য মোহনিয়া কটাক্ষ সন্ধান | দুফ়িষাঁত্র মুগ্ধ করে পুরু
বের প্রাথ॥ আপথির মধ্যেতে- বিপণি সারি সারি। বসিয়াছে
নাঁনা ভ্রবা লইয়া-প্ারি ॥ নানাবিধ খাদ্য আঁর নানা উপহার!
নানাবিধ শোভনীয় বস্ত্র অলঙ্কার ॥ দেখিয়।-এ সব পথে যান
নরহরি | কৃষ্ণ আগমন বার্তা পাইজ নাঁগরী | খাইল -রম্ণীগণ
কু্*দরশনে | ত্যজিয়। কুলের ভয়-কুলবতি জনে 1॥- ছুঁটিল বারণ
মন'না মানে বারণ । গৃহ ধন পরিহরি ধায় রামাথণ | কোন
নারী পুত্রমুখে দিতে ছিল স্তন। প্রুজ্রে ছাঁড়ি তাডাঁতাড়ি ধীয় তত-
ক্ষণ। কেহ কেহকান্ত কাছে আছিল বনিয়1। -কান্তে ছাঁড়ি গথ্-
প্রান্তে চলিল ধাইয় ॥ কেহ কেহ নিজ অজগবেশে যুক্ত ছিল!

০বশভূষ। পরিহরি অমনি ধাইল।) একাঁন্সেতে আঁভরণ কেহ পরি-
যাছে। কেহবা অগ্রন এক চক্ষে অর্পিয়াছে॥ কেহবা নুপুর
নিজপদে দিতেছিল। একপদে দিয়ামাত্র আর না হইল ॥ কেহবা
আপন কেশ বেশে যুক্ত ছিল ( বিউনি দর্পণ হাতে অমনি ধাইল ॥
মুক্ত কেশে উদ্ধম্বীসে ধায় -নর্করজন।- আখিভরি ক্ুষ্তবূপ করে
দরশন.] মদনমোহন: মুর্তি হেরি গ্রীহরির। মদনে মোহিল বত
রমণী শরীর |. কি নবীনা কি প্রবীণা মোহে- সর্বজন ব্রজাঙ্গন!
খণেরে, করতে গেশহসক ডানার ও ধন্য ব্রজের নাগরী |
আহুনি শি এইব্ূপ দেখে আথিভরর 41. শুভক্ষণে-সে- অবারে-নির"

মিল বিখি |: যাঁদের হয়েন রা হৃদয়ের নিধি ॥ এইবূপে প্রশৎস!
করয়ে'জনে জন | কৃষ্ণ অঙ্গে করে ঘন পুজ্প বরিষণ।॥ : হুলুঙ্ধনি
শঙ্খনাদ করে রামাগণ। প্ুরুষেতে হরিধনি করে সর্বজন ॥ এক-
€পতে করে তথা মঙ্গল আঁচাঁর। দ্েখিয়| চলেন হরি হরিষ আপার ॥
বাইতে যাইতে পথে বিচারেন মনে । যাইতে হইবে শীন্র রাজার
'সদনে || যশোদা নির্মিত এই যে'বেশ আগার... সাত্বিক গণের
হয় হৃদয়ের সার ॥ রাজার নিকটে রাঁজবেশে হয়ে মান। রাঁজবেশে
ষেতে হুবে বাজ বিদামান | রাজীর-বসন আমি-পাই কোন স্থান ।
ভাবিতে ভাবিতে- হরি ধীরে ধীরে যান | এমন সময়ে পথে রজক






গুভামখ ও | ১ হি

রাঁজার। . বাঁজবস্ত্র লয়ে ষাঁয় বাঁটাতে রাজার ॥-তাহা দেখি হর-
ফিত হয়ে অতি মনে । শিশু কহে কন হরি'রজকে যতনে |

শ্রীকৃষ্ণ রজককে বধ করেন

শুনহে রজকরাজ বস্ত্র গুভ্রকাঁরি। দিতে. পার আমা ক্রোহে.
বন্ত্রখানি চারি || ছুটি ভাই নাঁগ ধরি কানাই বলাই। -বনালয়ে
বাস করি বস্ত্র তাঁল নাই।| রাজার সতাঁয় যাঁব হেরিব রাজন।
মলিন চা গতি না হয় শোভন | তবদত্ত দিব্যবাসে দেহ সাজা
ইয়া। প্রফুল মানসে পুরে প্রাবেশিক গিয়া ॥। রাঁজসভা জয়ী হয়ে
বসিব যখন. গুরাইব মনোরথ তোমার. তখন. এই রূপে কু
কন করিয়া বিনয়। রুষিল রজকজাঁতি রুক্ষ অতিশয় | রাজার
রজক বলি আছে অহস্কার। তাহাতে হইল আসি ক্রোধ অলঙ্কার |
হেলে. ভুলে চলে আর বলে কুবচন ্ি কভু নাহি জানি তোরা
কোথাকার জন্য।| কোন জাতি কোথা ঘর কোঁন ব্যবসীঁয়। হবে
বুঝ্ধি-গোঁপজ$তি_ লক্ষণে জানায় গোঁয়াল| হইয়া বাঞ্ত রাজার
বসন। পঙ্গু হয়ে ইচ্ছাকর: পর্বত লঙ্ঘন 1 বামন হইয়া উক্ত,
চাঁহ ধরিবারে | সর্পের বদনে হস্ত দেহ অরিবাঁরে।। গৌঁপীডের
বন্ত হরে বুক বাঁভিয়াছে।: এক্ষণেতে রাঁজবন্ত্রে ইচ্ছা হইয়াছে 1.
ছোট মুখে বড় কথা নহে. ভয়-মন। জাননা যে কংসরাঁজা সদ
শমন।। এমন বচন: মুখে না বলিহ আর |. .প্রমাঁদ- পড়িবে, হলে,
গোচর. রাজার ॥- এখনি ধরিয়া নিয়ে রাখিবে বন্ধনৈ। নহেত,
পাঠাবে শীভ্র শমন সদনে. | এরূপে কংসের ধোঁবা কহে কুব-
চন। গিঞ্জিয়া গর্ভিয়। পনঃ করয়ে তর্জন.।| রজকের মুখেতে
উল্মৃণ কটু বাঁণী। শঁবশে কাঁপেন কোঁথে দেব চক্রপাণি।। কহি-
জেন ওরে'সুঢ় পাপিষ্ঠ কিন্বুর। কুকথা কহিতে মনে নাহি বাঁ,
অর | কে তৌর কংসেরে ভয়. করে হুরাচার। জাননা যে আঁটি





রম তোমার রাঁজার ॥ এতবলি: ক্রোধে হরি কর প্রহা রয়! । -৮-





দ্বিতীষ্ন ভাগ

কের মুণ্ড তথা ফেলেন ছিওডিয়া।। কষ কর্‌ প্রহীরেতে রজব
নরিল। বিষ্তদ্ূত আমি তাঁরে টৈকুণ্টেতে নিল | অনায়াসে দিবা-
গতি প্রাপ্তি হল তাঁর। ক্রোধে বর তুল্য ছুই হয় দেবতার | রজক
সরল যাঁরা দেখিল নয়নে ॥ হীনবাঁসে উ্দশ্বাসে পলায় সঘনে ॥
হাতে মাথা কাট বলি পলায় সকলে । ভয়েতে ন বরে বাঁণী হান]

হামা বলে । ভ্রাসেতে এরূপে লেকে বলে অবিরাম দেখিয়। ্‌

হাঁসেন দৌহে ক্ষ বলরাঁম। রজক মরিল বস্ত্র রছিল গভ়িয়।।

তবে হুরি নিজমনে বিচার করিয়া ।। ছুভাইর উপযুক্ত বস্ত্ী বাঁছি,

লিন । - সখাঁগণে ডাঁকি কিছু করেন অর্পণ 1! অপর বসনচয় খণ্ড
খন্ড করি। তথা ০ খবীরে ধীব্ে চলিলেন হরি || মনেতে ভাবেন

বঙ্র পরিব কেমনে 1 রাজবেশ : সাঁজাইফ়া দিবে কোন জনে |

এভাঁবিতে ভাঁবিতে পথে করেন গমন । এ সনয়ে তগ্্রবাঁয় বাঁ এক
জন) তন্্রবায়ে হেরি হরি হরি হইয়া । অমৃত নিও বাকো
কহেন কিয়া ৃ 525

জীকষ্রের রাজবেশ ও তন্ত্রবারের

1 ১৬



পঞ্ধার। শ্রীগোধিন্দ দাঁস নামে তন্ত্রী কুলে তি শান্ত দান্ত
দর্শন কুক্কভক্তিযুত ।। চলিয়াছে রাজপুরে যজ্ঞ দরশনে। তাহারে
ডাকিয়া! ক্লক কহেন যতনে || শুন শুন ভন্্রবায় শিউশীলমতি।
্রস্ত হয়ে কোন স্থানে করিতেছ গতি ॥ তোঁদারে দেখিয়া মনে
হইল উল্লান। আগা দেহে দেহ শীন্র- পরাইয়া বাঁস॥ রাজ
বসে রাজবেশ দেহ সাঁজাউয়া। গুরাইৰ তব বাঁগুণ যতন করি]
শ্রত যদি কন- কুষ্ণ অমিয়। বচচন | শুনিয়া ফিরিল তত্ব সেই

ক্ষণে ।$ যেমন হইল কুফরূপ দর্শন ! -ভুলিল নয়ন মন নং চে
চরণ একদুষ্টে কৃষ্তদিকে রহিল চাহিয়া) -নিমেষ স্বুচিল চক্ষে

সেরূপ হেরিষ়া 1) সহজেছে: তন্ত্রবায় কৃফ্ণভাক্ত মগ কক হে







প্রভাসখণ্ড।

হৈল মনে ভক্তি উদ্দীপন. : ছুই চক্ষে প্রেমধাঁর। ঝরিতে লাখিল!
্রস্ত ছয়ে সেইক্ষণে নিকটে আইল ভুক্তিভরে পুলকিত সজল
নয়ন। গ্রাণাষ করিয়া পদে করয়ে স্তবন || কৃষ্ণ বিষুজ রমানাথ
বাঁজীবলোচন 1. রাধিকার প্রীণকান্ত অরাতি তগ্তীন ॥. অক্ষ
অবায় অঙ্গ অনিন্ত্য আকার । অনাদি অনন্ত বিভূ বিধি বিশ্বীধার |!
বিস্বীতীত বিশ্ববীজ-বিশ্বজীতোদয়। বিষয় বিকার শুন্য বিহীন
বিলয় ||. নির্বিকার নিরাকার নিরীহ নিশ্চিত) : নির্্মায়িক,
নিরঞ্জন নির্ণয় রহিত || গুথাতীত গুণাঁশ্রায় করিয়া কখন । তত
বাঞুথ পুর্ণ হেতু রূপের কল্পান।। দেবগণে দয়! করি দৈত্য বিনী-
শিতে। যুগে যুগে অবতার আমি অরনীতে 7. কখন বা মীনরূপ
কভু কুর্্মকায়। কখন বরাঁহ মুর্তি নৃসিংহ নিখাঁয় | কথন বামনা
রূপ কথন শ্রীরাম । শ্রীপরশুরায কভু কভু কলরাম।। বুদ্ধ কক
রূপে হুও কখন কথন 1 যুগ ভেদে অবয়ব করহ ধারণ || ইহ!
ভিন্ন অনহখ্য তোমীর অবতার | - সে কথা কহিতে প্রভূ সাধ্য আছে
কার | তব-রূপ বর্ণিবারে পরে কোন জন. তুমি সর্ব সুলাঁধার
বিভু সনাতন সকল রূপের বাঁস- শরীরে তোষার। শ্রীনিবাস
নাঁন তব সর্ব শোভার্ার 7 জগতের রাজা. ভুমি--তর রাজরেশ্।
সাঁজাইতে-অধ্বীনেরে নিব আদেশ | শ্র কেবল: ক্লুপাময় করুণা
তোমার । তোনাঁকে সাজাতে পারি আমি কৌন ছার) এই
ভন্ত্রবায় করয়ে স্তবন। কঞ- কন স্তবে-তব নাছি প্রয়োজন_।1
€তাঁমারে সদয় আমি-হুইয়াছি: মনে । মনোৌবাঞ্ গুণ তব করিব
এক্ষণে || বিলম্ব না কর তুমি ধরহ বসন। শীন্র দেহ সাজাইয়া
করিয়া যতন: ॥ : রাঁজপুরে -প্রবেশিব অভি শীত্র তরে. এত বলি,
বন্ত্র দেন তন্ত্রবায় করে ॥। বস্ত্র নিয়! অগ্র হয়ে প্রণাম করিয়11
আকুষ্চের গ্রীঅঙ্গেতে দেয় পরাইয1)। স্বর্গে থাকি দেবগণ ধনা ধন
জার খরন্য ধন্য তন্ত্রবায় পৃথিবী ভিতরে |. বিখ্ি-তব আদি
ধারে ধানে নাহি পীয় | সে অঙ্গেতে ভন্ত্রৰায় বসন পরায় ||. এই-
কাপে ধন্য ধন্য কবে দেবগণ | এখানেতে তল্তবাঁষ পরাঞ্জ বসন!









হু

দ্বিতীয় ভাগ ।

শ্রণশিয়া পাঁদপদ্মে বস্ত্র নিয়! করে। সাজাইয়া দেয় তথ। কৃ
ইলখরে ॥: কটিতে খটিত ছিল অপ্ুর্ববকমন। তদুপরি পরাইল
সুন্দরবন | বন্দরের কবচে দিব্য দেহ আচ্ছাদিয়া। যস্তক উপরে
দিল উষ্কীক বান্ধিয়া || যশোদার দত্তচুড়! নাহি নাঁনাইল। উঞ্চিক
উপরে! ব্ত্ে বান্ধিয়। রাখিল।| তাহাতে হইল শোভা অগ্ুর্ৰ ঘটন।
কূপ হেরি ধন্য ধন্য করে সর্বজন ॥ এইরূপে রাঁম কৃষে আগে
সাজাইয়া। তাঁর পরে তাঁর সখাগণেরে ডাকিয়া ।| একে একে সক-
লেরে পরায়ে বসন। এক চিত্ত হয়ে কষে, করে দরশন || ভক্তি
£হেরি ভগবান সহৃক্ট অন্তর। তন্তরবাঁয়ে কন লহ বাঞ্।মত বর।।
তোমারে অদেয় কিছু নাহিক আনার। বুঝিয় যাঁচিয়া লহ যে
বাঞ্জ। তোমার 11 এত. যদি কৃষ্ণচন্দ্র কুপাকরি কন। করযোভ
করি তন্ত্র বলয়ে বচন ॥ - অনাঁথের নাথ ভুমি অগ্তিরগতি। অথম
তাঁরণ কর্তা অখিলের পতি।। ভবাঁন্ধি তরণে তরি তোমার চরণ |
তে'না বিনা কর্ণধার নাহি অন্য জন ॥ তুমি যারে কৃপা করি ভবে
কর পার), সেই সে ষাইতে পারে. এ ভবের পাঁর |! ভব ভয়ে ভীত
হয়ে বত মহাঁজন।. গৃহ পরিহরি করে তৌমাঁর ভজন ॥ জলাহাঁর
ফলাহাঁর বাঁতাহার করি। অবশেষে নিরাহাঁরে আরাধয়ে হরি ||
শীত উষ্ণ পীম্ম বায়ু বরিষার জল. £সহ সহিয়া ভজে ওপদ
কমল তথাপি তোমার দেখা, নি কদাচন। নিজ শুণে রুপা ৃু
করি দিলে দরশন || বেদ বিধি অগোচির ভোমার মহিমা । তোমার
গুণের কেব! দিতে পারে সীমা ॥ দীনবন্ধু দয়াময় দারিদ্র ভঞ্চন।
দীনে যদি দয়া করি কহিলে বচন || অধীনেরে প্রভু যদি দিবে বর
দান।. তবপাঁর বিনা বর নাহি যাঁচি আন ||. এই দেহে পার কর.
এ ভব পাগর। কৃপা করি লহ নিজ বৈকু নগর | -তোঁসাঁর
ক্কুপাতে যাই তোমার ভবন। দেখুক নয়নে ইহা মধুরার জন ॥
মধুরার রাজা কংস শুন্থক প্রবণে | ঘুষুক তোঁমাঁর যশ ত্রিভুবন্‌
জনে ॥ শুনিয়! তাহার কথা কন: দামোদর.। তুলি সাধু শুদ্ধমতি
'গুথিবী ভিতর | আমার নিকটে ভুমিচাহিলে যে বর। 'বন্ছু তপ






প্রভামখণ্ড ২৯

স্াঁ় ইহা নীহি পায় নর |. তোমারে সন্তোষ হয়েদিই বর দান.
এক্ষণে বৈকুণ্টে যাহ চড়ি দিবাযাঁন ॥ যেই মাত্র এই কথা কহেন
শ্রীহরি।. আইল পুস্পক রথ সহ বিদ্যাঁধরী || তত্ত্রবায়ে তুলি নিল
রখের উপর । শত শত-বিদ্যাঁধরী ঢুলায় চীমর.॥ নৃত্যকীরগণ
তথা নাঁচিতে লাঁখিল। কিন্নরেতে কুষ্ণগুণ গ্রীন আরস্তিল-| রিদ্যা-
ধরে বাদ্য করে কিন্গরেতে গাঁয়। স্বর্গে থাকি পুশ্পরুফি করে দেব-
তায়।॥ এইরূপ ক্ুমঙ্জলে গুর্ণিত হইয়া । বৈকুণ্টেতে গেল তন্্রী
সাযুজা পাইয়।| ভক্ত তক্রবায়ে যুক্ত করি হৃষীকেশ। চলেলেন,
রাজপথে ধরি রাঁজবেশ | যাইতে যাঁইতে মনে-হইল স্মরণ। ভক্ত
নানি হের
হপ্ত। পদধুলী দিয়! ধন্য করিব আগার ॥.. পরিবার সহ তার
পুরায়ে মনন |, পরে আমি-কৎসপুরে করিব গমন || ইহ ভাবি,
নরহরি করেন গমন: শিশু কহে শুন মালাকার বিবরণ |



'অথ মালাকার গৃহে ্রীকুষ্ণের মল্য খারণ

ও ব্রদান:।
পয়ার। -কুদীম। আাঁমেতে মালী মধথুরাঁয় বাঁস-। ০ হ্দ-
যেতে ভাবে প্রীনিবাস ॥ পরম উদাররীতি সাঁধু সদাঁশয়। দেব দ্বিত
(০

বৈষ্বেতে ভক্তি অতিশয় ॥ যথা যথা প্রস্থাপিত দেবতার
তথায় যোগায় পুষ্প মালা উপহার ।| -দেবতাঁরে মাল্য দিঘ্া মুল্য
নাঁহি লয়|. কেবল ষাচয়ে কুক তক্তের উদয়।| রাঁজকার্ষ্ে ফুল
দেয় বাঁটীতে রাজার তাঁহার বেতনে চলে সংসার তাহার | প্রাতে
উঠিতুলি ফুল বাঁছিয়া বাঁছিয়া। নিজ ইট কৃষ্ণ পুজ কারণে রা
খিয়।.। তাঁর পরে নিয়] ফুল প্রফুল বিস্তর ।. দেব দ্বিজ গুঁহে দেয়
সন্ষ্ট অন্তর. রাজার বাঁটীতে ফুল দেয় তন্থচরে.। আপনি-আসিয়া
খঁছে ইঞ্টপুজা করে ॥.. সতীসাধ্বী পতিব্রতা। মাল/কর বধু ।, মধুমতী
নম. তাঁর কথা গুলি ম্ধু॥ পতির সদুশ ভ ভক্তি কৃ্ণেতে তাঁহার |





চা ০১০৫০০১১১১-১৪১৪১১১১১২৪৪১০৫৪২১২৪ ৪





দ্বিতীয় ভাগ।

কুফ্ণগুজা হেতু মাঁল। গাঁথে অনিবাঁর ॥. লোকমুখে সে রমণী শুনিল
বচন মথুরাঁয় হইয়াছে কৃষ্ণআগমন ॥ শ্রীকৃষ্ণের পথে গতি পরোক্ষে
শুনিয়। পথ গপরীক্ষণে রে দ্বারে ঈ্াড়াইয়! | মনে ভাঁবে নর-
হরি এই পথ দিয়1। বদি যাঁন তবে হেরি নয়ন ভরিয়া ॥ কৃপ!
করি গুঁহে যদ্দি হন অধিষ্ঠান। ৷ তরে জানি সত্য বটে শাস্ত্রের প্রমাণ
বা্খকলপতরু হরি বেদে বলে তারে: দেখি গ্রভৃূ কি করেন
দেখিয়া আমারে ॥ যদি আমি দেখ! পাই পথে কৃষ্ণধন | তল্ভিতে
বান্ধিয়া লব আপন ভবন ॥। পতিরে দেখাঁৰ নিয়া গোৌলোকের পতি ।
ঘুচাইব চিরস্থিত ভবের ভুর্গতি ॥ এইরূপে ভাবে রাম! স্বতক্তি
ইদয়। এ সময়ে কৃষচন্দ্র হয়েন উদয় ॥ বলরামে- কন হরি বিনয়
বটন। দেখা যায় দেখ দাঁদাঁ মালীর ভবন ॥ চল যাই দুই ভুই
মালা নিয়া পরি । নানা ফুলে নিজ নিজ অঙ্গ শোভা করি।। বল-
রাম কন কুষ্ণ বড়ই চঞ্চল। মধুরার প্রজাবর্গ কংসের সকল |
এখানে ধামালি করা উচিত না হয়। নাজাঁনি কখন, কোথা কি
ঘটনা হয়| মাঁলীর ব্যবসা পুষ্প করয়ে বিক্রয়। বিনা সুলো
মালা দিবে সম্তব নাহয় ॥ ক্ষমা করওরে ভাই ফ ফুলে কায নাই ।
রাজার তবনে চল, শীন্রগতি যাই। ॥॥ আগে গিয়া দেখি কংন রাঁজ ব্যব-
হার। পরেতে করিহ কার্য ষে হয় বিচার |. কৃষ্ণ কন এখানে না
হবে অনাদর | দেখ দাদা কত ভক্ত হয় মালাঁকর ॥ এতবলি বল-
রামে সঙ্গেতে করিয়া । মাঁলীর উবনে শীঘ্র প্রবেশেন শিয়া]
মালীর রমণী আছে দ্বারে দীড়াইয়া | দেখিয়া কহেন কৃষ্ণ তারে
সম্বোধিয়া। কহ কহ: পতিব্রতে কোথা মাঁলাঁকার | মাল্য হেতু
আনিয়াছি পুরেতে তোধার ॥ শুনিয়! কৃষ্ণের মুখে মধুর তারতী।
রূপ হেরি মোহপ্রাপ্ত হৈল মধুমতী ॥. প্রেমতক্তি উদয় হুইল কলে-
বরে, অনিমিষ হৈল আঁখি বাঁকা নাহি সরে প্রণাম করিয়া
পদে অতি অকপটে। রাঁমকৃষ্ণে নিয়! যায় পতির নিকটে | রাঁষ-
কৃষ্ণ হেরি পুরে সন্ত্রমে উঠিয়া । প্রণময়্ে মালাকার চরণে পড়ির। ||

দণ্ডবৎ প্রণীস করিয়া সেইক্ষণে। কর যুড়ি স্ততি করে ভক্তিধুক্ত







যনে || নমে! নমো রামকৃষ্ণ জগতের সার। সভার হরণ হেতু
ভুষে অবতাঁর ॥ উভয়েতে জন্ম নিয়। বস্ুদেব ঘরে | কংসে বিভ-
স্বিতে বাঁস নন্দের নগরে ॥ ভবভাবনীয় বস্তু ভূবনে প্রকাঁশ। কপার
করিলে ধনা অধীনের বাঁস।। ন্ুরেশের শিরোমণি ও রাঙ্গা চরণ |
অধীনের অধিবাঁসে করিলে অর্পণ || অখিল জীবের আঁ অখি-
লের পতি। অজ্ঞানীর জ্ঞীনদীতা অগতির গতি ইচ্ছায় ইচ্ছ'-
বীন ইচ্ছায় ক্রীডন। ইচ্ছায় জগত স্থান্টি স্থিতি বিনাঁশন | বেদ
বিধি অগোঁচর মহিম। অপার | কখন সাঁকীর হও কভু নিরাঁকীর |)
পতিত পাবন প্রভূ পরম দয়াল। শি জনে সম ভাব দুষ্টে মহাঁ-
কাঁল॥ দীনে দয়ীকরি যদি দিলে দরশন | আঁজ্ঞাকর কোন কন
করিব সাধন |। কৃষ্ণ কন আসিয়াছি পুষ্পের কাঁরণ। পুষ্প দিয়া
দেহ দেহ করিয়া ভূষণ ॥ শ্রীকৃষ্ণের বাকা শুনি সাধু মাঁলাকর।
আনিয়া উত্তম ফুল বাছিয়। বিস্তর | মনঃসাঁধে গাথি মালা
মালীর রমণী। রাম কৃষ্ণ কাছে দিল আনিয়া অমনি ॥. মালা
হেরি হরষিত হয়ে অতি মনে। মাঁলীরে বলেন মাল! পরা:
যতনে | তবেত সে মাঁলাকার নিয়া প্রল্পহ্থাঁর। তুলে দিল সং
যতনে গ্ললেতে দেৌহাঁর ॥. চুড়াঁবেড়ি দিল মালা উষ্তীক উপরে!

গ্রক্ফটিত পুস্পগুচ্ছ তুলে দিল করে| চরণেতে দিয়া ফুল করষে

গুজন ২ বর্গে ধন্য ধন/ করে যত দেবগণ | ফুঁজেতে ভঁষিত হয়ে
কৃষ্ণ হলধর। মা'লাকরে কন তুষি যাঁচিলহ বর সন্ত্রীক হইব
আসি লহবর দান। মনোবাগ্ধ সিদ্ধি আর যাহাতে কলাব।
তবেত সে মাঁলাকর রমণী সহিত। কর যুভি কহে রাম কষ্টের
বিদিত॥ যদাপি দিবেন বর হইয়া সদয়। অহর্নিশি ঘন যেন ও
চরণে রয় || হৃদয় কমলে রূপ করিয়া স্থাপন আঁখি ষেন অর্কর-
ক্ষণকরে দরশন | করযেন তোনাদের কাঁষে থাঁকে রত। মস্তক
প্রণামে যুক্ত থাঁকে জবিরত | শ্রবণ থাঁকয়ে গুণ কীর্তন শ্রবণো
রসন| থাকয়ে সদ ও গুণ বর্ণনে || অহৈতুকী হরিভক্তি দেহে দেহ'
দাঁন।. ইহা বিনা বরে কার্য কিব! আছে আন || এইরূপে মালা
কর কামিনী সহিত। কামনা করয়ে কুষ্ণতক্তি মনোনীত-॥ শুনিয়া,
তভ্তির কথা রাম কৃষ্ণ কন। অহৈতুকী ভক্তি দেহে রবে সর্ধ-
ক্ষণ।| ইহকাঁলে সুখে রবে বাঁড়িবেক ধন। পরকালে পাঁবে রহ,
টবকু্ট ভবন ॥ শমন ৩বনে গতি নাহি হবে আঁর। অনায়াসে,
পার হবে এ ভব সংসার ॥ মনোমত বর দিয়া মালীরে তখন | চলি-
লেন রাজপথে সহ সখাঁণ ॥ মথুরায় মালাকর হইল পবিভ্র। শিশু




কহে শুন কিছু কুবুজা ঈরিত্র 1.





খত দ্বিতীয় ভাগ!

র কুরুজার সৌন্দধ্যপ্রান্তি |

পয়ার।. রাঁজবেশ খরি হরি পরি পুম্পহার.। বাঁড়ান আপন,
রূপ দেহে আঁপনার।| সকল রূপের খাঁম যেই নারায়ণ । কেমনে
তাহার রূপ হইবে বর্ণন |॥ বর্ণনা করিতে চাহি তুলনার স্থান ।
অতুল্য রূপের হবে কিরূপে প্রমাণ || মন্মথ মখিত রূপ ভুবন
মোহন।.. হেরিয়া মোহিত হৈল মথুরাঁর জন.॥ রতিপতি বোধ
করি রৃতিপতি তাঁতে। মোহিল রমণীগণ একেবারে তীতে ॥| মদন-
মোহন মুর্তি হেরিয়া হরির | মদনে মাঁতিল যন যত রমণীর || কি
নবীনাকি প্রবীণ রসে উলে মন | উহাতে বুঝহ ভার যুবতী যেমন |
কুলটা কুলজ| কিবা কেহ নহে স্থির | কাঁমশরে. জর জর-কীপয়ে
শরীর ।। তাজি লাঁজ কুল ভর একদৃষ্টে চার । আঁখি পাঁলটিতে
পুনঃ ঘটে ঘোরদাঁয়।। এই রূপে রাঁমাগণ রহে পরস্পর । পথোঁপরি,
ক্রমে যান কৃঞ্চ হলধর |. এ সময়ে সেই পথে সাঁজি হত্তে করি।
কুরুজা নামেতে যায় কংদের কিন্করী || সাজিতে কটোরা পৌরা
সুগন্ধি চন্দন রাঁজপুরে দিতে করে ত্বরিতে গমন,| বিপরীত
কূপ তাঁর বিখির স্থজিত। দৃষ্টে অতি কদাকার লোকেতে দ্বৃণিত |
তিন ঠাই অঙ্গ ভঙ্গ প্রশ্টোপরে কৃ । গলদেশে গগুমালা স্ফীত
পদ্র[স্থুজ || স্তনযুগ গুক্ক হয়ে লাঁখিয়াঁছে আতে।. কহিতে বচন
মুখে ব্যথা লাগে দাতে ॥ বয়সেতে বৃদ্ধতমা যষ্টিভরে গ্রতি। মাথায়
নাঁহিক কেশ: বেশ হীন অতি ॥ কেমণি কৃষ্ণের লীলা বুঝা নাহি
যায়। কুষ্ণে হেরি কামাকুষ্ট হৈল তার কায় ॥ চকিতে চা্িতে
রূপ হারীইল চিত ।মনে ভাবে এ কেমন একি বিপরীত | এষে রূপ
অপরূপ রমণীয় রম । আমীর সমান নারী নাহিক অধম]1।| ইহারে
দেখিয়! দেহ হইল.এমন | প্রকাশ পাইলে হব হাসোর তাঁজন ||
আঁমি নিজে কুব্ূপিণী হেরি বদি রূপ। কুলে।কে কুকথা কবে করিবে
বিদ্রুপ ॥. বলিবেক বুড়ামাশী কুরূপের শেষ। ইহার হয়েছে দেখ
এরূপে আবেশ কুৎসা করি কত কথ। কহিবেক তাঁয়। কৃষ্ণ হাসিবেন
মনে দেখিয়া আমায়।| হায় বিধি নিদারুণ কি দোষ পাইয়]।
আমারে স্থজিলা তুমি কুরূপ করিয়া | তোমারে কি দিব দোষ
আদুষ্ট আমার । কন্মগুণে পায় লোক বিশেষ আকার।। এইবূপে
নিজ নিন্দা উপেক্ষিয়া মনে । তিরক্ষীর করে কত আপনি আপনে ||
হ্থায় আঁমি হইন্জাঁছি এরূপ স্বুণিত। হইলাম কৃষ্ণরূপ দেখিতে

বঞ্চিত ॥ যুবতী রমণীগণ রূপবতী যারা | নগর্কেতে কৃষ্ণরূপ হেরি-







প্রভাসখণ্ড |

৩৩

তেছে তার] || ইহা বলি খেদার্তিনী হয়ে সেইক্ষণে। আপনারে
ধিক দেয় আপনার মনে ॥ লজ্জীয় না চাহে কষে হইয়া সুস্থিরে।
আড় চক্ষে চাহে আর চলে ধীরে ধীরে || ভূলেছে নয়ন মন কি
করে লজ্জায় । ধীরে খীরে যায় আর ফিরে ফিরে চায় ॥ কিন্তু পুর্ণ
চক্ষে চাহে সাধ্য নাহি তার। ইঙ্গিতে চাহিয়! চক্ষু মুদে আরবার ||
তাহাতে হইল তার অন্ভুত টন । কুষ্েতে করিছে যেন সন্কেতে
ঈক্ষণ ॥ যে রূপে যুবতীগণ যুবকেরে চাঁয়। সে রূপ চাহনি তাঁর
তাহাতে জানায়।। হেরিয়া তাহার ভাব হরি দয়াময় জানিলেন
কুরুজার যে রূপ হৃদয় বাগুণকল্পতরু হরি মন বুঝি তাঁর। গুরাতে
তাহার বাগ হন অগ্রসার ॥ বিকার বিহীন বিভু ব্রহ্গ সনাতন ।
কুরূপ স্থরূপ তাঁর সমান ঘটন | যে জন যে ভাবে তীরে করয়ে
ভাঁবাঁনা। সেই ভাবে গুর্ণ তাঁর করেন কাঁষনা | কোন বিষয়েতে
কৃষ্ণ স্পৃহা যুক্ত নন। ভক্তের ভাবনা বুঝি ফলপ্রদ হন।। দীনবন্ধু
দয়াময় দয়া প্রকাঁশিয়1। কুবুজারে কন কথ। অমৃত জিনিয়া ॥ কৌ
কিল জিনিয়া স্বরে কহেন বচন। করিতেছ ও সুন্দরি কোথা স্ব গমন |]
সুন্দরিং বলি ভাঁকেন শ্রীহরি। গুনিয় কৃষ্ণের কথা কুরুজা-শিহরি ||
কাহারে ডাঁকেন বলি চারিদ্রিগে চাঁয়। নিকটেতে আর কাঁরে
দেখিতে না পাঁয়।। আঁমাঁকে ডাঁকেন বলি জানিয়া নিশ্চিত। উপহাস
এক্বাধ কার অধিক ছুঃখিত-| কৃষ্ণের কথায় খেদ অধিক বাড়িল।
নয়পের জলে তাঁর বদন তাসিল ॥. বারস্বার কৃষ্ণচন্দ্র ড/কেন যখন.
কুরুজ| ফিরিয়া কথা কহিল তখন ॥ কাঁহাঁরে ডাকিছ ওহে পুরুষ
রতন । স্ন্দরীত এখানে ন। দেখি কোন জন || কুষ্ণ কন তোমাকেই
ডাঁকিতেছি ধনী । দাড়াইয়া কিছু কথা শুন. সুবদনী ॥ কুবুজা বলিল
কেন. কর উপহাস । তব উপযুক্ত বাক্য নাহি শ্রীনিবাস।। আপনি
সুন্রর.বলি উপহাস. কর। আমিত কুৎসিতা. নারী সংসার ভিতর ||
তোমার ইঙ্গিত যোগ্য নহে কদাচন। পরিহাস বাঁক্যে কেন কর
জ্বালাতন || সকলের আত্মা যন জাঁনহ হ্‌দয়। আমারে এমন কথ!
উচিত না হয়।| একে আমি মরি হরি খেদে আঁপনার। তছৃপরে
বাক্যবাঁণ কেন হান আর॥ কর্কট সমান দেহ কাঁটে ছুঃখকীটে।
তুমি দেহ কাটাঘায় লবণের ছিটে ॥ কৃষ্ণ কন উপহাস আমি নাহি
করি। কহিলাম সঅতাকথা তোমারে সুন্দরি || আমার মনের মত
তোমার এ অঙ্গ । তুমিও ত্রিতঙ্গী বটে আমিও ত্রিভক্ষ ॥ কুবুজ।
কহিল কৃষ্ণ কত কহ আর। মধুমাঁখা বাক্যে কত কর তিরস্কার ||




দ্বিতীয় ভাগ?

কুঞ্চ কন মম বাকা কভু মিথ্যা নয়। এখনি তোগার রূপ তু
উদয় ॥ তব রূপে ত্রিভূবন হইবে মোহিত । গুন শুন গুণকতী
ন! হও ছুঃখিত ৭ সাঁজিতে কাটার পুর্ণ সুগন্ধি চন্দন কার হেতু
লয়ে কোথা করছ লন 1 তোমার হাঁতেতে এই চন্দন সমীর

দেহ কিছু পরাইয়া অঙ্গেতে আমার ॥ এত যদি কহিলেন কমল”
লোচন। কুবুজা কাতর! হয়ে করে নিবেদন !॥ মম পরিচয় হরি করি

তব স্থান । কংসের সভায় দেই চন্দন যোগীন।। দারুণ কংনসের দাগে
ভীত হয়ে মনে। নাঁদিলীম কৃ আমি ইহা গুরুজনে ॥ এত কি
হইবে ভাগ ভুমি ইহা লবে । অধ্িনীর অনৃষ্টেতে কপাবান হবে ॥
কমলা সেবিত তব কমল চরণ | আমি কিকরিতে পাঁব ও পদ

সেবন || আঁমি অতি পাপমতি বিহীন আচার । আমার সমাঁন নীরা

নাহি কদাঁচার |, যত কথ| কহ কৃষ্ণ মনে নাহি লয় ॥ পরিহাস

করিতেছ অনুভব হয়॥ কুষণ কন পরিহাস আনি নাহি করি শীত :

দেহ সুচন্দন' আমীরে সুন্দরি | বিলম্ব না সহে যাঁক কৎসের সদন |
চন্দনেতে দেহ দেহ করিয়া ভূষণ |॥ তৌনার মানস পুর্ণ করিব যতনে |
ই্থার অনাথ কিছু নাঁছি তাব মনে || সভ্য আমি সত্য কহি সত্য ব্রত
হই সত্যবিনা মিথা কথ| কখন না কই ॥ শুনিষা কৃষ্ণের কথা
কুরুজা তখন । সানন্দে গুরিল মন হুনিত বদন ॥ ভূমি জুি প্রণমিয়া
লইয়। চন্দন | প্রীরুফের প্রীঅঙ্গেতে করয়ে অর্গণ || চরণযুগল পদ্ধে

আগেতে অর্গিয়া ৷ তদন্তরে নাঁসা ভালে দিল বিশেষিয়া | অলক

আবৃত একে কৃষ্ণমুখ উন্দু। কুবুজ! তাহীতে দিল চন্কনের বিদ্দব।
হইল অপুর্ব শোভা: নাঁষায় বর্ণন | সর্ব শোভাময় কুষ্ণ ব্রহ্ম

অনাতন।| কুষ্জেরে চন্দন দিয়! কুবুজা তখন । দ্বিতীয় কটোর!

পোঁর! লইল চন্দন || বলরাম নিকটেতে রাখিল যতনে । প্রণাম
করিল পদে লঙ্জিত বদনে | ভীঁৰ বুঝি বলদেব ঈষৎ হাসিয়া |
কুবুজাঁর দত্ত সারচন্দন লইয়া ।। আপন অজেঁতে কিছু করিয়া! ধাঁরণ।
সখাঁগণে ডাকি তথ করেন অর্পণ |॥ শিশু কহে' কুবুজার শুন বিব-
রণ। কৃষ্ণের কুপায় রূপ হইল যেমন ॥

ত্রিপরী। কৃষ্ণের করুণোদয়, কার প্রতি কবে হয়, কে বুঝিতে

পাঁরে ভার মর্ম) ইচ্ছায় কজন হয়;ইচ্ছায় পালন লয় ইচ্ছাঁময় ইচ্ছা-

শীন কর্ম || সর্কশাস্ত্রে আছে শোনা, লৌহচয় হয় সোণা, স্পর্শমণি
স্পর্মেতে ষেমন। কৃষ্ণ অঙ্গ স্পর্শ করি, কুবুজা কুরূপ হরি, স্থন্দরী
হইল অভ্ুলন!। কিবা রূপ অনুপমা, অরুন্ধতী তিলো তম, উর্বশী



১১৩৭৩ টাপাস্ধসাপাব
















প্রভাসখণ্ড । ৩৫

মেনকা রুস্তাবতী 1 রে!হিণী সোহিনী জয়া মোহিনী মহেক্দ্রীলয়া,
অনোজমহিলা মায়াবতী || জিনিয়া জবার রূপ* কুব্ধপার হৈল বূপ,
অপরুপ অতি সনোলোভা | অঙ্গ শোভা আতরণ, অঙ্গে হৈল
আভিরণ, তাহাতৈ অধিক বাঁড়ে শোভা।। কোকিল জিনিয়া ভাষা,
তিলফুল জিনি নাদা, করিকুস্ত,জিনি পয়োৌথধর । ষোড়শ বয়মী সমা,
মাধতবের মনোৌরমাঃ- কত কব কহিতে বিস্তর ॥ বস্ত্র ইহৈল দিব্য শাটী

কি কহিৰ পরিপাটী,অঞ্চলে অঞ্চল সমুজ্ল। আপনি আছিল দাঁসীগ:

হৈল শত দাঁস দাসী, দেখিতে দেখিতে সেই স্থল ॥ কুবুজা! আহ্লাদে
ভাসে, কুটার আছিল বাঁসে, তখনি হুইল দিব্য পুর । মধ্যেতে মন্দির

শত, শোভা তাঁর. কব কত, দেবরাঁজে হয় দর্পচুর ॥ তবে কুষ্ণ কৃপা
করি, কুবুজার করে ধরি, কহিলেন যাও ধনী পুরে ।, ঘুচিল মনের
খেদ; ইহৈল দিবা পরিচ্ছেদ, ভেটিতে হবেনা কহসাস্থুরে 1 এত যদি
কৃষ্ণ কন, কৃবুজা সানন্দ মন, কহে কিছু করিয়া বিনয়। বাগ্টাকল্পাতর
হরি, নিজগুণে কুপাঁ করি, হলে যদি আপনি সদয় । বুঝায়! ছুঞখিনী
মন,দান দিলে এ যৌবন, রূপ দিলে জিনি বিদ্যাধনী। বিনা তব
প্ীচরণ, তব দত্ত এ যৌবন, বজ নাঁথ কি রূপে সন্ধরি || জীবন যৌবন
মন, তব পদে সমর্পন, করি হরি হইয়াছি দাসী । মন্মথে মলিন মন,
শুন হে সনৌমোঁহন, অধিক কহিতে লজ্জা বাসি ॥ কৃপা করি গুণ”
বাঁশি, আদ্বীনীর বাদে আপি, বক্ষ শিরে- দেহ গ্রীচরণ। না হও

আমারে বাম, পুরণ কর. অনক্কীম, দাসী আঁমি লয়েছি শরণ ।1- এত

ফ্লের চরণে খরিঃ বলে হরি না ছাঁড়ির আর। তুমি
যা্দ কর আন, এখনি ছাঁডিব প্রাণ, কহিলান চরণে তৌমার || শুনি
কুবুজার বাঁণী, হানি কন চক্রপাণি, কুরুক্গারে অমিয়) বচনে। অঙ্গে
দাদ] হলধয়,। আর বহু সহচর, এক্ষণোতে..বাঁইব কেমনে | সময়
বিশেষে আমি, হয়ে তব. গুহগামী, গুরাীইর মল অভিলাষ । এত
বলি নরহ্রি, কুবুজ। বিদায় করি, চলিলেন কংসের নিবীস 1 কুবুজ
সুন্দরী হয়ে, দাঁন দাঁপী সঙ্গে লয়ে, নিজপুরৈ করিল প্রবেশ । সুখে
টৈল অবস্থান, দুঃখ হৈল অবদান, শিশু ভাবে হৃদে হষীকেশ ॥
পয়ীর ৷ কুবুজারে কৃপ'দুষ্ট করিয়। সুন্দরী । কংনালয় অভি-
মুখে চলিলেন হরি ।। আ্রিতে -কহসেরে কিছু ক্রোধ হৈল যনে
খমুর্যজ্ঞ স্থান কোথা জিজ্ঞীসেন জনে '। যারে তারে লিজ্ঞীসা করেন
বন স্বন। চঞ্চল চরণে কষ করেন গমন ॥ এ সময়ে নগর নিবাসী
কৌন নর। দেখাইল খনুর্ষজ্ঞ স্থান ভযঙ্কর | কংসপুর মিকটেতে
রঙ্গভুম্মি বা । অন্ুচর-গণেতে বেন্টিত, আছে তথা 11 চারিদিকে

বজি দু করি, ক










৩৬. দ্বিতীয় ভাগ।

অন্ত্রবাহ অপুর্ধ্ব নির্মাণ বড় বভ বীর তথা আছে ধন্থুজ্সাঁন
মুদগরী মুষলী শেলী শুলী ভিন্দিপালী। স্থীয়্বীয় আন্ত্র করে আছযে
'বীরালি ॥| চন্মাঁ বন্মর্ণ বীরগণে চর্ম বর্ম ধরে । হুছঙ্কারে মনু ষোর
মর্ম্মতেদ করে | অবিলম্বে রামক্কৃষ্ণ সেই স্থানে গিয়া। দ্বারপালে
মিষ্ট ভাষে কহেন ডাকিয়া ।। দ্বার ছাঁড় দ্বারপাঁল বুহে প্রবেশির ।
ংসীর বিজয় ধন্ু কিরূপ দেখিব || ধন্ুর প্রশংসা বড় শুনেছি
অবণে। বড় সাধ আছে, মনে দেখিতে: নয়নে | শুনিয়া কৃষ্ণের
কথা দ্বারপাল কয়। কে তোঁমরা ভুইজন দেহ পরিচয় ॥ কোন
স্থানে বান কর কাহার নন্দন। ধনুক দেখিতে চাঁহ কিসের কাঁরণ |
বয়সে বালক দেখি, ধন্ুর্বিরিদ্য'হীন | কথা কহ যেন বীরগণেতে
প্রবীণ ||. কোঁন জাতি কিবা নাম-দেহ পরিচয় | বুঝিয়া বিহিত
কথ/কহু সমুদয় ॥ কৃষ্ঃ কন পরিচয়. শুন দ্বারপাঁল। বৃন্দাবনে
বাঁস করি নন্দের, গোপাল |. অধিক. কহিয়া আর কিবা প্রয়োজন ।
দ্বার ছাঁভ শীন্তর ধন্থু করি দরশন || কুষে'র বচনে দ্বারী হাঁসি হাঁসি
কয়। জাঁনিলাম তোমাদের শুদ্ধ পরিচয় || গোপজাতি বিন! বুদ্ধি
এমন কাহার । ভেলা হেলায় সিন্ধু হুতে চাহে পার) মনে করে
বান্ধে করি মাঁকড়ের জাঁলে। পর্বত ঝুলাতে চাহে এরগের ডালে ।।
হাত: বাঁড়াইয়। চক্দরে ধরিবাঁরে ধাঁয়। . অমরের সনে'রণে মনে না
উরাঁয় || গোঁষ্ঠে থাক ধেন্ত রাখ ভম বনে বনে। পণীচনির মত
ধন্গ ভাবিয়াছ মনে ॥॥ দেখিতেছ লক্ষ বীর রক্ষক বাহাঁর। আই
অমর জাঁতি না পায় নিস্তার || বুহুদ্বারে লেখ! যাহা দেখহ নয়নে ।
অক্ষরের সঙ্গে _বাদ-পঠিকে-€ কেমনে | শুনহ অবোঁধ জাতি রাজার
বচন. প্রতিজ্ঞা-করিয় যাঁহা করিলা লেখন ॥ গুঁজিয়া অক্ষয় রন্তু
হবে ধন্থর্যাগ। দেখিবাঁ আসিয়া ইহা যত বীরভাগ্র || ভ্রিভুবন
মধ্যে বীর যে জন হইবে । রক্ষকে নাঁশিয়া এই খন্ুক ভাঙবে ॥
তবেত রাজার সঙ্গে কক্ষ হবে তার। মহাযুদ্ধ করিবেন সঙজেতে
তাহার।| করিতে পারির়া ইহা যে নাছি করিবে । গর্দভজাতক

বলি.তাহীরে জানবে ॥ এইত বচন ইথে করিলে শুবণ। প্রবেশ

করহ বাহে থাকে বারগণ | শুনিয়া দ্বারির কথা রুষিয়া গোপাল ।
হাসিয়া কহেন তবে রাখ দ্বারপাল | এত বলি দ্বারপালে ধৰি

ছুই করে। হেলায় টাঁনিয়! ফেলি যোজন অন্তরে || শত শত
০ করিয়া অন্তর ছুই ভাই প্রবেশ করেন অভান্তর | দেখেন
ইন্দ্রের ধন্থ অতি শোভমান। চন্দ্র সূর্য্য স্বর্ণরেখা। পুষ্ঠে দীপ্য মান ||
নিংহ, এব্যান্র আদি করি বু চিত্র যার। বন্ধন বিজয়ঘণ্ট





দ্বিতীয় ভাগ। শ৭

নধে/তে তাঁহার ॥ মহাতি।র খন্খাঁন শত মল্লে বয়। কমঠের গ্রষ্ঠ
জিনি সুকঠিন হু ॥ দুষ্ট মীত্রে কৃষ্ণচন্দ্র বান করে ধরি। গুণ
দিয় পুনঃ২ উরে ক্ষেপ করি ॥। পুন ধরি টক্কার দিলেন বিপরীত |
মহাশবে রক্ষকের হইল মোহিত ।। টঙ্কাঁরিয়। ধন্থখান করিলেন
তঙ্গ। শব্দ শুনি কংসের কীপিয়া উঠে.অঙ্গ 1. কতক্ষণে রক্ষকের!
প্াইগ্না চেতন | রা কৃষ্ণ প্রতি খায় যত বীরগণ ॥ ক্রোথে কীপে
কলেবর বচলে মাঁর মারু। বৃষ্টি জিনি বাণরৃষ্টি করে অনিবাঁর।!
তাহ। দেখি রামকৃষ্ণ ক্রোধিত হুইয়া। ভগ্নধন্থ ভুই খান দুই'ভাঁই
নিয়] ||. ধনু ঘুরাইয়। অন্ত্র করি নিবারণ। -বীরণণ প্রতি করি খঙ্থুর
ঘাঁতন।॥ অবহেলে লক্ষ বীরে বিনাঁশন করি । -অবশেষে অন্্রব্যহ্
ভাঙ্ষিলেন হরি ।। একে একে ষত তন্ত্র ধরি ধরি করে। খণ্ড খণ্ড
করি সব ফেলেন অন্তরে ॥ ক্রীড়ার বাঁলকে যেন ভাজে বন্য শর |
সেই মত ছুই তাই ভার্জিলেন শর | এরূপেতে পঞ্চকার্যা করিলেন
হরি। তাহার কারণ শুন-স্গুবিস্তার করি ॥ পঞ্চ কর্ম যে যে কর্ম
শুন বিবরণ। হস্ত দিয় রজকের মস্তক ছেদন ॥ সশরীরে তন্তর-
বাজে উরুণ্টে পাঠান। মালাকরে মালিনীরে দেন বরদান)। কুরুজা
সুন্দরী করা অদ্ভীতবচন। মনু হইতে বাছা! নহে কদাচন | তাঁর
পরে বীরত্ব দেখান নরহরি | অস্ত্রব্যহে অবহেলে শ্রীবেশল করি
ধরিয়া যজ্ছের ধন্ু দিয়! এক টান। বাম-করে ভাজিলেন করি খাদি
খাঁন। তাঁহাঁতে হুইল শক অতান্ত বিশাল। মহাশক্দে বাাগিলেক
পৃথিবী পাঁতাল ॥ লক্ষ বীর ছিল তথা ধনুর রক্ষণে। মাঁরিলেন
সে সবাঁরে প্রভু £সেইক্ষণে ॥ দেখিয়। শুনিয়া এই: কর্ণা- সমুদার।
কংস ছুরাঁশয়ে যদি জ্ঞাঁনো দয় হয় || আ।সিখা যদাপি লয় চরণে শরণ ।
দেবকী বস্তুর করে বন্ধন মৌচন ॥ পাপ কর্ম -কদাঁচিত নাহি করে
আর। তবেত কংসেরে রাখি দিয়া রাঁজ্য ভার।। এইমত বহুবিধ
করিয়া বিচার। দেখালেন পঞ্চকার্ধ গ্রে চষকাঁর ॥ ক্রীডারপে
এই কার্যা করি ক্ষণকাঁল। অবিলম্বে মিলিলেন-: সহ্হিত রাখাল
রাখালের রামকুষ পাইয়। তখন। আনন্দে হইয়া মর্গ করছে

88







প্রভা পখগ্ড 1

নর্ভুন॥ মিলিত হইয়া যত রাখালের সজে।. আনন্দে নাঁচেন ছুই
ভাঁই মনোরজে || এ সময়ে দেখিলেন দিন অবশেষ । যাঁমিনীর

]
]
০
£
গা
]|
1
বা নন
1
| ৮

নলিনী মলিনী হয় কুমুদিনী হাসে কৃষকে ছাঁড়িল কন্ম পথিক
চিন্তিত। পথ ছাভি গৃহস্থের গৃহে উপনীত ॥ পক্ষীগণ নিজ নীড়ে
করে প্রবেশন। সন্বোর বন্দনা গীন গাঁয় শিবাগণ || মথুরার গোপ-
গণ গৌবুস লইয়!। আপন. আপন গুঁহে আঁসিছে ধাইয়া |!
তাহা দেখি নরহুরি ছাড়েন নিশ্বাস। মনে হৈল ব্রজধাম গৌরূপ
[বিলাস।। গোঁরূপের বূপ ভাবি বিরূপ প্রীহরি। মনৌছুঃখ উপ-
জিল গোরূপেরে স্মরি।॥। আর না যাইব ব্রজে না চরীব গাই। কত
ুঃ ঃখ পাবে তাঁরা ভাঁবিয়! না পাই । যখন মধুরাধামে করি আগ-
মন। গোরূপেরা উর্দমুখে করিল রোদন ॥ একদুফে রহে সবে
চক্ষে বহে বারি। সেরূপ স্মরিয়া মনে অস্থির মুরারি ॥ দয়ার
সাগর হরি অনন্ত মহিমা | কহিঘ কতেক গুণ গুণে নাহি সীমা ॥।
দুক্টের দমন আর শিস্টের পাঁলন। করিবাঁরে অবতার বিভূ সনা-
তন।| ব্রুজ ভাব ভাবি কৃষ্ণ ব্যাকুলিত মন। কিন্তু কিছু প্রকাশ
না করেন তখন ॥ রাখালের সঙ্গে রঙ্গে নাঁচিতে নাঁচিতে | মিলি-
লেন আসি যত গোৌপের সহিতে ॥ সন্ধযাযোগ্ে মন্দের নিকটে
উপনীত। দেখি নন্দ মহাশয় হয়ে হরষিত || কৌলে নিয়া কৃষ্ণচন্দ্র
সুখে ছস্ব দিয়।। তুষিলেন বহুবিধ আঁদর করিয়া ॥ বলরাঁমে কোলে

নিয় করেন আদর। নন্দের স্নেহের কথা কহিতে বিস্তর || তবে
হে কোলে হতে নীমিয়া তখন । নিগ্ধ জলে করিলেন পদ
্রক্ষালন1| যুদ্ধ আর অটনের পরিগুম যাহাঁ। জল সিঞ্চনেতে

দুর করিলেন তাহ! ॥ ক্ষীর সর নবনীত করিয়া ভোঁজন। নন্দের,
নিকটে দৌহে করেন শয়ন ॥ মতান্তরে নন্দ কাছে এক রাত্রি রন।
প্রভানের মতে ছুই রজনী যাপন ॥ শ্রীদামাদি করি যত কৃষ্ণ সখা-
গণ। আঁপন পিতাঁর কাঁছে করেন শয়ন || উপবনে শ্বকটের উপ-
রেতে বাঁস। - টন্দ্রের কিরিণে মনে বাঁড়ীয়ে উল্লাস ॥ হইল রজনী









দ্বিতীয় ভাগ?

৩৪

বৃদ্ধি করে বিলীরব। ক্রমে ক্রমে গোপগণ ঘুমাইল সব নগদ
চক্ষে নিদ্রা নাই শুনহ কাঁরণ। কৃষ্ণের চরিত্র ষত করিয়া শ্রবণ ॥
রজকের মুগ্ডচ্ছেদ হস্তের প্রহরে ৷ তত্তরবায়ে মুক্তিদান জ্ঞান মাঁলা-
কারে যজ্ঞের ধন্থকভঙ্গ নাঁশি বীরগণ। কুবুজা সুন্দরী কর!
অদ্ভুত কখন ।। জন্মাবধি যত কথা শ্রীক্ুষ্ণের আর। স্মরণ করিয়া
নন্দ ভাবেন অপার ॥ ভাবিতে ভাঁবিতে দেহে জ্ঞানোদয় হয়| শান্তর

কথ] অ'লোঁচন1 করেন হৃদয় ||

বথা | শ্রীমস্তভাগৰতে মহী পুরাণে
_ প্রথমন্কন্ধে প্রথমাধ্যায়ে |

কুতবান যানি কর্ম্মাণি সহরাঁমেন কেশব ।
অতি মর্তাণানি ভগবান গৃঢ়ঃ কপট মানুষঃ ||

গুড় শব্ষে সর্ব গুহা শয় হন যিনি । গোঁপন হইতে অতি গোঁপনীয়,
তিনি | এই ও পরিজ্ঞতা কেহ নয়। তিনি সকলের জ্ঞাতা
কর্ন কয়1.

যথা। সসর্ববেত্া নহিতস্তবেত্তা ইত্যাদি |

সকলি জানেন তিনি বিভু বিশ্বময়। তাহাকে জানিতে কেহ
ক্ষমবান নয় || সজীবের অজীবের অন্তরাত্মা হন। শব্দরূপে

আকাশের হৃদয়েতে রন ।॥ আকাশ তাহারে কভু জানিতে না পারে।
এই হেতু শ্রুতি কয় অশরীর তীরে ॥ পুনঃ কর সর্বরমনর ব্রহ্ধসনা-
তন। প্রচ্ছন্ন রপেতে সর্কঝ শরীরেতে রন ॥

যথা [ সর্ববং খলিদং ব্রদ্দেতি।

আতির সংবাদে দেখ বিরাট রূপেতে। সকল ধরেন তিনি আপন

দেহেতে ॥ মায়ায় মানুষ রূপ করেন ধারণ ৷ এই হেতু গুট বলি
আর্সতশণে কন।।





৪০.

প্রভাসখণ্ড

অতিমানুষঃ |

অতি মানুষের কল্ম- শুন তত্বসাঁর। মন্ুষ অতীত কর্ম্ম সর্বক্ষণ
হার | শুদ্ধ ঈশ্বরীয় কার্ধ্য প্রকাশ নাঁকরি। অন্ুষ্য ইন্াতে, কর্ষ
অধিক আঁচরি॥ গৌবদ্ধন খ্িরি আঁদি ধারণ যে হয়। মনুষ্য
বাঁলকে ইহা সম্তাবিত নয়॥| ইশ্বীরীয় কর্ণ বলি খরা নাহি যাঁয়।
জগত আইছক়্ে প্নত ধাহার সত্বায় 11 তীর স্বৌবর্ধন ধরা নহে বড়
ভার। গোবদ্ধন আঁদি পদে শুন অর্থ আর॥ গুতনা বিনাঁশ করা
শকট ভগ্ন। তৃণীবর্ত- অঘ বক অন্ুর নাঁশন ||. কাঁলীয় দমন
আর দাবানল পাঁন। এত কর্ম মন্থষেতে অন্তুব না পাঁন|| সকলি
এঁশিক কর্ম মন্থষোর নয । পুক্ত তাবে জনমিল ঈশ্বর নিশ্চয়!।

এই সব কৃষ্ণ কার্ষা ক্রি, মনে মনে । নন্দ মহাঁশয় কন আঁপনি
আপনে ॥

যথ! | জাঁনাসীমং মহাবিষ্ণৎ পরংনিড মচ্যুতং |
তথাপি মোহিতোহঞ্চ মানবে! বিষুমায়য়া 1

এই যে বাঁলক মম বিষুণ অবতাঁর। পরম নির্ণাচুযুত-অচিন্তা
আকার || জানিয়া নিগুট তত্ব নাহি থাকে ম্মুত। আমি ষে
মানব বিষণ মায়া, বিমোহিত | আমার মানব দেহ অতি পা
চারি। বিষণ মাঁয়ামোহে মুগ্ধ চিমিতে না পারি || কোলে পেয়ে
কুষ্চনিত্থি তত্ব হার! হুই। পুজ্র ভাব ভাবি মনে কত কথা কই |
মনে মনে এই রূপ করিয়া ব্রিচার। মন্ুষা নহেন কৃষ্ণ জানিলেন
সার ॥ নাঁশিতে ভূভার অবতার নাঁরায়ণ। এ কথার অনাথা যে
নহে কদাঁচন।| ভাবিতে ভাবিতে নন্ৰে ভত্তি' উপজিল। স্তুতি
করিবারে কষে মনে বিচাঁরিল | উঠিয়া বসিলা নন্দ সজল নয়ন ।
ভাব দেখি কৃষ্ণচন্দ্র ভাঁবিয়। তখন. মাঁয়াতেভুলাযে দেন নন্দের
সে ভাব । কে বুঝিতে পারে কৰে কৃষ্ণের কি ভাঁব || নিজে ভয়ে
শুর হয়ে তাঁসিলেন ভয়ে। স্বপ্পে যেন ভয় পেয়ে মন্থষ্যকাপয়ে ||




5225 রর

দ্বিতীয় ভাগ 3১

প্িত। পিতা বলি: হরি উচি চমকিয়1. ধরিলেন দুই হাঁতে অন্দে
জড়াইয়] ॥ জড়াইয়া ধরি নন্দে করি আকর্ষণ 1 জ্ঞান্ময় জ্ঞাঁনতত্ত
করেন হরণ ॥ কৃষ্ণের মায়ায় নন্দ হারা ইয়া জ্ঞান। ছুহাঁতে খরেন
কৃষে ভাবিয়া সন্তান ।। কেন কেন বাঁপ বলি করি সম্বোধন ।- তয়
কি ভয় কি বলে করেন সাঁস্ুন | হায় হায় কি. আশ্চর্য শ্রীকৃষ্ণের
লীল|| দেখিতে দেখিতে নন্দ সকলি- ভূলিলা0| - গুর্ব্ব ভাব দুরে
গেল হইল স্বভাব | যুচিল ঈশ্বর ভাঁব ভাবে পুজ্র ভাঁবা। হে
কৃষ্ণ কতক্ষণে স্ুসান্ত্ব হইয়া। স্ুধান পিতারে. কিছু কৌলেতে
বসিয়া ||: অদ্য পিত1 গিয়াছিলে রাজ বিদ্যনান।. কহ দেখি কি
দেখিলে রাঁজার-বিধাঁন ॥ কিরূপ প্রভার. শোভা! রাজা বা রেমন |
কিরূপ -মন্ত্রণা করে রাজ মন্িগণ || -সভাসদগণের কি জপ জে
মতি) দারিদ্র দীনের প্রতি.কি-রূপ ভকতি |॥ কোন-কোন.জন্‌
আছে পার্ষদ- বাজার কহ পিত1- যে সবার কি-বূপ--আঁচাঁর.।
সাঁধুজন কত আছে রাঁজার নিকটে কৃত বা.আছয়ে, খল কহ অক-
পটে | মুহ্থাবীরগণ -তথ| আছে কত জন. কত বল ধরে তাঁর!
আকার কেমন ॥ শিষ্ট সঙ্গে রাঁজাঁর-কিরূপ আলাপন ।. ছুফটে বা
কেমন মন কহ বিবরণ | আর--তাঁর কত. আঁছে অপর. রৈভব-।
একে একে বিশেষিয়া শুনাঁও দে সব।. এত: যদি কুষ্ণচন্র ধান
পিতীর | গুপিয়| কহেন নন্দ সশক্কিত-কাঁয়,। মৃদ্ুম্বরে কন গ।ছে





শুনে অপা জনে দারুণ কংনের তয় আছে. যনে মনে. শিশুর
দােভাঁষে-শুন সর্ধজন..প্রীকৃষেকহেন যাহা গ্রীনন্দ তখন ||

নন্দ মহাশয় শ্রীকষ্ধকে কংদের-
বৃত্তান্ত কহেন.
ব্িপদী। প্রীকুফের শুনি--বাণী; শ্ীনন্দ-কপালে- হানি, ধীরে

ধীরে কহেন বচন। -শুন শুন বাঁপধন, কবজ বিবরণ, কহিত্তে
স্ভীত হয় মম রজনী যৌেতে কথা, বলা নহেষথ| তথা, নীতি









৪২. গ্রভাখণ্ড।

সনত্ত্রে আঁছয়ে বারণ || শুন পুর সাবধানে, পাছে ষায় অন্য কাণে,
তা হইলে হবে বিঘটন।] শক্র ফেরে পায় পায় কথা বল বড় দায়ঃ
' শুনে পাছে কহে কংস স্থানে । তা হলে ফিরিয়। আর, ব্রজে যাওয়!
হবে ভার, শুন কহি অতি নাঁবধাঁনে।॥ পাঁপমতি খল কংস, পণ্যের
নাহিক অংশ, অসুরের বংশ ছুরাঁচার। উগ্রসেন জায় যেই, অস্ভুরে :
ভজিল সেই, কেই হৈল এমন কুমীর1| পাঁপেতে জনম যাঁর, ধর্ম
কোথ। থাঁকে তার, কর্ম নষ্ট -সকলি- তাহার । ছুষ্ট মঙ্গে সুমিলন,
শিষ্টে নাহি আলাপন, জাঁরজের মর্ম বল। ভার।। -বাঁজা নিজে
বলবান, ইন্দ্র পাঁন অপমান, যুদ্ধে যদি ক্ষণকাঁল যায়। দারুণ,
ফৎসের দাঁপে, পদভরে ধরা কীপে, বাঁজুকি মস্তকে ব্যথা পায় ||
কাঁছে যত বীরগ্রণ, রহিয়াছে অগণন, অগণন বল দেহে খরে । ব্রন!
বিষণ মহেম্থবরে, ক্ষণে মাত্র নাহি ভরে, মুইুর্তে প্রলয় ধরা করে ॥
শুনহ সভার কথা, যেরূপ দেখেছি তথা, সাধ্য যথ| কহি তক
স্থীনে। রাঁজা যবে দ্রেয় বার, অন্তচরগণ তার, অনুরূপ রীজ বিদা-
মাঁনে ॥ নিজে পাঁপনতি কংস, সকলি পাঁপের অংশঃ ছত্রধার্ি
অভি পাপাঁচারি। চামর টুলায় যেই, খলনতি অতি সেই, সম্মুখে
হুঃশীল আঁস| ধাঁরি ॥ রাঁজপাত্র মহাপাত্র, পাঁপের প্রধান: ছাত্র,
মন্ত্রণার কত কব কথ] | পরনারী পর ধন, পরৰিক্ত গ্রহরণ, বলেতে
করিবে যথা তথা ।। বলীরে পুঁজিবে রাজা, নির্ব্লীরে দিবে সাজা,
প্রজাগণে সতত পীভিবে। ছুষ্টের রাখিবে মান, শিষ্টের নাশিবে
প্রাণ) রাজইষ্ট তবে সে হইবে ।। দোকর প্রজার করঃ বলেতে
'আনিবে ঘর, লুটে লবে যদি দেখে ধন। সতত করিবে রোষ, ইহাতে
নাহিক দোষ, রাজকোষ করিবে পুরণ || মন্ত্রিণির এ মন্ত্রণা, কত
কৰ সে যন্ত্রণা, সভাঁসদ অসত সবাঁই। রাজার ষে মত পায়, মত মত
দেয় সাঁয় বলে ইথে দোষ কিছু নাই রাঁজা যদি বলে জল, উচ্চ
£দখি এই স্থল» সতাসদে বলে সতা রায়। বাঁজবুদ্ধি বিচক্ষণ, নছে
€কব| এ লক্ষণ বিলক্ষণ, বুঝিবাঁরে পাঁয়।| কাছে আঁছে মহামল্ল
শ্লাদি তোষল নল্ল। চান্ুর মুষ্টিক আদি রুরি। রাজ আজ্ঞ! যদি পাত








দ্বিতীয় ভগ

1

৪

তাঁরা (জনি বেগে ধাঁয়, বাঁসবে আঁনয়ে ড্রুলে ধরি ॥ খবিগণে দেস্ব
কষ্ট, যাগাদি ক্রয়ে নষ্ট, গো হত্যায় নাহি করে ভয়। খল রুদ্ধ
বিচক্ষণ, অখাঁদ্যে অধিক মন, সদ্যপানে সন্তোষ হৃদয় ॥- এরূপ
অনেক চর, আছে রাঁজ অন্থচরঃ ভয়ানক দেহের আঁকার । কিকৰ
অধিক আর, খল মতি সবাঁকার, শিষ্ট কেহ নাহি তথাকাঁর || রাজা
ভাবি ভয়ঙ্কর, চক্ষু করি ঘোরুতর, সতত সবাঁর দিকে চায়। দেখিলে
নে ঘোর আখি, উড়ে ষায় _গ্র।ণ পাখি, কত আর কহিব তোমায় ||.
কিজাঁনি কি মন্দ্রণাঁয়, আনিলেক অথুরাঁয় আম! সবে করি আমন্ত্রণ |
বিশেষত সমাঁদরে, পত্র দিল স্বতন্তরে* তোঁমা টে [ছে করিয়া ষতন:।।
এ কাঁষেতে মম মন, স্থির নহে_কদচন+ সর্বদা কীপিছে কলেবর |
ব্যবস্থা রহিত বার, প্রসন্গতা বাঁক্য তাঁর, দেহ ভয় অতি ভয়ঙ্কর ||
এক্ষণেতে ভালে ভালে; কার্ষা সমাপিয়। কালে, দেশে গেলে তবে
হুবস্থির। গুন বলি-ওরে বাঁপ, কস খলমতি পাপ, অতিশয় নির্দয়
শরীর ॥॥ ভগিনী দেবকী সতী, বন্তুদেব ভগ্নিপতি, ভুষ্টনতি 'রেখেছে
বন্ধনে । সে দ্ৌহার ছুঃখ যতঃ আঁমি বা কহিব কত, হৃদি ফাটে
ষদদি কুকি মনে || এত যদি নন্দ কন, পরীক্ষণ কুপিত মন, কংসের
শুনিয়! দু্টাচার ১, তথা প্রকাশিয়া, কোন কথা না কহিয়া,
মনে মনে করেন বিচার ।। প্রতুঢষেতে প্রতিকার, খুঁচাৰ গ্রথীর ভার,
ংসে ধ্বংস করিব নিশ্চিত করিলাম দুঁড় উক্তি, ম| বাঁপে করিব
যুক্তি, সজ্জনের যুচাইৰ ভীত এতেক ভাবিয়া মনে, নানা কথ!
আঁলাঁপনে, নন্দ -ক্রোড়ে নিদ্রা যান হরি । ভ্রীনন্দে কংসের ভয়,

নেত্রে নিদ্রা নাহি হয়, ভীবনায় বঞ্চেন সর্বরী 11 ২২.

কংসের হুঃস্বপ্র দর্শন |

: দীর্ঘ-ত্রিপদী ৷ ওখাঁনেতে রাঁজা কংস, নিদ্রার নাহিক অং;
জানিয়! কৃষ্ণের কর্ম যত। -দেবকীর গর্তাউমঃ জন্মিল আমার যম,
এত দিনে বুঝি হই হত ।।- দুরে ছিল ছিল ভাল, কাছে আনিলাম
কাল, আপনি করিয়! আমন্ত্রণ । আপনার হাতে গলে, শিলা বানি






8৪8... - পভালখও।

পড়ি জলে, এক্ষণে উপায় অপাঁয়ন।॥ আঁগুণে দিলাম ঝাঁপ, খরি-
লাঁম কাঁল সাঁপ,জানিয় শুনিয়। নিজ হাতে । কি করিব হায় হাঁয়।
মরি মরি প্রাণ ষাঁয়, বিষাগ্সির বিষম জ্বালাতে ॥ .এই মত ভাঁবনায়ঃ
রজনী কাঁটায় তায়, জাগিয়া যে দেখে ছুঃস্বপন | মুর্তি অতি ঘোঁর-
তব, দণ্ডকর এক নর, তয়ন্কর মহিষ বাঁহন || পুনঃ দেখে এক নর,
তৈলসিক্ত কলেবর, বলে ধরি করি আলিঙ্গন । চড়ায়ে গাঁধার পরে;
নগরে ভ্রধণ করে, ওভফুল দিয়া 1 বিভূষণ ॥ পুনঃ গ্ষ্ঠে মারে ছাট, ূ
ছাঁড়িয়া প্রশস্ত বাঁট, লয়ে চলে কন্টকের বন |: ছিন্ন ভিন্ন করে কাঁয়,
রক্ত-নাহি.পড়ে তাঁর, কৃষ্ণনীর হয় দরশন ॥ আঁপন ছুর্গতি তাঁর,
স্বপনে দেখিয়! রাম, উভরাঁয় করিয়ে ক্রন্দন | পুনঃ স্বগ্জ দেখে;
তায়, মুণ্ড হীন নিজ কী, ছায়। নাঁছি হয় দরশন।॥- নিশি শেষে
ছুঃস্বপন, দেখি রাঁজা অন্গুক্ষণ, স্বপ্ন তঙ্গে চমকি উঠিল) ভয়ে কাপে
কলেবর, কোথা আছ অন্চর, বলি উচ্চৈঃস্বরে ডাঁক দিল ॥ শুনিয়া
কংনের রব, ধ। ইয়া আইল সব, মহাবীর অন্থচর 'যত। দেখি সব
বীরচয়, দিয়া স্বপ্ন পরিচয্ব, কেন্দে বলে হইলাম হুত | শুনি বীর-
গণে কয়,ও সকল কিছু নয়, বারুযোগে দেখায় স্বপন। শুন রাজা
মহাশয় তোমার কিসের ভয়, আমাদের থাকিতে জীবন | লমুদ্র
লঙ্ঘন করি, ইত্দর, চন নাহি ভরি, শমনেরে দ্বেখাই গমন | আকর্ষণ
করি,তাম্থ, বাঁলক বলাই : কানু, তাঁছে এত ভয় কি কারণ). মুহুর্তে
মরিব রায়, কিছু না ভাবিবে তাঁয়, মল্ল যুদ্ধ করিয়া, ছুজন। চান্ুর
বলিল আর,কীঁন্থুরে আমার ভার, বলরাঁমে মুষ্টিক ভাঁজন ॥ এইরূপে
টা দর্গ করি সর্বজন, বাঁজারে বুঝায় বিখিষতে। সাহস পাইল
+ শক্রুর হইবে ধংস, নিশি গ্রতে অনুচর হতে || বহুবিধ
্ী কয়ে, বদিল স্ুস্থির হয়ে, এক্ষণেতে শুন সমাঁচার। নন্দ
ভ্রোঁড়ে ভগবান, উপবনে নিদ্রা-যাঁন, ভ্রমেভে রজনী অবহাঁর ॥
ক্ষণপরে গত নিশি, প্রকাশ_পাইল দিশি, পক্ষী সককরে কলরব 17
অরুণের আগরমনে,নলিনী আনন্দ মনেঃ সরোররে করয়ে উত্সব 11.
প্রাতঃক্সীনে খষিগণে) চলেন সানন্দ মনে; ইঞ্নাস করি উচ্গঠাৎ







দ্বিতীয় ভাগ । ৪৫.

রণ। তস্কর ছুক্ষর জন,হইল মলিন মন, নির্ভয় গুহস্থ যত জন |!
এ সময়ে নরহরি* উঠিলেন ত্বরা করি, রজনীর জাঁনি অবসর । নন্দ
আদি গৌঁপথ্ণ, উঠিলেন সর্কজন, শিশু কহে শুন অতঃপর ||

নিশি প্রভাতে রাঁজসভাঁয় শ্রীরুফ্ণের
গসনোকম্যোগ |

পয়ার। নিশির গমনে শীত্র উঠি নরহরি। প্রাতগুকৃত্য আদি,
সব সমাপন করি ক্ষীর সর নবনীত করিয়া ভোজন | নন্দের
নিকটে বসি বলেন বচন || শুন শুন মহাঁশয় করি নিবেদন । তাশ্রে
তোমা সবে যাঁও রাঁজার সদন || অবিলম্বে গিয়া সেই রাঁজ সন্গি-
ধানে। রাঁজারে বন্দিয়! বৈস যথা যোগ্য স্কাঁনে।। শ্রীদাম সুদ
আদি মম সখাঁগণ। আমার সঙ্গেতে সবে করিবে গমন || দাঁদা
বলরাম সঙ্গে যাৰ কিউ পরে। যাইয়া মিলিব শীন্র তোমার
গোঁচরে।॥ শুনিয়া কৃষ্ণের কথা গ্রীনন্দ তখন । ধুর নিওসরে কন
মধুর বচন ॥ নগর দেখিয়া বাপ যাইবে ছুজনে। দেখ যেন পথে

দ্বন্দ্ব নহে কাঁর সনে।| ছুরন্ত এ রাঁজধানী ছুরন্ত রাঁজন | চঞ্চল
স্বৃতাঁব বড় তৌমরা ছুজন।1 পাছে কার সহ দন্দ্ব কর বাঁপধনী।
এই হেতু সদা ভয়ে ভাঁসে মম মন॥। কৃষ্ণ কন পিতা ভয় ন!
ভাবিহ মন্দে। এখনি মিলিব গিয়া তোমার সদনে ॥॥ এত বলি
কৃষ্ণচন্দ্র অতি অনোরঙ্গে | নগর দেখিতে যান বলরাঁম অজ 1-
শ্রীনন্দ সতয্ মনে সহ গোঁপগণে। রাঁজাঁর সদনে বান যজ্ঞ দর-,
শনে ॥ উপনন্দ আদি করি সহ সর্ধজন। অবিলম্বে উপনীত
রাঁজার ভবন | কংসরাজ নিকটেতে নন্দ মহাশয় । প্রণাঁম করিয়া
বহু করেন বিনয় | নন্দেরে দেখিয়! কস করি সমাদর। _বসিতে
আদেশ দেন সতাঁর ভিতর || রাঁজার আদেশে নন সহ যহচর |.
বমিলেন সভাঁমখ্যে মভীতি, অন্তর ॥ পুনঃ কংস- মহারাজ নন্দেরে:





৪ গ্রভাসখগ্ড

সুধান। কুশলেতে আছ নন্দ সহিত সন্তান।॥ বুদ্ধকীঁলে প্রত্ন
তব হয়েছে সুন্দর । অধিকন্ত হইয়াছে বড বলখর। শুনিয়।
দেখিতে বাগ হয়েছে আমার ॥ স্বতন্তর নিমন্ত্রণ দিয়াছি তাহার |
তবে তব পত্রে কেন সঙ্গে আঁন নাই। মম বাঁকা লত্ঘনেতে মনে
ভয় নাই॥ শুনিয়া কংসের কথা কম্পিত অন্তারে। করযোডে কন
নন্দ রাঁজাঁর গৌচরে ॥ কার সাঁধ্য তব বাক্য করিবে লঙ্ঘন ৷ আঁসি-
ছে সঙ্গে বাঁ আমার নন্দন ॥ বাঁলক স্বভাঁক গেল দেখিতে
নগর। এখনি আসিবে দেব তোঁমাঁর গোঁচর 1] শুনি ভাল ভাল
বলি নন্দেরে কহির! । ইঙ্জিতে আঁপন গ্রণে কহেন ডাঁকিয়া || কুব-
লয় নামেতে ষে আছয়ে কুগ্তর। দশ শত কুগরের সম বলধর।
সদ্যপাঁন করাইয়া মাঁতৌফ়ালা করি। দ্বারদেশে আঁবদ্ধিয়া রাখ
সেইকরী ॥ প্রচণ্ড নামেতে আছে মাত তাহার! বুঝাইয়া বল
তারে করিয়া বিস্তার ॥ যথাসাধ্য পরাক্রমে অস্কুশ ধরিয়া । হস্তী
গরে থাঁকে যেন সতর্ক হইয়া || যেই মাত্র রাঁম কৃষ আসিবেক
দ্বারে। হন্তি টোয়াইয়া যেন অবিলম্বে মারে এই রূপে শক্রর
হইলে পরিক্ষয়। আমার অযশ তবে ভুবনে না হয় ॥ এতেক
মন্ত্রণা করি দুতে আঁঙ্ঞা দিল। দুত গিয়া মাহছুতেরে বিশেষ:
কম্ছিল !| দুতমুখে রাঁজ আজ্ঞা করিয়া শ্রবণ। প্রচণ্ড মাহুত.করি,
করীর সাঁজন || মদ্যপান করাঁয় কলসী দশলক্ষ । ছারদেশে রাঁথে
করী কৃ্ে করি লক্ষ ॥ আপনি অঙ্কুশ করে রহে করী প্পে। কার...
সাঁধা প্রবিষ্ট হইবে দ্বারবরে ॥ রাঁজাঁর নিকটে রহে মহাবীরগ্রণ।
চানুর মুষ্টিক আদি জাছেযত জন ॥ শিশুরাম দাসে ভাঁষে মধুর
বচন॥ রাঁজদ্বারে কৃষ্ণ বলরামের গমন |)

ঢু
&

কুবলয় বধ ও রাম কৃষ্ণের রাঁজসভায় গমন |

পরাঁর। এখাঁনেতে নরহরি সহ সহচর। নগর ভ্রমণ করি
চলেন সত্বর ॥ মল্লে মল্ল ক্রীড়া! করে কংসের সভায় । বান্বাক্ফোট





দ্বিতীয় ভাগ । ৪৭

_স্ছঙ্কার শব্দ হয় তাঁর ॥॥ দুরে হতে সেই শব্দ করিয়! শ্রবণ । বল-
রাঁমে কন কফ ইক্তিত বচন || হইয়াছে সুসময় চল শীন্রগতি 1
নে বি ঘুচাইৰ সাধুর ছুর্গতি || অবিলন্বে তাঁর শুন্য করিব
ধরণী । মা বাপের বন্ধ মুক্ত করিব এখনি ॥ এত বলি গুণময়
সত্ব সম্বরিয়া | তমোঁগুণ উপরেতে- নির্ভর করিয়া ॥ ক্রোখভরে
নিজ কাঁয় করি বিশ্বন্তর। কটিতে আঁটিরা খা চলেন সত্ব্র |
পৃষ্টেতে আঁটোঁপ পীত বস্ত্র মনোহর? মেঘেতে খেলিছে যেন
চপলা সুন্দর ॥॥ - চূড়ীপরে শিশীপ্চ্ছ চরণে নুপুর । চঞ্চল গমনে
যন বাঁজে সুমধুর ॥ করেতে বলয় তাঁড় গলে দোলে মণি। কর্পেতে
কুগুল শোতে দীপ্ত দিনমি ॥ চলিলেন কচ এইরূপ ভাবে।
যে জন যে ভীঁবে ভাবে দেখিবে সে ভাবে ॥ দক্ষিণেতে বলদেৰ
বলেতে অনন্ত । কি কব রূপের কথা রূপে নাহি অন্ত॥॥ বামভাগে
চলিলেন শ্রীদীম স্থুমতি। পশ্টাতে রাঁখীলগণ রূপবান অতি ॥
আলো করি রাজপথ রাঁজীবলে৷চন। দ্রুতগতি যাঁন মোহি মধুরাঁর
জন | ক্ষণমাত্রে রঙ্গ দ্বারে হয়ে উপনীত। দেখিলেন দ্বারদেশে
রী, প্রীত ॥| প্রচণ্ড মাত দস্তে ভ্রমক্কে তাহারে । প্রবিষ্ট হইতে
কারে নাঁহি দেয় দ্বারে. দেখি কৃষ্ণ কন_ জি করি, স্বোরতর। দ্বার
ছাড়ি শীন্রগতি অন্তরেতে সর | নহিলে নহিবে ভাল গুনরে বর্ধর |
হস্তি সহ পাঠাইব শঘন নগর | শুনিয়। কর্কশ কখা মাহুত রুল ।
কুষ্ণের উপরে হস্তি টোয়াইয়া দিল ॥ প্রমন্ত মাতঙ্গ সেই গ্রমত্ত হই-
য়া। ধারবারে ধায় কুষ্ণে কর-প্রসারিয়া ॥ তুলি মুণ্ড লাড়ে শুও বেগে
ঝাডে মদ অঙ্কুশ আঘাতে আরো কোপে, চীলে পদ ॥। দেখিয়।
মাতঙগ তি প্রভূ ভগবাঁন। আতঙ্গ পাইয়া যেন অন্তরে পলাঁন ॥
তাঁহা দেখি অতি বেগে খাঁয় হস্তীবর। চারি হস্ত অন্তে তাঁর রন
মুরহর | সহজে সে মুর্খ হস্তী না পারে বুঝিতে | তবু মহাবেগ্রে ধাঁ
কঁফণেরে ধরিতে || পুনঃ পুনঃ মতে বলিছে ধর ধর প্বরিতে
না পারি কৃষ্ণে কোৌধিত অন্তর|| তা দেখিরা কৃষ্ণচজ্্র বেগেতে
খাইয়া! । হস্তির গ্লালেতে এক চাপড় মারিয়া ॥ পুনরপি কত দ্রুর উঠে





9৮ প্রভাম খণ্ড ॥

দেন রড । চাপড় খাইয়া হস্তী করে ধড়ফড় কতক্ষণে কুবলয় ;
সম্বিত পাইল] অন্তরে পাইয়| ব্যথা অধিক-কোপিল || ক্রোধরে
তুগুতুলে শুও বাঁড়াইয়! | ধরিতে ধাইল কৃষ্ণ আত্ম পাসরিয়া |॥
যে দ্িগেতে বেগে হত্তী হয় ধাঁববাঁন। অলক্ষেতে কৃষ্চন্দ্র অন্য.
দিগে যান || কখন বা বাঁষে যাঁন দক্ষিণে কখন কখন পন্চাত :
ভাঁগে করেন গ্রমন]| কখন, লুকান তার বক্ষতলে শিক! ॥ পুনরপি |
দখা দেন সম্মুখে আসিয়া ॥ ধরিতে-ন1 পারি কুষ্ণে হইল-ফাফর। ৃ
মাঁছতে অঙ্কুশ মারে বলে ধর ধর ॥ কুলাল চক্রের ন্যায়ে ফেরে
কুবলয়। ধরি ধরি-করে কিন্ত ধরা নাহি হয় || কোন মতে কৃষ্ণ- :
চন্দনা পাঁরি-ধরিতে) কর প্রসারিয়া হুস্তী ভমে চারিভিভে || :
তবে-কতক্ষণে কৃষ্ণ করিযা বিচাঁর। - করির পশ্চাতে হিয়া পুচ্ছ ধরি.
তারা॥ বামহাতে খাঁর পুঙজ্ছ করান ভ্রমণ বৎসেরে ঘ্ুরায় খ্বরি :
বালকে যেমন ॥ দেখিয়া সকল লোক চমত্কার হয়। ধন্য ধন্য |
করি কষে বার বার কয় অনুক্ষণ নরহরি ধরি তাঁর লেজ। :
ঘুরায়ে ঘুরায়ে হস্তী করেন নিস্তেজ! অবিলম্বে ছাড়ি পুচ্ছ সন্যু |
খেতে গ্রিয়া। মারেন মস্তকে ঘুষি কর প্রসারিয়া || সেই মুষ্টা-
ঘাতে করী হেরি শুন্নাকার। পড়িল অন্তরে থিয! ছাঁড়িয়া চিৎ- :
কার ॥ কাল ঘাঁমে দেহ তাঁর হইল প্রাবন। সুখে রক্ত উঠে হস্তী ৃ
ত্াজিল জীবন ॥- মরিল যদ্যপিহস্তী মাহুত পলায়। খেয়ে গিয়া :
বলরাম মাঁরিলেন তায় ॥ কেমনি কৃষ্ণের ইচ্ছা বলা নাহি যায়। ,
মরি-করী কৃষ্ণহাঁতে দিব্য দেহ পাঁয়॥ শঙ্খ চক্র গদা পদ্ম করিয়! :
ধারণ। অলক্ষেতে বৈকুষ্টেতে করিল গমন | দেবগ্রণে পুষ্পরুষ্টি |
করে অনিবার। লোকে বলে ধন্য কুষ্ণবীর অবতার ॥. তবে
কতক্ষণে কুঝ গিয়| সনিখান | উপ্পাঁড়েন করি দন্ত দিয় একটান]। ণ
ছুই হাতে ভুইদন্ত কার উৎপাটন। এক দন্ত বলরামে করেন অর্গণ ॥
ছুই ভাই করিদন্ত স্কদ্ষেতে করিয়া । চলিলেন রজভূমে রঙ্িত ;
হইয়া ॥ করিদন্ত উৎপাটিতে উচ্টি রক্ত ধাঁর। বেগেতে ছড়ীয়ে |
গিয়া গড়ে চারিধার।| নিকটেতে যেষে লোক আল তাহার । ্‌

/










দ্বিতীয় ভাগ!

৪৯

কিছু কিউ লাগে ছিট! অজেতে সবাঁর 1. কৃষ্ণ বলরাঁম অঙ্গে বিন্দু
বিন্দু লাঁগে। হইল অগ্থুর্ক শোভ। অঙ্গ অনুরাগে ॥ শ্বেত নীল
দুই তন্থ জিনিয়! কমল। তাহাতে ফুঁটিল যেন সুরক্ত কমল ॥ কি
কব সে অঙ্গ শোভা না যায় বর্ণন। রূপ হেরি মোহ হয় এ তিন্‌
ভুর্বন।| এই রূপে রাঁম কু্ণকরি দন্ত হাঁতে। উপনীত হইলেন
কংসের সভাঁতে ॥ ব্রজ সহচর শ্িশুযার ছিল সঙ্গে । তাহারাঁও
উপনীত হৈল সে সঙ্গে ॥ ষেরূপে বিদিত হরি হইলেন তথা।
শিশুরাম দাসে তাবে সপ্রমীণ কথা


মলানামশনিনূ্ণাং নরবরঃ জ্ত্রীণাঁং স্মরোমুর্তি-
মান্। গোপানাং স্বজনঃসতাং ক্ষিতিভূজাং,
শান্তা স্বপিত্রোঃশিশুঃ। মৃত্যুর্ভোজপতের্বিরার্ড,
পা তত পরং যোগিনাং1 বৃষ্ীণাং পর-
_হদবতেতিবিদিতো রজৎ গতঃসাগ্রজঃ ||

পয়ার। পরম পুরুষ কৃষ্ণ অগ্রজ সহিত । রজভূমে সী
লস্বে হয়ে উপনীত | ভুবনমোহুন মূর্তি করেন ধাঁরণ। ব্যক্তি
বিবেচিয়া রূপ হৈল দরশন ॥| মল্লগণ দেখে কৃষ্েে বজ্্রের সমান।
নারীগ্রণে দেখে কামদেব : মুর্তিমান|॥ গোপেরা দেখেন কৃষের
আপন স্বজন। সঙ্জনে দেখেন শাস্তা ছুষ্ট রাজাগণ ॥ কংসরাজ
দেখিলেক সাক্ষাৎ শমন। বস্ুদেব -দেখিলেন আপন নন্দন ॥
জ্ঞানিরা দেখেন প্রভূ বিরাট আকার। অখিল ব্রহ্ষাণ্ড জুপ্ত লোম-
কুপে যার॥ যোগতত্ব পরিহরি দেখে যৌখিজন। পরম দেবতা
বূপে দেখে যছুগণ ॥ এই রূপে কৃষ্ণ রূপ হলে প্রদর্শন | মনে
মনে সকলেতে করে প্রশংসন॥ কংস ভয়ে কারে! মুখে বাঁকা নাহি
সরে। আখি পথে লয় রূপ আপন অন্তরে || এ সময়ে কংসাঁদেশে
চীষ্ছর উঠিয়া। কহিতে লাগিল কথা কৃষে' সন্তাঁষিয় | শুন ওহে

5)










৫5 প্রভাসখণ্ড

নন্দন্ুত বচন আমার | ব্রজপুরে তুমি আর রোহিণী কুমার মল্প :
যুদ্ধ করি বু বীরে বিনঠশিলে। বহুবিধ বলবীর্যয প্রকাশ করিলে ||
শুনিয়া রাজার হৈল হরষিত মন 1. আঁনিলেন: তোমা পৌছে: দিয়া:
আমন্ত্রণ 1 মল্লযুদ্ধ পরিপাটা তোম দ্রোহাকার। দেখিতে মানস :
বভ হয়েছে রাজার: প্রজা হয়ে রাজার সন্তোষ করে যেই । চির:
কাল ধনে জনে গ্ুখে থাকে: সেই ॥--অতঞএব শীত্র -কর-রাঁজার
সন্তৌষ। ক্ষমিবেন তোমাদের পুর্ববকাঁর দোষ | যদি রল যুদ্ধ :
যোগ্য ব্যক্তি ইথে চাই । : তুমি: আসামি করি, যুদ্ধ মুিকে বলাই. :
এত যদি কহিল চাঁন্ুুর মহাবীর | শুনিয়া কহেন কৃষ্ণ বচন গভীর ||:
শুন শুন মহাবীর মম নিবেদন | যে কছিলে সমুদয় এ সত্য বচন ॥ ;
প্রজাঁলোঁক হই: বটি ইবি বনাঁলয়। -রাঁজীর সন্তোষ হবে বড়,
ভাঁগোদয় | কিন্তু এক ইহাতে আছয়ে এই কথ1। সমানে সমাঁনে ]
যুদ্ধ সাঁজে যথা-ভথ। | তুমি হও মহাবীর আমি শিশুমতি | কেমনে |
শোঁতিবে যুদ্ধ!তোঁমার সংহতি ॥.- চালুর বলিল কান্ক «কন মিছা:
কও । দেখিতে বাঁলক তুমি বলে ছোট নও | বাঁলাকাঁলে বকাঁ-
সুরে বধিলে বিপিনে। অত্ধ আদি অনেক বধিলে দিনে দ্রিনে | |
প্রক্ষণে এখানে আসি দন্ত দেখাঁইলে |. কুবলয় করি করাঁঘাঁতে বিন।- |
শিলে 1 তৈখিলে€ষ হক্তিবরে লোকে ধরে দিশে | তাঁরে বিনাঁশিলে ৃ
বলৈ তুমি ছোট কিনে ॥ তুমি আমি সমযৌগ্য মুদ্টিকে বলাই | ;
ব্র-কথাঁর অনাথাতি কদাঁচিত নাই ॥| ছাড়িয়া ছলনা কথা হও:
. অগ্রসর 1 কূুনি আমি ছুই জনে করিব সমর || বলাই করুন রূপ
মু্টিক সহিত। রাঁজীর সন্তোষ ইথে হইবে নিশ্চিত | ক্ষত কন;
যদি ভুমি 1 ছাড় একান্ত কিকরি_ করিতে যুদ্ধ হইল নিতান্ত | র
. এসো তবে ছুই জনে সাক্ষী করি ভান্থ। আবু সাক্ষী করি এই জ্বলন্ত ূ
কুশান্ছু॥ আর সাক্ষী হও যত মহ্াবীরগণ । প্রকজন উপরে না

রুষিবে ছুজন ॥ এত বলি রজভূমে নামিলেন হুরি। চান্ুর নামিল
নষ্ট বাঁহ্বাক্ফোট.করি ॥ মুন্িক বলাই সহ হইল ভিড়ন | শিশু

কহে মনল্লযুদ্ধ অদ্ভুত কথন ॥















দ্বিতীয় ভাগ! ্
চান্ধুর ও মু্টিক বধ |

বরিপদী | আজ্ঞা দির মহান, রণবাদ্য মধুর, বাঁজিতে লাগিল-
নধুস্বরে | কি.কব বাদ্যের কথ, যৌদ্ধাগণ শুনি তথা, উৎসাহে:
আপনি পদ সরে ॥. আপন নাঁশন ভয়, অন্তরে নাহিক রয়, কেবল
মারিতে ধায় মন। বাহ্বাস্ফোট হুছঙ্কারঃ করতালি শব্দ আঁরঃ অনি
বার অঘনে গর্জন চান্রের ভীমনাঁদ, শুনি গণি পরমাঁদ, লোক.
সবে এক. দৃষ্টে চায়। কৃষ্ণের কণ্ঠের স্বর” জিনি শত. পিকরর*
. মনোহর কমনীয় কাঁয়॥॥-. উললক্ষন -প্রোল্লম্ফন, উভয়েতে অন্থুক্ষণ*,
নেন ঘ্বুরে স্বুরে পাক 1 করি: টে হাতাহাতি, ক্রমে হয়
মাতামাতি, পাঁড়াপাড়ি মল্লযুদ্ধ ভাঁক 1 চান্ছরের- হাতেতাঁলিঃ
মারি শীত্র বনমালী-অন্তরেতে করেন গমন | চান্ুর রুষিয়!
তায়” কৃষ্ণেরে- ধরিতে ধায়, ছুই ভুজ করি প্রসারণ |. শতপছ
আন্তে গিয়া» ধরে কুষে সাপটি!) কোলে নিয় চাঁপে মহাবলে |
কৃষ্ণের কমল কায়, করিলেন বজ তীয়, চান্গুরের লাঁগে বক্ষস্থুলে ॥
বেদনা, পাইয়া বীর, নাঁপারে হইতে স্থির, ছাড়ি শীন্র- ক্রোধে মারে
কিল | কৃষ্ণেরে না লাগে তাঁয়, চান্ুর বেদন1-পীয়, বজ দেহে ভাঙ্গে
হস্তখিল ॥ ভয়ে হয়ে কিছু পিছে, মুখে দপ্ত করে মিছে, ক্রোধে
বলে মারিব এবার। দেখিয়া যুদ্ধের গতি, কৎসেরে নিন্দিয়া অভি;
লোকে বলে একি অবিচার ॥ যতেক রমণীগণ, দেখি তারা অকরণ,
অগণন নিন্দা করি কয় বলে ভাগ্য এ রাজার, কখন নাহিক আর,
নিজ পাপে শীত্র হবে ক্ষয় ॥ ছিছি একি ভুরাশয়, হাদয়ে না দয়া
হয়, দেখিয়া এ কোমল শরীর। ছুরন্ত অন্তুর মনে, নিযুক্ত করিল
রণে, কেমনে করিয়া মনস্থির ॥॥ -কপটে মন্ত্রণা করে, আনিয়া আপন
ঘরে, দু রাজ! করে ছুষ্ট কাঁধ ॥ অন্াঁয়- কর্ম্মের ফলে, যাঁকু রাজ
রসাঁতলে, মুণডেতে পড়ুক শীঘ্র রাঁজ | কেবল অধর্্ময়, এস্থলেতে
থাকা নয়, ইহা কি নয়নে দেখা যার । নীল শ্বেত. পদপ্রায়, কৃ্ণ
বলরাম কায়* অন্গুর হস্তির সম তায় দলিছে দারুণ দাগে, ক্ষণে





৫ প্রভাসখণ্ড ।

ক্ষণে কোলে চাপে, বিনাঁশিতে চাহে পদ্মদল। আর নাহি দেখা
যায়, ধর্মে ধর্ষ্ে রক্ষা পায়, কমলাঙ্গ কীঁপিছে কেবল ॥ কেহ বলে
নীলকায়, দেখ কিবা শোঁভা পাঁয়, ঘর্্ম বিন্ছু চন্দনের কোলে।
কেহ বলে শ্বেত অঙ্কে, যেন গঙ্গা সতরঙ্গে, বহছিতেছে পবন
হিলোলে ॥ কেহ বলে মরি মরি, দেখ দেখি সহচরি, নীল কাঁয়
রক্তবিন্ছ শোভা. জিনি রক্ত শতদল, হইয়াছে সমুজ্্বল, দেখি
ধায় মনে! মধুলোভা॥ কেহ বলে শ্বেতকাঁয়, মরি কি শোঁভিছে
তায়, হায় হায় ভুবিল গোঁ আখি। ইচ্ছা হয় উড়ে গিয়া, রাখি সদা

আবদ্ধিয়া, ও পদ পিগুরে প্রাণ পাখি || কৌন সখী বলে সই, দেখ
দেখ দেখ অই, নীলাম্বজ ভুজ মনোহাঁরা। ব্রজবধু গণ গলে;
শোভিত মৃণাল স্থলে, কত পুণ্য করে ছিল তাঁরা এইরূপে রাঁমা-
গণ, রাঁমকৃষে। সঁপি মন মনোৌগত কছে পরস্পর । ডুবি রূপ সরো-
বরে ছুইচক্ষে জল ঝরে, রাঁজারে নিন্দয়ে তর ॥ এখানেতে নন্দ- |
ঘোঁষ, যুৰ দেখি অসন্তোষ, ঘন বারি বহে ছুনয়নে। চিত্রের পুলি :
হয়ে, এক দুফটে চেয়ে ররে, স্মরণ করয়ে নারাঁয়ণে ॥ কৃষ্ণের রক্ষার
তরে, অনিবার কৃষ্ণ স্মরে, নাহি জাঁনে পুজ্র কোন জন। আর

যত সাধুগণ, সকলেই ভুঙখ মন, অকরণ করি নিরীক্ষণ,|॥ আকাশে
অন্গুর চয়, চান্রের চাঁছে জয়, দেবে রাঁম কৃষ্ণের কল্যাণ | ভক্তের
হৃদয়ে হরি, ছুঃখচয় দুষ্টিকরি, ঘুচাইতে হন চিন্তমান || ছাড়ি ক্রীড়।
অন্থবল, প্রকাঁশি আপন বল, অবিলম্বে বেড়াঁপাঁক দিয়া । চাঁপিয়া
চা্ুরে হরি, ক্রমে ছুই পদ ধরি, পাক দেন শ্টন্যেতে তুলিয়া ॥

পাঁকেতে বিনাশি বল, আছাঁড়িয়া ভূমিতল, চান্থুরের বধেন_ জীবন ।
বলাই মুফিকে ধরি, চাঁপি দেহ চর্ণ করি, অনায়াসে করেন নিধন ॥
রণে পড়ে ছুই বীর, কংসের কাপিল শির অন্য লোকে থনাধনা
করে। পৃথিবীর অধ্ধতার, হৈল তাঁহে অবহাঁর” ভঙ় স্ঠন্য হইল
অমরে || তবে ক্রোধে মহাবল, ধাইল তোষল -সল, দেখি রা
শমন সমাঁন।. তোষলে ধরিয়া তুর্ণ, আছাঁভি করেন চূর্ণ সলেরে
মারেন-ভগবান ॥ তবে কুট মহান্তুর, যারে কাঁপে তিন পুর,ক্রোধেতে








দ্বিতীয় ভাগ!

কৃষ্ণের আগে ধাক়। দেখি ক্রোধে নরহরি, খাইয়া কুটেরে ধরি,
কুটচ্ছিন্ন করিলেন তাঁয় |. কুট যদি পড্ডে রণে+ দেখি ভয়ে বীরগ্রণে;
কেহ না নিকটে আঁমে আ'র1--কংসের কম্পন হয়, মুখে দস্ত করি
কয়” বীরগণে ডাকি বার বাঁর।| যত :আঁছ_বীর্গণ_ লয়েনিজ
প্রহর, মারহ এ বালক: ছুটায়। নন্দ আদি গোঁপগ্রণঃ, আসিয়াছে
এ ধে জন, বন্ধি করি রাঁখহ সবাঁয় ॥ পাপ উগ্রসেন বাঁপ, দিল বু
মনন্তাঁপ, -তাহীরেও করহ বন্ধন। দেবকী-বন্ুর সহ কারাগারে
জহরহ, রাখ লয়ে এই সব জন |. আগে. মারুদুষ্ট ছোড়া এ দুষ্ট
নষ্টের গোঁড়া, ইহার! থাকিতে ভাষ্য, নাই, ক শিশুরাঁম, দার?
গুনিয়| কহসের-ভাষ, রুধষিলেন-নন্দের-কাঁনাই-)|

চে

পিয়ার । কৎসের দর্পের কথ! করিয়া এবণ। -কুপিলেন-কৃষণচক্র
কমললোচন।। ক্রোধেতে গুরিল তন্থ কাপে কজেবর। লক্ষ দিয়া
উঠ্ঠিলেন_ অঞ্চের উপর | দানব দলিতে- যেন: যায় জ্রপিতি
মার্প সংহারিতে- যথা, গরুড়ের- গতি | সেই মত, মঞ্চে গিয়া উপ-
নীত হন দেখিয়া, কৎসের হয় হৃদ কদ্দান | শমন সদৃশ কৃষে
নিকটে হেরিঠা। উপায় না পা কিছু ভাবিয়া চিন্তিয়া1। ভঞ্জেতে
অস্থির তরু মুখে দন্ত করে) উঠি দাগাইল শীগ্র খাওা লয়ে. করে?
কঞ্ণেরে কাটিতে কংস করে মনে-মন কথসে-বেড়ি কৃষ্ণচন্দ্র করেন
জনণ,॥ কুলাজ চক্রের ন্গাঁয় ভরগেন শ্রীহরি। কস সেই মত ভ্রা্ে
হাতে খাণা করি || মারিনারে চাহে কিন্ত লক্ষ হয়মিছে। অন্ফুখে
করিতে লক্ষ কষ্ণ যান পিছে ॥ এইমত কতক্ষণ করিয়। ভ্রমণ ।
কংগেরে মারিতে কক করিলেন মন পশ্চাতে যাইয়! শীন্ত্র ধরি

ংস কেশে। ফেলিলেন ভূমিতলে, চক্ষুর, নিমেষে ॥ :-বাঁমহত্তে
অন্ি খাঁন..কীভিয়! লইয়া |. অবিলম্বে ফেলিলেন দ্ুরেতে টানিয়া1(
কেশে ধরি উর্ধে তুলি মারেন. আছাভ'! :আছাঁড়ে.অছাঁভে-তার
: চুর্ণ হৈল হীড়]॥ জবশেষে শিলাতলে ফেলি আরবার | -মুখধরি





৫৪ - গ্রভাসখণ্ড ?

ঘর্ষণ করেন অনিবাঁর || ঘর্ষণে ঘর্ষণে কস তাজিল জীবন | ক্লু
হাঁতে মরি গেল উবকুণ্ঠ ভুবন || - কংসের নিধন দেখি যত বীর-
শীণ | হাঁন বাঁসে উর্ধাস্বীসে করে পলায়ন || পলায়িত জনে কুঁষঃ
না মারেন আঁর। বলরাঁধ হাঁতে কারে! নাহিক নিস্তার | আছিল :
কংসের আর তাই অঙ্ট জন | ক্ষ আদি নামে মহাবীরেতে গগন ||
সোঁদরের শোকে তাঁর অস্থির হইয়]। অন্ত্রহাঁতে খায় রূপে ভয়.
তেয়াগিয় |: তাহ! দেখি বলরাম রৌহিনী নন্দন 1 একে একে
অঙ্টজনে করেন নিধন || দেখিয়া ভয়েতে- কেহ নাহি আসে আর |:
বাঁট়িল আনন্দ ছন্দ ঘুচিল অপার | -কংসের মরূণে তয় গেল গ্থিথি- ৃ
বীর। পাঁতীলেতে ভাঁর শুন্য বাঁস্ুরির শির ॥. অভয় হইল সব:
স্বর্গে স্ুরগণ। পুষ্পরৃষ্টি করে আর ছুন্ধভি বাঁজন | অনিবার |
পড়ে ফুল রাম কৃষ্ণ শিরে। রাখালের! নৃত্য করে চাঁরিদিগে ঘিরে ॥
আর নৃত্য করে বু মধুরার জন । যেরূপ আনন্দ তখা নায়
কথননযদদুগণ আনন্দিত হয়ে অতি মনে. রাম কৃ্ষে প্রশংসা :
করয়ে জনে জনে | -এখানেতে কংস পুরে কংস পরিবার ।-কাঁন্দিয়।
₹সৈর শোকে করে হাহাকার | অস্তি প্রাপ্তি নামে ছুই কংসের ;
রমণী. পতি শোকে কান্দে সতী লোঁটায়ে ধরণী |. দারুণ ভুঃসহ
শৌঁকে হারায় স্থিত | ক্ষণে ক্ষণে চমকিয়া উঠে. আচম্বিত।॥
ধুলায় ধুষর অঙ্গ ছন্ন হৈল বেশ ।: শিথিল হইল বাস -মুক্ত হৈল
কেশ ॥ আস্থির হইয়া লজ্জ| ভন তেরাগিত্া ॥রক্গভূমে- উপনীত:
হইল আসিয়া | দেখিয়া কংসের দশ| করে: হাহাকার | পভিয়া ;
টরণ তলে কান্দে অনিবাঁর ॥ আর কহস ভ্রার্ৃবধু কান্দে-অস্ট.জন.|
ধরিয়া কংসের অষ্ট ভ্রাতীর চরণ ॥ যে বূপে করুণ করি, কান্দে |
রানাগ্রণ। কি রূপে কহিব ভাঁহ| অপাধ্য বচন: রৌদন দেখিয়া:
কু করুণ। সাগর) গ্রবোথিয়। সে স্বারে কহেন বিস্তর || শাল :
তত্বক্ঞান বর্মকরিয়া প্রদান ।.করেন রোদনে ক্ষান্ত গ্রভু ভগবান
তবেকতক্ষণে ডাঁকি জ্ঞাতিগণে-তাঁর। আজ্ঞা দেন কংসে কর অগ্রি
সংস্কার ॥ -কংস-সহ যে ষে-জন হয়েছে: নিখন।- সবারে লইয়া :







দ্বিতীয় ভাগ! ৫৫

কর অগ্নিতে অর্পণ ॥. কুফর আদেশে: আসি জ্ঞাতিগণ তাঁর!
করিলেক-_কংসাদ্দির অগ্রি-সংক্কার | শিশুরাম দাসে ভাষে মধুর

বচন এক্ষণে শুনহ বস্তু দেবকী মোচন
-দেবকী বন্ুদেবাদির বন্ধন মোচন ।

, শসয়ার 1. কংসে বধি হরষিত হয়ে নরহরি। অবিলম্বে মলবেশ
পরিহার করি ॥ খধরিলেন গুর্ববেশ অপুর্ব আঁকার 1. ষে বেশে
সাজান ছিল রাণী ষশোদার | অলকা আবৃত কিবা প্রীমুখমগুল'।
ছডাপরে শিখীপুজ্ছ কর্ণেতে কুগুল।॥ নীলকান্ত- কেলেতে করিছে
ঝলমল 7. মেঘেতে ঝলকে যেন চপলা চঞ্চল |॥ গলে দোলে মণি-
হার রুরু নখ তায়। হিল্োলেতে -ফণি ফণা সম শোভ। পায়
করেতে কেমূর-সাঁর বলয় সুন্দর |. কটিতে কিক্কিণী সব ঘুন্টি-মচনা-
হর।। -খড়া করি পীতবাস তাহে পরিধান | পৃষ্টে পিউ বস্ত্র মণিময়
দীপ্তিমাঁন | চন্বনে চচ্চিত অঙ্গ চরণে নুপুর জ্ুচারু চলনে কিবা
বাজে সুমধুর | অপরূপ রূপ কৃষ্ণে বর্ণে সাধ্যকার | সকল রূপের
বাঁসংশরীরে ফাহার | প্রীবাঁস শ্রীনিকেতন বেদ. বলে. যীঁে।
অনোর কি সাধ্য রূপ; বর্ণিবাঁরে পারে ॥. দক্ষিণেতে বলদেব, আইনি
অনন্ত । -কি.কব রূপের কথা নাহি খাঁর অন্ত _উত্তয়ের সম বেশ
সম অলঙ্কার । কেবল প্রতেদ মীত্র মুর্তি টৌহাঁকার 11. শ্বেত কান্তি
বলদেব নীল নীলমণি। প্রকাশিত যেন শ্ধেত নীলকীন্ত, মণি
এ্ইরূপে রাঁমকৃষ্ণে চলেন যখন । দীপ্ত হৈল দশদিগ চমকিল.জন_]
বন্ুদেব দেবকীর বন্ধন মোচনে |. উপনীত হুইলেনদ্বির্দ গমনে- |
দেখিলেন ছুই জন আছেন বন্ধন আপনার হাতে কুষ্চ করেন
মোচন লোহার নিগড়ে সেই নিগুঢ় বন্ধন। এরগের শীখ।
সম করেন ভঞ্জন | বন্ধন তঞ্জন করি প্রণাম করিয়া । -করযোড
করি কৃষ্ণ রন ট(ড়াইয়! ॥ দেখিয়া দেবকী আর বন্গুদেব জ্ঞানী |
না ভাবেন গুজতাব পরমাজ্সা জীনি ॥. না করেন: আশীর্বাদ নাহি
দেন কোঁল। গদ গদ তাবে মুখে নাহি সরে €বাঁল ॥ পরমাক্ম।




৫৬ প্রভাখপ্ত।

বোঁধে হৈল পুলক শরীর।- উভয়ের : নেত্রকৌঁণে ঝরে ভক্তি-নীর |
স্তব করিবারে দেহে করেন মনন 1: ভাবেতে ভূলান: ভা দেখি
নারায়ণ ॥ কেমনি কৃষ্ণের মায় কে বুঝে প্রততাব | : চিল উমর .
বুদ্ধি হৈল পুজা ॥. তবে কুষ্ত করযোঁড়ি করেন বিনয় । শুনগো
জননী আঁর পিতা মহাঁশয়।॥ ও চরণে অপরাধ হয়েছে অনেক |;
করিতে না পারিষ়াঁছি_ সেবন ক্ষণেক:|.-পরঘরে রহিলাঁষ শৈশব
সময় | সকলি দৈবেতে করে আঁকি সাঁধা- নয়]. পাইছি বহু কষ্ট:
থাঁকি কারাগারে | ইহাও দৈবের কর্ম খণ্ডিতে কে পারে || দাঁরুণ :

সের দায়ে হয়েছে এমন । নহে কি এতেক ছুঙখ গায় কোন জন |.
মরিল সে.কংসাস্তুর সংসারের: পাপ ঘুচিল নকল দুঃখ খগ্ডিল :
সন্তাঁপ 1 আর না ঘটবে ছঃখ. হৈল অবসান: এক্ষণেতে আমা
(হে হও কুপাঁবান | অন্তীনের কলম সাহা করিব এখন | সেবিব
ও পাঁদপন্ম যাঁবৎ জীবন ॥. এইরূপে কৃষ্ণচন্দ্র কন বার বার 1)
বন্থুদেব দেবকীর আনন্দ অপাঁর]1. অন্তানের প্রিয়বাঁক্যে পুলক |
শরীর ন্রেছেতে গুরিল গন চক্ষে হর্ষ 'নীর 1: পুত্র বুদ্ধে শীত্র-.
গতি বাহু পণারিয়া | উভয়ে করেন কোলে উভয়ে ধরিগ়া।| শির- ও

ভ্রাণ চুম্ব দান ুন্মু্ু হু মুখে। ঘুচিল সকল ছুঃখ ভামিলেন সুখে].
তবেত দেবকী চাহি কুষের বদন।. -্ুর্ব্ধাবধি ছুঃখযত করান্‌
শ্রবণ শুন ওরে বাপধন ফেভুঙখ আমার এত দুগ্খে-ত্রিভূ-।
বনে প্রাণ বাঁচে কার 1. প্রথম বয়সে হৈল বিবাঁহ যখন । মনো:
ল্লাসে স্বানি বাঁসে করিতে গমন |; আমার সন্থাঁয় হয়ে অঞ্খু রজ্ভু।
থরে। আপনি চলিল-কংম রথের উপরে '। ছু হৈল-জন্ম তাঁরা:
রুষ্ট গ্রহগণ। অকস্মাৎ দৈববাণী হইল-ঘটন |. কংসেবে,ডাকিয়া: |
বলে অশরীরী বাঁণী। কোথা যাও ওরে সু; অন্থরজ্জু পাঁণি |:
যে ভগিনী রাখিবাঁরে অশ্রু ধরে | চলিয়াছন্রে মু আনন্দ:
অন্তরে ॥ উহ্থার অষ্টম শর্ডে জন্মিবে যে -জন:1২ সেই সে-বখিবে :
ছু তৌমাঁর জীবন || যেই মাত্র এরইরূপ-টহুল দৈরবাঁণী।. অশ্থ-রজ্জ,
ছাঁড়ি কংস টৈল্‌ খজাপাঁণি ॥ মনে মনে ছবাঁচার করিলচ বিচার








€ণ

ভখিনী বখিলে গর্ত কিসে হবে আর || এ্রতেক বিচার ছুষ্ট করিয়।
অন্তরে | ধরিল আমার কেশে কাঁটিবাঁর তরে ॥ একেত অবলা আমি
বাঁলিকাঁ বয়েস। ভাঁবিলাঁম পরমায়ু হৈল পরিশেষ ॥. একেবারে
হরিলেক অন্তরের জুখ।। ভয়েতে হইল কল্প শুকাইল মুখ || তখন,
হইত যাঁদ আমার মরণ। তবে কেন এত ছুঃখহইবে ঘটন || সে
সময়ে এই বস্থদেব তৰ তাঁতি। কংসে করিলেন স্তুতি করি যোড়
হাঁত। বহুস্তৃতি করি আর বহু বুঝাইয়া। কহিলেন অগ্রে তাঁর
প্রতিজ্ঞ! করিয়া ॥ না মারো না মারো কংস স্থির কর মতি । তোমার
ভগ্মীর যত হইবে সন্ততি 1 একে একে তব কাঁছে করিব অঙ্গণ |
যে ইচ্ছা বাঁজকে লয়ে করিবে তখন | স্ত্রী বধ দুষ্কর পাঁপ নাঁ কর
এখন।. বিবেচিয়৷ কোপ শান্তি করহ রাঁজন ॥ এত যদি কহিলেন
বন্তু মহাঁশয়। শুনি কংস অন্ক্ষণ মৌনী হয়ে রয় |। মনে মনে বছ-
বিধ করিল বিচাঁর। বাঁলক হইতে ভগ কি হবে আমার ॥ বস্তুর
রি মিথ্যা নহে কদাচিতা অবশা বাঁলকে আনি দিবেক নিশ্চিত ||

ই রূপে মনে মনে অনেক তাবিয়া। অন্ধুক্ষণে দিল তবে আঁমাঁরে
৬ || রক্ষা পেয়ে স্বামি বাঁসে করিলাম হতি। বহু দিনে

হৈল এক অপুর্ব্ব সন্তুতি। তাঁহাঁরে লইয়া তব তাঁত ততক্ষণ ।
কংসে দিয়া করিলেন প্রতিজ্ঞা রক্ষণ ॥ বস্তুর সতাতা জানি দয়া
উপজিল। প্রথম নন্দন বলি প্রথমে ছাঁড়িল ॥ বলিল ইহাতে মম
নাহি কোন ভয়। অষ্টম গর্তের স্থুভে দিবে মহাশয় ॥ : এ কথা
শুনিয়া তবে জনক তৌঁমাঁর। দিলেন আনিয়া স্ুতে কোঁলেতে
আমার ॥ সন্তানে পাইয়া আঁমি ভাঁদি মহাসুখে। আনন্দে
_দলাষ তবে স্তন তার মুখে || এ সময়ে পুনঃ কহস কি ভীবিয়!
মনে। কোঁলে হতে কাড়ি নিয়া গেল সে নন্দনে ॥ পাষাণে
আছাড়ি তার বধিল জীবন। যে ছুঃখ পেলাম: তাছে নাঁ বাঁ
বর্ণন ॥ কেমনে বর্ণিৰ তাহা হইলে স্মরণ । অদ্যাপি আমার দেছে
নারহে জীবন ॥ এই রূপে ছয়বাঁর হইল নন্দন 1 ছয় জনে বিনা-
শিল পাপিষ্ট ভুর্জন ॥ সগতমেতে গর্ভপাত হইল আমার । আপনি




৫৮

প্রভাসখণ্ড

সে স্ুত গেল না মারিল আর || অপরে অষ্টম গর্ভ হইলে সঞ্চার ।
দূত মুখে সংবাদ শুনিয়া ছুরাচার |! আপনি আপিয়া শীন্র লোহার
শৃঙ্খালে | বন্ধন করিল মম পদে হাঁতে গলে।] তারপরে তৰ
তাঁতে. করিল বন্ধন। ছুজনেরে বন্ধি- ঘরে-দিল. ততক্ষণ || কাঁরাঁ-
গাঁরে যত দুঃখ কত কৰ তাঁর। এক দিন অন্তে দিত অর্দ্বেক আহার 11
গুনিয় কৃষ্ণের আঁখি ছল ছল-.করে। -দেবকী. বলেন বাছা শুন
তার-পরে ॥ শয়নের শয্যা ছিল- কম্বল সম্ধল।. উ্ণভিন্ত_ ফুটি অঙ্গ

হইত বিকল | তাহাঁতে মক্ষিকা মশা উাঁশের দংশনে। নিড্রা না
হইত কৃষ্ণ ক্ষণেক-শয়নে- | বছ- দিন পরে কৃষ্ণ ঘটিল্‌ সুদিন ।
তোমার জনম বাঁছা হইল যে দিন |. বদ্ধান খুলিয়া গেল আপন.
ইচ্ছায়।_ তব মুখ. হেরি হৈল পুলকিত কাঁয়॥--তবে তোমা লুকা-
ইতে জনক তোমার নিশিযোগে নিয়া যেতে যমুনার পার

রক্ষকেরা ঘুমাইল দৈব বলবাঁন। আপনি. যমন] পথ. করিলেন,
দান সেই পথে গিয়া শীত্র নন্দের মন্দিরে । তোমা দিয়াকনা?
নিয়া আইলেন ফিরে | সে কন্যা দেখিয়া মম টহল হর্ষ মন) ভাবি-
লাম বধিবে না কনা রত ধন | কান্দিয়াউঠিল. কন্যা মম কোলে

আঁসি।_.ক্ন্দণের শব্দে খত জাগে প্রবাসি ||. জাগ্িল রক্ষকগণ,

ছিল যত জন | কংসরাঁজ কাছে, গিয়া করে নিবেদন ॥- শুনিয়া

2৯1

দা | রন রাখিতে, আঁনি রি যতন ।. কহস বি

করিলাম অনেক স্তবন ॥ কোঁন কথা না শুনিল পাঁপিষ্, ভুর্্মতি।

কোলে হতে কাড়ি নিল কন্য| বূপবতী |. পাঁষাঁণ. উপরে নিল:

করিতে আঘাত। আঁক!শে উঠিল কন্যা ছাড়াইয় হাত ॥ শুন্য
গিয়া কংসে ডাঁকি কহে সমাচার । আমারে মারিৰি কিরে পাপী ছুরা-
চাঁর ॥ অবিলম্বে তোরে যেই করিবে নিধন |. কোঁন স্থানে বাঁে

গিয়া সেই মহাঁজন-॥॥ ইহাবলি কংসে-বছ-করি তিরস্কীর। যথা,

স্থানে গেল কন্যা দেব অবতাঁর.॥ তাহা শুনি হুরাঁচারে বাঁড়ে বহু
তয় |. পুনগবান্ধে আম! টৌহে হইয়া নির্দদ্|| পুর্ব হতে বন্

৯০

2





দ্বিতীয় ভাগ ।

৫৯)

কষ্ট আঁরস্ভিল দিতে । মনুষা জীবনে তাহা পাঁরে-কি নহিতে |
তবে ফে তাহীতে মম রহিল জীবন | কেবল চীছিয়1 বাঁছা তোমাঁর
বদন ॥ এরূপে দেবকী দেবী কন বাঁর বার। শ্রাবণে কৃষ্ণের আখি
ঝরে অনিবাঁর1 পরেতে দেবকী পুন বলেন বচন। এত দিনে
শুভ দিন হুইল ঘটন ॥ _অদ নস স্ুপ্রতাতী হুইল রজনী! প্রকীশ
পাইল আনি-শুভ দ্রিনমণি | পুর্ধ্ব পুণো দেখিলাম বদন তৌমাঁর।
দুরে গেল দুঃখ রূপ ঘোর অন্ধকার ॥ এত-বলি কান্দে দেবী পুর্ব
ছুঃখন্মরি। অঞ্চলে খরিয়া-মুখ মুছাঁন 2 ॥ 08 একটা
ইয়া বলেন বচন আর.না হইবে মাতা. ছুঃখ- সংঘটন1॥ পুর্ব
দুখ স্মরি ছুঃখ না ভাবিহ আঁর। -দৈব বলে রর তৰ হৈল অব-
হার।॥ এত বলি বুঝা ইয়া মাঁয়ে শান্ত করি। অন্য _বন্ধি_ছাঁড়াইতে
যাঁন নরহরি || কারাগারে -আবদ্ধিত ছিল.-যত জন. একে-একে
লবাকীরে করেন মৌচন-॥. উগ্রসেনে মুক্ত করি দিয়া শীব্রগতি
কহিলেন আর না ভাঁবিহ সহাঁমতি)। মথুরা নগরে তুমি হইবে
রাঁজন। এত দিনে ছুঃখ তব হইল মোচন | -এত বলি উগ্রসেনে
উল্লামিত করি অনা বন্ষিগণে ক্রমে তৌষেণ, হরি 1 কাঁরা-
গারেসুক্তি পেয়ে যত বন্দিগ্রণ। আঁপিন্দে কৃষের জয় দেয় সর্ববজন।
বে কু তথা হতে বাহিরে আমিয়া। হইলেন চিন্ত্যম!ন নন্দেরে
ভাবিয়া ॥ কি বলি নন্দেরে আজি বিদায় করির | আমি-না ষাইব
ব্রজে কেমন বলিব ॥.. নাষাইব-আমি যদি বলি এ বচন অমনি
সে ব্রজরাঁজতাজিবে জীবন ॥ এই রূগে অন্থক্ষণ অনেক- ভাবিয়া
নায়াতীত ভগবান মী বিস্তারিয় |. নন্দেরে বিদায় দিয়ে হীরে
' ধীরে যান শিশুরীম দাঁসে ভাষে দুঃখে ফাটে প্রাণ ||

নন্দ বিদায়ের টিন ক

ভ্রিপদী। বলরাঁমে দে কার, নন্দের নিকটে, হরি, আসিয়া

প্রগীম করি তাঁয়। নিকটে আঁসিয়া কন, শুন পিতা-নিবেদন্ ক্ুহি
কিছু তোমার শ্রীপায়॥ তুমি আদি ছুই জন, সঙ্গে সহচরগণ,





প্রভীসখণ্ড

বৃন্দাবন ছাঁড| তিন দিন। ষশোদ| জননী ধিনি+ আমারে তাঁবিয়া
তিনি, হয়েছেন অতিশঙ্র ক্ষীণ ।।. গৌঁপ গৌঁপী ষত জন, সবে সচি
স্তিত মন, এক দৃষ্টে পথ সবে চাঁয়। গো বস যতেক আছে,
রক্ষক নাঁহিক কাঁছে, না জানি কি হইল তথায়1| অতএব সহাঁশয়,:
লয়ে সহচর চয়, অগ্রে তুমি. করহু গমন। রাজ্যের করিয়া খারা, :
সমাপিয়া বু কার্য, পরে আমি যাব বৃন্দাবন || তুমিত আমার:
বাঁপ+ "না ভাঁবিহ মনস্তাপ, যশোমতী জননী আমাঁর। ন্সেহকরি
বতর, খাঁগাইলে ক্ষীর সর, সুধিতে নাঁরিব তাঁর ধার।॥ যেই,
মাত্র এই বাণী, চক্রে কন চক্রপাঁণি, অন্দে লাঁগে অশনি ইসমান 1)
বাক্যের হইল রোধ, হরিল দেহের বোধ, মস্তক হইল দ্বৃর্ণমান |.
শেল সম লাগে বক্ষে, দেখিতে না পান চক্ষে? সঘনেতে শরীর
কম্পন অস্থির হইল প্রীি, গালে আত হানি, কান্দি নন্দ
কুষ্চ প্রতি কন ॥ ওরে বাঁছা কি বলিলে, হৃদি মন বিদারিলে, )
কেন হেন হইলে নিষ্টুর। তঁমিরে সর্বস্ব ধন, মা বাঁপের প্রাণ ধন, |
বাঁপধন বাঁপের ঠাঁকুর || তোমারে বিলাঝে পরে, যাঁক আমি একা.

ঘরে, কি বলিব এমন কথাঁয়। তৌঁমাঁর জননী যেই, পথ চেয়ে আছে ্‌
সেই, কি বলে বুঝাঁব আঁনি তায় || যখন স্ুধাৰে কথা, গোপাল,

আঁমাঁর কৌথা, বল-দেখিকি.বলিব বাঁপ। যদি বলি হেতা আইল। :
দবকীরে মা বলিল, বন্ডুদেবে বলিলেক বাঁপ ॥। যেমন শুনিবে
বানী, অমনি পরভিবে রাঁণী, মুষ্র্জ হয়ে ধরণী উপরা। পুভিবে
উজ্জ্বলানলে, নহেত পশিবে জলে, ত্রপা ছাঁভি যাঁবে ত্রপান্তর |:
শীলে রঙ্জু নিষৌজিয়!, অথব। মরিবে শিয়া,তা নহিলে হইবে পাগল।: |
বল্‌ দেবি ওরে বাঁপ,কেমনে সহিৰে তাঁপঃপ্রজ্বলিত তব শোৌকানল |.
বলিতে বলিতে নন্দ, রহিত হইয়া স্পন্দ, পড়িজেন অমনি ধরায় |.

হইলেন হুত জ্ঞান, মুখে বাঁক্য নাহি আন, নিশ্বাস ন] সরয়ে

নাসাঁয় | দেখি কুষঃ কপাময়, ব্ন্ত হয়ে অতিশ্, পদ্ম হস্ত বূলান:

শরীরে | দেহে দিক্বা জ্ঞান দান, করি লন্দে জ্ঞানবাঁন, জ্ঞানযোগা

কন খীরে ধারে ॥




দ্বিতীয় ভাগ । ৩%

শ্রীরষ্ণ নন্দকে জ্ঞানযোগ কনও

শবশ্ববপ দেখান |

ত্রিপদী। শুন শুন বলি বাঁ, পরিহর পরিতাঁপ, ভাবিয়া দেখহ
নিছা সব। মাক্ষাময় এ সংসার, ইথে কিছু নাহি সাঁর, সকলি মায়ার
অবয়ব ॥ পুত্র !পিতা কেবা কার, কেবল ভূতের তার. আমি
রি দেখায় মায়ায়। নহে পরমা] যিনি, মায়ীতীত হন তিনি

না সম্তবে দ্বিতীর ভাহায় ॥ দেই দিব্য চক্ষু দান, চেয়ে, দেখ বিদাত
মান, দীপ্রিমান শরীর আঁমার।, আঁমি আত্মা সবাঁকাঁর, সংসা-
রেতে আমি সাঁর, আঁমা, বিন! সকলি অসার ॥ হরিতে ভুবির ভার
হুই আঁমি অবতার,যুথে যুগে অবনী উপরে 1. আমি জগতের পিতা,
নাহি মম মাতা পিতা, মাতা পিতাবলি কুঁপা করে ॥ তুমি মম তত্ত
অতি, তদখিক. ঘশোমতী, পুর্বে তপ করিলে বিস্তর! তাঁহে হয়ে

কৃতুহলি, দৌছে, মাঁভা পিতা বলি, এত দিন বঞ্চি তব ঘর ॥॥ দেবক
উ সতী, জীদেবকী, গুদ্ধমতি, পুর্ব জন্মে বন্ুদেব সহ.। হয়ে
দ্োহে পুত্রকাঁম, পুন্রবাঞ্চা করি, আমা, করিলেন তপ্ অহরহ ]।
সেই হেতু অবতার, আঁর এই: ভুবিভারি, ক্রমে আমি করিব হরণ |
প্রকাশিয়! মায়ামোহেঃ মাতা পিতা বলি তহে, কামনার করিব
পুরণ ।| পুর্ণ কৈলে মনক্কীম, বাগ কল্পতরু নাঁম, তবে রবে জগতে ,
আমার। আমি কতু অন্য নই, জনক সবার হই, তব কাঁছে কহিস
লাম সার. এত বলি নর্ছরি, দিব্য চক্ষু দান করি, বিশ্বরূপ নন্বেরে
দেখান। ব্রিভূবন সমুদয়, কৃষ্ণ দেহে সমুদয়, দেখি নন্দ ভয়ে
হতজ্ঞান | স্থাবর জক্ষম জল; স্বর্ণ মর্তা রসাতল, চরাচর ভূর
খেচর। দেবাস্ুুর যক্ষ রক্ষ, নাগ ন্‌ পশু পক্ষ, গন্ধ কিন্নর, ব্দা-
ধর ॥ অর সুদীপ্ত করন্্র ভূর্যা জলধর, বস্তু তাঁরা আদি. অগণন।
গিরি দরী শত শত, করিঅর করী কত, যত যত. আছে জন্তগণ।।.

ন্গর চত্বর ঘর, শত শত খে।তাকর, হাট ঘাট বাঁট নাট তায়,




৬২ প্রভা সখণ্ড।

সাঁগর প্রখরতর, প্রচণ্ড লহরি ধর, সপ্তে অগ্ত চর শোভা গা ॥
জন্বু আদি রুক্ষচয়, সপ্তদ্বীপে সপ্ত রয়, অন্য বৃক্ষ কত কব নাম।
ফুঁল ফল সমুদ্ভব শোভাকর বৃক্ষ সব, তাহে বহু পক্ষীর বিশ্রাম ||.

পিরেতে দেখেন গঙ্গা, কৃষ্ণ পদে স্ুতরঙ্গা, হাঙ্গর কুস্তীর বহুতর । ৃ
ইহা তিন্ন বহুতর, তরঙ্কর জলচর, দেখি ভয়ে কপিল অন্তর || :

তাঁর পরে গোঁপরাঁজ, দেখেন বিষম কাঁজ, আপনার গোঁকুল নগর.
তাহে কু ছাড়ানন, সর্বদা সানন্দে রন, ক্রীড়ীযোঁগে সহ সহচর || :
কভু যশোদাঁর কোলে, আধ আঁধ আধ বোলে, ম| বলে করেন স্তন্য ূ
পান। কখন চরাঁন গরু, দানে হন কল্পতরু, যাচকের বাসন] পুরাণ ।

একাশনে রাধা সহ, বিরাজেন অহরই) অমর আরাঁখা ভগবান 1

ব্রহ্মা আদি দেবখণে, স্তুতি করে শ্রীচরণে, মম্যুখে দেখেন বিদ্যমান ॥
প্রক কুচ বিশ্ব, কৃষ্ণ বিনা কিছু নয়, জানি নন্দ তত্ব সমুদয়!
কুষ্ণের নিকটে কন,কর রূপ সম্বরণ, দেখিয়া জন্মিল মনে ভগ্ন ||
কিন্তু এক কথা কই, তত্ব বজ্ধে “আমি নই জ্ঞানযোগ কিছু নাহি চাঁই।
নাহি: চাহি রত্বু হেম, কেবল তোমাতে প্রেম, এই ভিক্ষা তৰ পদে
চাই ॥ জন্ম জন্ম তোঁমা পাই, ইহ] ভিন্ন নাহি চাই, করিলাম চরণে
বিদিত। বাঁও বা থাক বা হরি, অন্তরে প্রবেশ করি, সর্কদা পুরাও
মনোনিত 1 তে বলি, নন্দঘোষ, স্তবে কৃষ্ণে করি তোঁষ, ঈীড়ালেন
নয়ন মুদিয়া। ননের বচনে হরি, অন্তরে প্রবেশ করি, দেখা দেন

বঙ্ষিধ হইয়া পুনঃ পুনঃ বলি বাপ, ঘুচান মনের তাপ, তবে নন্দ,
হরষিত হন । ক হরিষ হয়ে, শ্রীনন্দেরে বলে কয়ে, বিদায়ের

করেন যতন || ্রীদামের্‌ প্রতি হরি, কছেন বিনয়, করি, শুন সখা

না হও কাতর । কিছু দিন তৈর্য্য ধরি, আমার বচন ন্মরি, থাক গিয়া

গোকুল নগর ॥ প্রবোধিয়া যশোদাঁয়, যতনে রাখিৰে তীয়, তেবে
যেন নাঁছি হুন ক্ষীণ। প্রীমতী রাঁধারে কবে, তরিতে মিলন হবে;

বিচ্ছেদ না রবে চিরদিন || সুবলাঁদি সখাগরণে, প্রবোধেন জনে

০১০০২০7৮০৯১

জনে, আর যত ছিল গোৌঁপগ্রণ। সম্পর্ক বিহিত হরি, প্রণাম
আলীব করি, করিলেন প্রেম আলিঙ্গন॥| বু বস্ত্র অলঙ্কারে, ভু



৬৩

করি সবাঁকারে? নন্দ সহ করেন বিদাঁয়। কিন্তু নন্দ না কিছুতে
সন্তোষ নয়ঃ শিশু কহে কাঁন্দেন সদায় ।।

নন্দ বিদার |.

পয়ার। কৃষ্ণ কন পিতা আর না কর রোদন। আপনি
জাঁনিলে সব তত্ব বিবরণ ॥ দেখিলেত দিব্য চক্ষে আঁমার এ দেহ
তবে তুমি কি কারণে কর এত জবেহ || এক্ষণেতে বুন্দাবনে করহ
গমন | রক্ষ/ কর গিয়া সব ব্রজবাঁসি জন || ষশোমতি জননীরে
বুঝাবে সত্ব্র। আমার কারণে তিনি না হন কাঁতর ॥ আমারে
পাবেন পুনঃ কিছুদিন পরে।: অতএব ছুঃখান্থিত না হন অন্তরে ||
বিলম্ব না কর শীত্র যাঁহ বৃন্দাবন। পুনশ্চ আমার সঙ্গে হইবে
মিলন ॥॥ এত যদি কষ্চচত্র কহেন বচন। কান্দিয়া প্রীনন্দ কিছু
কৃষ্ণ কাছে কন ॥ কেমনি তোমার মায় না হয় মোচন) জাবিয়া
সকল তত্ব তরু কান্দে মন॥ অধিক বলিব বাঁছাকি আঁর বচন।
দেখো কৃষ্ণ আমারে না হয়ো! বিল্মরণ || এত বলি ব্রজরাঁজ ব্রজে
যেতেচান। নয়নের জলে পথ দেখিতে না পান. চরণে
চরণ বাধি পড়েন খরায় । দেখি যত গোঁপগ্রণ করে হায়, হায় ॥
হাঁয় কৃষ্ণ কি করিলে মুখে এই বলে। অনিবাঁর ভাসে লবে নম্মনেক্,
জলে | তবে কৃষ্ণ গোপথণে বলেন তখন। না কান্দ না
কান্দ পুনঃ হুইবে মিলন ॥ -ব্রজরাঁজে শকটে করাঁয়ে আরোহণ ।
ধরে লয়ে যাঁও সবে না হও বিমন || এতবলি কৃষ্ণচন্দ্র অধো-
মুখ হন। কি করে কান্দিয়া গোপ চলিল তখন | উপনন্
মহাঁধীর নন্দেরে ধরিয়া। অবিলম্বে লইলেক শকটে তুলিয়৷ ॥
তবেত সকল গোঁপ কান্দিয় চলিল। গোপের ক্রন্দনে পথ
কর্দম হুইল ॥| ক্রমেতে যমুনা পার হয়ে সর্বজন ।. অপরাহে
উপনীত হৈল বৃন্দাবন ॥ বৃন্দাবন ধাঁমে আর গোপ গৌঁপী যত।
কুষ হেতু পথ চেয়ে আছে অবিরত কৃষ্ণের আসার আশা
ভাবিয়া অন্তরে । গে গণের উর্দধমুখে হাস্বারৰ করে ॥ আরধত :



প্রভাধখও্ড ৷

রুন্দাবনে আছে পশুপাঁখী। ক্লু আসা পথ চেয়ে উন্মীলিত
আঁখি ॥ দিব| অবসানে নুর্যা বান অন্তাঁচল। এ সময়ে গৌপগ্রণ,
আইল সকল ॥ পাইয়। গোপের শীড়া বতেক পড়সী। ধাঁইল,
বালিকা আঁর কি বৃ্ধ। ষোড়শী ॥ কৃষ্েে না দেখিয়া সবে সচিন্তিত,
মন| সঘনেতে গোঁপথণে স্ুধাঁয় বচন॥ কৃষ্ণ ন। আসার হেতু,
গৌপেরা বলিল। শুনি গৌপিনী সব ধরায় পড়িল || অন্কক্ষণ:
অচেতন থাকি গোপীগণ । অপরেতে আর্তন্বরে করয়ে রোদন || |
কেহ কান্দে চুপে চুপে কেহ উচচচঃস্বরে। কৃষ্ণ শোকে দেহে আর.
খৈরয না ধরে উপনন্দ মহাধীর নন্দেরে ধরিয়া। বীরে খ্ীরে
উপনীত আলযে আসিয়া ॥ আর অন্ুচর ছিল যত জন সঙ্গে সঙ্গে
সকলেতে কৈল আঁগ্রমন || শব্ধ শুনি যশোমীত ক্ষীর সর নিয়া
আইল নন্দন বললি বাহিরে আসিয়া | গৌঁপাঁল গোপাল বলি ভাঁকে
বাঁর বার। গরোপাঁলে না দেখি রাণী দেখে অন্ধকাঁর ॥ ঘুরিল মস্তক,
চক্ষে দেখিতে ন! পাঁয়। গোঁপাল গোপাল বলি চারিদিকে খায়
গোপাঁলেরে কৌন দিকে না দেখি তখন। ধেয়ে গ্রিয়ে ধরে রাণী
নন্দের চরণ || পড়িয়া চরণতলে করয়ে জিজ্ঞাসা । গোঁপাঁল কোথায়:
মম কহ সত্যতাঁষা ॥ ত্য বল ব্রজরাঁজ মরি প্রাণযাঁয়। আমার
গোঁপালে রাখি আইলে কোথায় || গোপাল আখির তারা গোঁপাঁল |
জীবন গোপাল বিহনে স্থির নাহি মানে মন ॥ এই বূপে নন্দ,
রানী ধরি নন্দপায়। অনিবাঁর আর্তন্বরে বচন ক্ুরথায়॥ রাণীর

বচনে নন্দ না দেন উত্তর । কেমনে কঠিন কথা কবেন সত্বর |
রাঁণী বলে কি কারণে না কহ বচন। পুরুষ কঠিন জাঁতি কঠিন:
জীবন || কৃষ্ণ বিনা এতক্ষণ দেহে আছে প্রাণ । বলিতে বলিতে:
রাঁণী হাঁরাঁইল জ্ঞান ॥ তাহ! দেখি উপনন্দ নিকটে আইল। রা পীর:
কাঁণেতে কৃষ্ণ নাম শুনাইল ॥ কৃষ্ণ নাঁম শুনি রাঁণী পাইল চেতন |.
তবে উপনন্ৰ খ্বীর কহ্ছেন বচন ॥ যশোদার শোক কিছু শান্তি:
করিবারে। কৃষ্ণের কর্শোর কথা কহেন প্রকারে ॥ শুন শুন ওগো
রাণী করি নিবেদন! তোঁনার কৃফের কথ! করহ শ্রবণ ॥ মধুর] |



দ্বিতীয় ভাগ!

৩৫.

প্রবিষ্ট কুষ্ক প্রথমে হইয়া। সহচর সঙ্গে ভ্রমে নগর দেখিয়া |
ভরখিতে ভ্রমিভে দেখে রজক রাঁজার। বস্ত্র মাথে যায় পথে করি
অহঙ্কার ! তাঁর স্থানে কৃষ্ণ তব চাহিলেন বাঁ। অহঙ্কারে রজক
করিল উপহাঁস। না দিয়া বসন কৃষ্ণে ক্রোঁথে কটু বলে। সে কটু

শুণিয়া কৃষ্ণ অগ্রিসম জ্বলে 1 ক্োঁধেতে পুরিয়া কক কেশে খরি

তাঁর।. করেতে কাঁটিল| মাথা লোৌকে চমত্কার || হস্তের প্রহারে
ভাঁর বিয়া জীবন |: বাছি নিয়! তাঁল বস্ত্র করেন গমন || এসময়ে
সেই পথে তন্তবাঁয় যায়। সেইক্ষণে হৃষ্টমনে ডাঁকিলেন তারণা
মধুর বচনে কন অমাঁদরে ভারে |: বস্ত্র পরাইয়া দেহ আমা দৌঁহা-
কারে শুণিয়া কৃষ্ণের বাণী জ্ঞানী তন্তরাঁয়।- শীন্রগতি আসি
তথ] প্রণমিল পায় ॥ প্রণাঁম করিয়া তন্ত্রী লইয়া বন পরা-
ইল দুইজনে করিয়া যতন ||. বসনেতে নানাবিধ বেশ করি দিয়া।
একচিত্ত হয়ে তন্ত্রী দেখে নিরীক্ষিয়া 11 হেরিয়া অগুর্ধ্ণ রূপ হরিল
চেতন। অনিবাঁর প্রেমবাঁরি চক্ষে বরিষণ ॥: ভক্তি করি বছ-্ডব

৯3০4৪

'র তন্তবায়। ভক্ত দেখি কুন বলিলেন তায় ॥ বর লহ
মনোনীত যে বাঙ্ণ তৌসাঁর তোঁমারে অদেগ় কিছু নাহিক আমার ॥
তত্রী বলে প্রভৃ যদি দিবে বরদান। তক পদে উক্তি বিনা নাহি

চান্ছি আন ॥|: অহৈতুঁকী ভক্তি দিয় ও রাজী চরণে । -তিলেক নী
হবে ছাড়া অধীনের মনে | কৃপ। করি শীন্রপতি লহ নিজাগাৈ।
উদ্ধীর করহ কৃষ্ণ এ ঘোঁর সংসারে || শুনিয়া তন্ত্রীর বাঁণী- শ্রীকৃষ
তখন। কহিলেন বাহ তুমি টৈকুষ্ঠ ভবন যেই শা্ধ এই কথ!
কহিলেন তাঁয়। আঁচন্িতে এক রথ আইল তথায় ।। চতুভূজি
তৈল ভন্ত্রী দেখিতে দেখিতে সেই রথে শ্রন্য পথে উঠিল ত্বরিতে ॥



দ্েবগণে করে শিরে পুষ্প বরিবণ। অঞ্মরী গণেতে করে চীমব

বাজন।॥ এইরূপে তন্তবায় সহ অন্তরে । রথে টড়ি গেল, চলি
বৈকুণ+ নগরে ॥ দেখিয় কৃষ্ণের কর্ম লোকে চমৎকাঁর। বে বলে
কুচ বি ব্ষু অবতার মন্কুষা _ নহেন কু্ণ বলে অর্জন । অপরে
অপুর্ব কথ। করহ শ্রবণ] তথা টতে ছুই ভাই আনন্দ আন্ত ।




৬৬ প্রভাসখণ্ড ?

উপনীত হইলেন মাঁলকাঁর ঘরে | পরিয়! পুষ্পের- মাজা স্কুবেশ
হুইয়া। মাঁলাঁকারু মালিনীরে জ্ঞান দান দিয়া তীরপরে যেই কর্ণা
কৈল তব স্ুত। কু নাহি দেখি শুনি বলেন অন্তত 1 মাঁলাকাঁর
গুঁহ হতে বাহির হইয়া পুনরপি চলিলেন পথ নিরক্ষিয়। || এ
সময়ে হটাত হইল দরশন। . কুবুজা কংসের দাঁসী করিছে: গমন 1.
কটোৌরা গুরিয়! নিষ] সুগন্ধি চন্দন |. রাঁজারে ভেটিতে ধায় পুলকিত
মন | চলিতে না পারে বুড়ি গুড়ি গুড়ি যাঁয়। তিন ঠাই অঙ্গ
ভঙ্গ রঙ্গ কত তায় ॥ বয়সের শীমা নাই কি কহিব বাঁড়। 1. যষ্টি
ভরে চলে বুড়ী দিয়া বান্ুনাঁড়|।॥॥ মাথায় নীহিক কেশ মুখে নাহি
দীত। একেবারে আতে আতে লাগিয়াছে আত অঙ্গের কি
কব আভা কুহু জিনি কাঁয়! মসি বলে আমি শশী দেখিলে তাহায় ॥
হেরিলে সে অঙ্গ ভঙ্গি প্রেতিনী বলিয়া । আতঙ্গে বালকগণ যায়,
পলাইয়া | তাহারে দেখিয়া কৃষ্ণ আনন্দিত মনে। অবিলক্বে
ডাঁকিলেন মধুর বচনে | জুন্দরী বলিয়! তাঁরে করি সম্বোধন । কার
সবার মধুস্বরে ভাকেন তখন ॥ শুনিয়া মধুর রাণী কুরুজা ফিরিল।;
হেরিয় কৃষ্ণের রূপ মোহিত হইল ॥ অন্ুক্ষণ অনিমিষে করে
দরশন। কুষ্ণজ্্র তাঁর স্থানে চাহেন চন্দন|॥ শুনিয়া কৃষ্ণের কথা
কুবুজা,তথন। শ্রীঅঙ্কে মাখাঁয় আসি স্বহস্তে চন্দন ॥. কপালেতে,
দিল বিন্দ তিলক নাঁসাঁয়। মনের মাঁনসে তথা! শ্রীকৃষ্ণের সাজায় ॥
বলরাম নিকটেতে রাঁখিল চন্দন । আপনি বলাই অক্তে করেন,
ভুষণ ॥ সহচরগণে গন্ধ দিল বুতর। সকলে সুগন্ধি পরি সহ
অন্তর ॥ তবে কুঁজি কুচ পদে প্রণাম করিয়া । কহিতে লাগিল বন্থ,
বিনয় করিয়। | পুর্ণবন্ম পরাৎ্পর তুমি নারাঁয়ণ। তোমার বচন
মিথ্যা না হয় কখন ! শ্রীমুখে ডাকিলে তুমি সুন্দরী বলিয়া । সুন্দরী
করিতে হবে কৃপ। বিতরিয়।।| এতবলি কুবুজিনী, ধরিলেক পায়
পর্ম সুন্দরী কৃষ্ণ করিলেন তাঁয় || করে ধরি তারে তবে তুলিলে?
হরি। স্পর্শ মাত্রে কুরূপিণী হইল সুন্দরী ॥ উর্কাশী মেনকা রত্ত
কিব1] তিলোত্মা। রূতী সরস্বতী সমা সবার উত্তম! | দেখি,





দ্বিতীয় ভাগ! ৬৭

দেখিতে &ছল দসী শত শত। করিতে লাগিল আসি সেবা অবিরত!
চামর বাজন কেহ করে তার গাঁয়। কেহ বস্ত্র অলঙ্কার যতনে পরায়
পর্ণে আচ্ছাদিত তাঁর আছিল কুটীর। দেখিতে দেখিতে হৈল অপুর্ব
মন্দির ॥ ইন্দ্রের ভবন সম হইল তবন।. অপর বৈতভব কত না হয়
বর্ণন ॥ -হেরিয়! এসব কার্যয সবে চমকিল। শ্রীবষ্ত মন্কুষ্য নয়
বলিতে লাগিল ॥ তদন্তরে তব কৃষ্ণ তথা হৈতে গিয়া। কংসের
যজ্ঞের ধন্থু ফেলিল ভাঙ্গিয়া॥ বড় বড় বীরগণে বিনাশিয়1 রণে।
সন্ধ্যের সময়ে পুনও আসি উপবনে ॥- ক্ষীর প্র ন্বনীত করিয়া
ভোজন নন্দ ক্রোঁড়ে সাঁনন্দেতে, করেন শয়ন || প্রাতে উঠি

পুনরার খেষে ক্ষীর সর । আঁমাদেরে সভাতে পাঠায়ে অগ্রসর ॥
আপনি বূলাই সঙ্গে গিয়া তাঁর পরে । বধ কৈল্‌ কুবলয়_ নামেতে
কুঞ্জরে।| সহজ কুগ্তর বল ধরে যেই করী।. করাঘাঁতে অনায়াসে
বিনাশন করি || _ প্রবিষউ হুইয়। শীত্র কংসের সদন। চান্গুর মুদ্টিক
সহ করি ঘোর রণ ॥ ছুই ভাই ভ্ুইবীরে বিনাঁশন করি। অপর
অনেক বারে মারি ধরি ধরি || তদন্তরে কংসানুরে কেশেতে রিয়। ||

মারিলেন কৃষ্ণ ভাবে ভূমে আছাড়িয়া 112 ধসে মারি কারাগারে
গিয়] ততক্ষণ । বস্থুদেব দেবকীর ঘুচায়ে বন্ধন। মাতা পিতা বলি
দোহে করি সন্বোধন| করিলেন উভয়ের চরণ বন্দন ॥ যেইমীতর
উপনন্দ এ কথ। কহছিল। মুচ্ছিত হইয়া! রাণী ভূমেতে পড়িল ॥
অন্থক্ষণ পরে পুনঃ পাইয়। চেতন। কৃঞ্ণ বলি উচ্চৈঃস্বরে করয়ে
রোদন ।॥॥ উপনন্ব কন রাণী শুন আর বার।. তার পরে ষে. করিল
শ্রীকৃষ্ণ তোমার ॥ দেবকী বসুর করি বন্ধন মোচন। আমাদের
কৃষ্ণ আসি দিল দরশন ॥ প্রণাম করিয়ে কৃষ্ণ নন্দের চরণে।
খ্বীরে ধীরে অন কথা মধুর বচনে | বৃন্দাবন ছাড়া আমি আছি ভিন
দিন। যশোমতী, মাত ভেবে হয়েছেন ক্ষীণ ।| অতএব পিতা অগ্রে
করিয়! গমন। বুঝাইয়! জননীরে করছ সান্ধবুন।। কিছুদিন পরে
আমি যাব বুন্দাবনে । বুঝাইবে জননীরে ন! ভাবেন মনে ॥ রাজ্যের
শামন.আর পারি বহু কাষ| তবে আমি ব্রজপুরে মাঁব ব্রজরাজ !)



২৬৮ .. গ্রভানখণ্ড !

এ কথা শুনিয়া নন্দ কান্দিয়া আঁকুল। কহিলেন অগ্রে আঁমি না,
যাৰ গোকুল ॥ কেমনে ছাড়িয়া ক যাইব তোমায় কি বলিয়া
বুঝাইব রাঁণী যশোদায়॥ এইরূপে নন্দ বহু করিলে ক্রন্দন । অপরে
কহিল কৃষ্ণ অনেক বচন|| বলিল যাইব আমি কিছু দিন পরে
কহিবে মায়েরে নাহি ভাবেন অন্তরে ॥ ইহা! বলি শ্রীনন্দেরে করি ূ
খরাঁধরি। শকট উপরে দিল তুলি শীঘ্র করি॥ পাঠাইল ব্রজ্গরাজে
সহ গৌঁপগণ। আঁপনি আসিবে পরে বলিল বচন |. অতএক্‌:
নন্দরীণী না কর রোদন। আমিবেন শীন্রগতি তব কষ্তধন | এরই- |

রূপে উপনন্দ কন বাঁরে বারে । রাণী কি কু্চের শোক পাসরিভে ;
পারে ॥: হা কষ বলিয়া রাঁণী করয়ে রোদন | কার সাধ্য সে রোদন

_ করিবে বর্ণন1 একেবারে কান্দে তথাঁ গোঁপ গোপী বত। শুনিয়া:

গ্রীমতী সতী হুন মুঙ্ছাগত।| পশুপক্ষ গোবৎসাঁদি কেহ নহে স্থির |.
অনিবাঁর-সবাকার চক্ষে বহে নীর। এ সব ছুঃখের কথা কব কিছু:
পরে। : এক্ষণেতে শুন যাহা মথুরীনগররে | শিশুরাম দাঁসে ভাঁষে
মধুর বুন। একমনে সাধুপে করছ শ্রবণ

অথ উগ্নসেনের রাজ্যপ্রাণ্ত।

পয়্ার। শ্রীনন্দে বিদায় করি গ্রীক তখন | ভ্রমে ক্রমে উঠিজেন:
ঘত যছুগণ॥| ইহা ভিন অন/ অনা সভাস্দ যত। কৃষ্ণের আহ্বানে:
সবে হন সমাগত বস্গুদেব [পিতা আর অক্রুর উদ্ধব। উগ্সসেন :
আঁদি আদি উপনীত সব ॥ বসিলেন বলদেব বিশ্বের ঠাকুর | বলেতে:
ঘাহীর তুল্য নাহি তিনপুর || মধুপুর নিবাসী যতেক প্রজা ছিল |:
ক্রমেতে আসিয়া সবে সভাতে বদিল॥ কংসের অধীন ছিল যত.
বীরগ্ণে | মনেতে পাইয়া ভয় ক ংসের মরণে ॥ আলিয়া লইল |
তাঁরা কৃষ্ণের শরণ। সভাঁতে: বসিল সবে সচিন্তিত মন আশ্থা- |
সিয়া কুন মে সকল বীরে। সভাসদে চাহি কথা কন ধীরে ৰ
ধীরে 1 শুন শুন সতাঁসদ আর প্রজাগণ। নিজ পাঁপে কংসরাঞ্জ



দ্বিতীয় ভাগ!

৬৯

হইল নিধন ॥ এক্ষণে বলহ রাঁজা করিবে কাহারে । রাজা বিনা:
রাজ্য নাশ হয় ত্রিসংসারে |. ষে দেশেতে নাহি থাঁকে রাঁজার
শাসন মহাপাপ. ক্রমে হয় শাস্ত্রের বচন || চৌর্যযবৃত্তি বাঁড়ে
আর বাঁঢ়ে পরদা'র। পরছিংসা পরাদ্রোহ কর্ম অনিবাঁর ॥ ভ্রণহত্যা
হয় আর জারজ সন্তান। যে সকল পাপে কভু নাহি পরিত্রাণ |
জন্মিয়া এ মহাপাপ ঘটে অমঙ্গল। রাঁজোর বিনাশ হয় কমলা
চঞ্চল ছুর্ভিক্ষ জন্মিয়] দেশে প্রজ1 নাশ পাঁয়। পাঁপযোগে বিন!
রোগে ঘমালয় যাঁয় |. অতএব. এ-সভাঁতে.আঁছ যত জন। বিচারিয়!
বল রাজা হবে কোন জন শুনিয়া সভাস্থ_ সবে, বিচারিয়া কয়)
তোমর! ছুভাই বিনা সম্ভব, নাহয় ॥ নিজে রাঁজা হও কিম্বা কর
বলরামে। ইসা ভিন্ন পরিত্রাণ নাহি পরিণাঁষে ॥ ধর্্মবন্ত দয়াবন্ত
বলবন্ত ধীর। বুদ্ধি বিচক্ষণ আঁর স্ুমতি সুস্থির।| ছুষ্টের দমন
আঁর শিষ্টের পালন। তোমা দ্বোঁহ| বিনা নাহি শোতে অন্য জন ॥
অতএব এ দৌঁহীর মধ্যে একজন। রাজা হও ইথে সবে সন্তোষিত
ঘন ॥ প্রদিদ্ধ বিচার এই গুন গুরমণি।. বলরাঁমে রাজা কর অথবা
ছিব এত যদি কহিলেন সভানদ গ্ণ। শুনিয়া কহেন কৃ
কমললোচন ॥ যে কথা কহিলে তোমা করিব, বাঞ্রিত। কিন্ত এ
কর্সেতে এক আছে অবিহিত ॥ যছ্ুকুলে রাঁজা নাই যযাতির শীঁপ।
অবিহিত কর্ম কৈলে হবে. মহাপাপ. পাপ কন্ম করিতে ন! লয়
মম মন। আঁমি এক কথ! কহি করছ আবণ |॥ অগ্গে এই উগ্রেন
ছিলেন রাঁজন। পাঁপযোগে জন্মে কংস এহারি নন্দন ॥ অন্কুর
₹শেতে জন্মি হৈল ছুরাচার।, আন্মরিক কর্ম করে না করে
বিচার ॥ মহাঁবল পরান্রান্ত হইল অন্গুর। বাহুবলে শাসিত করিল
তিনপুর | আপন পিতারে বলে করিল বন্ধন। কাঁড়িনিল রাঁজ্য
ধন পাপিষ্ট ছুর্জন || উচ্ছা সতে কর্ম করে বাঁধ্য কাঁর নয়] রি
দীনেরে ঢছুঃখ দেয় অতিশয় ॥ জ্্রীবধ গোঁবধ আর বিপ্র হিংস
কর্মা। অনিবাঁর করে দুষ্ট নাঁছি মানে ধর্ম ।। জলেতে জলের টি

পুণ্য পুথাচয়। পাঁপেতে বাড়িয়া পাঁপ প্রীণী হয় ক্ষয়।| বন্ধু




3৩

প্রভাসখণ্ড।

পাপ করি কংস হইল নিধন। মম মতে উগ্রসেন হউন রাঁজন ॥
আমার যে মত তাহা কহিলাঁষ সার । উহাতে কি মত হয় তোমা
সবাঁকাঁর ॥ পৃষ্ঠবল আমরা থাকিব ছুই ভাই। শাসনে থাকিবে
রাজা ভয় কোন নাই | এত যদি কহিলেন কমললোচন। শুনিয়া
সন্ত যত সতাসদগ্ণ | ধন্য ধন্য করি কৃষ্ণে বাখানে সবাই । কৃষ
সম দয়াবন্ত ত্রিভূবনে নাই।| তবে কৃষ্ণ সবাকার লইয়া সম্মতি।
আমন্ত্রিয়া আনিলেন অনেক ভূপতি ॥ সপুসাঁগরের জলে অভিযিত্ব,
করে। উগ্রসেনে বসালেন সিংহাঁসনোঁপরে ॥ ছত্রদণ্ড মোৌরছৰ
আড়াঁনি চাঁমর। রীতি মত নিযোৌজিত করেন সত্ব | শিশুরা?
দীসে তাঁষে মধুর বচন । অপরে অপুর্বব কথ] করহ শ্রবণ ূ

অথ বনুদেব কর্তৃক রোহিণী আদি অন্যান্য জ্ত্রাগণের
আনাঁয়ন ও রামকুঞ্জের উপনয়ন |

উগ্রসেনে রাজ্য দিয়া প্রভু ভগবান। যছুগণে বসিলেন যা
যথা স্থান || নিজ নিজ নিকেতনে গিয়া সর্বজন আঁনান্দে কৃষের,
গুণ করেন বর্ন ॥ বস্থদেব দেবকীর শুনহ বচন। রাম কষে,
কোঁলে লৈয়ে অ। তি মন ॥ দেবকী বলেন শুন বস্তু স

আন অনা পু থাকা রি না হয় তিন | শুনি দেবী
বাঁনী বন্ধু হরষিত।- পাঠাইতে দুতগণে ভাকেন ত্বরিত॥। ব্রজপুরে
এক দুত করহ গনন। রোহিণীরে শীত্রগতি কর আনয়ন || নন
যশোদারে কবে করিয়া বিনয়। কুষণ হেতু নাহি হন চিন্তিত,
হৃদয় ।| তাহাদের কুফনিধি কছিবে নিশ্চিত। কোনমতে মদে
. যেন না হন ছুর্মখত ॥ ইহা বলি-প্রিয় দ্ুতে দোলা অঙ্গে দিয়া!
অবিলস্বে ব্রজপুরে দেন পাঠাঁইয়া আদেশ পাইয়। দত শীন্রগ্ি
যায়। বস্থুর বচন ঘত বন্দেরে জানায়॥ শুনি নন্দ মহাশয় করি
সমাদর । দুতেরে তোষেণ দিয়া দ্রব্য বছুতর।। যশোদার গ্রতি |
ঢাহি বলেন রচন। রোহিণী পাঠায় দাও স্বামীর সদন ॥ শুনিয়া






দ্বতায় ভাগ।

টি

শ্বশোদ! রাণী কান্দিতে কান্দিতে। আজ্ঞা দেন রোহিণীরে শীত্র
সাজাইতে ॥ রাণীর বচনে তবে দাঁসীগ্রণ যত। সাঁজাইল রোহি-
পীরে করি মনোমত || বন দ্রব্য রোহিণীরে করায়ে ভোজন । সঙ্গে
দেন বহুবিধ বস্ত্র আভরণ | দোলায় ভুলিয়! দেন কানিরয়! কন্দিয়।
রোহিণী রাণীর পদে প্রণমে কাঁন্দিয়। ॥ আশীর্বাদ করে রাণী শিরে
হাত দিয়া। সুখে থাঁক বরে গিয়! পতি পুত্র নিয়া।। আমি অভ্ভী-
গিশী একা রহিব কেমনে । ও রোহিণী তুমি আর গোঁপাঁল বিহনে ॥
এত বলি যশোমতী কান্দিতে লাগিল। কাঁন্দিয়। রোহিণী. দেবী,
দেলাঁয় উ্টিল।। অবিলম্বে উত্তরিল মখুরাঁনগর | রোহিতীরে হেরি
সবে সন্ভ্ট অন্তর || আসিয়! দেবকী দেবী লয়ে যান ঘরে । ভনিনী
সমান বহু সমাদর করে।। বলরাম নিজ মাতা পাইয়! তখন। হই-
€লেন অতিশয় আনন্দিত মন ॥ তবে বস্থু মহাশয় বিবেচিয়া মনে।
আনিতে পাঠান নারী আর ছয়জনে | নিজ নিজ পিতৃ ঘরে সবে
তার! ছিল। দত ্রিয়৷ দোলা নিয়! ছজনে আনিল ॥ অষ্টম রমণী
এই বন্গুর নিণয়। শুভ বিবাহিতা সবে অহিতা! ন! হয় )। রাঁমকুষণ
ছুই ভাই আনন্দিত মনে। আদরে তোষেন সবে মাতৃ সম্বোধনে |
পরে বস্তু মহাশয় মনেতে ভাবিয়া। শর্গ মুনি পুরোহিতে আঁনেন
ডাকিয়া ॥ প্রণমিয়া মুনিবরে বলেন বটন। রাম কষে উপবীত
করহ অর্পণ || শুনি মুনি মহাঁশয় সন্তুষ্ট হদয়। মনে মনে আপ-
নারে ধনঃ করি কয়।॥ ব্রহ্মণা- দেবের গলে দিব উপবীত। বিশ্ব
শুরু গুরু হব ভাগ্য সমোঁদিত। এত তাৰি মুনিবর জ্যোতিষ
খুলিয়া। করিলেন দিন-স্থির স্ুস্থির হইয়া ।।: বস্থদেবে কহিজেন
কর আয়োজন। তোমার ভাগোর সীম না হয় বর্ণন || উপনয়নের
দিন যে দিন ঘটিল। তব ভাগ্যযোগে দিন এর্মনি সিলিল |
দিনেতে যাঁর উপবীত হয়। ধনে জনে থ!
কমলা অচল! হয়ে সদা রন ঘরে। করয়ে তাঁহাঁরে পুজ| সুরাস্ুর
মরে ॥ অতএব শীন্ত্ তুমি কর আয়োজন এই দিনে শুভকর্ম্ম
হবে সমাপন ॥ উপনয়নের দ্রবা যাহ! যাঁহা টাই । শ্রস্ততাহখর

এ
কে করে ত্রিভুবন জয় ॥



কি গ্রভাসখ ও)

যেন চাঁবা মাত পাই || এত বলি লিপি করি দেন মুনিবর 12
মত ভ্রবা বসু আনান স্বর ॥ তবে মুনি আমি সেই দিন শুভ-
ক্ষণে। রাঁম কৃষ্ণ বস্তুদেবে লয়ে তিন জনে ॥ বেদ মন্ত্র মহামুনি
মুখে উচ্চারিয়া। বেদের বিহিত যত কর্মা সমাপিয়া॥ অবশেষে
উপবীত করেন অর্গণ | আঁকাঁশেতে ধন্য ধন্য করে স্রগণ | পুষ্প
_ স্ব করে আর ুন্ডূতি বাঁজায়। অগ্দর অগ্নরীণে নৃত্য করে
. তাঁয়।1 মথুরানগরে যত বাদ্যকর ছিল। মহাঁনন্দে বাঁদোদ্যম্‌
করিতে লাগিল 1 সে শবে পুরিল স্বর্গ ভূমি রসাতিল। এক মুখে
নাহি হয় বর্ণন সকল | তবে মুনি রাঁম কষে মূলমন্ত্র দিতে | নিভৃত
নিলয়ে নিয়া, গেলেন স্বরিতে 0১
ত্রিপদদী। বাম কৃত ছুইজং জনে, লয়ে অভি, সুগোপনে,। র্গমুনি
বলেন তখন । তোমরা বিচি গুরু, তোমাদের হব গুরু, এ কেবল

গুরুতা বচন || মহাবিষুঃ মুলীধাঁর, চতুরংশে অবতার, ভূবিতাঁর



হুরণ কারণে । হইবে যছুর কুলে, জানিয়! ভবিষ্য নুলে, পুরোহিত |
হয়েছি যতনে ॥ রাঁম কচ দুইজন, এক আজা এক মন এক তন্ু
বিভিন্ন আঁকার। অভিরূপ অপরূপ” বিশ্বময় বিশ্বরূপ, স্বরূপ নাঁহিক
কেহ আর ॥ ব্রহ্মা আদি দেবগণ, আরাখিয়া ও চরণ, সর্বক্ষণ
দর্শন না পান ইচ্ছাথীন লীল| 1 ছলে, আনিয়া অবনীতলে; জীবের ;
করহ পরিত্রাণ || সুলাধার সবাঁকার, নিরাধাঁর নির্বিকাঁর, নিরাঁকার
নিত্য নিরগ্তীন | প্রকৃতি নির্ভর করি, অপরূপ রূপ ধরি, সাধকের ৃ
পুরাও মনন || নাঁশিতে অবনী ভার, যুগে যুগে অবতার, বিশ্বাধাঁর
বিশ্বের ঠাকুর । শির রাখিয়া মান, ছুষ্টের নাশিয়া প্রাণ, গৃথি-
বীর ভার কর দুর॥ অনন্ত মহিমা শুণ, বর্শিবারে সুনিপুণ, অনন্ত
সহজ মুখে নন | গজমুখে গজানন, চারিমুখে বিখি লন? ষড়মুখে
নহে ষড়ানন || পঞ্চম্ুখে নন শিব, আঁমি ক্ষুদ্রমতি জীব একমুখে |
কিকব কথন। দয়া দাঁন কর ষারে, সেই সে জানিতে পারে, সাঁধা : ;
মতে করয়ে বর্ণন1। আহর্নিশ গু৭ গায়, ভবান্ধি তরিয়া যায়.




পোল্পদের স্বরূপ সেজন। না থাকে শমন ভর, নিতাখামে সুখে




দ্বিতীয় ভাগ!

রঙ, পুনর্কঝার না হয় জনন | । অর্ধ শাজ্গণে কয়, সর্কেঙ্থব সর্বময়,
স্বরূগে সবার নিকেতন |. স্বর্মভুঁমি রসাঁতল, সাগর জঙ্গম জল”
নাগ নর গন্ধর্ব চারণ | দেবার ষক্ষ রক্ষঃ শাখি শাখা পশুপক্ষঃ :
জীবাজীব স্থাবরান্থাবর |. বেদ বিধি সপ্রানাঁণ, ও পদে সবার স্থানঃ
কোন বস্ত নাঁহি স্বতপ্তর: আগন নিগন তত্র মুনি মুখে মহামন্ত্র
প্রকাঁশিয়া করছ প্রাদান | দেখি আনি বেদ ভক্ত, পড়ীইৰ সেই মন্ত্র
কুপাবিষ্ট হও ভগবাঁন॥। অপরাধ না লইও, অন্তে পদে স্থান দিওঃ
এই ভিক্ষা চাহি বাঁরবাঁর। দশ দিন দশ মাঁসঃ না হয় জঠরে বাঁসঃ
না ষাইিতে হয় ঘমাগার |. এইরূপে মুনিবর+ স্তুতি করি বনুতরঃ ৷
দুঢতক্তি! 'যাঁচেন চরণে রাঁষ কৃষ্ণ কন তায, সিদ্ধ হবে সমুদায়ঃ
ষে বাগ থাকয়ে তর মনে | এক্ষণে এ কথা, আর, নাহি কর
চার আমরা মানব দেহ ধরি। মানবের যে বিধান, দীক্ষা কর
সমাধান, শিক্ষা তাঁহা সযতনে করি 11 এত বলি রাঁম হরি» স্বমাস॥
বিস্তার করি, মুমিরে তুলান ততক্ষণ। সুনিরাজ হর্ষদনে, মহা সন্ত
সমর্গণেঃ করিলেন ক্রিয়া সমীপন | বন্তুদেৰ হর্ষমন,দাঁন দেন অগণনগ
| সফতনৈ ভাঁক: বিপ্রথণে | অণি চুণি হীরা সাঁর, বনু বস্ত্র অলঙ্কার, টি
উপহার আর নানাঁধনে |: পুর্বর্বতে: মানসে মানা, ছিল- আরভ্রব্য
নাঁনা, শ্রীকৃষ্ণের জনম সময়ে। সবতস অযুত থাই, স্বর্ণ সহ সেই
টাই, আনি দান দেন হট হয়ে ॥ রামকৃষ্ণ হৃউ হয়ে,দণ্ড কমগুলু
লয়ে, ধরি তথা ব্রহ্মচারী বেশ। মুনিপদে নত হয়ে, নিভৃতে নিয়ে
রয়ে, বাহিরে আসিয়া! অবশেষ |. নিয়মিত যে যে ধর্ম, সমাপিয়!
সব কর্ম বজুদেবে কহেন শ্রীহরি। শিশুরাঁম দাসে ভাষে, বিদা।

অপ্থায়ন আশে, যেতে চাঁন অবন্তীনশরী 1

রামকৃষ্জের অধ্যয়নার্থ অবস্তীনগরে গমন |

. পয়ার। উপনয়নের কর্ম হলে সমীপন।- বিপ্র আদি বনু
না করিল ভোজন ॥ যতেক_দাঁনের ্রব্য- লইয়! াহ্মণে।:




৭8.

প্রভাসখও্ড].

বরে প্রশংস সবে. গেল নিকেতনে || তবে কৃষ্ণ হরষিত হয়ে

অতি মনে | জনক জননী কীছে বসিয়া -যতনে 11 :করপুটে- কহি-
ছেন অমিয়া বচনে | - শ্রবণ করহ: মাত পিতা ছুইজনে ||. বাঁলা-

বধি বুন্বাবনে করিলাম বাঁস। শিখিলাঁম গৌচারণ আঁর গ্রোপ-.

ভা বিদ্যা অধ্যয়ন_নাঁছি করি কৌন দিন।- পণ্ডিত সমাঁজে বসা
বড়ই কঠিন ॥- পশ্ডিতে পণ্ভিতে-যবে শাস্ত্র কথা কন। অধোমুখে

থাকি_তথা না সরে বচন্‌।। নারুকঝিয়া বাঁকা বাক্য. কহে যেই জন।

সভাঁ মাঝে হয় সেই হাঁস্যের ভাঁজন ॥ মুর্খ বলি উপহাস সবে

করে তাঁর়। বিদ্যা বিনা মন্থষ্ের জীবন বৃথায় ॥ : বিদ্যায়. বাঁড়ীয়

বুদ্ধি বু্ধে বাঁড়ে ধন। বিদ্যা বুদ্ধি অর্থ হলে মান্য হয় জন.) _ বিদ্যা

জপ্গ-বিদ্যা তপপ বিদ্যা পুগ্যধর্মম 1. বিদ্যাঁতে সাধন: হয় সাঁধকের
কর্সা বিদ্যা বাঁধিত হন বিধাতা: আপনে । বিদ্বান জনেতে

জয় পাঁয় ত্রিভূবনে ॥ বিদ্বান হইলে প্রজা রাঁজ! হনবশ। রাজার

হইলে বিদ্যা, বাঁঢ়ে বু যশ ॥. বিদ্যা হয় মন্ষ্যের প্রাণের সমান) ?
বিদ্যা সম- সার বস্ত নাহি কিছু আন.।| একারণে নিতান্ত হয়েছে রং
মম মন্ন1 কিছু দ্রিন করিবারে বিদা।-অধায়ন || সান্দীপনি নামে,

মুনি অবস্তীনগরে। সর্ব শাস্ত্র জুপারগ ব্যাগ চরাঁচরে || অধাঁয়ন
হেতু যাঁব তাহার বসতি কৃপ্াকরি আম| দহে দেহ 'অন্থমতি

ত্. কথা, শুনি বসু দেবকী ছুজন |. ব্যাকুল, হুইয়] মনে বলেন ্‌

বচন ॥ ষে কথা! কহিলে বাপ সুধার সমান ।. কিন্ত-একথাঁয় হৈল

বা কুলিত, প্রাণ ॥ বালাকালে বৃন্দাঁবনে রাখিয়। ভুজনে-। -অহর্নিশি
বারিধারা বহিত- নয়নে ॥.. পুঁজ নয়নের তার. পুজ প্রাণ খন ।

পুজ বিনা মন্ুষ্যের বৃথায় জীবন ॥ হেন পু. দুর €দশে. রাখি বন্ছ:,

দিন। ভাবিয়! ভাবিয়া তন্তু হয়েছিল ক্ষীণ || বহু দিনে বিধি যদি
হয়ে সাঙুকুল।, নিলাইয়া পুঁজ ধনে দিয়াছেন কুল॥ অতএব
আমাদের জীবন থাঁকিতে। পেয়ে নিধি পুনরায় না পারি ছাভিতে।।
একারণে বলি বাঁপ শুনহ বচন। বাসে বসে বিদটা দ্োহে কর

অধায়ন | সর্বাশান্ সবিদিত: আচার্য আনিয়া। ইচ্ছাদত পড়

৩



পা পাশাপাশি টা্াচানাপাাপাচাগাাযাংলাালা










দ্বিতীয় ভাগ! খঃ

পাঠ স্ববাঁসে: বসিয়া || কৃষ্ণ কন কষ্ট বিনা বিদ্যা নাহি হয়।
বিদা1 হেতু বিজ্ঞ জনে যাবে পরীশ্রয়|॥ স্ববাঁসে থাকিলে স্থুখ হয়
সমুদিত। লুখেতে ভুলিয়া বিদ্যা হারায় নিশ্চিত ॥ বিশেষত
এক্ষণে এ মখুরাঁ ভবনে । আমর! সবার শ্রেষ্ঠ বলি সর্কজনেন।
তয় করে আর করে স্তবন বন্দন 1 সম্মুখেতে গায় গুণ অদ! সর্বক্ষণ 1.
তাঁহাতে বাঁটিয়া আ্গর্ঘা হবে অহঙ্কার। অহঙ্কারে উপার্জন না
হয় বিদ্যার ॥. অহঙ্কীরে সর্বনাশ সর্ধশান্্রে ক়।. অহস্কাঁটে
বোধের করয়ে পরিক্ষয় ॥ বুদ্ধি বৃক্ষ ডালে ফলে বিদ্যারূপ'ফল।
বুদ্ধি হীন হলে হয় সকলি বিফল-।| এই হেতু এইকথা করি নিবেদন
বিদ্যা হেতু বিদ্বেশেতে করিব শ্মন || ইহাতে ভাবনা কিছ না,
কর অন্তরে | অচিরে আমিব ফিরে মধুরাঁনগরে-॥ এত শুনি বন্তু-
দের দ্রেবকী তখন । কান্দি কৃষ্ণ কাছে কহেন বচন || একান্ত
যদ্যপি বাঁপ যাবে দুর দেশ । শুন তবে কছি কিছু করিয়া, বিশেষ ॥
: মাঁতা পিতা বলি বাছা সদা রেখো মলে) দেখো যেন বিস্মরণ-ন?
হই ক্ষণে। এত বলি রাম কৃষ্ণ বদন চুষ্বিয়! | করিলেন অন্নুমতি
'অনেক ভাবিয়া 1 পাহিয়া আদেশ তবে রাঁম হবীকেশ। অবিলম্বে
নিলেন এ নিজ দেশ; রথে চি ছই টক আনন্দ, অন্তরে ।
মনে মনে বিবেচনা করিয়া তখন ॥ পথে থাকি রথ না আর
সঙ্জিগণে | বিদাঁয় করিয়া দিয়া মখুরা ভবনে) তদন্তরে ছুইজনে

ছাত্র বেশ ধর। গ্রবেশেন মুনি পুরে পুথি কাখে করি || দুরে
হতে রামকৃষ্ণ রূপ দবশনে। তটস্থ হুইল তথা যত ছাঁত্রগণে

অপরূপ রূপ হেরি মুনি সান্দীপনি। একদৃষ্টে অনিমিষে রহেন

আপনি || রাঁম ক্ষণ ছুই ভাই বিনত হইয়!। প্রণমেন মুনিপদে

শীন্রপতি খিয়া। পরিচয় দিয়| কৃষ্ণ বলেন বচন |. আমাদের

অধ্বিবাঁস মথুরা ভবন || রামকৃষ্ণ নাঁম বস্তুদেবের নন্ধন। আসি-

য়াছি পাঠ হেতু এই নিবেদন )॥ তবতুল্য জ্ঞানি মুনি নাহি ভ্রিভূ-

বনে। কৃপা করি পাঁঠ দিতে হবে ছুই জনে ॥॥ এই রূপে কৃষ্ণ কণ




পপ জ্ভামবঞ্জ7

মধুর তারতি। শুনি মুনি সান্দীপনি সাঁনন্দিত মতি ॥ আশীর্বাদ
শিরোত্রাণ বদন চন্বনে। কহিলেন এই স্থানে থাঁক ছুই জনে।
সন্ভুগ্ত হয়েছি বাঁছ। শুনিয়া বচন ৷ সাধ্যমতে পড়াঁইৰ করিয়া যতন ||
এত বলি বহুবিধ করিয়া ব্যাখাঁন। তপোঁবন ভিতরেতে দেন বাঁপ-
স্থান। মুনি রমণীরে মুনি ডাকিয়া তখন। কহিলেন দেখ এই

শিশু ঠছুই জন।| বিদ্যা আঁশে এসেছেন নিকটে আমার। তব ;
কাছে এ দেঁহার আহারের ভার মুনি জাগা সাত্বী সতী শুনিয়। :
বচল। আর রামকৃষ্ণ রূপ করি দরশন ! পুত্রহীনা পুক্র ভাবে
পুলকিত মন। পালিতে প্রকৃত ভার করেন গ্রহ্থণ || তবে. হর্ষ
হয়ে রাম কঞ্চ মতিমান।. করিলেন সুনিদত্ত স্থানে অবস্থান ॥
প্রত্যহ প্রভাষে পাঠ. পড়েন যতনে, আহারাদি- হয়: মুনি পত্ীর
সদনে || জুদামা নামেতে ছিল ছাত এ একজন। ইউনিষ্ট মহাশিউ
বিপ্রের নন্দন |. তার সহ কৃষ্ণের হইল সখ্াভাব। উভয্বে অর্পণ





করি উভয় স্বভাব ॥. শররে ভোজনে আঁর অটনে রটনে। সর্বদা
বঞ্ধেন সুখে শান্ত আলাপনে || বলরাম সহ কৃষ্ণ গড়েন যখন

দেখিয়া অবাক হয় যত ছাঁত্গণ || একে একে সর্বশাস্ত্র করিয়।
'বিনাস| চৌষটি দিববে বিদ্য| চৌষডি অভায. দেখিয়া গুরুর
নে ছৈল চমৎকার। বলেন এমন শিশু. নাহি দেখি আর ॥ মন্ুষা

স্বভাব নহে-এই ছুই জন। রূপগুণ বত দেখি দেবতা লক্ষণ ॥

হ রূণের হেতু এই পৃথিবীর তাঁর। বোধ হয় হয়েছেন-বিষুঃজবতার।
মানবী লীলার হেতু মানিলেন গুরু। বাগ কল্পতরু বিষ জগতের
গুরু |. যে হন বুঝিয়া আমি দক্ষিণ| চাহিৰ |. বিশেষিয়া তত্ব কথ।
তখন জাঁনিব।| এই রূপে সান্দীপনি.ভাবি মনে মন। একদিন
রাম কষে বলেন বচন ॥ সর্ব শান্তর সুপারগ হইলে ছুজন। আর
যে পড়িবে শান্তর নাহিক এমন ॥ একথা] শুনিয়। তবে কৃষ্ণচন্দ্র কন 1

দক্ষিণা যাঁচহ গুরু যাইব ভবন ॥ শিশুরাম দাসে তাষে মুনি

সান্দী পনি। গুনিয়। দক্ষিণ কথ] কান্দেন জাপনি ॥








দ্বিতীয় ভাগ । ৭৭

উরদক্কিণাবিবরন ১৮) ৭

পয়ার। কৃষ্চক্দ্র কন গুরু করি নিবেদন। তোমার, প্রসাদে
ধুদি সাক অধ্যয়ন ॥ আজ্ঞকর গুরুদেব প্রসন্ন হইয়া । -মাঁতা গিতা
দরশন করি, গুহে গিয়া বিদ্যার দক্ষিণা কিছু দিব মহাশয় ।
বাগ্ণামত চাঁহ গুরু যাহা ইচ্ছা হয় | করিব দক্ষিণা দাঁন আমি
নিশ্চয় । দক্ষিণা বিহীনে কোন কর্ম নিদ্ধ নয় || দক্ষিণা কর্মের

মূল সর্বশান্তে শুনি। সাধ্যমতে স্থদক্ষিণা দিব মহামুনি ||: নিয়া টড
কৃষ্ণের কথা মুনি মহাঁশয়। নয়নের জলে তাঁর ভাঁসিল: হদয়।|

উচচ্চহস্বরে কান্দে মুনি হইয়া ভুঃখিতা উৎলিল শোঁকপিন্ু

হারায় সন্বিত॥। শুনিয়া রোদনপ্রনি মুনির রমণী । আসিয়া কাঁন্দয়ে

কাছে লোটায়ে অরনী | বক্ষঃ শিরে করাঘাত- করে ঘনে ঘন ।

পত্র পুত্র বলি গ্রোহে করয়ে_ রোদন ॥ দেখিয়া এরূপ কৃষ্ণ ক্রন্দন
দৌহার। বুঝাইয়া শ্রীমুখেতে কর আরবাঁর।॥| কি কারণে কান্দ:

দোছে বল সমুদায়। বুঝিয়া দক্ষিণা লহ যাছে ছুঃখ যায়| এত. ফদি

৩ ০ জু

কুচ বার, বার কন7 কাঁন্দিতে কান্দিতে তবে কন ভ্ুই জন.।।

কি দর্ষিণ। দিবে বাছা কিখন লইব।. ্‌ কি খ
সাব ॥ পুত্রধন হেতু ধন বাগ করে জন পুন হীন ধনে বল
কোন প্রয়োজন পুত্র হেতু ভাষ্য। লোক: করয়ে এহণ। তার্ষযা



, হতে পুত্র ধন হুর. উৎ্পাদন।॥ পুত্র হয় সংসারির সর্ব সারখন।

পরকালে পুত্র পিণ্ডে মুক্ত হয় জন | -মরিল: এন খু) মুত্রে
ডুরিয়া। তদবধি আছি টোহে জীয়ন্তে মরিয়া।- অংপ্রতি পাঁইিয়।

বাছা তোমা ছুই জনে। পুত্রশোর নিবারণ হয়েছিল মনে ॥ তোমরা
পরের পুত্র যাবে নিকেতন কেমনে খরিব প্রাণ আমরা এখন ||
হায় হাঁয়.কোঁথ! পুত্র কি. ব্র্ধা সাঁ্রিলে, পুত্র হয়ে পিতা মাত!

জীয়ন্তে মারিলে। অকালে মরিল পুত্র নাহি- দেরি পাঁপ।-কি
কারণে ওরে বাছা দিলে এত-ভাগ, | এত বলি মুনি আর মুনিররমী |

কঠান্দয়া কর্দম কৈলা রজস| অবনী-॥ হাহ] শব্দে কান্দে টহে

২,



1

গভাসখণ্ড

নহে শিবারণ। দেখি ক্ষত কুপা করি কহেন বচন || না কান্দনা
কান্দ আঁরস্থির কর মন। অচিরে মনের দুঃখ করিব মোৌচন।। ধন
'কিব। পুত্র ধন কিব। ভূমি ন্বর্গ। ধর্ম অর্থ কাম মোক্ষ চতুষটয় বর্গ |
যাহ! চাবে তাহা পাঁবে না হইবে আঁন। বুঝিয়া যাচহ মুনি স্ুদ-
ক্ষিণা দাঁনা। এত যদি কৃষ্ণচন্দ্র কহেন আপনি । শুনিয়া রুঝিল!
মনে মুনি সাম্দীপনি ॥ পুর্ণব্রন্ম নারায়ণ ভূমে অবতার |. নহিলে
এমন কহে সাধ্য আছে কাঁর || অতএব স্বৃতপুত্রে বাঁচায়ে লইব।
হেরিয়। পুত্রের মুখ দুঃখ নিবাঁরিব | ভবগুরু পাঠছলে বলেছেন
সরু তখনি ঘুচেছে মম তব ছুঃখ গুরু ॥ শমনের সাধ্য নাহি
খাঁসিতে আমায়। এক্ষণে যাঁচিয়। লব যাতে ছুংখ যায়| এত ভাবি
সান্দীপনি কৃষ্ণে করে স্তব। জানিলম তব বাঁক্যে তব তত্ব সব
তুমি ব্রন্ম! তুমি বিষ তুমি মহেশ্থর। তুণি দেব দেবী দিবি তুলি
নিবাকর|| জল স্থল রসাঁতল জঈগম সাগর। নাগ নর যক্ষ রক্ষ
ন্বর্র্ব কিন্নর | পশু পক্ষী পতঙ্গাদি বিভ্ভৃতি তোমার । তোম।

বিনা ত্রিজগতে নাহি কিছু আর || কি করিব তবস্তব তমি বিশ্বনয় ।

ক্পায় করিলে ধন্য আমার আঁলয় ॥ বিশ্বগুরু হয়ে গুরু বলেছ
যখন বর্গ চতুষ্টয় লাভ হয়েছে তখন ॥ তবে যদি স্ুদক্ষিণ।
দিবে ভগবান ।-সৃতপুজে বাঁচাইয়া আন দেহ দান] এহিকে
ইউদহিক দুঃখ কর নিবাঁরন। ইহা! বিনা অন্যধনে নাহি প্রয়োজন |]
এত যদি সাঁ্দীপনি করি দু কন । শুনিয়া ঈষত হাঁসি দেবকীনন্দন |
কহিলের তব পুত্র মরে কোন স্থলে । সান্দীপনি কহিলেন সমুদ্রের
জলে ॥ বাঁরিথির নাগ শুনি বাঁরিদ বরণ। চলিলেন আঁনিবারে
শুরুর নন্দন ||. প্রণাম করিয়া-গুরু পাদপদ্ম মুলে। বলরাম সহ
যান সাগরের কুলে॥। তীরে থাকি ত্রস্তচিত্তে রাজীবলোচন । করি-
লেন সাগরেরে ক্রোধে সম্বোধন || কৃষ্ণ খনি শুনি ধুনিনাঁথ চমকিয়!।
দিব্য মুর্তি ধরি দেখা দিলেন আলিয় ||. পুর্বে রান অবতারে বন্ধ-
নের ভয়ে। স্মরিয়! নলিলপতি শব্ষিত হৃদয়ে ॥ প্রণমিয়া পাদপদ্ধে
কর যোঁড়ে কল্প। ক্রোধে সম্বোধন কেন কর কৃপাময়.| কোন










দ্বিতীয় ভাগ! 2

দোষে ছুষি আমি নহি ও চরণে । অধীনের প্রতি ক্রোধ কিসের
কারণে ॥ কুঞ্জ কন গুরু_পুত্র তব জলে মরে । বেগেতে-ডুবায়ে
মার না ভাব অন্তরে | অন্থুনিধি কহে প্রভূ করি নিবেদন আবি
নাহি মারি তব গুরুর নন্দন ॥ পঞ্চজন নাঁমে এক শঙ্খ মহাস্ুর |
বলেতে করিতে পারে জয় তিনপুর || ভুষ্ট শীল ছুরাঁচার ছু
শরীর। তাঁর ভয়ে জলজন্ত কেহ নহে স্থির |. সে ছুষ্ট আমার জলে
থাঁকে সর্বক্ষণ। যাঁরে পাঁয় তারে ধরে করয়ে ভক্ষণ | শিশুমতি তৰ
গুরুপৃত্র গুণরাশি। অঘাটে নামিল স্নানে অবেলায় আসি ॥ পাইয়া
মনুষ্য শব শঙ্খ ছুরাঁগার।, অবিলম্বে তারে রি করিল: আহার

দুঃখে মরি তয়ে কিছু বলিতে না পারি। ছুরন্ত শঙ্ঘার তেজে কালে
মন বারি॥ ইথে মম অপরাধ নাহি ভগবান । বুঝিয়া করহ প্রভু
ষে হয় বিধাঁন || সাগরের কথা শুনি করুণা সাগর । কপ বিতরিয়া
তারে করেন উত্তর ॥. শঙ্ঘারে মারিয়া তব ঘুচাইব ডর। জলমূর্তি
ধরি জলে যাওহে সাগর ॥ শুনিয়া কৃষ্ণের কথ| বিরজ1 নন্দন। জল
কপ্ে.জল মধ্যে করিলা গ্রমন। বলরাঁমে কন কু করিয়া বিন্য়।

25

ক্ষণকল নীরে তুমি, থাক মহাশয় 0. মুভ মখোতে আমি শঙ্ছে
বিনাঁশিয়। |. অবিলম্বে তব কাছে মিলিব আসিয়া 1 এত বলি বল-

রাঁমে রাখি সেই স্থলে। শিশু কহে কৃষ্ণ যান সমুদ্রেরে জলে ॥

গুরুপুজ্র অন্বেষণে শঙ্বাস্ুর বধার্থ এ
অযুদ্ধরে প্রবেশ |:

পযার। বলর।মে বুঝাইয়া রাখি সেই স্থান। কটি বেড়ি বীর
খটি করি পারধান ॥ অবিলম্বে আরোহিয়া বট বৃক্ষোপরি। বান্কা-
স্ফোট হুহুস্কাঁর ঘের শব করি ॥ ল্ম্চ দিয়! পড়িলেন সমুদ্রের
জলে। আন্ফালনে অন্বধির অন্বু উর্দ্ধে চলে ॥ উলিল
জল জলজন্ত তয় পাঁয়। অস্থির হইয়া বেগে ইতস্ততো খায় |
শুনিয়। দারুণ শব্দ শঙ্ীস্থুর বর। শঙ্কায় হইল তাঁর অস্থির
অন্তর | মহাঁভয়ে ভীত হয়ে চারিদিকে চায়। ঘম সম হেরি কুষেে
বগেতে পলায়।॥ অন্য জলচরে কৃষ্ণ কিছু নাহি কন। শঙ্থে






৮৩ প্রভাসখণ্ড

অন্বেধিয়া বেগে করেন. আমণ || দুরে হতে দেখিলেন শন:
ছুরাঁশয় | পলাঁয় পবন বেগে শহ্কিত-হৃদয়।| তাহা দেখছি হণস্য ।
করি প্রভূ ভগবান | পণ্চাঁতে: পশ্চাতে তাঁর হন খধাঁবখাঁন ॥।
নিকট হলেন তাঁর করি ধর ধর। ফিরিয়া দেখিল শঙ্খা শমন:
সোঁনর | প্লাইতে নাছি পারে হইল ফাঁফর। কিকরে ফিরিয়া
আসি দ্িলেক সমর ॥॥ আঁক্ফালনে উর্দ্ধে জল- তুলিয়া ফেলায়।!
খাইয়া কামড় ধরে শ্রীকৃষ্ণের কীঁয় || হস্তে পদে কটি দেশে কসঘে,
কাঁমভ। দেখি কৃষ্ণ ক্রোধে এক মারেন চাঁপড়।। অস্থির হইল
পাঙ্ছা খাইয়া চাপড় । শথাঁপিহ ভু শীল না ছাড়ে -কাগড় ॥:
কামড়ে কামড়ে ক্ষণ অস্থির হইয়া । সেইক্ষণে নিজ মনে বিচ
করিয়া ॥ করিলেন কজেবর বজ্র ষছুমণি। কাসভে শঙ্বার দন্ত:
তাঁঙ্গিল আপনি || অস্থির হইল শঙ্থা দন্তের জালাঁয়। কি করে,
তাৰিয়! কিছু উপায় না পায় পলাইতে চাহে শঙ্জা শক্ষিত ইইয়া।
দেখি কুঞ্কচবাঁম- করে ধরেন চাপিয়া ||. গ্রনারি দক্ষিণ ভস্ত শঙ্খ:
মুখে দিয়া। মুণ্ত ধরি একটানে বাহির করিয়া? নখবীঘাঁতে বন্ধ
তাঁর বিদারণকরি । শ্রম্নন সদনে ভারে পাঠান আীহরি রণ)
সনয়ে শঙ্খ। বলিল বচন। গুরুপুত্র আছে তৰ শসল তবর্ণ | অনেক?
কহিয়া আরু-স্তবনীয়-বাঁণী | কহিল আমার শঙ্া লহ চক্রণানি।।
রাখিবা আঁগন করে মস শঙ্খানার। কৃপাঁকরি অখীনেরে করছ
দ্বার শঙ্খার বচনে কর্ণ তথাস্ত বলিয়া লইলেন শঙ্খ তার;

সহষ্ট হইয়া ॥ তবে কৃ প্রণমিয়া শঙ্খ মহানগর দিব্য দে,
ধরি গেল শমনের পুর | শখনে প্রণাঁম করি চড়ি দিবারখে। অধ
'লঙ্বে চলি গেল বৈকুণ্ের পথে ॥ বৈকুষ্ঠ নগরে তাঁর হেল অধ
বাসা পাইল সালোক্য ভাষে শিশু রাম দীস 1

গুরুপুত্র আনয়নার্থে বলরাম মহ শ্রীরুবেতর
সংবমনী পুরে গমন |.

- গাও শঙ্খারে বধিয়। শঙ্ঘ লই হা 'জলে উদ ৃ

?
]
]



টি





দ্বিতীয় ভাগ

৮ ১

উঠিলেন অতিশীন্র করি।| শঙ্খ বিনাশনে : তুষ্ট হুইয়! সাগর ।

পুনরপি উঠ্টিলেন ধরি কলেবর ॥ মণি চুনি হীরা সাঁর মার্জিত
বমন। নানাবিধ উপহার নানা আঁতরণ ॥ ভেট দিয়া রামকৃষ্ণ

চরণ কমলে । স্তুতি করি বহুবিধ প্রবেশিলা জলে | তবে কৃষ্ণ
জলসিক্ত বস্ত্র পরিহরি । সাগরের দত্ত বস্ত্র 'আভরণ পরি ॥ ছুই
ভাই রখোঁপরি করি আরোহুণ 1 সংযমনীপুরে শীত্র করেন গমন 11
পাঞ্চজন্য শঙ্খনাঁদ করিলেন হরি। শুনিয়। শমন ভয়ে উঠিল

শিহরি ॥ চিত্রগুপ্ত সহ শীন্র গললগ্ী বাঁসে ৷. প্রণাম করিল আমি

রাম শ্রীনিবাসে 117 অগ্রসরি নিয়া গিয়া আপন ভবন 1 বসাইলা

শীন্র দিয়া দিব্য নিহ!সন-॥ কর যুভি স্তুতি করে অনেক: প্রকাঁর-|

র1মকৃষ্ণ মহাঁবাছো! জগত আঁধার || জয় জয় জগরদীর্শ জগত

জীবন ।_ ষছ্ুকুলে_ অবতার যশোদানন্দন ॥ জপিলে যুগল -নাঁম

যায় যমভূয়। জননী জঠরে জন্ম আর নাহি: হয় অপার মহিমা

গুণ বর্ণে সাধ্যকার। -পদার্পণে পবিত্র করিলে মমাগার কি

কারণে আগমন কহ বিবরূণ। আ্ঞা.কর কোন কর্ম্ম করিব সাধন |

শমনের বাক্য শুনি সহাত্ঞ বদনে। -কহেন:করুণাঁময় প্রণয় বচনে।

মম পাঠ গুরু হন মুনি সান্দীপনি। -পুজ ভীর-প্রিয়ন্বদ সর্ব্ব শুণ -
মণি ।॥ অকালে সমুদ্রে তারে মারে শঙ্খাস্ুর। মারিলে আনিল

ভব দুতে তব-প্লুর |. তদবধি এই ধামে-আঁছে সেই জন! তাহারে
আঁনিয়!শীত্র দেহ হে শমন || না কর বিলম্ব ইথে গুনহ তাঁরতি।
গুরুকে দক্ষিণ। আমি দিব শীঘ্রগতি ॥. এত যদি কহিলেন দেব
ভগবাঁন। শুনি জীব কাঁরাগীরে যমরাঁজ যাঁন ॥ -সান্দীপনি মুনি
পুজে তপালিয়া নিয়।।. অবিলম্বে বাম কুষ্েে দিলেন আনিতা |
গুরুপুজ্রে পেয়ে হরি হয়ে হরষিত। পুর্ব রূপ দেহ দাঁন দিলেন

ত্বরিত ||: হস্তপদ চক্ষু কর্ণ চলন বলন। পুর্বে্র সমস্ত ভার করিয়া

অর্গণ |. শমনেরে শুভাশিষ করি রাঁম হরি গুরুপুত্রে নিয়] বান

আবন্তী নগরী | শিশুভাষে কৃষ্ণপদ তাব অনিবার। কৃষ্ণ নি

বান্ুকুল কি. ভাবন| তার |. 7২



৮২

গুরুদক্ষিণ। প্রদানানন্তর রাঁমকুষ্েের
মথুরা গম্ন |

চালাল

ভ্রিপদী । অবিলম্বে রাঁম হরি? আরোহিয়া রখোঁপরি, গুরুপুত্ে ৃ
নিয়া সঙ্গে করি। অস্থ পুষ্টে মাঁরি ছাট, ছাঁড়ায়ে অনেক বাট,
উপনীত অবস্তী নগরী ॥ গুরুপুরে প্রবেশিয়া, প্রদক্ষিণে প্রণমিয়া। :
গুরু গুরুরমণীর পায় । গুরুপুত্র সহ আর, মনি চুনি হীর! জার, | ৃ
দাঁন দেন দক্ষিণা বিধাঁয়॥ বহুরত্রে পরিষ্কার বহুবিধ অলঙ্কার, :

ঁ

বহু অর্থ রাঁশি রাশি আর ।. দিয়া দাঁন অগণন+ দ্রীড়ালেন ছুই জনঃ : |
দেখি মুনি মানে চমতকার || হেরিয়া পুত্রের মুখ জনমিল যত ৃ
সুখ, কত তার করিৰ বর্ণন পুত্র ধনে কোলে নিল, মুখে শত ু্ব:
দিল, মুনি মুনিরমণী ছুজন | শোকশিন্ধু হয়ে পার, চারি চক্ষে,

অনিবাঁর, স্ুখনীর বহিতে লাগিল 1 পলকে পুরিয়া তন্থা, উদ্চচারিয়া
বেদ মনু, রাঁমকৃষ্ে আশীর্বাদ দিল || জানি মুনি সমুদয়, ব্রক্ণ্যের:
পরিচয়? ব্রহ্মণ্য দেবের বাবহাঁরে। কেমনি মাঁয়ার কাঁর্ষা, তথাপি:
বোঁখের খার্া, না হুইল সমুহ প্রকারে ॥ অজ্ঞানের অন্থুরোধে।
রামকুে শিষ্য বোধে, তঁজে দেন মন্তকে চরণ) রামকৃষ্ণ ছুইজন। :
'গ্রণমিয়া সেইক্ষণ, অন্ুক্ষণ করেন স্তবন || স্তবন বন্দন করি, যেতে 1
চাঁন ব্রীমহরি, আঁপনাঁর 'মথুরাঁ নগরে), বিদায়, মাঁগেন দাঁন, শুনি ্
মুনি অতিমাঁন, অপ্রমাঁণ চক্ষে জলঝরে || যত কন যছ্ুমণিঃ কি.

করেন সান্দীপনিঃ এসো বাণী বলিলেন মুখে । বিদায় করিয়া দাঁনঃ: |
সুশ্থির না. মানে প্রাণ, ভাদিলেন অর্ণব অস্ুখে ॥ মুনির রমণী:
যেই, .ধাইয়া আঁপিয়! সেই, কোলে নিয়া রাম দীমোদরে | শিরেছ,
আত্রাণ নিয়া, শত শত চুষ্ব দিয়া, অগরণন আঁশীর্ব্বাদ করে| তবে ৃ
তথা ত্বরা করি কোলে হতে রাঁম হরি, নামিয়া প্রণাম করে পায়। ৃ
সাঠ ছাত্র ঘত জন, সবে করি সস্তাষণ, অবিলম্বে যাঁচেন বিদায়
কুদামা সখারে হরি, কন কথ। করে ধরি+ দেখো সখা থেকো! সাঁব-

প্রানে | আমারে রাখিও মনে» ন1 হইও বিল্মরণে, প্রেমের প্ররীক্ষা






দ্বিতীয় ভাগ? ৮৩

পরিমাণে ॥ শুনিয়! কৃষ্ণের বোল, ভাবে হয়ে উতরোল, সুদাঁমার
চক্ষে বহে নীর। আকুল হইল প্রাণী, স্ুখেতে না সরে বাণী, ভাব:
তরে অস্থির শরীর ॥ উভয়ের ভাঁব যত, ভাঁবে ভাঁব অনুগত, ভাব
জানে ভাবের, স্বতাঁব। ঘন ঘন, আলাপন, ঘন প্রেম আলিঙ্গন,
স্বভাবের না হয় অতাব ॥ স্থুদামা দিজের'স্ুত, ভাবি হরি কর যুত,
প্রণাম করিয়া তার পায় | চক্ষে চক্ষে আরোপিয়া, কহিলেন আশা
দিয়, দেখা সখা হবে পুনরায়।॥ এত বলি ত্বরা করি, উঠিল্ন
রখোপরি, রাম সহ রাঁজীব লোচন। দেখিতে দেখিতে রথ, ছাড়া
ইয়া বহু পঞ্চ উপনীভ-মণুরা ভবন ॥ রামকৃষ্ণ আগমন; জানিয়াঁ
মধুরা জন, সবে করে মঙ্গল আঁচার। পুর্ণকুত্ত আত্রসাঁর, রস্তীভরু
পুষ্পহার, স্থাপিয়! শোভিল পুরদ্বার 1 আনন্দেরসীমা নাই, নৃত্য-
গীত সর্বর ঠ1ই, বাজে বাদা মৃদ্গ মধুর। বীণা বশী করতাল,
শঙ্খ ঘন্টা স্রসাল, সুরবে পুরিল মধুপুর ॥। নর্তকী নর্ভকগণ;
নৃত্য করে জুমৌহন, হেরে মন হয় পুলকিত) ন্ুযন্তরে মিলীয়ে
তান, দিয়া তাল লয় সাঁন, গায় গাঁন অতি সুললীত | রাজপথ
মধুরার? খুলি সাঁন্য. করে -তার, ছড়াদিয়া স্ুলার চন্দনে। রামকৃষ্ণ
ছুইজনে, অগ্রসরি আঁনয়নে, উর্দামুখে ধায় দুলে ॥ বেলী হিল
অবসাঁন, অস্তাঁচলে রবি যাঁন; গৌঁধুলিতে গণ ধুঁষর 1 বারবধু দিয়া
বার, শোত। করিবার দ্বার বসিয়াছে সাজি কি ন্ুন্দর।। বিহঙ্গ:
_সুরঞ্গ দিয়া, কুলায় কুল গিয্া,রব করে অতি স্মধূর। রামকৃষ্ণ
এ সময়ে, ্বগণে মিলিত হরে, আইলেন আপনার পুর 1 -দেবকী-
সাঁশন্দ মন, সঙ্গেতে সতিনীগণ, খেয়ে রামকৃষ্ণ নিল কোলে । রা
কষ হৃউমন, পেয়ে নিজ মাঁতীগণ, কন কথা স্তুমধুর বোলে |
হাপুতীর পুতরধন, দারিত্রের সুরতন, সেই মত আনন্দ উদয়:
চক্ষে আনন্দ জলে, ধোঁয়াইয়! কুতুহলে; কৃষ্ণমীতা কত কথা কন্বণা -
বস্তদেব মত্তিমাঁন, ধেয়ে আঁসি সেই 'স্থান, প্রুত্রধনে হেরে-হরষিত1
আনন্দেতে অপ্রমীণ,ব্রাক্মণে করেন দান, কল্যাণ করেন যখৌচিত ||.






প্রভাশখণ্ড।

রাঁমকুষ্ণ ছুইজন, মাতা পিতা বন্ধু গণঠ সহিতে হুইয়| জুনিলিত।
করিলেন অবস্থানঃ অপরে শুনহ আঃ শিশুকহে কথা স্থালৌলিত 11

_ অথ দেবকীর মৃতষটগুজ্রের আনয়ন.
ও মিন

পয়ার। প্রভাতে উঠিয। রামকৃষ্ণ ছুই জন. প্রাতঃকৃতা ' আনি |
কর্ম করি সমাপন )। বারদিয়! বসিলেন বাহিরে আসিয়া । আইল| :
মধুরাবাসী দেখিতে থাইর়1| বাঁলরৃদ্ধ যুব! জরা কি-পুরুষ দাঁর!11
উপযুক্ত স্থানে থাঁকি সবে দেখে তারাঁ॥ নিকটে বসিল বত মান্য!
গণ্য জন। সকলে সুমি ভাষে করে আলাপন11 অধ্যাপক
ভরীচার্য্য মথুরার যত। ক্রমেতে সভাঁতে সবে হন সমাগত শুনে-
ছেন রামকৃষ্ণ পাঠ সমাপিক্সা। এসেছেন স্বরশাস্তে পণ্ডিত হইয়া.
এ কথা শ্রবগেযুত, পণ্ডিতের গণ।. বসিলেন করিবারে শাস্ত্র:
আলাপন ॥ কেহ রাঁম সহ কেহ কৃষ্ণের সহিত ।. একে. একে বসি .
লেন যতেক পণ্ডিত. ॥ বেদান্ত বেদাজ বেদ আদি শান্তর আর)
শিবের আগন আদি. নানা তত্ত্রসার। নানা মুনি মতে নানা শন
কুবিস্তার |. ক্রমে ক্রমে, সর্ব, শানে, করেন: বিচার ॥ বিচারেতে
রামকুষ্, হইলেন জয়? দেখিয়া সভান্থুগণ, সাঁনন্দ হৃদয় অক্ুর
উদ্ধব বন্ুদেব মতিমাঁন | উঞ্সেন আদি যত যছ্ুর প্রধান ॥ মুনি-:
খষি আদি করি যত মহাঁজন | সকলে করেন রাম কৃ, প্রশংসন. ].
এক. মুখে শতবার বলে ধনা ধন্য |. রাঁদ কৃষ্ণ সম নাহি ভ্রিভুবনে
অন্য) অধিক গুণের. কথ! গুনিলেন- আর.। মরেছিল বহুদিন:
মুনির, কুমার |. শমন সদন হতে. তাহাকে আনিয়।। গুরুরে
দক্ষিণ] দেন জীবন্যাঁস দিয় ||. এ কথা হইল রাই গোথবী যুভিয়া।
সবে চমতকার হৈল আবণ, করিয়া. বসুদেব. আঁদি করি হইলেন
সখী) কেবল দেবকী দেবী কিছু অক্রুখী || সে কথা তথায়
কছু নহিল গ্রকাশ। সভাভাঙ্গি সবে গেল নিজনিজ বাস ॥ সতাঁ-











দ্বিতীয় ভাগ!

৮৫

ভঙ্গে উঠি তবে ভাই ছুইজন 1 অবিলম্বে অন্তঃগুরে করেন গ্রমন |
..দেবকীর কাঁছে গিয়া করিয়। তৌজন 1 ট্বকালিক নিদ্রা যাঁন করিয়।
শয়ন). এ দিকে দেবকী অন্ন বন্ুদেবে দিয়া । ক্রমে অন্ন €দন
যছুগণেরে ডাঁকিয়। |: সপত্ী অবধি আর যত পরিবার। দাঁস দাসী
আঁদি-করি দিলেন আহার আপনি আহার কিছু না করেন
সতী। কুঞ্জের নিকটে বাঁন অতি ছুঃখমতি ॥ যথায় শয়নে ক্ষ
আছেন নিদ্রিত | তথা গিয়া বলিলেন হইক়। ছুঃখিত।॥ বাজল
করেন দেবী: ক্লু কলেবরে। বিন্দু বিন্ছ বারিধারা নয়নেতে
ঝরে ॥. দৈবাঁধীন এক বিল্ছু পড়ে কৃষ্ণ কাঁয়। সে বিন্দু স্পর্োতে
কৃষ্ণ জাগিলেন তায় ॥জাগিয় সঘনে হরি চারিদিগ্ে চান । জনন
নীর চক্ষে জল দেখিবারে পান ॥. চমকিয়া কৃষ্ণচন্দ্র মায়েরে স্ুধান
কেন গো জননী দেখি ছুঃখিনী সমান || কি হেতু নয়নে, জল হয়
বরিষণ। -গ্রকাশ করিয়া মাতা বলহ বচন-॥। শুনিয়। দেবকী; দেরী
| জীকৃষ্ের ভাঁষ |. আপনার ভুঃখ কথা করেন প্রকাশ ॥ শুন গুন
বাপধন হয়ে একমন 1 আমার ছুঃখের কথা না হয় বর্ণন 11
তোমার জন্মের পুর্বে বত: দুঃখ পাইন কিঞ্চিৎ তাহার. কথ!
তোমারে শুনাই 1 সকল ছুঃখের কথা কহিতে হইলে 1 পাষাণ
| শলিয়া যায় প্রাবণ করিলে ॥ আবদ্ধ ছিলাম যবে কংস কারা
গার । একে একে হয়েছিল ছয়টি কুমার | অগুমেতে গর্ত মম
হয়েছিল পাত। অফ্টমে তোমার জন্ম হইরীছে তাত ॥ ছয়টি
পুত্রের কথ! করহ শ্রবণ। হয়েছিল রূপবান: কুমার যেমন |
রি জন্মমীত্রে রুদামান হইল ঘখন। কোলে নিয়! মুখেত্তন দিলাম
তখন ॥ স্তন্যধাঁর পেয়ে সুখে করিলেক চুপ |. সেই কালে নির*
ক্ষয় দেখিজায রূপ | অপরূপ রূপ দেখে বাঁড়িল আহ্লাদ
দিয় নিখি বিধি পুনঃ সাঁধিলেন বাদ অকল্মাৎ আদি ভুষ্ট কংস্‌
হরাচার। কোলে হতে কাঁভি নিল সন্তান আমার | কন্যপাঁনে
তপ্তি নাহি হইল বাঁছার। রোদন করিল কত করিয়া চিৎকার |।
দারুণ নির্দয় কংস কিছু না মানিল। পাঁষাণেতে আঁছাঁভিয়!
(8৮)













টি প্রভাসখণ্ড |.

বাঁছাঁরে মারিল ॥ এইরূপে ছয়বঁর মারে ছয় জনে । ব্বিদারণ হস্ক
হুদি সে কথা স্মরণে || মনে ভাবি গত ছুঃখ করিব না মনে । কেমন:
পুত্রের শোক নহে মিবারণে |. অহর্নিশ শোক সিন্ধু সবেগেতে:
বায়। খরজোতে ক্ষণে ক্ষণে আমারে ভাঁষায় ।| : করিতে না দগীরিি,
ছুর্থ কিছুতে বাঁরণ1 -নিবাঁরণ হু যদ্দি তুমি কর মন || শুনিষ়াঁছি,
তবগুণ শুন বাপধন |. বহুদিনমরে ছিল গুরুর নন্দন. তাহারে
আনিয়া তৃমিকরেছ প্রদান ! লোক সবে করিতেছে তব ু৭ গান 1
অতএব কিছু বাছা কুপা-বিতরিয়।। বারেক দেখাও: সেই সন্তানে_
আনিয়া ।| একেবারে ছয় গুঁজে আনি দেহ. বাঁপ,। »স্তনপান)
করাইয়া ঘুচাই সন্তাপ. ||. এত যদি কছিলেনদেবকীজননী_। শুনিয়া, |
ঈষদ, হাসি, কন যছুমণি | মরিয়া, সন্তান তর, ইজ্লোকে খিয়া। ॥
অনর সহিতে -আঁছে অমর হইয়া স্বর্গ ভোগ বহুকাল বক্তী- :
আঁছে আর। এক্ষণেতে পৃথিবীতে রাখা হবে তার কোনমতে)
নী খাঁকিকে অবনী ভিতর | কহিলাম বিস্তারিয়া তোমার গ্োচর 7




তবে যদি দেখিবাঁরে বড় ইচ্ছা হয়) রাখিতে পারিবে, মাতা দণ্ড
চারি ছয় | -দেবকী বলেন বাছ1 যদি নাহি রয় বারেক দেখিলে

তনুযুড বে হৃদয় || সন্তানের খেদ নাহ তোমারে প্রাইয়া। পুর্বর-

শোক পিবারির ক্ষপেক দেখিয়া|| শুনি দেবকীর বাণী চক্রপাণি

কথ, একান্ত দেখিতে: যদি, হয় তব মনা গৃহান্তরে ক্ষণরাল কর
খা গ্রমন। এখনি আনিব তব স্ুত ছয়জন আনিয়া তোমারে
তবে ভাকির জননী শুনি গৃহান্তরে-যাঁন-দেবকী- অমনি-। বস্ধ-
দেব নিকটেতে গ্রিয়। সেইক্ষণ |, বিস্তারিয়। কহিলেন সক বিবরণ

স্তন বন্থত্দব হন সাঁনন্িত-মন । - এখানে ১কুষেের কথা করছ

আবণ 11. দেবকীরে পাঠাইয়া-দিয়1-অনা ঘরে দেবরাজে স্মরি-
লেন সহৃষ্ট অন্তরে 1] স্মৃতনাত্রে জুরপঃত আসিয়া তথায় । সাষটাঙ্গে
প্রণাম করি শ্ীকৃফের পার ॥ -করযৌড় করি করি অনেক ভবন!
অপরে স্থধান কথা কি. হেতু স্মরণ || কৃষ্ত কন জুররাঁজি-শুনহ
বচন । তব পুরে আছে সম সহোধদরঙ্গণ 0 দেবকী মায়ের গর্ভ"





2:44



দিতায় ভাগ! ৮৭

জাঁত ছয় ধীর বর্গভোগ করে, পেয়ে দেবতা; পরীর, | মায়ের
হয়েছে ইচ্ছা দেখিতে নন্দন | সেই হেতু করিয়াছি তি আমরণ )।
মন্ুষা বালক সম দেহ দিয়া দান। ছয়. জনে আনি দেহ, মঘ-বিদা-
মান ||. ছয় দণ্ড থাকি পুন যাঁবে স্ুরপুর 1. এই-কার্ধ্য কর শীল
দেবের ঠাকুর ॥ সুররাজ কন এই কথ! অসম্ভব | কিবলিব তব বাক্যে
সকলি সন্তব | কেনি কর্ম আছে প্রভূ অনাধ্য তোমাঁর। অন্ুগরহ
করি মাত্র দাসে দিলে ভার । অবশ্য তৌঁনাঁর কর্ম যতনে সাঁখিব।
তিবপুর্ব্ব সহোদরে এখনি আনিব ॥ এত বলি উত্দ্রদেব করিয়া গর্ন 1
তপাসিয়া নিয়া শীঘ্র সেই ছয় জন-| কৃষ্ণ আজ্ঞা: মতে: দিব্য রেশ
রে নিয়ন দিলেন মনুষ্য বেশ সমস্ত ভূষিয়া॥ অন্থুষোর মত বু
গুণ সমুদয় । অভিন্ন বস্তুর ছয় গুর্কের তনয় | মস্থুষোর ধৃভি স্মৃতি
অপ্গীণ করিয়া ।-অবিলম্বে কৃষ্ণ কাছে দিলেন আনিয়া | পেয়ে হরি
গুর্ক্কার তাই ছয় জন । উন্দ্রেরেবলেন তুমিকরহ গমন): গুনিয়া
কৃষ্ণের কথা -প্রণনি চরণে চলিলেনএশচীনাথ অমর বলে 1
পথে গিয়া বিবেচন] করি মনে মনে দেখিতে কৃষ্ণের কার্ধা রছেন
শশী 11 শরখানেতে কু ছয় সহ্থোঁদরে নিয়া] করিলেন সমর্গন্‌
মবয়েরে ডাকিয়া | সুভ পৈষ়ে দেবকীর গেল পর্িতাপ?: আনন
উদয় হৈল ঘুচিল বিলাপ | তবেত দেবকী দেবী আনন্দ অন্তরে
ডাঁকিলেন বস্থুদেবে অতি শীন্রতরে.।। বন্ুদেব আইজৈন-ঈ
বলরমা। হেরিয়া পুত্রের মুখ গুর্ণ য়নস্কীম || অপরে আইল ষভ
পুরবাঁসি জন 1 দেখিয়] অন্ত কর্ম চমকিত মন || দেবকী লইয়া



জনে স্তন দিয়া রাখিয়া যতনে |. প্ুনরপি দেন কন নিয় অন
জনে || এই রূপে -ইয় জনে-ক্রমে দিয়া স্তন | আনন্দে দেবকী
দেবী দেখেন নন্দন ।| পুত্রগণ দেবকীরে মাতৃ সস্তীষণে | তুষি-
লেক বহু বিধ- সুমিষ্ট বচনে | কৃষ্ণ সহ ভাত বোধে কথোপকথন)
ক্রমেতে সবার সঙ্গে মিষ্ট আলাপন: এ.সময়ে:দেখ তথ। দৈকের
ঘটন। দিব্য, জ্ঞান প্রাপ্ত হল ভীঁই ভয় জন-] দেখিতে দেখিতে



৮৮ গ্রভীসখণ্ড ।

টৈল দেব কলেবর | দেব রথে চভি গেল দেবের নথর || অবাক
হইয়া লোক এক দৃষ্টে রয়।- দেখি দেবকীর হৃদি শোক সাঘা হয়॥
দেব রূপ দেখি প্ুত্রে দুঃখ ছৈল দুর। কৃষ্ণের কৃপায় বাড়ে আনন্দ
প্রচুর |॥ রাঁমকুষ্ণ লয়ে সুখে ভীগেন অপার । -শিশুরাঁম দাসে
ভাঁষে কৃষ্ণতক্তি সাঁর|।

ককের ত্র বিরহ ৃ

পয়ার। রুষ্ণধনে কোঁজে পেয়ে নী ুনদরী। সুখে
কাঁটেন কাল দুঃখ পরিহরি | বছুবিধ আভারীয় করি আয়ৌজন।
আনন্দে করান দেবী কৃষ্ণেরে তোৌজন || দৈবাধীন একদিন হইল
অন্তর আঁছিলেন কৃষ্ণচন্্র নন্দ ঘোষ ঘরে |. গোঁ, ঘরে

গোঁরদের ড্রব্য বহুতর। নবনী মাখন দি ঘৃত ক্ষীর সর | যশোদ]

দিতেন সদ] শ্রীকৃষ্ণের করে। চেয়ে চেয়ে কৃষ্ণ নাকি খেতেন
সাদরে -অতএর ক্ষীর.সর নবনী মাখন। যশোঁদার মত কুষ্ে
করাঁৰ ভোজন এত তাবে আঁহরিয়া গোরস- তখন. করিজেন
নাঁনাঁবধ ভ্রবা উপার্জন ॥ রজনী যোগেতে দেবী রাঁখেন যতনে

প্রভাতে দিবেন কৰে করিলেন মনে ॥ উঠ্ঠিলেন: কৃষ্চন্দর প্রভাঁতে

যখন। ন্বর্ণপাত্রে ক্ষীর সর লইয় তখন. যেমন €দবকী দেবী

কৃষে, দিতে-যাঁন। দেখহ উদবের কর্ম্দ একে ঘটে আন ক্ষীর
নর দেখি কৃষ্ণ দেবকীর করে । যশোঁদার ভাব হৈল-উদয় অন্তরে |
দেরকীরে হেরি হরি হলেন অস্থির |. যশোদারে মনে ভাবি চক্ষে
বহে নীর ॥. গুণময় শ্রীকৃষ্ণের কত কব গুণ । কখন অগ্ডুণ হুনকখন
নিগুণ || কি-ভাঁব কৃষ্ণের কবে নাহি জানে বেদ] ব্রজতাৰ মনে
হয়ে উপজিল'খেদ ॥ না দেখেন দেবকীরে ফিরাঁয়ে নয়ন | নাহি
খান ক্ষীর সর নবনী মাখন।। ঘটিল কৃষ্ণের ব্রজ বিরহ বিকার |

প্রলাপ বিলাপ যত কহে সাধ্যকীর॥ বহছিল নয়নে নীর শ্রাব ;
পের যথ|। মনে মনে খেদ করে মনে মনে কথা ||. হাহা মাভ। .
যশোমতি রহিলে কোথায় । কি কঠিন প্রাণ মম তেজেছি তোমায় 1)









দ্বিতীয় ভাগ! ৮৯

আমার বিনে মাতা বুঝি বেঁচে নাই, তাজিয়া প্রাণ বুঝি বলিয়!
কাঁন!ই |. এক দণ্ড না, দেখিলে আর হইতে 1 কেমনে আছ
গোমাতা-না. পারি বুঝিতে ॥ কটোরা 1 গুরিয়া নিয়া ক্ষীর সর.
ননী।.. শ্রোন্টে গেলে প্রথ চেয়ে থাকিতে অমনি |. কটো রা গুর্ণিত,
ক্ষীরযতনে রাখিয়। 1. রজনীতে-মম, মুখে দিতে জাগাইয়া, | ওগো,
মাতা তব. ব্যথা আ'মাতেযেনন,। দি ভুবনে তপাসিয়া না দেখি
তেমন | হাহা পিতা নন্দ ঘোঁষ -আছহ কেমনে -1--বল হীন |
হইরাছ আমার বিছনে |. কে.করে এক্ষণে. আর গোষ্ঠে চারণ টু
তোমারে, রা বাঁধা জল_দেয়.কোন জন, 1 আমারে, করিক সঙ্গে এলে
ধরায়. দ্র হান হয়ে আমি করেছি বিদায় | পথে যেতে বুঝি
তীত-তাক্িয়াছ প্রাণ। নহে কেন মম মন করে আন চান | কোথখ!
রে -জীদাম সখা কোথা-রে ভুবল। কোথা রে সুদাম় দা শ্রীমধু-
মল ক্রমে ক্রযে যত. রাখালের নাঁষ আমারি |. অন্রে মনে খেছ,
করে কান্দেন-গ্রীহরি_॥... ধরলী... শ্যামলী, আদি, কোথা সব : গাই ।.
আমার রিহনে: বুঝি প্রাণে কেহ নাঁছ ॥ কোথা রাধা. কমলিনী
কয আর কর, তাবে সম।কুল কুষ্ণ প্রেম, সাধু 01 কুষ
টি বিচি তত ম. নাহি-জান-মনে, ।নকুঞ্চরূপ, দেখ অদাশয়নে স্বপন
কৃষ্ণনাম জপমাল! কষ্ণরূপ ক্রিয়া । রি হার হয়ে প্যারি, আছ.
কি বাঁচিন্।11 বলিতে বলিতে হরি, সুচ্ছগত হন.) গ্ুনসটঅস্বিভ-
পেয়ে-পুনশ্চ রোদন || কে! রহিয়াছ ব্রুন্দে; প্রিয়া সহচর্রি$
তোমার বুদ্ধিতে বছু-বিপদ্দেতে তরি || ললিতা লবজলত! চিতা
সুলে/চন11-_চম্পকলতিকা চল্পাৰতী চক্দীনন1 ২) ইন্দুমুখখী এজাদদি,
আস প্রথান্যে গণন । ইহ] সহ ষোড়শ অহত্ত অইউট-জন-1। একে
শকলেরে-য্মর মনে অনে। অনিবার ঝরে বারি কমল, অস্রনে
প্রকাশ করির। €কোন.কথা নাহি কন 1. -দেরকী বিস্ময়াপন; দেখিয়া,
রোদন | কত মতে ভাকিলেন করিয়। যতন। কিছু-নছি কহিলেন
কমল লোচন।। ভাব দেখি বন্সুদেৰে দেন সমাচার কন্গদেব আসি,

দেখি ভারেন অপার ॥ আইলা _রোহিথী আদি যচতকজননংণ








কারু ল কথা নাহি কন ষছমনি ॥ বজরাস আদি দেখি বুঝিলেন,

ভাব। ব্রজ ভাৰ বিনাআর নহে অনা- তাঁর) এত ভাবি বল+.

দেব সকলেরে. কন এ স্থান হইতে সবে করহ গমন ॥॥ একা আঁষি,
বুঝা ইয়। কুষ্ণে সান্ত্বীইব। ভয় নাহি ন1- ভাঁবিহ এখনি -তুষিব ||
এত বলি সকলেরে বিদায়, করিয়া। বলরাম কৃষ্ণে কন ঈষৎ

হাঁসিয়া। ' বুঝিয়াছি ওরে ভাই ভাব দমুদঘ্ধ। ব্রজ ভাব মনোঁ

মধ্যে হয়েছে উদয়)| সে ভাবেতে ভাবান্তর হয়েছে তোমার ।
বুঝিতে তোমার ভাঁব সাধ্য আছে কার এ কখন দয়ালু হও কখন
কঠিন। কৃ কারে কর র্রাজা কাঁরে কর দীন।। কহ দেখি ভাঁই
তুমি বুঝাযে আমা | কি বুঝিয়া পিতা অন্দে করিলে বিদায় |
মাতা পিতা সখী সখা তাই বন্ধুগণে। না রাখিলে কেন আনি
মধুর ভবনে ॥ কষ কন ব্রজবাসী ভ্াড়ি বৃন্দাবন? 'নারবেন কভু

তীর এ মথ্ভূনন ॥ সন্টোষিত নন তীরা রাঁজা খন জনে | কেবল)

আমারে চান এলি রৃন্দাবনে ॥. একারণে এখানেতে না পারি আ-

নিতে | একাঁরণ চির দিন হইল কাঁনি শ্রততি |: বলরাম, কন, ভাই ]
শুনভ বচন । সংবাঁদ আঁনহ শীভ্র পাঠাইয়া জন || আমাদের).

সমাচার দেহ পাঠাইয়া॥- স্বরায় যাইব: তথা এই আশ] দিয়া ।
আশার অ.শ্রিত হয় মনুষ্য জীবন | আশাদারে সবাক'র,
কর মা ভাদেরজতবাদে; ত্‌শ্ত আমাদের মন।. অবশ্য হই

ভাই শুনহ বচন |. অনার তাঁবন। আর. নাহি; মনে ৫



বাহ'তে যায় করহ এক্ষণে | শীত পাঁঠাইয়া দত দেহ সেই স্থানে
শুনাতয়। ॥গুনিয়া শুভ আস্সুক এখানে । এত বদি বলরাম বলেন ৮
বচনণ- কারে পাঠাই ব কৃষ্ণ ভাবেন তখন || পরম বৈষব- হবে টু
সাধু সদাশয় |. লান্গালান সনভাব সন্তোষ হ্থদয় | শুদ্ধ শীল :.
শীন্ত দান্ত বু্ধি বিচন্ষণ | বুঝ! হতে বুঝিতে অ্ষম অর্বক্ষণ 1. সর্ব.

শোকজ জবিদিত অহঙ্কার হী অহিংসক হবে জার সর্ব সুপ্রবীণ |
হইলে এমনজ 'টুঁত যোগ হয়| কে আছে প্রশ্ন হেখা ভাবেন

হ্‌দং 1 হআ/ছেন অ্ুর খু সর্ব গুদ ধাম। আমারে আনিয়) ?



পাদ চারা পুলের









দ্বিতীয় ভাগ? ১৯

ব্রজে হয়েছে ছুর্মাম || তীহারে পাঠান ব্রজে না হইবে আঁর। এই
হেতু ভাবিতেছি মনেভে অপার আনিয়া অবধি তিনি আছেন
ক্ষোভিত। তিনি গেলে একে আঁর হবে উপস্থিত ॥ বলরাম
কন কৃষ্ণ আছে আর জন।॥ উদ্ধৰ তোমার সখা সর্ধর ুলক্ষণ 11
তাহারে ডাঁকিয়! তুমি পাঠাও তথায় | পাইবে- পরম. প্রীতি ব্রজ-
বাঁসী তাঁর কৃ কন দাঁদা ভাল করিয়াছ মনে। পাঠাব উদ্ধবে
আমি থাম_বৃন্দাবনে ॥ বৈষ্ণব বলিয়া তার আছে অভিমান
দেখিলে ব্র-জর ভার ঘুচিবেক-ভাঁন | - প্রিয় বটে পাঠাইতে উচিত
তাহার । সকলে সংপ্রীত হবে শিক্ষায়, শিক্ষায় ॥- এত ভাবি ক্চ-
চন্দ্র ত্যজিয়।, রোদন, রত বলরাম. সহ আসি- বাঁহিরে তখন 11 উদ্ধকে
ডাকিয়া কন সুমিষ্ট বনে. একবার যাও সখা গ্রোকুল ভবনে |
গ্ে/প-গে!পী সখী সখা-আদি সমুদার়| আমার কারণে আছে উৎ
কণ্টিত প্রায় ॥. সর্বশীন্তর মতে অগ্রে বুঝাই! নীত। না, বুরিজে
আশা দিয় আসিব -ত্বরিত)। সাহাদের স্থুকুশল আমারে কহিয়া।
রি করহু সখা সদয় হইয়া ॥ . এত-যদ্দি কৃষ্ণচন্দ্র সকাঁতরে কন ।
নয়া উদ্ধব মনে-সন্তোখিত হুন | দেখিব -গ্রোকুল আর গোঁপ
গোীগণ |. _বুঝাৰ, বুঝিব ক্রমে সবাকার মন॥ কাহার মনেতে
কত, তন্ভিভাঁব রন কি ভাবেতে রুফে এত করিয়াছে বশ ]
ব্রল্ধা শির ধান যোঁগে নাহি পাঁন ধারে গোপ গোপীগণে তারে,
পাঁয় কি প্রকারে ॥ -ব্রজবাপী ভাবে -কুঞ্ক সতত অস্থির. _কহিতে
কহিতে কথা চক্ষে বহে-নীর.॥ : এত. ভাবি-মনে মনে, উদ্ধব তখন
কল কহিংলন/আজ্ঞা করিব.পাঁলন ॥..অবশ্য যাইব আমি গোকুল
নগর. শানতকরি সবাকারে আসিব সত্বর এ এত বলি কৃষ্ পদে
প্রশাম করিয়।। চলিলেন_.কৃষ্ণ সখা... সত্তর হইয়া... আরোছি,
'অপুর্বব রথ করেন গ্থমন। শিশুর/ম দাসে তাষে শুন সাধুজন 11.







উদ্ধবের বৃন্দাবনে গন |

শীয়ার।. উদ্ধব উঠেন রথে সহৃন্ট অন্তর।..চলে রথ নি
বায়ু করি ভর | নিনেবে আইল রথ: বমুনার ধার। “দেখি ননে







৯২ প্রভাসখগ্ড।

মনে ধীর করিয়া বিচার! সারথি সে-অশ্বরথ রাখি সেই তীরে).

ন্নান হেতু নামিলেন যমুনারনীরে 1 কেশীঘাটে-করিশীন্ত স্বানাদি

তর্গণ। নিত্যপুজা- নিয়মিত করি সমাপন. উঠ্ঠিলন রথোগরে

অতিশীন্রতর। সারথি চালায় রথ দেখিতে সুন্দর |. ধীরে বীর :
রখবর চাঁলার় তখন উদ্ধব বলেন ব্রজ করি দরশন।| কৃষ্ণ:
হেতু সমাকুল হইয়াছে সর। রোদন বিহনে আর নাহি কোঁন রক) |
দেখিতে দেখিতে রথ আইল যখন । হুইল তথায় এক আশ্চর্য্য ৃ
ঘটন॥ কফ সখ কৃষ্ণ সম সাজ সমুদগ্ধ। রখোঁপরে শুনাভরে
হুইল উদয় ।॥ চি নম সমুজ্ভুল কৃ কলেবর | কক সম অবয়ৰ
সকলি সুন্দর |! অর্জন গ্রীদাম আর উদ্ধব সুধীর । এ তিনের কুচ?
সঙ্গে অভিন্ন শরীর ॥ দুরে, কোন গোপকন্যা উদ্ধকে দেখিয়া):
কৃষ্ আইিলেন: ব্রজ মনেতে ভাবিয়া মগ্তী হয়ে সেইক্ষণে আনন.
আাগরে। সংবাদ জানায় গিয়া রাধার গৌঁচরে ॥ শুনিয়া শ্রীমতী
সভী-প্রতায় না পান.।- দেখিবারে শীন্্রগতি রুন্দারে পাঠান |:
বৃন্দ গির। দুরে হুতে হেরি অবয়ব। ক্ষ বলি হর্টাতে হইল
অন্থুভব 1 আনন্দে বিহ্বল হয়ে না করি বিচার। জ্রুত আনি
রাঁধা-কাছে দিল! সমাচার ॥ শুনিয়| বৃন্দার মুখে কৃষও আগমন । নট
অবাক হই রাধা রন অন্থক্ষণ | কিছুতে বিশ্বাস তাঁর না হইল: তু



মনন দেখিতে চলেন দেবী ত্বরিত গমনে | সে সময় রাধিকার

গুনহ যে বূপ। করিতে ছিলেন সেবা গুঁহেতে গো রূপ | গে।
রূপ সেবনে হাতে গোময়ের- তাঁল। মলিন বদন পরা মুক্ত কেশ
জাল গে! মূত্র গোময় আর মৃত্তিকার ভাঁগ। শ্রীঅ্ষ লেগেছে:
চিট। বিন্টুবিন্ছু দাগ ॥ তাহাতে হয়েছে অতি অপুর্ব শাতন।; র্‌

।








প্রফুল কমলে যেন শোঁভে ভঙ্গগণ ॥ তড়িৎ জড়িত ফেন, নীরদের ৃ

ঘট!। হইয়াছে গ্রীনতীর গ্রীঅঙ্জের ছট। ॥ গজেজ্র জিনিয়া! ধনী, ]
করেন গমন সঙ্গেতে সঙ্গিনীগণ_ ধায় অগথন || উর্দ্ধে থাকি
উদ্ধব, করিয়া দরশন | ' লক্ষ করিবারে নারে রূপের লক্ষণ ॥ বিতর্ক:

করয়ে মনে হইয়। চঞ্চল। ভুমিভলে নাসিল কি সৌদাঁনিনী দল 1.






দ্বিতীয় ভাগ?

শু

অথব। হইয়া বন্ছু শতদল যড়। জল ছাড়ি স্থলে *চলে অসস্তব বউ
কিন্ব] বন্ছ চন্দ্রোদয় হুইল অকালে 1. কিন্বা আচ্ছাঁদিল দেশ স্বণূলত
জালে ॥ এই রূপে বহুবিধ, বিতর্ক করিয়।। ক্রমে ক্রম রথ সহ
নিকটে নাঁনিয়|| -দেখিলেন প্রধনাকে: স্জে সখীচয়। অরূপ!
সরূপা বিনা অন্য রূপ নয়।॥ তবেত.উদ্ধব ধীর সাঁনন্ৰ অন্তর।।
নামিলেন রথে হৈতে অবনী- উপর ॥. উদ্ধবে দেখির] প্যারী হাপি-
লেন মনে। আইল কৃষ্ণের সখা ব্রজ সপ্তাষণে ॥ ব্রজবামীদের
শোক শান্তির কারণ) পাঁঠালেন-শ্রীনিবাঁস উদ্ধবে এখন 11 উদ্ধ-
বের মনে মনে আঁছে অভিমান জগতে -বৈষ্ৰ নাহি আমার
সমান-॥ দর্পহাঁরী- দর্গ নাশ করণ কারণ ৷ বৈষ্বতা দুষ্ট হেতু
করেন প্রেরণ ।' সে-দর্গ উহার আমি বিনৰ্ট করিব । নীতি দান
ছলে যথা; নীতি শিক্ষাইব ॥ দত হয়ে কৃষ্ণ সখা আইল, স্বরিত |
পুরক্ষীর দিতে কিছু হয়ত উচিত ।1 বৈষণবের কৃষ্তক্তি হয় আতি
ধন। উন আছে ছুন করি দিব ভক্তিধন।' শ্রীরাধারে দেখিয়!
উদ্ধব মহাঁশয়। রথ ছাড়ি ভদিতলে অবতীর্ণ হয়॥ শ্রীমভীর
অপরূপ রূপ নিরক্ষিয়]। জাঁনিল প্রধান ইনি-জ্রীকষ্জের প্রিয়া ।।
শিশুরাম দাসে ভাষে শুন সর্বজন । উদ্ধবে রাধায় যাহা কথোন্দ-
কথন ।



জ।মতীর লহিত উদ্ধবের কথা ।

পয়াঁর। অবিলম্বে পদব্রদজ আসিয়া তথায় । উদ্ধব প্রণাম
করি প্রীমতীর পাঁয়।। পরিচয় দে” আমি হুই কৃষ্ণদাস। উদ্ধব
অ।নার নাঁন মথুরায় বাঁস।। পাঠায়ে পিলেন হরি হইয়। চঞ্চল 1
ব্রজপুর বানীদের জানিতে কুশল. মাঁতাপিত। সখী খা ভাই
বন্ধুখণ। আমার বিহনে সবে আছেন কফ্মেন || আর. কহিলেন
কৃষ্ণ বিশেষ করিয়।। কুশলেতে আছি আমি মধুরা আসিয়1|।
আমার কারণে কেহ ন! হন ভাবিত। বুঝাইয়! কবে নখা সবার







ই প্রভাসখণ্ড 1

'বিদিত || অতএব আপনার! ভাঁবিত-না হণ | বনজ নিজ কুশ' ]
লীয় বিশেষিয়া কও | ছুঃখ পরিহার কর শান্তি আহরণ। হয়ে:
ভাবনা কর হৃদয়ের ধন | সবাকার আজ। হরি ঘটে ঘটে বাঁদ।।
আত্মারূপে সর্ব ঘটে আছেন নির্ধ্যাস | অন্তরে আছেন হরি
নহেন অন্তর | : অন্তরে ভাঁবিয়। স্থির করহ অন্তর | এত যি
কহিলেন উদ্ধব স্ুখীর। : শবণে গোপিকাঁণণে হুইলা অস্থির 1
শোক শান্তি হবে-কোথা বাঁড়িল দ্বিগুণ |. অন্তরে প্রোঁজ্বল হয়ে ]
উঠিল আগ্তণ ॥ বজাঘাতে দগ্ধ যেন হয় তরুদীণ।:: গোপীদের)
মনোঁদগ্ধ হইল তেখন ॥।- কুষ্ক আসিবাঁর আশা মনোসধ্যে ছিলি

র্‌

উদ্ধবের বাক্য শুনি মে আশা ঘুচিল | অন্থক্ষণ মৌন হয়ে রে
গোপীগণ। নয়নে নিঝরে নীর না সরে বচন |. তবে বছচ্
পরে রাখা ঠাকুরাণী | উদ্ধবে কহেন টা সুমধুর বাঁণী|। শোক)
অন্তাঁপ আর. বিচ্ছেদের রাঁগে 1 উত্তর করেন দেবী উদ্ধবের
আগে ||. ্‌ র্‌



হরর প্রতি ্ীভীর ব্চন।

গয়ার | শুন শুন কৃষ্ণ সখা কুষ্চের প্রেরিত | সংবাদ শুনাঁলে |
ভাল সময় উচিত॥ শোক বিনাঁশিতে শোক বাড়ালে দ্বিগুণ!
শুষ্ক কা্টে সঞ্চারিলে জ্বলন্ত আগুন || কপট মান্গিষ কৃষ্ণ তুমি তাঁর
চর। হিংসাঁর পুর্ণিত দেখি তৌঁদার অন্তর || পরম বৈষ্তব তুমি
পুর্বে শুনা ছিল). কপট বৈষ্ব এবে বাক্যে জাঁনাভিল 11. বৈষর
রা মিছা কর অহঙ্কার! বৈষ্গবতা দেহে কিছু নাহিক তোঁদার।

হিহসাঁপরিক্ষয় যাঁর দেহে নাহি হুয়। বৈফবত! কত তাঁর না ধাঁ
এ ॥ কোথা পাকে নৈষ্ণতা দে'ষ তব নাই) নির্দয় তোমার
নখা লম্পট কাঁনাউ ॥ _ নিক্ত জন: হইলেও -করে -বিড়স্বন। : নির্জ
মর্ধ বুঝিতে না দেয় ক্দাচন |. দয় প্রকাশিয়া আমি দেই উপ.
দেশ । হিতলা ধর্ম ত্যাগ আগে করছ বিশেষ | তবে তমি ব্রজগুরে ূ








উপদেশ দিও । এক্ষণে এরূপ কথা হেথা ন1. কহিশ॥ এইরূপ
কছিলেন প্রীমতী জুন্দরী।. কোপ অন্গ্রহ ছুই স্ুমিত্রিত করি)
| শুনিয়া রাধার বাণী উদ্ধব তখন।- কিঞ্ডিৎ হইল মনে কোঁপ সন্দী-
পন।। বিজ্ঞুরিত মুখাস্ুজ কাপে ওষ্ঠাধর। কিন্তু ভয় উপজিল
ন। সরে, তর |. কৃষ্ণের প্রেয়পী বান্থা প্রধাঁনা নির্যাস কেমনে

করেন কোপ সহসা প্রকাশ | বহ্ইক্ষণ বিবেচিযা উদ্ধব সুধীর 1
“উত্তরে উত্তর দিতে করিলেন স্থির |

শ্রীমতীর বচনে উদ্ধবের উত্তর”

পয়ার। করযোড় করি ধীর রাধার গোচর1.; রোষৈ রস মিলা
ইয়া করেন উত্তর ॥ কৃষ্ণের সংবাদে কিসে ঘুটিল .অহিত। ন!
বুঝিতে পাবিলাম তোমাচদর রীত |] হিতে বিপরীত ভাঁব এ ভাক
কেমন।, অকারণে কই কেন পরুধ কটন কি ভব অভাব দেবি
আমার দেখিলে। : ধর্মহীন অটৈষব কি হেতু বলিল | কি

হিহসাঁ, করেছি আমি তোমাদের রা হি সক বলিস কেন
নিন্দহ আমায় ॥ নারীর সভার বুবী অভি বড ভ রি; দেবতা
নাপাঁন পার মন্থষা কি ছবি), বিলেত পর ভাবে রমণীর মন),
কদাচিৎ বুঝিতে নাংপাঁরে কোন জন নিজ দোষ ন1-করেন-.কভু
শরশন। পর দোষ প্রকাশিতে- বুদ্ধি বিচক্ষণ ॥ আপনি, গোপের

কল আগানের, টা বর নী ক জা এ







সাত্বর | হংসক বলিলে কেন বুঝা ইয়া কও. -কৃষ্ণের কিন্কীর- বি
নির্দয়! ন। হও )।



উদ্ধাবের কথায় শ্রীমতীর প্রত্যুত্তর |

পয়ার। উদ্ধবের কথা শুনি শ্রীমতী তখন। ঈষৎ হাঁসিয়! পুনঃ
কছেন বচন |. বট হে কঞ্খর সখা বলিলে বিস্তর । রোৌদুষ বুল



২.

গ্রভীসখণ্ড ৷

| সিলাইয়! করিলে উত্তর ।। বিনয়েতে ব্যাগ. কখ! অনেক বলিলে 1 |
পরতাঁবে ভাবক্সিকা বলির নিন্দিলে | অগ্রেতে শ্রবণ কর ইহার
উত্তর |. তোমার হিংসার কথা বুঝাইব পর] ষে. পর ভাবিন র্
গ্েী- তাঁর গর নাই । পর. দোষ নাহি তাহে পবিভ্র সদাই ||.
বাঁলিশত৷ তাজিয়। বির কর.মন। বিশেষে প্রমীণ কহি ক্র ৃ
আবণ3.- 5 ন্



যথ। দশন প্রমাণ

- বিরোধিক। ভক্তিপথে ষাঁদস্যা।
পিতা পতির্বাগুরুরগ্রাজো বা ||
তথা পি-ত্যজ্যো তগবজ্জনানাং।

সতাস্মতোহর়ং নতু বাজিশীনাং ॥

পেয়ার. ভগবত তক্তিপথে বিরোধি যে জন। সাধুর সম্বন্ধে হয় ;
ভাজ সর্বক্ষণ ॥. মতা পিতা পতি আতা গুরু যদি হন। তথাপিও ১
পপ তাজা শাস্ত্রের বচন।। সতের সন্বন্ধে এই বিশেষ প্রমাণ,
সুর্খের পক্ষেতৈ ইহা না হয় বিধাঁন॥।- এত যদি কহিলেন রাঙা,
ঠাকুরাণী। উদ্বীব প্রথভ হয়ে।স্ুনহ কন বাণী ॥ থে কহিলে ঠাকু"
রাণা অদ্ভুত বচন । দেখাও প্রমাণ কেব। করেছে এমন ॥ কোন
সভে- লিভ! মাতা গুরু ভাবিগ্বাছে।: পতি পারত্যা্বে কেব। সত
হুইজ্ধীছে॥ রাঁধ। কন শুন ভুমিহঘ়ে এক মন। একে একে সগ্র”
আর করহদর্জন ২৩৯ ৃ









্রহ্কমাদেন পিতাত্যক্তীঃ মাতাট ভরতেনছি | বা
বলিন। ত্যক্তমাচাধ্য, বিছুরেণ স্ববান্ধবা |